ঢাকা, শুক্রবার, ২৮ জুলাই, ২০১৭ ৮:৩৮:৪২

চার ‘জঙ্গি তামিম গ্রুপের’ সদস্য

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৪:৪৮ পিএম, ১৬ জুলাই ২০১৭ রবিবার | আপডেট: ০৭:০৭ পিএম, ১৬ জুলাই ২০১৭ রবিবার

সাভারের আশুলিয়ার পাথালিয়া ইউনিয়নের চৌরাবালি এলাকায় জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ঘেরাও করা একটি বাড়ি থেকে আত্মসমর্পণকারী চার ব্যক্তি সারোয়ার-তামিম গ্রুপের জঙ্গি বলে জানিয়েছে র‌্যাব। ওই চার ব্যক্তি আত্মসর্পণের পর অভিযান সমাপ্ত ঘোষণা করেছে র‌্যাব।

র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার প্রধান কমান্ডার মুফতি মাহমুদ খান জানান, বাড়িটির মালিক ইব্রাহিমের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী শনিবার মধ্যরাত থেকে এই অভিযান চালানো হয়। বাড়ির ভেতর অবিস্ফোরিত কিছু এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস আছে এবং র‌্যাবের ডগ স্কোয়াড ও বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট ভেতরে কাজ করছে।

রোববার বেলা ২টার দিকে ঘটনাস্থলের পাশে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন মুফতি মাহমুদ খান। তিনি জানান, এই আস্তানা থেকে গ্রেফতার হওয়া চার জন হলো- মোজাম্মেল, ইরফানুল, রাশেদুল ও আলমগীর। মোজাম্মেল তাদের দলনেতা।

তিনি আরো বলেন, আটক চারজন গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে হামলার অন্যতম পরিকল্পনাকারী নব্য জেএমবির তামিম গ্রুপের সদস্য। ওই এলাকায় তাদের নাশকতার পরিকল্পনা ছিল।

র‍্যাবের এই কর্মকর্তা আরও জানান, দেড় মাস আগে ওই চারজন পোশাক কারখানার শ্রমিক পরিচয়ে বাসাটি ভাড়া নেন। বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার সূত্র থেকে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে র‍্যাব গত রাত একটার দিকে বাড়িটি ঘিরে অভিযান চালায়। রাত তিনটার দিকে ‘জঙ্গিরা’ জানতে পারেন র‍্যাব বাড়িটি ঘিরে রেখেছে। আজ সকাল আটটার দিকে ‘জঙ্গিরা’ র‍্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি ও বোমা ছোড়ে। র‍্যাব বারবার তাঁদের আত্মসমর্পণ করার জন্য মাইকে আহ্বান জানায়। সর্বশেষ তাঁদের বলা হয়, দুপুর ১২টার মধ্যে আত্মসমর্পণ না করলে র‍্যাব অভিযান চালাবে। এতে ‘জঙ্গিরা’ নিহত হতে পারেন। এরপর একজন ‘জঙ্গি’ আত্মসমর্পণ করেন। তার মাধ্যমে বাকি তিনজন ‘জঙ্গিকে’ আত্মসমর্পণ করানো হয়।

ডব্লিউএন

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি