ঢাকা, বুধবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ৪:২৮:১৬

‘এসকে সিনহাকে সীটে বসতে দেওয়া উচিত হবে না’

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৯:৫২ পিএম, ২৯ আগস্ট ২০১৭ মঙ্গলবার | আপডেট: ০৫:৩৪ পিএম, ৩০ আগস্ট ২০১৭ বুধবার

ছুটি শেষে দেশের স্বার্থেই প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহাকে একদিনের জন্যও সীটে বসতে দেওয়া উচিত হবে না বলে মন্তব্য করেছেন সুপ্রীমকোর্টের সাবেক বিচারপতি সামসুদ্দিন চৌধূরী মানিক। মঙ্গলবার ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ (আইডিইবি) ভবনে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।


২১ শে আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্মরণে এবং চলমান রাজনীতি শীর্ষক এ সভার আয়োজন করে বঙ্গবন্ধু একাডেমী ও সম্মিলিত তরুণ পেশাজীবী পরিষদ।


সাবেক বিচারপতি মানিক বলেন, প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা পাকিস্তানের কথা বলে শেখ হাসিনা সরকারকে হুমকি দেন। তার হাতে নাকি দুটো ফাইল আছে, কিছু করে ফেলতে পারেন। তিনি কি করতে পারবেন, তাকে এক দিনের জন্যও সীটে বসতে দেওয়া উচিত হবে না। তার মনে রাখা উচিত বাংলাদেশ আর পাকিস্তান এক নয়। শেখ হাসিনাকে হুমকি দিয়ে কোনও লাভ হবে না।


প্রধান অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য এডভোকেট আব্দুল মতিন খসরু বলেন, ২১শে আগস্টের গ্রেনেড হামলা কোনো সাধারণ ঘটনা নয়। এর পরিকল্পনা হয়েছিল হাওয়া ভবনে। আর হাওয়া ভবনের কারিগর তারেক জিয়ার নির্দেশেই এ হামলা চালানো হয়।


তিনি বলেন, ওরা ভেবেছিল শেখ হাসিনাকে সরাতে পারলেই দেশ পাকিস্তান বানিয়ে ফেলা যাবে। কিন্তু এদেশের মুক্তিযুদ্ধের চেতনা যত দিন থাকবে, ততদিন কেউ এ দু:স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে পারবে না। মোসতাক ও জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের মাস্টারমাইন্ড উল্লেখ করে মরনোত্তর বিচার দাবি করেন সাবেক আইনমন্ত্রী।
সভাপতির বক্তব্যে সুপ্রীমকোর্টের আইনজীবী ও আওয়ামীলীগ নেতা ব্যারিস্টার জাকির আহাম্মদ বলেন, সকল ষড়যন্ত্রের বেড়াজাল ছিন্ন করে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশকে এগিয়ে নিতে নতুন প্রজন্মকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।


সভায় আরও বক্তব্য রাখেন, আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য মোজাফ্ফর হোসেন পল্টু, সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট সামছুল হক টুকু, কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট সামসুল হক রেজা, ঢাকা মহানগর আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি নুরুল আমীন রুহুল, অধ্যক্ষ শাজাহান আলম সাজু প্রমুখ।

আরকে/টিকে

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি