ঢাকা, শনিবার, ১৯ আগস্ট, ২০১৭ ১১:১৯:০০

যোগাযোগের প্রধান মাধ্যম হবে রেল

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১০:২৯ এএম, ১৯ জুন ২০১৭ সোমবার | আপডেট: ১২:১৩ পিএম, ১৯ জুন ২০১৭ সোমবার

রেলকে যোগাযোগের প্রধান মাধ্যম হিসেবে গড়ে তুলতে বিভিন্ন প্রকল্প হাতে নিয়েছে সরকার। পাশাপাশি লোকসান এড়াতে রেলওয়ের বিশাল জমিতে পর্যটন, আবাসন সহ বিভিন্ন ব্যবসায়িক প্রকল্প নেয়া হয়েছে। আর সরকারের দিকে তাকিয়ে না থেকে অব্যবহৃত নিজস্ব সম্পদ ব্যবহার করে রেলকে লাভজনক করতে বিভিন্ন প্রকল্প নেয়ার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।
আরামদায়ক আর অপেক্ষাকৃত নিরাপদ হওয়ায় গোটা বিশ্বেই যাতায়াতের ক্ষেত্রে জনপ্রিয় রেলওয়ে। তবে, দেশে রেলখাত দীর্ঘদিন ধরেই অবহেলিত। অব্যবস্থাপনা আর লোকসানের কারণে বিভিন্ন সময়ে কমেছে রেলপথের পরিমান।
আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকার ২০০৯ সালে ক্ষমতায় আসার পর রেলের উন্নয়নে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে। রেলে বগি সংযোজনের পাশাপাশি তৈরি করা হচ্ছে নতুন নতুন লাইন। ইতিবাচক পরিবর্তন এসেছে ব্যবস্থাপনায়ও। আর এ’কারণে দিন দিন যাত্রীদের আগ্রহ বাড়ছে রেলের প্রতি।
সক্ষমতা বাড়াতে বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে রেলওয়ে। একুশে টেলিভিশনকে দেয়া সাক্ষাতকারে এ’সব পরিকল্পনার কথা জানান রেলওয়ের মহাপরিচালক।
তবে, গণমানুষের চাহিদা পূরণে রেলের আরো ভূমিকা রাখা প্রয়োজন বলে মনে করেন এই যোগাযোগ বিশ্লেষক।
গতি ও বেশি যাত্রী নেয়ার সুবিধার জন্য ব্রডগেজ লাইন বাড়ানোর তাগিদ দেন তিনি। আর রেলওয়ের মহাপরিচালকও জানান ক্রমশ রেলপথ বাড়ানোর কথা।
ক্রমান্বয়ে সারাদেশের রেললাইন ব্রডগেজের আওতায় নিয়ে আসা হবে বলেও জানান রেলওয়ের মহাপরিচালক।

 

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি