ঢাকা, শনিবার, ২৫ নভেম্বর, ২০১৭ ০:১২:২৩

ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় পাথরঘাটা ছাত্রলীগের দু’নেতা রিমান্ডে

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৬:০৯ পিএম, ১৩ নভেম্বর ২০১৭ সোমবার

বরগুনার পাথরঘাটায় এক তরুণীকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগে পাথরঘাটা কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকে দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। এদিকে দোষীদের শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন নামের একটি সংগঠন।

পুলিশের একটি দল সোমবার দুপুরে পাথরঘাটা কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি রুহি আনাল দানিয়াল ও সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন ছোট্টকে বরগুনা থেকে পাথরঘাটায় আদালতে হাজির করে। এসময় মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পাথরঘাটা থানার ওসি জিয়াউল হক সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করলে বিচারক মো. মঞ্জুরুল হক দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এদিকে দোষীদের শাস্তির দাবীতে বরগুনা প্রেসক্লাব চত্বরে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন নামে একটি সংগঠন। এ মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন- প্রেসক্লাবের সভাপতি জাকির হোসেন মিরাজ, মহিলা পরিষদের সভানেত্রী নাজমা বেগম, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো. আব্দুর রশিদ, নারী নেত্রী সোহেলি পারভিন ছবি প্রমুখ।

এসময় বক্তারা আসামিদের শাস্তির দাবী করেন।

চলতি বছরের ১০ আগস্ট দুপুরে পাথরঘাটা কলেজের পশ্চিম পাশের পুকুর থেকে অজ্ঞাত নামা এক তরুণীর গলিত লাশ উদ্ধার করা হয়। তখন পুলিশ বাদী হয়ে অজ্ঞাত আসামি করে পাথরঘাটা থানায় মামলা দায়ের করে। ঘটনার পর থেকে এ হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটনে দীর্ঘ সময় ধরে লেগে থাকে বরগুনা থানার পুলিশ। পরে তথ্য পেয় শুক্রবার পাথরঘাটা কলেজের নৈশ প্রহরী জাহাঙ্গীরকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে ডিবি পুলিশ। জাহাঙ্গীরের দেওয়া স্বীকারোক্তি অনুযায়ী, শনিবার রাতে ছাত্রলীগ নেতা মাহমুদ ও রায়হানকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ। রোববার বিকেলে পাথরঘাটার আদালতে মাহমুদ ও রায়হানের ১৬৪ ধারায় দেওয়া স্বীকারোক্তি অনুযায়ী গ্রেফতার করা হয় কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি রুহি আনাল দানিয়েল ও সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন ছোট্টকে।

 

জেআর/এসএইচ

 


 
 

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি