ঢাকা, বুধবার, ২৩ মে, ২০১৮ ১৮:৪৮:০৪

Ekushey Television Ltd.
(ভিডিও)

‘রোহিঙ্গা ইস্যুতে ওআইসি নিশ্চুপ থাকতে পারে না’

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০১:১২ পিএম, ৫ মে ২০১৮ শনিবার | আপডেট: ০১:৩১ পিএম, ৫ মে ২০১৮ শনিবার

রোহিঙ্গা সঙ্কট সমাধানে মিয়ানমার সরকারের উপর চাপ অব্যাহত রাখতে মুসলিম দেশগুলোর প্রতি আহবান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ শনিবার ঢাকায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ইসলামী সম্মেলন সংস্থা-ওআইসি’র পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের ৪৫তম সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এই আহ্বান জানান।

সম্মেলনে রোহিঙ্গা সংকটের ওপর গুরুত্ব দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সম্পূর্ণ মানবিক কারণেই আমরা ১১ লাখ রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিয়েছি। আমাদের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ (স) মানবতার পাশে দাঁড়াতে নির্দেশ দিয়েছেন। কাজেই মিয়ানমারের রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী যখন জাতিগত নির্মূলের শিকার তখন ওআইসি নিশ্চুপ থাকতে পারে না।

শেখ হাসিনা বলেন, নিপীড়িত মানবতার জন্য আমরা আমাদের চিত্ত ও সীমান্ত দুই-ই উন্মুক্ত করে দিয়েছি। মিয়ানমারের প্রায় ১১ লাখ রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠিকে সম্পূর্ণ মানবিক কারণে আশ্রয় দিয়েছি। আমি ব্যক্তিগতভাবে তাদের ব্যথায় ব্যথিত।

১৯৭৫ সালে ১৫অগাস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যার পর নিজের উদ্বাস্তু হয়ে বিদেশের মাটিতে কাটানোর অভিজ্ঞতাও ওআইসির পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সামনে তুলে ধরেন শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা যুদ্ধ চাই না, শান্তি চাই।’ সমঝোতা ও শান্তির বাণী বিশ্বময় ছড়িয়ে দেওয়ার আহ্বান জানান তিনি। ‘ইসলামী সম্মেলন সংস্থাকে অবশ্যই মিয়ানমার সরকারের উপর আন্তর্জাতিক চাপ অব্যাহত রাখতে হবে যাতে মিয়ানমার বাংলাদেশের সঙ্গে স্বাক্ষরিত সমঝোতা অনুযায়ী তাদের অধিবাসী রোহিঙ্গাদের দেশে নিরাপদে ফেরত নিয়ে যায়’-যোগ করেন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন, রোহিঙ্গাদের পাশাপাশি ফিলিস্তিনের জনগণে সমস্যা দ্রুত সমাধানে ওআইসি কার্যকর পদক্ষেপ নেবে বলেও আমি আশা করছি। আমরা পারস্পরিক সমঝোতা ও সহযোগিতা চাই্। যুদ্ধ চাই না। সমঝোতা ও শান্তির বাণী বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দিতে হবে।

৫৬টি ওআইসি সদস্য দেশের মধ্যে ৫২টি দেশের ৬০০ প্রতিনিধি এতে অংশ নিয়েছেন। এছাড়া ৪০ জন মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রী উপস্থিত আছেন। এবারের সম্মেলনের প্রতিপাদ্য হচ্ছে ‘টেকসই শান্তি, সংহতি ও উন্নয়নে ইসলামিক মূল্যবোধ’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলীর সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন ওআইসির মহাসচিব ইউসুফ এ ওথাইমিন, আইভরি কোস্টের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মারসেল আমোন তানোহ, কানাডার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ক্রিস্টিয়া ফ্রিল্যান্ড। এছাড়া তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রীসহ ওআইসির বিভিন্ন আঞ্চলিক গ্রুপের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরাও উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন।

প্রসঙ্গত, গত বছরের আগস্টে মিয়ানমারের রাখাইনে দেশটির সেনাবাহিনীর নিপীড়নের মুখে নাফ নদী পেরিয়ে প্রতিবেশি বাংলাদেশে এসে আশ্রয় নেয় লাখ লাখ রোহিঙ্গা।

/ এআর /

 



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি