ঢাকা, সোমবার, ১৮ জুন, ২০১৮ ১৩:২১:২৯

Ekushey Television Ltd.

ডায়লগ ডেলিভারির সময় হাসি চেপে রাখতে হয়েছিল : বুবলি

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৫:৫৩ পিএম, ১৪ জুন ২০১৮ বৃহস্পতিবার | আপডেট: ১২:০৮ পিএম, ১৭ জুন ২০১৮ রবিবার

বাংলা সিনেমার বর্তমান সময়ের হার্টথ্রুব নায়িকা শবনম বুবলি। একের পর এক সিনেমা করে হিট। এবারের ঈদে বুবলি ও সুপারস্টার শাকিব খান অভিনীত দু’টি সিনেমা মুক্তি পেতে যাচ্ছে। ছবি দুটি হচ্ছে ‘চিটাগাইঙ্গা পোয়া ও নোয়াখাইল্যা মাইয়্যা’ এবং ‘সুপারহিরো’। ছবি দুটির শুটিং শুরু হওয়ার পর থেকেই আলোচিত হচ্ছিল। ছবি দুটি নিয়ে প্রত্যাশা, শুটিংয়ের মজার অভিজ্ঞতা নিয়ে বুবলি কথা বলেছেন ইটিভি অনলাইনের সঙ্গে। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন শাওন সোলায়মান। তিন পর্বের সাক্ষাৎকারের শেষ পর্ব আজ পাঠকদের উদ্দেশে তুলে ধরা হলো-

ইটিভি অনলাইনঃ ঈদে আপনার অভিনীত সিনেমা আসছে প্রেক্ষাগৃহে। এই বিষয়েই শুরুতে জানতে চাইব আপনার কাছে।

বুবলিঃ ঈদে যে দু’টি সিনেমা মুক্তি পাচ্ছে তা হলো ‘সুপারহিরো’ এবং ‘চিটাগাইঙ্গা পোয়া নোয়াখাইল্লা মাইয়া’। দু’টি ছবি আসলে একদমই দুই ধরনের। যেটা আমরা সব শিল্পীরাই বলে থাকি যে ‘একটু অন্যরকম’। আমার মনে হয় যে আসলে দর্শকরা যখন হলে গিয়ে দেখবেন ছবি দুটো তখন তারা এই পার্থক্যটা বুঝতে পারবেন। কারণ সুপারহিরো ছবিটি হচ্ছে একদমই অ্যাকশন ধরনের ছবি। রোমান্স,কমেডি সব বাণিজ্যিক সিনেমাতেই থাকে। কিন্তু কিছু ছবি আসলে কিছু কিছু বিষয়ের ওপর ভিত্তি করেই করা হয়। সেদিক থেকে বললে সুপারহিরো অ্যাকশন থ্রিলার ছবি। দেশপ্রেম আছে এটিতে। দেশের প্রতি ভালবাসার ব্যাপারগুলো দেখানো হয়েছে। সুপারহিরো সিনেমার গল্পটাই মূলত এর প্রাণ।

আর ‘চিটাগাইঙ্গা পোয়া নোয়াখাইল্লা মাইয়া’ সিনেমাটি মূলত কমেডি বেইজড। সুপারহিরোর থেকে একেবারেই উলটো। দুটো অঞ্চলের ব্যাপার তো বোঝাই যাচ্ছে। তবে সিনেমাটি আধুনিক সময়ের ওপর ভিত্তি করে করা হয়েছে। আমরা শুধু যে গ্রামের কথা বলছি, আঞ্চলিক; তা না। মানে মডার্ণ একটা ব্যাপার দেখানো হয়েছে যেখানে দুটি অঞ্চলের মানুষের মধ্যে হাসি-দ্বন্দ্ব দেখানো হয়েছে। আর কিছু বলব না। বাকিটা দর্শকদের জন্য থাকলো। তারা হলে গিয়ে দেখবেন।

ইটিভি অনলাইনঃ চিটাগাইঙ্গা পোয়া নোয়াখাইল্যা মাইয়া নামটাই বেশ মজার। তো এই সিনেমার শ্যুটিং করতে গিয়ে নিশ্চয়ই অনেক মজার মজার অভিজ্ঞতা হয়েছে। আমাদের পাঠকদের জন্য তার কিছুটা শেয়ার করতেন আমাদের সঙ্গে...

বুবলিঃ আসলে মজার ঘটনা সব সেটেই টুকটাক হয়। হঠাৎ করে বলতে গেলে আর কিছু মনে পরে না। তবে এই সিনেমার শ্যুটিং এর পুরো কাজটাই ছিল মজার। আমাদেরকে সেটে আঞ্চলিক ভাষায় কথা বলতে হয়েছে। ডায়লগ ডেলিভারির সময় আমাদের বেশ কষ্ট করতে হয়েছে। কষ্ট এই জন্য করতে হয়েছে যে, হাসি চেপে রাখতে হচ্ছিল। সিনেমার ডায়লগগুলো বেশ মজার। তবুও ধরেন আমি চরিত্রের মাঝে আছি। বেশ সিরিয়াস। কিন্তু আশেপাশে ইউনিট সদস্যদের দিকে তো চোখ চলে যায়। সবার মুখে একটা হাসি হাসি ভাব। তখন আসলে নিজের হাসিটা দমিয়ে রাখা বেশ কষ্টকর। তারপর যখনই শ্যুটিং – কাট হতো অমনি আমরা সবাই মিলে হাসি। আমি বলব, এই সিনেমার অভিনয়ের পুরো অংশটাই আসলে বেশ মজার ছিল।

ইটিভি অনলাইনঃ সিনেমা দু’টিতে অভিনয়ের জন্য আপনাকে আগে থেকে কিছু প্রস্তুতি নিতে হয়েছিল। সেগুলো কী ধরনের ছিল?

বুবলিঃ প্রতিটি সিনেমার প্রতিটি চরিত্রই নতুন। আর নতুন একটি কাজ করতে গেলে আগে থেকে প্রস্তুতি নিতে হয়। তবে এই সিনেমা দু’টির জন্য আসলেই বিশেষ প্রস্তুতি নিতে হয়েছিল।

চিটাগাইঙ্গা পোয়া নোয়াখাইল্যা মাইয়া’র জন্য আমাকে নোয়াখালীর ভাষা শিখতে হয়েছে। শুধু শিখতে না সেটাকে রপ্তও করতে হয়েছে। আর সুপারহিরো’র বিষয়টা পুরো উলটো। এই সিনেমার জন্য আমাকে ফাইটিং শিখতে হয়েছে। রীতিমত পেশাদার ট্রেইনার দিয়ে ফাইটিং শিখতে হয়েছে। এরজন্য বেশ কষ্টও হয়েছে। দেখা গেছে, আজ ফাইটিং শট ছিল। প্রশিক্ষণ নিয়ে শ্যুটিং করে যখন কাজ শেষ করলাম তখন শরীরে ব্যথা করছে। কিন্তু এরপরেও পরের দিন শ্যুটিং করে যেতে হয়েছে। এ ধরনের ভারি কাজ করার পর যে বিশ্রাম দরকার তাও পায়নি।

ইটিভি অনলাইনঃ ঈদে আপনার সিনেমা মুক্তি পাচ্ছে। হলে যাবেন?

বুবলিঃ জ্বী, হলে যাব। গত কয়েক বছর ধরে যেটা হচ্ছে ঈদে যেহেতু সিনেমা মুক্তি পাওয়ার একটা ব্যাপার থাকে সেহেতু বেশ উত্তেজনা কাজ করে। পাশাপাশি আবার একটা চ্যালেঞ্জিং ব্যাপার যে দর্শকেরা কেমন প্রতিক্রিয়া দিচ্ছে সেটি নিয়ে। অনেকটা পরীক্ষার ফলাফল পাওয়ার মতো। সারা সময় যে শ্যুটিং এ কষ্টটা আমরা করি তা দর্শকদের ভালো লাগছে এটা দেখতে পারলে খুব ভালো লাগবে। নিজের কাজকে সার্থক মনে হবে। আর দর্শকদের প্রতিক্রিয়া দেখার জন্য হলে যাওয়ার থেকে ভালো কোন উপায় নেই।

ইটিভি অনলাইনঃ আমরা সাক্ষাৎকারের একেবারেই শেষ পর্যায়ে। দর্শকদের উদ্দেশ্যে আপনি কী কিছু বলবেন?

ইটিভি অনলাইনঃ দর্শকদেরকে জানাচ্ছি ঈদের অগ্রিম শুভেচ্ছা। ইটিভি অনলাইনের মাধ্যমে এটুকুই বলব যে, আসুন আমরা সবাই বাংলা চলচ্চিত্রের সঙ্গে থাকি। হলে গিয়ে বাংলা চলচিত্র দেখি। আর আপনাদের ভালোবাসায় আমি মুগ্ধ। আপনাদের যেন আরও ভালো ভালো কাজ উপহার দিতে পারি তার জন্য দোয়া করবেন।

 আরও পড়ুন

অন্য নায়কের সঙ্গে কাজ করার অপেক্ষায় আছি : বুবলি

ঈদ সালামির জন্য দুলাভাইদের অপেক্ষায় থাকতাম : বুবলি

/ এআর /



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি