ঢাকা, শনিবার, ১৮ আগস্ট, ২০১৮ ১৪:০৯:০২

Ekushey Television Ltd.

পৃথিবীর ২৭ গুণ বড় গ্রহের সন্ধান

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০২:২৭ পিএম, ১১ জুন ২০১৮ সোমবার

সৌরমণ্ডলের বাইরে আরও একটি গ্রহের খোঁজ মিলল। সেই আবিষ্কার ঘটল এক বাঙালির নেতৃত্বে একদল ভারতীয় বিজ্ঞানীর হাত ধরে। পৃথিবী থেকে ৬০০ আলোকবর্ষ দূরের এক তারা বা নক্ষত্রকে প্রদক্ষিণ করছে ওই গ্রহটি। এটি পৃথিবী থেকে প্রায় ২৭ গুণ বড়।

ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরোর অধীনে আমদাবাদের ফিজিক্যাল রিসার্চ ল্যাবরেটরির বিজ্ঞানীরা এই আবিস্কার করেন। এই গবেষণায় নেতৃত্ব দিয়েছেন বাঙালি বিজ্ঞানী অভিজিৎ চক্রবর্তী। অভিজিৎ জানান, শনির চেয়ে ছোট, অথচ নেপচুনের চেয়ে বড় এমনই একটি ভিনগ্রহের সন্ধান পেয়েছি আমরা। ২৭টি পৃথিবী জুড়লে যতটা হয়, ঠিক সেই চেহারারই এই গ্রহের। আর ব্যাস পৃথিবীর ব্যাসের ছ’গুণ।

আমাদের ছায়াপথের এই সদ্য আবিষ্কৃত তারামণ্ডলটি সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানতে গবেষণা করছে ইসরো। তবে কিছু কিছু তথ্য এর মধ্যেই বিজ্ঞানীদের কাছে স্পষ্ট। যেমন আমাদের সূর্য থেকে আমাদের পৃথিবীর যে দূরত্ব (৮ আলোকমিনিট), তার সাত ভাগের এক ভাগ হল নতুন আবিষ্কৃত গ্রহটির সঙ্গে তার সূর্যের (নাম এপিক-২১১৯৪৫২০১) দূরত্ব। তার মানে, ওই ভিনগ্রহটি তার নক্ষত্রের অনেক বেশি কাছাকাছি আছে। ফলে, গ্রহটির বছর হয় ১৯.৫ দিনে।

আগেই বলা হয়েছে নতুন আবিষ্কৃত গ্রহটি আমাদের থেকে ৬০০ আলোকবর্ষ দূরে। শূন্য স্থানে আলো এক বছরে যে দূরত্ব অতিক্রম করে, তাকেই বলা হয় এক আলোকবর্ষ। এই ভাবে এক মিনিটে আলো যতটা যায়, তাকে বলা হয় এক আলোকমিনিট। যাই হোক, এই ৬০০ আলোকবর্ষ দূরত্বকে কিলোমিটারে হিসাব করলে দাঁড়ায় প্রায় ১০ লক্ষ কোটি কিলোমিটার।

সূত্র : আনন্দবাজার।

/ এআর /



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি