ঢাকা, সোমবার, ২৮ মে, ২০১৮ ৩:৩২:২৩

Ekushey Television Ltd.

সমঝোতায় নেতৃত্ব নির্বাচনের পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৮:৪৩ পিএম, ১১ মে ২০১৮ শুক্রবার | আপডেট: ১১:০১ পিএম, ১১ মে ২০১৮ শুক্রবার

নিজেদের মধ্যে সমঝোতা করে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব নির্বাচন করতে সংগঠনের নেতাকর্মীদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শুক্রবার রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ছাত্রলীগের সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

এসময় তিনি বলেন, “আগামিকাল সাবজেক্ট কমিটি বসবে। সেখানে কারা কারা নেতৃত্ব চায় ইতোমধ্যে দরখাস্ত করেছে তাদের নিয়ে আলোচনা হবে। আমি চাই সমঝোতার মাধ্যমে তোমরা তোমাদের নেতৃত্ব নিয়ে আস।

“তোমরা নিজেরা বসে… স্যাক্রিফাইস করাটা শিখতে হবে। যে কোনো ব্যাপারে স্যাক্রিফাইস না করলে কিন্তু অর্জন করা যায় না। অর্জন তখনই করতে পারবা, যখন কিছু দিতে পারবা। কাজেই তোমরা সমঝোতার মাধ্যমে কর, সেটাই আমরা চাই।”

এবার ছাত্রলীগের নেতৃত্ব নির্বাচনে বয়সসীমা ২৮ বছর করার কথা বলেন শেখ হাসিনা।

তিনি আরও বলেন, “ছাত্রলীগের নেতৃত্বের বয়স আমরা ২৭ বছর করে দিয়েছিলাম। যদিও দুই বছর মেয়াদি এই কমিটির মেয়াদ নয় মাস বেশি হয়ে গেছে। আমি চাই না, এই নয় মাস বেশি হয়েছে বলে কেউ বঞ্চিত হোক। তাই আমরা এক বছর গ্রেস দিতে পারি। কাজেই ২৮ বছরের মধ্যে যারা তারাই হবে…।”

আওয়ামী লীগের ছাত্র সংগঠন ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্রে নেতৃত্বের বয়স অনূর্ধ্ব ২৭ বছর নির্ধারিত হলেও সেশনজট ও সম্মেলন নির্ধারিত সময়ের পরে হওয়ায় বয়স দুই বছর করে বেশি ধরা হয়েছে গত দুই কাউন্সিলে।  

শেখ হাসিনা বলেন, “কারণ এখন কোনো সেশন জট নাই। ২৩ থেকে ২৪ বছরের মধ্যে মাস্টার্স ডিগ্রি পাস হয়ে যায়। এরপর ডাবল মাস্টার্সও করা যায়, তারপরও যথেষ্ট বয়স থাকে। তোমরা এমন নেতৃত্ব খুঁজে বের করবে যারা সঠিকভাবে নেতৃত্ব দিয়ে সংগঠনকে আরও বেশি  শক্তিশালী করতে পারে, আগামি  দিনে তোমরা যাতে এ দেশকে জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে পার সেদিকে লক্ষ্য রাখবে।”

কেআই/টিকে



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি