ঢাকা, রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭ ১০:০৯:৫০

সাইকেল চালালে হৃদরোগ ও ক্যান্সারের ঝুঁকি কমে অর্ধেক

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৩:০৬ পিএম, ১৭ জুন ২০১৭ শনিবার | আপডেট: ০১:১৪ পিএম, ১৮ জুন ২০১৭ রবিবার

বর্তমান প্রযুক্তির যুগে মানুষের হয়ে কায়িক পরিশ্রম করছে যন্ত্র। তাই কায়িক পরিশ্রমহীন মানুষের শরীরে নানা রোগব্যাধী বাসা বাধছে অবলিলায়। কিন্তু কিছুটা সময় পেছনে গেলেই রয়েছে মুক্তি। যেমন সাইকেল চালালে ক্যান্সার ও হৃদরোগের ঝুঁকি অর্ধেক কমে বলে জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

বিবিসির এক খবরে জানানো হয়েছে, ৫ বছর ধরে বিষয়টি নিয়ে গবেষণা করেছেন যুক্তরাজ্যের ইউনিভার্সিটি অব গ্লাসগো’র বিশেষজ্ঞরা। তারা বলেছেন, যেসব মানুষ নিয়মিত কর্মক্ষেত্রে সাইকেল চালিয়ে যান তাদের ক্যান্সার ও হৃদরোগের ঝুঁকি অর্ধেক কমে যায়।

প্রায় আড়াই লাখ মানুষের ওপর গবেষণা করে গবেষকরা দেখেন, যারা নিয়মিত সাইকেল চালান তাদের ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি ৪৫ শতাংশ কমে যায়, আর হৃদরোগের ঝুঁকি কমে  ৪৬ শতাংশ। তাছাড়া, এ অভ্যাসের কারণে মানুষের যে কোনো রোগে আক্রান্ত হয়ে অসময়ে মৃত্যুর ঝুঁকিও কমে ৪১ শতাংশ।

গবেষণায় আরও যে বিষয়টি উঠে এসেছে তা হল, কর্মক্ষেত্রে যাওয়ার জন্য গণপরিবহন কিংবা গাড়ির ওপর নির্ভর না করে যারা হাঁটেন তারাও এসব রোগ থেকে দূরে থাকার ক্ষেত্রে কিছুটা উপকৃত হতে পারেন। হাঁটা হৃদরোগের ঝুঁকি কমাতে বেশি সহায়ক হয়।

হাঁটা এবং সাইকেল চালানো দুই প্রক্রিয়ার উপকার সমান নয় কেন?- এর ব্যাখ্যায় গবেষকরা বলছেন, সাইক্লিস্টদের চেয়ে পায়ে হাঁটায় মানুষ কম পথ হাঁটেন। সাইকেল চালিয়ে যত বেশি পথ অতিক্রম করা যাবে স্বাস্থ্য উপকারিতা ততই বেশি হবে।

যারা সাইকেলও চালান আবার গণপরিবহনেও যাতায়াত করেন তারাও স্বাস্থ্য উপকারিতা পান বলে জানিয়েছেন গবেষকরা।

তবে হাঁটার চেয়ে সাইকেল চালানোর উপকারিতা বেশি বলেই মত গবেষকদের। কারণ, সাইকেলে হাঁটার চেয়ে বেশি ব্যায়াম হয় এবং বেশি সময় ধরে তা হয়।

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি