ঢাকা, রবিবার, ২১ জানুয়ারি, ২০১৮ ৪:৪৭:৩৪

Ekushey Television Ltd.

আপনি কী অবসাদগ্রস্ত?

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৭:১৫ পিএম, ১১ অক্টোবর ২০১৭ বুধবার | আপডেট: ০২:৪৪ পিএম, ১৪ অক্টোবর ২০১৭ শনিবার

রাতে ঘুম আসে না? যখনতখন অসময়ে ঘুম ভেঙে যায়? মেজাজ থাকে খুব চড়া? আজেবাজে না খেয়েও দিনে দিনে ফুলছেন? বর্তমান যান্ত্রিক জীবন আর পেশাগত কারণে অবসাদ আপনাকে দখল করছে প্রতিনিয়ত। কিন্তু আপনি অবসাদগ্রস্ত নন তো? নিচে উল্লিখিত ন’টি লক্ষণ যদি আপনার সঙ্গে মিলে যায়, তাহলে নিশ্চিত থাকুন আপনিও ভুগছেন অবসাদে।

ঘুমের ব্যাঘাত

রাতে ঠিকঠাক ঘুম হচ্ছে না? বিছানায় শুয়ে এপাশ-ওপাশ করতে করতেই ভোর? বা, মাঝরাতে কোনো কারণ ছাড়াই কাঁচা ঘুম ভেঙ্গে যায়? পরে আর ঘুমই আসছে না? ডিপ্রেশন বা মানসিক অবসাদের অন্যতম প্রধান লক্ষণই হল অনিদ্রা বা ঘুমে ব্যাঘাত। কারণ ডিপ্রেশনে আক্রান্তদের মাথায় একসঙ্গে অনেক চিন্তা ঘুরপাক খায়। ঘুমের মধ্যেও তা থেকে নিজেকে তারা বিচ্ছিন্ন করতে পারেন না।

ক্লান্তি

শারীরিক ও মানসিক ক্লান্তিও কিন্তু ডিপ্রেশনের গুরুত্বপূর্ণ লক্ষণ। দীর্ঘদিন ধরে অনিদ্রা বা ঘুমে ব্যাঘাত এই ক্লান্তি ডেকে আনে। কাজে মনোনিবেশ করতে সমস্যা হয়। কিছুই ভালো লাগে না।

কারও অরুচি, কেউ খায় বেশি

ডিপ্রেশনের প্রভাব পড়ে খিদেতেও। কারও খাওয়া কমে যায়। কেউ আবার প্রয়োজনের অতিরিক্ত খেয়ে ফেলেন। অতিরিক্ত খেলে পরিণতি শরীরে মেদবাহুল্য। যা থেকে একাধিক অসুখের সম্ভাবনা তৈরি হয়। উলটো দিকে, কম খাওয়ার কারণে দ্রুত ওজন কমতে থাকে। তা-ও শরীরের পক্ষে ক্ষতিকারক।

যৌনাকাঙ্ক্ষা কমে যাওয়া

কেউ দীর্ঘ সময় ধরে ডিপ্রেশনে ভুগলে, তার মধ্যে স্বাভাবিক ভাবেই যৌনাকাঙ্ক্ষা কমে যায়। মানসিক ও শারীরিক ক্লান্তি থেকেই সেক্সে আগ্রহ হারিয়ে যায়। আত্মবিশ্বাসও হারিয়ে যায়।

ব্যথা-যন্ত্রণা

ডিপ্রেশনে ভুগলে শরীরের নানা জায়গায় ব্যথা-যন্ত্রণার উদ্রেক হয়। কখনও মাথাব্যথা, কখনও আবার গাঁটে ব্যথা। কখনও অন্য কোথাও। ওষুধে সাময়িক স্বস্তি মিললেও, ব্যথা ফিরে ফিরে আসে।

সাইকোমোটর রিটার্ডেশন

কেউ একটানা ডিপ্রেশনে ভুগলে, তার মধ্যে ক্ষিপ্রতা কমে আসে। আক্ষরিক অর্থেই তার কাজে শ্লথগতি চলে আসে। চলাফেরায় তো বটেই এমনকী কথা বলার সময়েও তাদের মধ্যে আলিস্যি ফুটে ওঠে। এই অবস্থাকে বলা হয় সাইকোমোটর রিটার্ডেশন।

অস্থিরতা

ডিপ্রেনশন মানুষকে অস্থির করে তোলে। ফলে, এই লক্ষণ দেখেও বোঝা যায় কেউ অবসাদগ্রস্ত কি না। সহজেই এরা মেজাজ হারিয়ে ফেলেন।

মনোযোগের অভাব

এটাও আসে ডিপ্রেশন থেকে। রাতে ঘুম ঠিক না-হওয়ায়, কাজে ভুলভ্রান্তি বাড়ে। মনোনিবেশ করা যায় না। ঘন ঘন হাই ওঠে।

হজমে সমস্যা

হজম সংক্রান্ত সমস্যা দেখা দিলে, ডিপ্রেশনে ভুগছেন কি না, তা-ও দেখতে হবে। শুধু বদহজমই না, গা গোলানো, বমি, ঘন ঘন পেট খারাপ এমন অনেক সমস্যা দেখা যায়। ওষুধে কিছুদিন ঠিক থাকে। তারপরে আবার!

উপরের লক্ষণগুলোর সঙ্গে আপনার জীবনাচার মিলে গেলে অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নিন।

সূত্র: দ্য হেলথসাইট।

 

ডব্লিউএন


 
 

© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি