ঢাকা, সোমবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ৬:৩৯:১১

অনশন অব্যাহত

মামলা প্রত্যাহার সম্ভব নয়: উপাচার্য

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১০:০৬ পিএম, ১৬ জুলাই ২০১৭ রবিবার | আপডেট: ১০:১৪ পিএম, ১৬ জুলাই ২০১৭ রবিবার

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে প্রশাসনের করা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে শিক্ষার্থীদের অনশন দ্বিতীয় দিনেও অব্যাহত রয়েছে। উপাচার্যের বাসভবন ভাঙচুর ও শিক্ষক লাঞ্ছনার অভিযোগে দায়ের করা এ মামলা প্রত্যাহার সম্ভব নয় জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম। তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকে সভায় মামলা প্রত্যাহার না করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছে।

মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে গত শনিবার দুপুর থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারের পাদদেশে আমরণ অনশন শুরু করেন শিক্ষার্থীরা। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে করণীয় নির্ধারণ করতে রোববার দুপুরে জরুরি সিন্ডিকেট সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভা শেষে উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম গণমাধ্যমকে বলেন, ‘মামলার বাদী রাষ্ট্র। এটি আমাদের পক্ষে প্রত্যাহার করা সম্ভব নয়।’

উপাচার্য আরও বলেন, সিন্ডিকেট সভা থেকে অনশন প্রত্যাহার করার জন্য শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে। এ বিষয় নিয়ে যারা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অশোভন কথাবার্তা লিখছেন, তাঁদেরও সতর্ক করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার পরিবেশ নষ্ট করলে তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

সিন্ডিকেটের সিদ্ধান্তের প্রতিক্রিয়ায় ‘প্রতিবাদের নাম জাহাঙ্গীরনগর’ ব্যানারের অন্যতম সংগঠক ও ছাত্র ইউনিয়নের বিশ্ববিদ্যালয় সংসদের সাধারণ সম্পাদক নজির আমিন জয় বলেন, ‘এ সিদ্ধান্তের মধ্য দিয়ে প্রশাসন তার ক্রোধকেই জিইয়ে রাখছে। প্রশাসনের এ সিদ্ধান্তে পর আমাদের অনশন অব্যাহত থাকবে।’

প্রসঙ্গত, গত ২৬ মে ভোরে ক্যাম্পাস-সংলগ্ন সিঅ্যান্ডবি এলাকায় ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে সড়ক দুর্ঘটনায় নাজমুল হাসান ও মেহেদি হাসান নামে বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থী নিহত হন। এই দুই শিক্ষার্থীর পরিবারকে ক্ষতিপূরণ, চালকের শাস্তির দাবিতে ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ করেন শিক্ষার্থীরা। এসময় পুলিশ শিক্ষার্থীদের ওপর রাবার বুলেট ও কাঁদানে গ্যাসের শেল ছোড়ে। এতে ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা উপাচার্যের বাসভবন ভাঙচুর করে। এ ঘটনায় ওই দিন রাতেই ৩১ জনসহ অজ্ঞাতনামা ৪০-৫০ জনের বিরুদ্ধে আশুলিয়া থানায় মামলা করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

আরকে/টিকে/

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি