ঢাকা, শুক্রবার, ২৮ জুলাই, ২০১৭ ৮:৩৭:২১

ব্রিটেনে কারি শিল্পের প্রসারের দিকপাল এনাম আলী

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০১:৪৮ পিএম, ২৩ জুন ২০১৭ শুক্রবার | আপডেট: ০৪:২৩ পিএম, ২৪ জুন ২০১৭ শনিবার

ব্রিটেনে কারি শিল্পের প্রসারের দিকপাল এনাম আলী। তার লি রাজ রেস্টুরেন্ট প্রবাসী বাংলাদেশীদের কাছে গর্বের প্রতিষ্ঠান। শুরুতে বৃটেনের এক রেস্তোরাঁয় সাধারণ শ্রমিকের কাজ করলেও পরবর্তীতে নিজেই হন মালিক। রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের পক্ষ থেকে পান ব্রিটিশদের সর্বোচ্চ রাজকীয় সম্মাননা মোস্ট এক্সিলেন্ট অর্ডার অব দ্য ব্রিটিশ এম্পায়ার খেতাব। চালু করেন কারি এ্যাওয়ার্ড। 

১৯৭৫ সাল। লেখাপড়ার জন্য সিলেট থেকে ব্রিটেনে পাড়ি জমান তরুণ বাঙ্গালী এনাম আলী। হাতখরচের জন্য কাজ নিলেন এক রেস্তোরাঁয়। সেখানে সপ্তাহে দুই দিন কাজ করতে করতে ভাবলেন নিজেই প্রতিষ্ঠা করবেন রেস্টুরেন্ট ।

১৯৮৯ সালের নভেম্বরে ব্রিটেনের ইপসম এলাকায় প্রতিষ্ঠা করেন লি-রাজ রেস্তোরাঁ। তিনি জানান শুরুর দিকে বিদেশীরা তেমন আসতো না। তারা বিলেতি রেস্তোরাঁগুলোতে খেতো। পরে ধীরে ধীরে তারা এদেশীয় খাবার খেতে শুরু করে। সম্প্রতি গার্ডিয়ানের এক জরিপে ব্রিটেনের সেরা ১০ রেস্তোরাঁর একটি নির্বাচিত হয়েছে লি-রাজ।

এনাম আলী জানান বৃটেনে বাংলাদেশী রেস্তোরা হলেও সবাই সেগুলোকে ইন্ডিয়ান বলে জানতো। পরে তিনি ইন্ডিয়ান রেস্টুরেন্টের নাম পালটে শুরু করেন বাংলাদেশী নাম দেয়া। এ শিল্পকে এগিয়ে নিতে এখন প্রয়োজন দক্ষ শেফের।

প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষ শেফ তৈরী করে, বাংলাদেশও সুযোগ কাজে লাগাতে পারেন বলে মনে করেন তিনি।

১৯৬০ সালের ১লা জানুয়ারি সিলেটে জন্ম নেয়া এনাম আলী ব্রিটেনে আকাশচুম্বী খ্যাতি পেলেও ভোলেননি সবুজ শ্যামল মাতৃভূমির কথা। সিলেটে গড়ে তুলেছেন মহিলা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল।

 

 

 

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি