ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৭ ১৯:৩১:২৭

পুলিশ কম থাকায় বাড়িগুলো রক্ষা করা যায়নি : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১০:১৮ পিএম, ১৪ নভেম্বর ২০১৭ মঙ্গলবার | আপডেট: ১১:২০ পিএম, ১৪ নভেম্বর ২০১৭ মঙ্গলবার

পুলিশের সংখ্যা কম থাকার কারণে রংপুরে হামলাকারীর হাত থেকে হিন্দু বাড়িগুলো রক্ষা করা যায়নি বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। তিনি বলেন, ঘটনার পরপর (ফেইসবুক স্ট্যাটাস) পুলিশ হিন্দু প্রধান বাড়ি-ঘরগুলো ঘেরাও করে রেখেছিল। কিন্তু একটি জানাজায় শত শত মানুষ এসেছিল। সেই সব মানুষকে নানাভাবে উত্তেজিত করা হচ্ছিল। শতশত মানুষ যখন আসে, পুলিশের সংখ্যা তখন খুব বেশি ছিল না। সেজন্যই এই অঘটনটি ঘটে গিয়েছিল। তবে ‘তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশ ব্যবস্থা নেওয়ায় বড় ধরনের ঘটনা ঘটেনি’ বলেও দাবি করেন তিনি।

রংপুরে ঘটনাস্থল ঘুরে এসে মঙ্গলবার বিকালে ঢাকার মিন্টো রোডে পুলিশ কনভেনশন সেন্টারে এক অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এ কথা বলেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) এ কে এম শহীদুল হক, র্যা বের মহাপরিচালক (ডিজি) বেনজীর আহমেদ, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব মোস্তফা কামাল প্রমুখ।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, রংপুরের ঘটনায় সেখানে ইনটেলিজেন্সের কোনো ঘাটতি ছিল না, এটি আকস্মিকভাবে ঘটে গিয়েছিল। হামলাকারীদের সংখ্যাধিক্যের কারণে বাড়ি-ঘর ঠেকানো সম্ভব হয়নি।

ঘটনার দিন ওই এলাকায় পুলিশ থাকার পরেও কীভাবে অগ্নিসংযোগ হলো এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, পুলিশের কোনো গাফিলতি ছিল না। এ ঘটনায় মামলা হওয়ার পরেই এমন হামলার আশঙ্কায় পুলিশ ওই এলাকাটি ঘিরে রেখেছিল। কিন্তু ওইদিন ঘটনাস্থলের কাছেই একটি জানাজা ছিল। সেখানে মুসল্লিদের ভুল বুঝিয়ে নানাভাবে উত্তেজিত করে অনেককে হামলায় উৎসাহিত করে। কিন্তু সে তুলনায় পুলিশ সদস্যের সংখ্যা ছিল কম। ঘটনার আকস্মিকতার কারণে পুলিশ তৈরি হতে পারেনি।

তিনি জানান, কক্সবাজারের রামু, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরসহ বিভিন্ন স্থানে ধর্মীয় উসকানি দিয়ে সংঘটিত এই ধরনের ঘটনাগুলোর উপর সরকার ‘বিশেষ নজর’ রাখছে। সেই সঙ্গে ইন্টারনেটে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দায়িত্বশীলতার কথাও তিনি বলেন।

উল্লেখ্য, ফেইসবুকে মহানবীকে অবমাননার অভিযোগ তুলে রংপুরের খলেয়া ইউনিয়নের ঠাকুরপাড়া গ্রামে গত শুক্রবার হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষদের ঘরে হামলা চালিয়ে অগ্নিসংযোগ করা হয়।

 

একে/

 

ফটো গ্যালারি


 
 

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি