ঢাকা, শুক্রবার, ২৫ মে, ২০১৮ ১:৪৯:৩৪

Ekushey Television Ltd.

টানা ৪৩ ম্যাচে বার্সার জয়

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৯:২০ এএম, ১০ মে ২০১৮ বৃহস্পতিবার

বার্সেলোনা লা লিগায় অপরাজিত থাকার রেকর্ডকে বাড়িয়ে ৪৩-এ নিয়ে গেলো। ঘরের মাঠে ভিয়ারিয়ালকে ৫-১ গোলে হারিয়ে লিগে টানা ৪৩ ম্যাচ অপরাজিত থাকলো আর্নেস্তো ভালভার্দের দল। আগের ম্যাচে রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে এগিয়ে থেকেও ২-২ গোলের ড্রয়ে কিছুটা হতাশা কাজ করলেও এই ম্যাচে সেটিকে পুষিয়েই দিলেন বার্সার ফুটবলাররা। বার্সার হয়ে জোড়া গোল করেন দেম্বেলে তাছাড়া একটি করে গোল করেন মেসি, কৌতিনহো এবং পাউলিনহো।

ঘরের মাঠ ক্যাম্প ন্যুতে ম্যাচের আগে বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় বার্সেলোনা ক্লাবের এবারের মৌসুমের ট্রফি হাতে মাঠে প্রবেশ করেন সেই সব দলের ফুটবলাররা। পাঁচটি ভিন্ন প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয় বার্সেলোনার পাঁচটি ভিন্ন দল। ম্যাচের প্রথমেই গোল পেয়ে যায় বার্সেলোনা। ১১ মিনিটে মাঝমাঠ থেকে একাই বল টেনে নিয়ে যান দেম্বেলে। তার বা পায়ের দুর্দান্ত শট ভিয়ারিয়াল গোলকিপার রুখে দিলেও রিবাউন্ড থেকে গোল করে দলকে এগিয়ে দেন ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার কৌতিনহো। বার্সার হয়ে শেষ দশ ম্যাচে এটি তার চতুর্থ গোল।

কৌতিনহোর গোলের ঠিক ৫ মিনিট পর বার্সেলোনাকে ২-০ গোলে এগিয়ে দেন আরেক ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার পাউলিনহো। বা পাশ থেকে লুকাস দিনিয়ের ক্রসে পা ছুঁয়ে গোল করেন এই ব্রাজিলিয়ান। ২০০৪ সালের পর ক্যাম্প ন্যুতে বার্সেলোনার বিপক্ষে ক্লিন শিট না রাখতে পারা দলটি ম্যাচে এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা চালাতে থাকে। কিন্তু সঠিক পরিকল্পনার অভাবে কোনো আক্রমণই আলোর মুখ দেখেনি।

প্রথমার্ধের শেষ সময়ে বার্সেলোনাকে তিন গোলের লিড এনে দেন দলের প্রাণভোমড়া লিওনেল মেসি। ডি বক্সের সামান্য বাইরে থেকে ইনিয়েস্তার মাথার উপর থেকে দেয়া পাসে ট্যাপ ইনে লিগে নিজের ৩৪তম গোলটি করেন এই আর্জেন্টাইন। বার্সার হয়ে যা তার ৬১৩তম গোল। মৌসুমে ক্লাব এবং জাতীয় দলের হয়ে আর মাত্র দুই গোল করলেই ৫০ গোলের মাইলফলক স্পর্শ করবেন মেসি।

দ্বিতীয়ার্ধে মাঠে যেন অন্য বার্সেলোনাকেই দেখে সবাই। ভিয়ারিয়ালের একের পর এক আক্রমণে কোণঠাসা হয়ে পড়ে বার্সার রক্ষণভাগ। বারবার লেফট এন্ড রাইট দিয়ে আক্রমণের ধার বাড়িয়ে ৫৪ মিনিটেই সফলতা পায়া হলুদ জার্সিধারীরা। সানসনের শট বার্সার প্লেয়ারের পায়ে লেগে জালে জড়ালে এক গোল শোধ দেয় তারা। কিন্তু তারপরও থামেনি তাদের দমে থাকা। ৬৭ মিনিটে ভিয়ারিয়ালের বাক্কার শট নিজের তালুবন্দী করেন জ্যাসপার সিলেসিন।

ম্যাচের ৮৭ মিনিটে দেম্বেলে একটি গোল করলে ৪-১ গোলের এগিয়ে যায় বার্সা। এই গোলটি হয় মূলত রাকিতিচের ব্যক্তিগত নৈপুণ্যে দেওয়া পাস থেকে। ম্যাচের শেষ মুহূর্তে মাঝ মাঠ থেকে আবারও সেই দেম্বেলের দ্রুত গতির দৌড়ে ভিয়ারিয়াল ডিফেন্ডারকে পরাস্ত করে গোলকিপারের মাথার ওপর দিয়ে ট্যাপ ইনে ম্যাচে নিজের দ্বিতীয় এবং বার্সার হয়ে পঞ্চম গোলটি করেন দেম্বেলে। ৫-১ গোলের অসাধারণ এই জয়ে লিগে ঘরের মাঠে টানা ৩৫ ম্যাচে অপরাজিত থাকলো বার্সেলোনা।

এসএইচ/

ফটো গ্যালারি



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি