ঢাকা, শনিবার, ২৫ নভেম্বর, ২০১৭ ০:১৯:১২

দোহারে মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডারের সংবাদ সম্মেলন

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৭:০৯ পিএম, ১০ নভেম্বর ২০১৭ শুক্রবার | আপডেট: ০৭:১৩ পিএম, ১০ নভেম্বর ২০১৭ শুক্রবার

একটি জাতীয় দৈনিকে ‘দোহারে অমুক্তিযোদ্ধাকে মুক্তিযোদ্ধা বানানোর চেষ্টা’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশের জের সংবাদ সম্মেলন করেছেন উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো. রজ্জব আলী মোল্লা। শুক্রবার সন্ধ্যা ৫টায় উপজেলা সদরের রতন স্বাধীনতা চত্তর এলাকার একটি অফিসে এ সংবাদ সম্মেলন করেন তিনি। দোহার উপজেলা মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ’র ব্যানারে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, গত ৭ নভেম্বর দৈনিক প্রথম আলো পত্রিকার প্রথম পৃষ্ঠায় ‘দোহারে অমুক্তিযোদ্ধাকে মুক্তিযোদ্ধা বানানোর চেষ্টা’ শিরোনামে সংবাদে স্বজনপ্রীতি ও টাকার বিনিময়ে মুক্তিযোদ্ধা বানানোর তথ্য ভুল ছিল দাবী করেন মো. রজ্জব আলী মোল্লা। তিনি বলেন, আওলাদ হোসেন, বজলুর রহমানসহ অজ্ঞাত মামাতো-চাচাতো, ফুপাতো কাউকে আমি স্বজনপ্রীতি করিনি। সংবাদটি একটি স্বার্থান্বেষী মহল চক্রান্ত করে মূল ঘটনাকে গোপন করেছে।

তবে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে মো. রজ্জব আলী মোল্লা বলেন, যাচাই-বাছাইয়ের পর উপজেলা কার্যালয়ে আমাকে ডাকা হয়। সেখানে তিনজন অমুক্তিযোদ্ধাকে তালিকায় রেখে প্রভাবশালী কয়েকজন রাজনৈতিক নেতা জোরপূর্বক স্বাক্ষর করান।

তালিকার অমুক্তিযোদ্ধারা হলেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আলী আহসান খোকন সিকদার, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গিয়াসআল-মামুন ও ঢাকা জেলা কৃষকলীগের সহ-সভাপতি ও মুকসুদপুর ইউপি চেয়ারম্যান এম এ হান্নান।

সংবাদ সম্মেলনের শেষের দিকে, মো. রজ্জব আলী মোল্লা দুস্কৃতি কর্তৃক তাঁর জীবননাশের আশংঙ্কা প্রকাশ করেন। সেক্ষেত্রে সাংবাদিকদের সজাগ দৃষ্টি রাখার অনুরোধ জানান তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযোদ্ধা ডা. আবুল কালাম, মো. ফজুলুল হক, মহিউদ্দিন চৌধুরী অনু, মো. করম আলী, মো. মাসুম মিয়া, আইয়ুব আলী প্রমূখ।

 

এসএ/ডব্লিউএন

 


 
 

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি