ঢাকা, শনিবার, ১৮ আগস্ট, ২০১৮ ৭:২৪:০৯

Ekushey Television Ltd.

যে কারণে রিয়ালে খেলবেন না নেইমার   

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৭:৩৯ পিএম, ১৫ এপ্রিল ২০১৮ রবিবার | আপডেট: ০৯:৫৫ পিএম, ১৫ এপ্রিল ২০১৮ রবিবার

নেইমারকে পারলে এখনই কয়েকটি স্প্যানিশ পত্রিকা রিয়াল মাদ্রিদের জার্সি পরিয়ে দেয়। কেউ কেউ বলছেন নেইমার আগামী মৌসুমে চলে আসছেন এই স্প্যানিশ ক্লাবে। কারো মতে সর্বোচ্চ দুই বছর নেইমারকে দেখা যাবে পিএসজিতে। কিন্তু বাস্তবতাটা বললেন পিনি জাহাভি। ফুটবলের হাতে গোনা সুপার এজেন্টদের একজন জাহাভি বলছেন, যে কারণে নেইমার বার্সেলোনায় নেই, একই কারণে তাকে রিয়ালেও দেখা যাওয়ার সম্ভাবনা নেই।

নেইমার মেসির ছায়া থেকে বের হয়ে রোনালদোর ছায়ায় ঢাকা পড়তে চাইবেন না। জাহাভি নেইমারকে বার্সা থেকে পিএসজিতে নিয়ে যাওয়ার বহুল আলোচিত বদলির অন্যতম কারিগর। তার মতে, মেসি-রোনালদো-নেইমাররা কখনো একই দলে খেলতে পারবেন না। ৩৩ বছর বয়সী রোনালদোর শেষটা যারা দেখে ফেলেছিলেন, তাদের ভুল প্রমাণ করে ক্যারিয়ারের আরও একটি সেরা মৌসুম পার করছেন এই উইঙ্গার। শিগগিরই তার আর রিয়াল মাদ্রিদের সম্পর্ক ছিন্ন হওয়ার সম্ভাবনা নেই। আর রোনালদো থাকা অবস্থায় নেইমার কখনোই রিয়ালে নাম লেখাবেন না বলে মনে করেন জাহাভি।   

এই ফুটবল এজেন্ট বলেছেন, ‘নেইমারকে বার্সেলোনা ছাড়তেই হতো। এই মুহূর্তে বিশ্বে তিনটি মাত্র সুপারস্টার আছে। মেসি, ক্রিস্টিয়ানো আর নেইমার। এই তিনজন একই ক্লাবে খেলতে পারবেন না। বার্সায় নেইমার সব সময়ই ২ নম্বর ছিল। ফ্রি কিক নেওয়া থেকে শুরু করে, পেনাল্টিসহ সবকিছুতেই সে ছিল দুইয়ে থাকা খেলোয়াড়। ও স্পেনে এসেছিল কম বয়সে। তারপর বড় হয়েছে। এখন ওর বয়স ২৬। সেরা পর্যায়ে আট কি নয় বছর দিতে পারবে। ওর তো নিজের মতো করে খেলার সময় এসে গেছে।’

নেইমারের রিয়াল মাদ্রিদে না যাওয়ার আরও একটি কারণ রয়েছে। সেটা হলো রোনালদো আর নেইমার দুজনই প্রায় একই ধরনের ফুটবলার। রোনালদো যদিও উইং প্রায় ছেড়ে দিয়ে পুরোদস্তুর স্ট্রাইকার হয়ে উঠছেন। তবু বাঁ প্রান্ত এখন তারই ডেরা। সেখানে নেইমারের জায়গা নেই। আর সেখানে নেইমারকে জায়গা করে দিলেও নেইমার নিশ্চয়ই বসে বসে রোনালদোকে গোল বানিয়ে দেবেন না। রোনালদো-নেইমার-মেসিরা সব সময় আলোর কেন্দ্রে থাকতে চান। অন্যের উজ্জ্বলতায় ম্লান হতে ভালোবাসেন না। আর তাই রোনালদো থাকা অবস্থায় নেইমারকে নিয়ে রিয়াল সমর্থকদের আশা না করাই ভালো।

এসি

 

ফটো গ্যালারি



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি