ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ অক্টোবর, ২০১৭ ০:৫৬:৫২

রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান করব : প্রধানমন্ত্রী

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০১:৪৮ পিএম, ৭ অক্টোবর ২০১৭ শনিবার

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশ রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়ানোয় আন্তর্জাতিক অঙ্গনও তাদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে। এ সংকট নিরসনে এখন বিশ্বব্যাপী নানা আলোচনা চলছে। মিয়ানমার আলোচনা শুরু করেছে। আন্তর্জাতিক চাপ ও আলোচনার মাধ্যমে আমরা ধীরে ধীরে এর সমাধান করতে পারব। তিনি বলেন, বাংলাদেশের পদক্ষেপের কারণেই মিয়ানমারে রোহিঙ্গা সঙ্কট এখন বিশ্ববাসীর মনোযোগের কেন্দ্র।


জাতিসংঘ সফর শেষে দেশে ফেরার পর আজ সকালে ঢাকার শাহজালাল বিমানবন্দরে এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।


শেখ হাসিনা বলেন, বিপন্ন মানুষকে আশ্রয় দেওয়াই আমাদের জাতীয় কর্তব্য। এটাই আমাদের রাজনীতি। আমরা ১৬ কোটি মানুষ। আরো ৫-৭ লাখ বেশি লোককেও আমরা খাওয়াতে পারব। এটা আত্মবিশ্বাসের ব্যাপার। এক বেলা আমরা ভাত খাব, আরেক বেলা তাদের ভাগ দেব।


তিনি বলেন, কে কী দেবে এই আশা নিয়ে আমরা বসে থাকিনি। দ্রুত সিদ্ধান্ত নিয়ে বিপন্ন মানুষের পাশে আমরা দাঁড়িয়েছি। তাদের থাকার স্বাস্থ্যসম্মত ব্যবস্থা করব। এখন আন্তর্জাতিক চাপে পড়ে মিয়ানমার রোহিঙ্গা বিষয়ে আলোচনা শুরু করেছে। আমি মিয়ানমারকে আলোচনা শুরু করার জন্য ধন্যবাদ জানাই। আশা করি, আলোচনার মাধ্যমে রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান করব’, যোগ করেন প্রধানমন্ত্রী।


৫ লাখ রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিয়ে মানবিকতার নির্দশন প্রদর্শন করার পাশাপাশি জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে বক্তৃতায় এই সঙ্কটের প্রতি বিশ্ববাসীর মনোযোগ আকর্ষণ করায় শেখ হাসিনাকে এই সংবর্ধনা দেওয়া হয়।


সেনাবাহিনীর নির্যাতন-হত্যা-ধর্ষণের মুখে রাখাইন রাজ্য থেকে বলপূর্বক বাস্তুচ্যুত মিয়ানমারের রোহিঙ্গা নাগরিকদের আশ্রয় ও সহায়তা মানবিক করণেই অব্যাহত রাখা হবে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।


যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যে তিন সপ্তাহের সফর শেষে আজ শনিবার সকাল ৯টা ২৫ মিনিটে প্রধানমন্ত্রী ঢাকায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেন। বিমানবন্দরে সরকারের উচ্চপদস্ত মন্ত্রী, আওয়ামী লীগের নেতা এবং বিশিষ্ট ব্যক্তিরা প্রধানমন্ত্রীকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। সেখানেই এক সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

//এআর

ফটো গ্যালারি


 
 

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি