ঢাকা, শনিবার, ২১ জুলাই, ২০১৮ ২:০৮:০৪

Ekushey Television Ltd.

শুভেচ্ছা জানালেই শামি ভাবত অভিশাপ দিলাম: হাসিন

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১২:১৪ পিএম, ১৭ এপ্রিল ২০১৮ মঙ্গলবার

দূরত্ব মেরে কেটে পাঁচশো মিটারের। ইডেনে ম্যাচ খেললেন মুহম্মদ শামি। আর ব্যাঙ্কশাল কোর্ট সংলগ্ন ১৪ নম্বর হেয়ার স্ট্রিটে আইনজীবী জাকির হুসেনের চেম্বারে বসে বোমা ফাটালেন হাসিন জাহান।

সোমবার সন্ধ্যা তখন সাড়ে ছটায়। ইডেনে কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিরুদ্ধে ম্যাচ শুরু হওয়ার ঘণ্টা দেড়েক আগে গা ঘামাতে নেমে পড়েছেন শামি। ঢিল-ছোড়া দূরত্বে বসে ভারতীয় দলের পেসারের স্ত্রী হাসিন সাংবাদিকদের বললেন, শামির সঙ্গে কথা বলার ইচ্ছেই নেই আর। মেয়ে আইরা বা আমার জন্য কোনও অনুভূতি নেই ওর। পুলিশে অভিযোগ দায়ের করার পর ও যে যোগাযোগ করেছিল, পুরোটাই ছিল পরিকল্পিত। সাজানো। ক্ষুব্ধ হাসিন যোগ করলেন, ওর পথ দুর্ঘটনার পর দিল্লিতে যাওয়ার পর সংবাদমাধ্যমের চাপেই আমাদের সঙ্গে দেখা করেছিল। সেখানেও আমায় উপেক্ষা করেছে। মেয়ের জন্য ওর কোনও চিন্তা নেই।

শামির বিরুদ্ধে হাসিনের এফআইআরের ভিত্তিতে সাত ধারায় মামলা রুজু করেছে কলকাতা পুলিশের তদন্তকারী দল। যার মধ্যে পাঁচটি জামিন অযোগ্য ধারা। পুলিশি তদন্তে আপনি খুশি? হাসিন বলছেন, ‘‘তদন্তের গতিপ্রকৃতি নিয়ে মনে কোনও প্রশ্ন তৈরি হলে সরাসরি তদন্তকারীদের সঙ্গে কথা বলছি। আলাদা করে বলতে চাই গোয়েন্দাপ্রধান প্রবীণ ত্রিপাঠীর কথা। খুব সাহায্য করছেন। সহসপুরে শামির গ্রামের বাড়িতে গিয়ে তদন্ত করে এসেছে পুলিশের দল। ১৪ এপ্রিল শামির দাদাকে ডাকা হয়েছিল। আসেনি। ১৮ এপ্রিল ফের শুনানি। দেখি সেদিন কী হয়।’’

হাসিনের বিস্ফোরক অভিযোগের পর প্রথমবার কলকাতায় এসেছেন শামি। রোববার বিকেলে বিমানবন্দর থেকে সোজা টিম হোটেলে ঢুকে যান। দলের ঐচ্ছিক অনুশীলনেও আসেননি। বিতর্ক-পরবর্তী অধ্যায়ে সোমবারই প্রথম ইডেনে নামলেন। বেশ ফুরফুরে মেজাজেই দেখা গেল তাকে। দিল্লি ডেয়ারডেভিলস শিবির থেকে বলা হল, শামির বিরুদ্ধে হাসিনের অভিযোগের কোনও প্রতিফলন ড্রেসিংরুমে নেই। শামিও ক্রিকেট নিয়ে একাগ্র। কোনও নেতিবাচক প্রভাব নেই শরীরী ভাষাতেও। দলের সবার সমর্থনও ডানহাতি পেসারের সঙ্গে রয়েছে বলেও জানানো হলো।

ইডেন ম্যাচের আগে ক্রিকেটার শামির জন্য কোনও শুভেচ্ছাবার্তা? হাসিন বলছেন, ‘‘না। কারণ, শুভেচ্ছা জানালে ও ভাবত আমি অভিশাপ দিলাম। ও মনে করে আমি ওর ক্ষতিই চাই।’’ সম্পর্কের রক্তক্ষরণ বন্ধ হওয়ার কোনও লক্ষণই নেই।

তথ্যসূত্র: এবেলা।
এসএইচ/

ফটো গ্যালারি



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি