ঢাকা, শুক্রবার, ২৫ মে, ২০১৮ ১:৪৪:৩৬

Ekushey Television Ltd.

প্লাস্টারের জন্য বিশেষায়িত সিমেন্ট আনছে লাফার্জহোলসিম   

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১২:১০ এএম, ১০ মে ২০১৮ বৃহস্পতিবার

বাংলাদেশের বাজারে প্লাস্টারের জন্য বিশেষায়িত সিমেন্ট আনতে যাচ্ছে লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশ লিমিটেড। ‘প্লাস্টারক্রীট’ ব্র্যান্ডের এই বিশেষায়িত সিমেন্ট আপাতত করপোরেট ক্লায়েন্টরা ক্রয় করতে পারবেন।

বুধবার রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ সব তথ্য দেন কোম্পানিটির প্রধান নির্বাহি রাজেশ সুরানা।   

সংবাদ সম্মেলনে প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহি রাজেশ সুরানা বলেন, ‘প্লাস্টারক্রীটের মাধ্যমে প্লাস্টার অনেক বেশি মসৃণ যা এই কাজটাকে অনেক বেশি সহজ করবে। এই পণ্যের ব্যবহারে স্থায়িত্ব বৃদ্ধি পাবে এবং ক্র্যাক কম হবে ফলে মেরামতের প্রয়োজন পড়বে না। নতুন এই সিমেন্ট গ্রাহকদের সময় বাঁচাবে, খরচ কমাবে এবং আমরা আশা করছি দেশের নির্মাণ খাতে বড় ধরনের প্রভাব ফেলবে। প্লাস্টারক্রীট ছাড়াও বাজারে কোম্পানিটির হোলসিম স্ট্রং স্ট্রাকচার, সুপারক্রীট, হোলসিম গ্রে ও হোলসিম রেড নামে চার ধরনের সিমেন্ট রয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, নির্মাণখাতে সেরা সল্যুশন আনতে কোম্পানিটি প্রতিনিয়ত গবেষণা এবং পণ্য উন্নয়নের কাজ করে চলেছে। এরই ধারাবাহিকতায় বাজরে প্লাস্টারক্রীটের মতো সিমেন্ট আনতে যাচ্ছে কোম্পানিটি।

লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশ বছরে ৪.২ মিলিয়ন টন বিশ্বমানের সিমেন্ট উৎপাদন করছে। কোম্পানিটি বাংলাদেশে ৫০০ মিলিয়ন ইউএস ডলার বিনিয়োগ করেছে এবং আরও বিনিয়োগের পরিকল্পনা করছে। দেশের নির্মাণ খাতে এটাই সবচেয়ে বৃহৎ বিদেশি বিনিয়োগ। কোম্পানিটির সুনামগঞ্জের ছাতকে অবস্থিত প্ল্যান্টটি দেশের একমাত্র স্বয়ংসম্পূর্ণ সিমেন্ট প্ল্যান্ট। ক্লিংকার উৎপাদনের মাধ্যমে প্রতি বছর কোম্পানিটি ৪০ থেকে ৫০ মিলিয়ন ইউএস ডলার বৈদেশিক মুদ্রার সাশ্রয় করে। কোম্পাটির প্ল্যান্টগুলো দেশের উত্তর-পশ্চিম, মধ্যাঞ্চল এবং দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে অবস্থিত হওয়ার কারনে গ্রাহকদেরও সুবিধা হয়েছে।  

এই প্রকল্পগুলোর সাথে সরাসরি জড়িত রয়েছে প্রায় তিন হাজার কর্মী। এছাড়া বিশ হাজারের মত সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান রয়েছে কোম্পানিটির। এর শতকরা ৪১ ভাগ শেয়ারের মালিক বাংলাদেশের প্রায় ৩০,০০০ সাধারন বিনিয়োগকারী, এবং বাকি শেয়ারের মালিকানা রয়েছে সুইজারল্যান্ড এবং ফ্রান্সের লাফার্জহোলসিম গ্রুপ এবং স্পেনের সিমেন্টোস মলিন্সের হাতে।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশের মার্কেটিং অ্যান্ড কমার্শিয়াল ট্রান্সফরমেশন ডিরেক্টর আরিফ ভূইঞা এবং হেড অব মার্কেটিং স্ট্র্যাটেজি, ব্র্যান্ডস অ্যান্ড কমিউনিকেশন সৈয়দ নাঈমুল আবেদীন।

কেআই/এসি   

 



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি