ঢাকা, শুক্রবার, ২৭ এপ্রিল, ২০১৮ ১২:২১:৫৭

Ekushey Television Ltd.

ওয়াই-ফাইয়ের স্পিড বাড়ানোর সহজ নিয়ম

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১১:৩১ এএম, ৭ জানুয়ারি ২০১৮ রবিবার

বর্তমান সময় ইন্টারনেটের সময়। প্রযুক্তি পণ্য সহজ লভ্য হওয়ায় ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। অনেক প্রতিষ্ঠান নতুন করে এ ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত হয়েছে। অনলাইনে কাজ করতে গিয়ে ইন্টারনেটের ধীর গতি অনেককেই বিরক্ত করে। ওয়াই-ফাই সংযোগে ইন্টারনেট ব্যবহার করতে চাইলেও অনেক সময় দেখা যায় সংযোগ রয়েছে কিন্তু গতি একেবারেই নেই। অর্থাৎ ইন্টারনেটের স্পিড নেই। তবে এ সমস্যা হতে খুব সহজেই মুক্তি মিলতে পারে! ওয়াই-ফাই স্পিড বাড়ানোর কিছু সহজ নিয়ম নিম্নে আলোকপাত করা

রাউটারের লোকেশন পরিবর্তন-
ওয়াই-ফাই সংযোগের গতি বাড়াতে হলে প্রথমেই আপনাকে রাউটারের অবস্থান পরিবর্তন বা অবস্থানের মাঝে সমন্বয় রক্ষা করতে হবে। অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায়, রাউটার বাড়ির ভিতরে আসা ইন্টারনেট তারের খুব কাছাকাছি রাখা হয়ে থাকে। এটা মোটেও উচিত নয়। আবার অনেক সময় রাউটারের অ্যান্টেনার অবস্থান ঠিক করে রাখা হয় না। যে কারণে অ্যান্টেনার থেকে সব দিকে সংকেত পাঠানো এবং রিসিভ করা সম্ভব হয় না। সে কারণে রাউটারকে এমন স্থানে রাখা উচিত, যাতে রাউটারটি সবদিকে সংকেত পাঠাতে পারে অথবা সংকেত রিসিভ করতে পারে।

ওয়্যারলেস রাউটারে উন্নত অ্যান্টেনা যোগ করা-
অনেক সময় রাউটারের অবস্থান পরিবর্তন করেও ইন্টারনেটের গতি উন্নত বা বাড়ানো সম্ভব হয় না। সেক্ষেত্রে কর্মক্ষমতা বাড়ানোর জন্য অ্যান্টেনা পরিবর্তন করা যেতে পারে। রাউটারের চারপাশে যদি অনেক দেওয়াল বা অনেক বাধা থাকে তবে সেক্ষেত্রে একটি এক্সটারনাল অ্যান্টেনা রাউটারের সামনে বা সঠিকভাবে ব্যবহার করে রাউটারের কার্যক্ষমতা বাড়ানোর চেষ্টা করতে পারেন। কারণ রাউটারের কার্যক্ষমতা বাড়লে ইন্টারনেটের স্পিডও বাড়বে।

ওয়্যারলেস রিপিটার যোগ-
আপনি ইচ্ছে করলে রাউটারে নেটওয়ার্কের পরিসীমা বাড়ানোর জন্য একটি ওয়্যারলেস রিপিটারের সাহায্য নিতে পারেন। এই রিপিটার রাউটার এবং সংযুক্ত ডিভাইসের মধ্যে একটি সেতুবন্ধন হিসেবে কাজ করে। কম দামে বাজারে এমন অনেক ভালো ভালো রিপিটার পাওয়া যায়।

ব্যাকগ্রাউন্ডের ডেটা ডাউনলোড বন্ধ-
অনেক সময় ব্যাকগ্রাউন্ডে চলা একাধিক কাজের জন্য ইন্টারনেট নেটওয়ার্কের গতি কমে যেতে পারে। ব্যবহারকারী কম্পিউটার, ট্যাবলেট বা ফোনের ব্যাকগ্রাউন্ডে যদি একাধিক ট্যাব একইসঙ্গে চলতে থাকে তবে ইন্টারনেটের গতি এমনিতেই কমে যাবে। সেক্ষেত্রে ইন্টারনেটের গতি বাড়াতে হলে অপ্রয়োজনীয় অ্যাপ্লিকেশন বা ট্যাব বন্ধ করতে হবে। এতে ইন্টারনেটের গতি বাড়ে।

এসএইচ/



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি