ঢাকা, শনিবার, ২১ এপ্রিল, ২০১৮ ২১:২৮:১৭

Ekushey Television Ltd.

বৈশাখীর ছোঁয়া ইলিশের বাজারে   

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১১:১৯ পিএম, ৮ এপ্রিল ২০১৮ রবিবার | আপডেট: ১০:০০ এএম, ১১ এপ্রিল ২০১৮ বুধবার

ইলিশের সঙ্গে পান্তা না হলে বাঙালিয়ানাই যেন বৃথা! পহেলা বৈশাখ এলেই এ চিত্র ফুটে উঠে বাঙালিদের মাঝে। প্রতিবারের মতো এবারও বাঙালির দুয়ারে কড়া নাড়ছে প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখ। আর মাত্র পাঁচদিন পরেই বাঙালির ঐতিহ্যময় এ উৎসব। তাই উৎসবকে সামনে রেখে ইলিশের পালে লেগেছে হাওয়া। বাজারে অন্য মাছের তুলনায় ইলিশের বিক্রি বেশি। ক্রেতারা বৈশাখ উপলক্ষ্যে দেখেশুনে সাধ্যমত ইলিশ ক্রয় করছেন। বেচা-বিক্রি বেশি হওয়ায় বাজারে বিক্রেতাদের মুখেও ফুটেছে হাঁসি।  

আজ রোববার রাজধানীর কয়েকটি বাজার ঘুরে দেখা গেছে, বাজারগুলোতে ইলিশের পসরা সাজিয়ে বসেছেন দোকানিরা। ক্রেতাদের কাছে টানতে বিক্রেতারা ডাক দিচ্ছেন ‘‘ইলিশ খাও রূপালী-পালন করো বৈশাখী’। মামা লইয়্যা জান, লইয়্যা যান। দাম কমায় দিমুনে। সামনে আরো দাম বাড়বে। এখন নিয়ে ফ্রিজে রেখে দিয়েন।’’

ভোরে কারওয়ান বাজারে বিজিএমইএ ভবনের উল্টো পাশের রাস্তায় মাছ বাজারে গিয়ে দেখা যায়, ইলিশের উপস্থিতি ও বিক্রি দুটোই বেড়েছে। ৮০০ থেকে ৯০০ গ্রাম ওজনের প্রতিটি ইলিশের দাম চাওয়া হচ্ছে এক হাজার ৬০০ থেকে দুই হাজার টাকা। এই ওজনের ইলিশ কিছুদিন আগেও এক হাজার থেকে এক হাজার ৪০০ টাকায় বিক্রি করতে দেখা গেছে।

৯শ’ থেকে ১ কেজি  ওজনের প্রতি কেজি ইলিশ দুই হাজার থেকে দুই হাজার ২০০ টাকা চাওয়া হচ্ছে। ৮০০ গ্রামের ইলিশ প্রতিকেজি এক হাজার ৬০০ টাকা এবং ৭০০ গ্রামের প্রতি কেজি এক হাজার ৪০০ টাকায় বিক্রি করতে দেখা গেছে। এক কেজি ১০০ গ্রাম থেকে এক কেজি ২০০ গ্রাম ওজনের বড় ইলিশও কিছু বাজারে দেখা গেছে। দাম চাইছে প্রতি কেজি দুই হাজার ৮০০ থেকে তিন হাজার টাকা। আর দুই কেজি বা তার কাছাকাছি ওজনের ইলিশের প্রতি কেজির দাম চাওয়া হচ্ছে ছয় হাজার ৫০০ টাকা।   

জানা গেছে, রাজধানীতে ইলিশ মূলত তিন ধাপ পেরিয়ে ক্রেতার হাতে পৌঁছে। প্রথম দফায় মালিকদের কাছ থেকে আড়তে আসে। তারপর আড়ত থেকে পাইকাররা মাছ কিনে নেয়। সেখান থেকে পরবর্তীতে খুচরা বাজারে  মাছ বিক্রি হয়ে থাকে। এত হাতবদলের কারণে দেখা যায় ইলিশের দাম ২০০ থেকে ৩০০ টাকা বাড়তি যোগ হয়ে যায়।   

কারওয়ান বাজার কিচেন মার্কেটের ভেতর খুচরা ব্যবসায়ী শুকুমার বলেন, মাছের বিক্রি এখনও প্রত্যাশা অনুযায়ী  বাড়েনি। তবে আগামী কয়েকদিনের মধ্যে এ দাম আরো বেড়ে যাবে। এখন আমরা আড়তের আগের মালই কিনতে পারছি। তাছাড়া এখন তো সেই হারে মাছ ধরা পড়ছে না। তাই আড়তদাররা আগের মাছ দিয়ে বাজার ধরার চেষ্টা করছে। আমরাও সেই আগের মাছ বিক্রি করছি। 

তিনি জানান, তার দোকানে বরিশাল ও চাঁদপুর থেকে আনা ইলিশ বিক্রি করা হচ্ছে। তিনি ৩শ’ গ্রাম ওজনের প্রতি পিচ ইলিশ বিক্রি করছেন ৪০০টাকা। ৫শ’ গ্রাম ওজনের প্রতি পিচ বিক্রি করছেন ৬শ’ টাকা।   

তবে অন্যবারের মতো বাজারে এবার বার্মিজ ইলিশ নেই বলে জানান খুচরা ব্যবসায়ীরা। ব্যবসায়ীদের দাবি, বাজারে এখন বার্মিজ ইলিশ ঢুকতে পারে না। জরিমানা ভয়ে কেউ সাহস করে বার্মিজ ইলিশ আনে না। 

বাজারে ইলিশ কিনতে আসা বেসরকারি চাকরিজীবি সোহান বলেন, বাজারে ইলিশ কিনতে আসলাম। ৮শ’ টাকা দিয়ে একটি কিনেছি। বিক্রেতা ওজন বলছে ৭শ’ গ্রাম। জানি না আসলে কতটুকু হবে। তবে দাম নিয়ে কোন ক্ষোভ নেই। মাছটা যেন বার্মিজ না হয়ে দেশী ইলিশ হয়।

আরকে//এসি  

 

 



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি