ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৭ ৫:০৬:৫৩

সন্তানকে স্তন্যদানের পূর্বে যা করা ঠিক নয়

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৯:০৭ পিএম, ১৪ আগস্ট ২০১৭ সোমবার | আপডেট: ০৮:৩০ পিএম, ১৮ আগস্ট ২০১৭ শুক্রবার

গর্ভাবস্থায় নারীদের খাদ্যাভাসের ব্যাপারে অনেক সচেতন থাকতে হয়। কারণ, গর্ভাবস্থায় মায়ের দেহ থেকে শিশু প্রয়োজনীয় সব পুষ্টি গ্রহণ করে থাকে। আর জন্মের পর শিশু দরকারি সব পুষ্টি পায় মায়ের দুধ থেকে। তবে গর্ভাবস্থায় মায়েরা অনেক যত্নবান থাকলেও শিশুদের বুকের দুধ খাওয়ানোর সময় প্রয়োজনীয় অনেক বিষয় গুরুত্ব দেন না। কিন্তু বুকের দুধ খাওয়াচ্ছেন এমন প্রত্যেক মায়ের কিছু পরামর্শ মেনে চলা উচিত।

ধূমপান এড়িয়ে চলা

যদি আপনার ধূমপান করার অভ্যাস থাকে, তাহলে গর্ভাবস্থায় এবং স্তন্যদানের পর্যায়ে এটি ত্যাগ করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সাম্প্রতিক গবেষণায় দেখা গেছে সিগারেটের ধোঁয়া শিশুর জন্য খুবই খারাপ। এতে করে শিশু মৃত্যুর ঝুঁকি বাড়তে পারে। আর আপনার সঙ্গীর ধূমপানের অভ্যাস থাকলে কমপক্ষে বাড়িতে ধূমপান করতে না বলুন।

ওষুধ সেবন এড়িয়ে চলা

বুকের দুধ খাওয়ানোর পর্যায়ে ওষুধ সেবন কিছুটা এড়িয়ে চলুন। আপনার যদি কোনো স্বাস্থ্য সমস্যা থাকে যা ঔষধের প্রয়োজন হয়, তবে ডাক্তারের পরামর্শ নিন। আপনার স্তন্যদান সম্পর্কে ডাক্তারকে জানাতে পারেন যাতে আপনার শিশুটির কোনো ক্ষতি না হয় এমন ঔষধ খেতে পারেন।

লোশন বা ক্রিম এড়িয়ে চলা

স্তন্যদানকারী মায়েদের লোশন বা ক্রিম ব্যবহার না করাই ভালো। কারণ এতে করে শিশুটির ক্ষতি হতে পারে। একান্ত প্রয়োজন হলে আপনার ডাক্তার দ্বারা নির্ধারিত পণ্যগুলো ব্যবহার করুন।

বডি স্প্রে ব্যবহার না করা

বুকের দুধ খাওয়ানোর পর্যায়ে বডি স্প্রে জাতীয় পণ্য এড়িয়ে চলুন। কারণ, বডি স্প্রেতে উপস্থিত বিষাক্ত রাসায়নিকগুলো আপনার ত্বকে লেগে থাকতে পারে। যা বুকের দুধ খাওয়ানোর সময় শিশুকে প্রভাবিত করতে পারে।

ক্যাফেইন বা অ্যালার্জি জাতীয় খাবার এড়িয়ে চলুন

স্তন্যদানকালীন অ্যালার্জি জাতীয় খাবার এড়িয়ে চলা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এত করে শিশুটির সমস্যা হতে পারে।

সূত্র : বোল্ড স্কাই


 
 

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি