ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ অক্টোবর, ২০১৭ ২:৩৮:৩৮

রোহিঙ্গাদের চিরতরে বিদায় করাই লক্ষ্য মিয়ানমার সেনাদের : জাতিসংঘ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০২:০৮ পিএম, ১২ অক্টোবর ২০১৭ বৃহস্পতিবার | আপডেট: ০৫:২০ পিএম, ১২ অক্টোবর ২০১৭ বৃহস্পতিবার

মিয়ানমার থেকে রোহিঙ্গাদের চিরতরে বিদায় করাই মিয়ানমার সেনাদের  লক্ষ বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ। জাতিসংঘের মানবাধিকার দফতর মনে করে, রাখাইন থেকে রোহিঙ্গাদের তাড়ানোর পাশাপাশি তাদের ঘর, শস্য ও গ্রাম জ্বালিয়ে দেওয়া হয়েছে, যাতে তারা আর সেখানে ফিরে যেতে না পারে।

জাতিসংঘের মানবাধিকার দফতরের এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের প্রধান জ্যোতি সাংঘেরা বুধবার রোহিঙ্গাদের ওপর সহিংসতা বন্ধের জন্য অং সান সু চির প্রতি আহবানও জানিয়েছেন। রোহিঙ্গারা বাংলাদেশ থেকে আবার মিয়ানমারে ফিরে গেলে তারা বন্দিদশায় পড়তে পারেন বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেন তিনি।

জেনেভায় এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘গ্রামগুলো যদি পুরোপুরি ধ্বংস করা হয় এবং তাদের জীবিকার সম্ভাবনা নষ্ট করা হয়, তাহলে আমাদের ভয় হয় যে, তাদের বন্দি করা বা ক্যাম্পে আটকানো হতে পারে।’

মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা ৬৫ জন রোহিঙ্গার সাক্ষাৎকারের ভিত্তিতে তৈরি করা এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ২৫ অগাস্ট মিয়ানমারের পুলিশ পোস্টে বিদ্রোহীদের হামলার আগে থেকেই সেখানে ‘তাড়ানোর অভিযান’ শুরু হয় এবং তাতে হত্যা, নির্যাতন ও শিশুদের ধর্ষণের মতো ঘটনা ঘটানো হয়। এটা শুধু তাদের তাড়ানোর জন্য নয়, পালিয়ে যাওয়া রোহিঙ্গারা যাতে তাদের বাড়িতে ফিরতে না পারে সেজন্য এটা করা হয়।

জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাই কমিশনার যাইদ বিন রাআদ আল-হুসেইন বলেন, মিয়ানমার সেনাবাহিনী যে কাজ করেছে, তা ফেরার সম্ভাবনা না রেখে বিপুল সংখ্যক মানুষকে জোর করে স্থানান্তরের কৌশল বলেই প্রতীয়মান হচ্ছে।

এদিকে আন্তর্জাতিক মহলের নিন্দা ও চাপ অব্যাহত থাকলেও রোহিঙ্গাদের ওপর সহিংসতা থামছেনা।

 

সূত্র: রয়টার্স

এমআর/এআর


 
 

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি