ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৭ ৩:০১:৩২

প্রধান বিচারপতির পদত্যাগপত্র রাষ্ট্রপতির কাছে পৌঁছায়নি : কাদের

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১২:৩১ পিএম, ১১ নভেম্বর ২০১৭ শনিবার

ছুটিতে থাকাবস্থায় প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এস কে) সিনহা পদত্যাগের খরব বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশ করলেও এ বিষয়ে নিশ্চিত কিছু জানেন না আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। শনিবার বেলা পৌনে ১১টায় সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন।

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘মহামান্য রাষ্ট্রপতির কাছে পদত্যাগপত্র আসার আগে নিশ্চিত করে বলতে পারছি না তিনি (প্রধান বিচারপতি) পদত্যাগ করেছেন কি না। পদত্যাগপত্র পাঠাতে হলে রাষ্ট্রপতির কাছে পাঠাতে হবে।’ ‘আমি যতটুক জেনেছি এখনও রাষ্ট্রপতির কাছে পদত্যাগপত্র পৌঁছায়নি। আওয়ামী লীগের এক্ষমতাসীন নেতা বলেন, ‘আর আকাশে চাঁদ উঠলে সবাই দেখবে।’

প্রসঙ্গত, বিচারপতিদের অপসারণের ক্ষমতা সংসদের হাতে ফিরিয়ে নিতে করা সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের পূর্ণাঙ্গ রায় গত ১ আগস্ট প্রকাশের পর থেকে মন্ত্রী-সংসদ সদস্যদের কঠোর সমালোচনার মুখে পড়েন প্রধান বিচারপতি। জাতীয় সংসদেও তাঁর সমালোচনা করা হয়।

১৪ অক্টোবর রাতে দেশ ছাড়ার আগে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা অপেক্ষমাণ সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন। একপর্যায়ে কাগজে লেখা একটি বিবৃতি দিয়ে দেন। সেখানে শুরুতেই বলা আছে, ‘আমি সম্পূর্ণ সুস্থ আছি।’ ওই বিবৃতিতে বিচার বিভাগের স্বাধীনতা নিয়ে শঙ্কাও প্রকাশ করেন তিনি। সাংবাদিকদের দেওয়া বিবৃতিটি লেখা ছিল প্রধান বিচারপতির প্যাডে। নিচে ছিল প্রধান বিচারপতির স্বাক্ষর।  

গতকাল ১০ নভেম্বর ছিল প্রধান বিচারপতির ছুটির শেষ দিন। তিনি দেশে ফিরে আসবেন, পুনরায় কাজে ফিরবেন, নাকি পদত্যাগ করবেন- এসব নিয়ে গণমাধ্যমে নানা খবর আসে। এর মধ্যেই মধ্যরাতে বিভিন্ন বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল বলা হয়, প্রধান বিচারপতি তাঁর পদত্যাগপত্র রাষ্ট্রপতির কাছে পাঠিয়েছেন।

আজ সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অবস্থিত শিখ ধর্মাবলম্বীদের প্রার্থনাস্থল গুরুদুয়ারায় ‘গুরুপূরব ও নগরকীর্ত্তন-২০১৭’ এর উদ্বোধন করতে যান ওবায়দুল কাদের। এ সময়ই সাংবাদিকরা তাঁর কাছে প্রধান বিচারপতির পদত্যাগের ব্যাপারে জানতে চান।

এ সময় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষে আগামীকাল রোববার বিএনপির সমাবেশ নিয়েও কথা বলেন। তিনি বলেন, ‘বিএনপির সমাবেশ শান্তিপূর্ণ হবে কিনা নির্ভর করবে বিএনপির আচরণের উপর। বিএনপি যদি বিশৃঙ্খলা করে উদ্ভূত পরিস্থিতি মোকাবেলায় যা যা করণীয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাই করবে।

/ এআর /

ফটো গ্যালারি


 
 

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি