ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ জুন, ২০১৮ ১২:১১:০৮

Ekushey Television Ltd.

বিশ্বকাপ থেকে আর্জেন্টিনাকে বাদ দিতে ইসরায়েলের তোড়জোর 

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১০:২৯ এএম, ৮ জুন ২০১৮ শুক্রবার

নির্ধারিত প্রীতি ম্যাচ বাতিল করায় আর্জেন্টিনাকেই বিশ্বকাপের আসর থেকে বাদ দিতে তোড়জোর শুরু করেছে ইসরায়েল। এর জন্য আনুষ্ঠানিক অভিযোগ জানাতে সুইজারল্যান্ডের জুরিয়ে ফিফার কার্যালয়ে যাবেন ইজরায়েলের একটি প্রতিনিধি দল।

আগামীকাল শনিবার ইজরায়েলের জেরুজালেমের একটি স্টেডিয়ামে দুই দেশের মধ্যে একটি প্রীতি ফুটবল ম্যাচের আয়োজন চূড়ান্ত ছিল। কিন্তু নিরাপত্তার অজুহাতে সেই ম্যাচ বাতিল করে আর্জেন্টিনা ফুটবল ফেডারেশন। বার্সেলোনায় মেসিদের অনুশীলন ক্যাম্পের বাইরে সমর্থকদের বিক্ষোভের মুখে পড়ে আর্জেন্টাইন ফুটবলাররা। সঙ্গে সঙ্গে আর্জেন্টিনার ফুটবল ফেডারেশন প্রীতি ম্যাচটি বাতিল করে। এমনকি আর্জেন্টিনার প্রেসিডেন্টের সঙ্গে আলাপ করেও ম্যাচ মাঠে গড়াতে পারেননি ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনজামিন নেতানিয়াহু। আর এতেই বেশ চটেছে ইজরায়েলীরা। ইতোমধ্যে আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ফিফায় অভিযোগ দায়ের করেছে ইজরায়েলের।

আর্জেন্টিনার টিওয়াইসি পত্রিকার মতে, আর্থিক নানা দিক দিয়ে ক্ষতির সম্মুখীন হয়ে আর্জেন্টিনাকে বিশ্বকাপ থেকেই বাদ দেওয়ার চেষ্টা করছে ইসরায়েল। মূলত ম্যাচ আয়োজনের সাথে জড়িত প্রতিষ্ঠানটি আর্জেন্টিনার বিরুদ্ধে এই কলকাঠি নাড়ছে।

ইসরায়েল-আর্জেন্টিনার এই ম্যাচের টিকিট থেকে শুরু করে আনা নেওয়ার সব দায়িত্ব ছিল কমটেক কোম্পানির। ফিফার কাছে মূলত তারাই যাচ্ছে আর্জেন্টিনাকে বিশ্বকাপ থেকে বাদ দেওয়ার জন্য। স্পন্সর, টেলিভিশন এমনকি হাজার হাজার মানুষ টিকিট কিনেছিল এই ম্যাচের। কমটেক কোম্পানির পক্ষ থেকে জানানো হয়, তারা সুইজারল্যান্ডের জুরিখে যাচ্ছেন আর্জেন্টিনার এই অখেলোয়াড়সুলভ আচরণের বিচার চাওয়ার জন্য।

প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার নিরাপত্তার কারণে ইসরায়েলের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচ বাতিল করে আর্জেন্টিনা। আর এতে ফিলিস্তিনির সাধারণ মানুষদের প্রশংসা এবং বাহবা পেতে থাকেন মেসিরা।

 এসএইচএস/এসএইচ/

ফটো গ্যালারি



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি