ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ আগস্ট, ২০১৮ ৫:১৫:৩১

Ekushey Television Ltd.

ওয়ানডেতেও আফগানদের জয়

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১০:২৪ পিএম, ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ শনিবার

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আগে দুই ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে ২-০ তে জিতেছিল আফগানিস্তান। টি-টোয়েন্টিতে জিম্বাবুয়েকে হোয়াইটওয়াশের পর ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচেও জয় পেয়েছে তারা। রহমত শাহর সেঞ্চুরি এবং রশিদ খানের দুর্দান্ত বোলিংয়ের উপর ভর করে প্রথম ওয়ানডেতে ১৫৪ রানের বিশাল জয় পেয়েছে আসগার স্ট্যানিকজাইয়ের দল।

শুক্রবার সংযুক্ত আরব আমিরাতের শারজায় অনুষ্ঠিত ম্যাচে টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে আফগানদের দুর্দান্ত সূচনা এনে দেন দুই ওপেনার মোহাম্মদ শাহজাদ ও ইহশানুল্লাহ। দুইজনে মিলে জুটি গড়েন ৯০ রানের। ইহশানুল্লাহ তুলে নেন ঝড়ো হাফ সেঞ্চুরি। ৫৩ বলে ৯ চারে ৫৪ রান করে সাজঘরে ফেরেন এই ব্যাটসম্যান। ইহশানুল্লাহর বিদায়ের পর বেশি সময় উইকেটে থাকতে পারেননি শাহজাদ। ৩৬ রান করে সাজঘরে ফিরেন তিনি। তাঁদের দুজনের ব্যাটিংয়ে ভর করে আফগানিস্তান ওয়ানডেতে তাদের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৩৩ রানের বড় সংগ্রহ পায়।

অবশ্য আসল কাজটি করেন দুই ওপেনারের বিদায়ের পর এক প্রান্ত ধরে খেলতে থাকা রহমত শাহ। তাঁর ব্যাট থেকে আসে ইনিংস সেরা ১১৪ রান। ১১০ বলে সংগ্রহ করেন ১১৪ রান। তবে তাকে সঙ্গ দিতে ব্যর্থ হন আসগার। ব্যক্তিগত মাত্র ৩ রানে ফিরে যান এই অধিনায়ক। পরে খুব দ্রুত ফিরে যান নাসির জামালও (৩১)। তবে পঞ্চম উইকেটে নাজিবুল্লাহ জাদরানকে নিয়ে ১৫৮ রানের জুটি গড়েন রহমত শাহ। ইনিংসের শেষ বলে আউট হওয়ার আগে ৮ চার ও ৪ ছক্কায় তার ব্যাট থেকে আসে ১১৪ রান। জাদরান ৫টি করে চার-ছয়ে ৫১ বলে ৮১ রানে অপরাজিত থাকলে ৫ উইকেট হারিয়ে ৩৩৩ রানের বিশাল সংগ্রহ পায় দলটি।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে রশিদ খানের বোলিং নৈপুণ্যে খুব বেশিক্ষণ টিকে থাকতে পারেনি জিম্বাবুয়ে ব্যাটসম্যানরা। শুরু থেকে দ্রুত গতিতে রান তুলতে থাকেন মিরে। তবে ২৫ বলে ৩৪ রান করে সাজঘরে ফিরে যান এই ওপেনার। পরে ক্রিস অরভিনের ৩৪ রান ছাড়া কেউই প্রতিরোধ গড়তে পারেননি। ফলে ১৭৯ রানেই থেমে যায় জিম্বাবুয়ের ইনিংস। তাই ১৫৪ রানের বড় ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে আফগানরা। আফগান স্পিনার রশিদ খান ৫.৪ ওভারে ২৬ রান দিয়ে নেন ৪ উইকেট।

একে/টিকে

ফটো গ্যালারি



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি