ঢাকা, রবিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১৬:১২:১৬

সহকর্মীর বিরুদ্ধে ঢাবি শিক্ষকের ৫৭ ধারায় মামলা

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৮:১৮ এএম, ১৪ জুলাই ২০১৭ শুক্রবার | আপডেট: ০৮:২৪ পিএম, ১৮ জুলাই ২০১৭ মঙ্গলবার

ড. ফাহমিদুল হক (বাঁয়ে) ও ড. আবুল মনসুর আহাম্মদ। ছবি : সংগৃহীত

ড. ফাহমিদুল হক (বাঁয়ে) ও ড. আবুল মনসুর আহাম্মদ। ছবি : সংগৃহীত

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিকতা ও গণযোগাযোগ বিভাগের শিক্ষক ড. ফাহমিদুল হকের বিরুদ্ধে তথ্যপ্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারায় মামলা করেছেন একই বিভাগের শিক্ষক ড. আবুল মনসুর আহাম্মদ।

বুধবার বিকেলে শাহবাগ থানায় মামলাটি করা হলেও বৃহস্পতিবার বিষয়টি জানাজানি হয়।

জানা গেছে, বিভাগের মাস্টার্স পরীক্ষার ফল প্রকাশে দেরি হওয়ায় শিক্ষকদের দুই পক্ষের মধ্যে কয়েক দিন ধরেই অভিযোগ ও পাল্টা অভিযোগ চলছিল। বিষয়টি নিয়ে ফাহমিদুল হক ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন। এতে একটি পক্ষ ক্ষুব্ধ হয়।

মামলার এজাহারে বলা হয়, বিভাগের একটি ব্যাচের মাস্টার্সের ফল নিয়ে ফেসবুকের একটি গ্রুপে আবুল মনসুর আহাম্মদকে উদ্দেশ্য করে পোস্ট করেন ড. ফাহমিদুল হক। এই গ্রুপের সদস্য সংখ্যা ৬৯ জন।

এই পোস্টে বাদীর একাডেমিক বিষয় নিয়ে প্রশ্ন তোলা এবং মানহানির অভিযোগ করা হয়। এ ছাড়া পোস্টের কারণে বিশ্ববিদ্যালয়ের গোপন বিষয় প্রকাশিত হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়। যার ফলে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ম লঙ্ঘিত হয়েছে।

 ড. ফাহমিদুল হক বলেন, ‘আমার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে, যেটি ষড়যন্ত্রমূলক। আমি আইনগত ব্যবস্থা নেব।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমি বিষয়টি জানি না। খোঁজ নিয়ে দেখব।’

এর আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা  বিভাগের সাবেক শিক্ষার্থী ও সাংবাদিক নাজমুল হোসেনের বিরুদ্ধে  ৫৭ ধারায় মামলা হয়। এর প্রতিবাদে ও ৫৭ ধারা বাতিলের দাবিতে বিভাগের শিক্ষার্থীরা কয়েকদিন ধরে ক্যাম্পাসে কর্মসূচি পালন করে আসছে। এর তিন দিনের মাথায় একই বিভাগের সহকর্মীর বিরুদ্ধে অপর সহকর্মী মামলা করলেন।

//এআর

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি