ঢাকা, শনিবার, ২৫ নভেম্বর, ২০১৭ ৯:৪৩:১২

অস্ট্রেলিয়ার জয়ে টেস্ট সিরিজ ড্র

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৪:৫৯ পিএম, ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭ বৃহস্পতিবার | আপডেট: ০৫:০২ পিএম, ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৭ শুক্রবার

অজি অফস্পিনার ন্যাথান লায়নের ক্যারিয়ার সেরা নৈপুণ্যে জয়ের জন্য ৮৬ রানের ছোট লক্ষ্য পাওয়ায় সফরকারী অস্ট্রেলিয়া চট্টগ্রাম টেস্ট জিতেছে হেসে খেলেই। বাংলাদেশকে ৭ উইকেটে হারিয়ে টেস্ট সিরিজ ড্র করলো সফরকারীরা।

৮৬ রানে জয়ের লক্ষ্যে দ্বিতীয় ইনিংসে খেলতে নেমে ৩ উইকেট হারিয়ে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় সফরকারীরা। দ্বিতীয় ইনিংসেও ডেভিড ওয়ার্নারকে সাজঘরে পাঠিয়েছেন কার্টার মাস্টার মুস্তাফিজুর রহমান। ব্যক্তিগত ৮ রান করে সৌম্য সরকারের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে আউট হন এই অজি ওপেনার। আর তাইজুল ইসলামের বোলে মুশফিকুর রহিমের কাছে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরত যান স্টিভেন স্মিথ। ব্যক্তিগত ২২ রান করে সাকিবের বলে ক্যাট আউট হন ম্যাট রেনশ।

এর আগে দ্বিতীয় ইনিংসে সবকটি উইকেট হারিয়ে ১৫৭ রান সংগ্রহ করে। বাংলাদেশি কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংয়ে ৪ নম্বরে নাসির হোসেনকে নামিয়ে দিয়ে একটা ‘ফাটকা’ খেলতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তাঁর ফাটকা ব্যর্থ। স্টিভ ও’কিফির অফস্টাম্পের বাইরের একটি বলে খোঁচা দিয়ে আউট হন নাসির।

তবে বাংলাদেশের ব্যাটিংয়ে বড় ধাক্কা ছিল সাকিব আল হাসানের ফিরে যাওয়া। লায়নের বলেই ওয়ার্নারকে ক্যাচ দিয়েছেন সাকিব। ৯৭ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে দিশেহারা বাংলাদেশকে কিছুটা আলো দেখিয়েছিলেন মুশফিকুর রহিম ও মুমিনুল হক। ৩২ রানের জুটি গড়েছিলেন এ দুই ব্যাটসম্যান। কিন্তু প্যাট কামিন্সের বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন অধিনায়ক মুশফিক। সাজঘরে ফিরার আগে ৩১ রান সংগ্রহ করেন তিনি।

এরপর মুমিনুলও এই টেস্টে লায়নের ১২তম শিকারে পরিণত হন কামিন্সকে ক্যাচ দিয়ে। চা বিরতির পর লায়ন তাইজুলকেও ফিরিয়েছেন। বাকি চারটি উইকেট সমান ভাগাভাগি করেছেন কামিন্স ও ও’কিফ।

বাংলাদেশের পক্ষে কারও ফিফটি দূরের কথা, ৪০ রানের ইনিংসই নেই। ত্রিশের ঘরই পেরোতে পেরেছেন শুধু মুশফিক। এগিয়ে থেকেও সিরিজের ট্রফিটা একার করে নিতে না-পারার হতাশাই অপেক্ষা করছে বাংলাদেশের জন্য। দ্বিতীয় দলীয় ১১ রানের মাথায় প্রথম আউট হন সৌম্য সরকার।

 


 
 

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি