ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ জুন, ২০১৭

বিপর্যয় নেমেছে চট্টগ্রাম ওয়াসার পানি সরবরাহ ব্যবস্থায়

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৬:০৫ পিএম, ১৬ জুন ২০১৭ শুক্রবার | আপডেট: ০৬:২১ পিএম, ১৬ জুন ২০১৭ শুক্রবার

বিপর্যয় নেমেছে চট্টগ্রাম ওয়াসার পানি সরবরাহ ব্যবস্থায়

বিপর্যয় নেমেছে চট্টগ্রাম ওয়াসার পানি সরবরাহ ব্যবস্থায়

দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া ও পাহাড় ধসের কারণে বিপর্যয় নেমেছে চট্টগ্রাম ওয়াসার পানি সরবরাহ ব্যবস্থায়। নদীতে কাদার পরিমাণ বেড়ে যাওয়ায় পানি সরবরাহ ক্ষমতা ২১ কোটি থেকে নেমে গেছে ১৩ কোটিতে। এতে নগরীর বিভিন্ন স্থানে দেখা দিয়েছে পানির তীব্র সংকট। বর্ষা মৌসুমে বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকলে এ’ সংকট আরো বাড়ার আশংকা করছেন ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক। 

চট্টগ্রামে পানির দৈনিক চাহিদা ৫০ কোটি লিটার। যদিও মোহরা পানি শোধনাগার, শেখ হাসিনা পানি শোধনাগার এবং গভীর নলকূপ মিলে ওয়াসা থেকে সর্বসাকুল্যে সরবরাহ করা হয় ৩২ কোটি লিটার পানি।
তবে, সম্প্রতি চট্টগ্রাম জেলার বিভিন্ন স্থানে অতিবৃষ্টি ও পাহাড় ধসের কারণে মারাত্মক বিপর্যয় নেমে এসেছে ওয়াসার পানি সরবরাহ ব্যবস্থায়। টানা বৃষ্টিতে ধসে পড়া পাহাড়ের মাটি নদীতে মিশে বেড়ে গেছে পানিতে কাদার পরিমান। এ’ অবস্থায় মোহরা পানি শোধনাগারের ৯ কোটি উৎপাদন ক্ষমতা নেমে গেছে ৮ কোটিতে। অন্যদিকে, রাঙ্গুনিয়ায় শেখ হাসিনা পানি শোধনাগারের উৎপাদন ক্ষমতা ১৪ কোটি থেকে নেমে গেছে ৫ কোটিতে।

এর ফলে নগরীর হালিশহর, লালখান বাজার, সুগন্ধা, বাকলিয়া, পাথরঘাটাসহ বিভিন্ন এলাকায় বিঘিœত হচ্ছে পানি সরবরাহ। জনগণের দুর্ভোগ কমাতে ক্যামিকেলের মাধ্যমে পানি পরিশোধনসহ রেশনিং প্রক্রিয়ায় পানি সরবরাহ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।
তবে, ভারি বর্ষণ হলে চলমান সংকট থেকে শিগগির মুক্তি নেই বলে জানিয়েছে ওয়াসা কর্তৃপক্ষ।
পরিস্থিতি মোকাবেলায় নগরবাসীকে পরিমিত পানি ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছেন এই কর্মকর্তা।

 

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি