ঢাকা, শনিবার, ২৫ নভেম্বর, ২০১৭ ৯:৪৭:১০

ত্বকের বুড়োভাব ঠেকাবে প্রাকৃতিক উপাদান

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৩:৩৫ পিএম, ২৫ আগস্ট ২০১৭ শুক্রবার | আপডেট: ০৯:১৪ পিএম, ২৬ আগস্ট ২০১৭ শনিবার

ত্রিশ-পয়ত্রিশের পরই ত্বকের বয়সের ছাপ পড়তে থাকে। সজীবতা হারিয়ে ত্বক হয়ে উঠে খসখসে। চামড়া ফ্যাকাশে হতে শুরু করে, অনেকের ঝুলেও পড়ে। ত্বকে বুড়োভাব ঠেকাতে অনেকেই প্রসাধনী কিংবা সার্জারির আশ্রয় নিয়ে থাকে। তবে বুড়োভাব ঠেকাতে কৃত্রিমতার দরকার নেই। প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে চামড়ায় বুড়োভাব ঠেকানো যায়।


স্বাস্থ্যবিষয়ক ওয়েবসাইট বোল্ডস্কাইয়ের প্রতিবেদন অবলম্বনে কয়েকটি প্রাকৃতিক উপাদানের নাম এখানে দেওয়া হল। যেগুলো ব্যবহার করে ধরে রাখা যায় ত্বকের তারুণ্য।


মধু ও অলিভ অয়েল: অলিভ অয়েলে আছে বয়সের ছাপ-রোধী অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট এবং ‘স্কোয়ালেন’ যা ত্বকের জন্য উপকারী। একভাগ মধু ও অলিভ অয়েল একত্রে মিশিয়ে ত্বকের ব্যবহার করুন। ১৫ মিনিট রেখে ধুয়ে তোয়ালে দিয়ে আলতোভাবে চাপ দিয়ে মুছে ফেলুন। এটি ত্বকের আর্দ্রতা দূর করে সজীবতা ধরে রাখতে সহায়তা করবে।

গোলাপ জল ও লেবু : গোলাপজলের অ্যাস্ট্রিনজান্ট এবং লেবুর পুষ্টি উপাদান ত্বকের জন্য উপকারী। আর গ্লিসারিন ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখে। এই তিনের মিশ্রণ ত্বককে করবে লাবণ্যময়, কমাবে চামড়ায় বুড়োটে ভাব।

অ্যাপল সাইডার-ভিনিগার মিশ্রণ: একটি স্প্রে বোতলে এক ভাগ পানি ও আধা ভাগ অ্যাপল সাইডার ভিনিগার নিন। রোজ মিশ্রণটি ত্বকে ছিটিয়ে দিলে ত্বক থাকবে সিগ্ধ। এতে থাকা বিভিন্ন ধরনের অম্লীয় উপাদান ত্বকের মৃতকোষ অপসারণ স্বাস্থ্যোজ্জ্বল করতে ভূমিকা রাখে। বলিরেখা দূর করতেও কাজে লাগে অ্যাপল সাইডার ভিনিগার।

দই: ল্যাকটিক অ্যাসিডে ভরপুর, যা ত্বকের নবজীবন দিতে পারে। এজন্য আধা কাপ দই মুখে ২০ মিনিট মেখে রেখে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে।

পেঁপে: একটি পাত্রে কয়েক টুকরা পাকাপেঁপে থেতলে পেস্ট তৈরি করে মুখে মেখে ২০ মিনিট পর কিংবা শুকিয়ে গেলে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে। পেঁপেতে রয়েছে প্রচুর অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট। যা ত্বককে বয়সের ছাপ পড়ার হাত থেকে রক্ষা করতে পারে। অবাঞ্ছিত লোম তুলতে এবং ত্বক আর্দ্র রাখতে পেঁপে বেশ কার্যকর।

//এআর


 
 

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি