ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৭ ১১:২৪:১৬

১৪ অক্টোবর থেকে ঢাকায় ভোটার নিবন্ধন শুরু

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১০:২৩ পিএম, ১২ অক্টোবর ২০১৭ বৃহস্পতিবার

রাজধানী ঢাকায় আগামী ১৪ অক্টোবর থেকে শুরু হচ্ছে ভোটার নিবন্ধন। ভোটার তালিকা হালনাগাদ করার লক্ষে ইতোমধ্যে ভোটার হওয়ার যোগ্য নাগরিকদের তথ্য বাড়ি বাড়ি গিয়ে সংগ্রহ করা হয়েছে। যাদের তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে তাদের নির্ধারিত তারিখে নিবন্ধন কেন্দ্রে গিয়ে ছবি তুলে ও আঙুলের ছাপ দিয়ে ভোটার হতে হবে।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা ওইদিন সকাল ৯টায় বেইলী রোডে সিদ্বেশ্বরী গার্লস কলেজ কেন্দ্রে ঢাকা মহানগরীর ভোটার নিবন্ধনের কার্যক্রম পরিদর্শন করবেন। নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ এ সময় উপস্থিত থাকবেন।

নির্বাচন কমিশন থেকে পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে, এদিন নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার গুলশানের কালাচাঁদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মো. রফিকুল ইসলাম জিগাতলা মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বেগম কবিতা খানম ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট মুসলিম মডার্ন একাডেমি, এবং ব্রি জে শাহাদাত হেসেন চৌধুরী (অব.) মিরপুর আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র পরিদর্শন করবেন।

যাদের জন্ম ২০০০ সালের ১ জানুয়ারি বা তার পূর্বে অর্থাৎ যাদের বয়স ২০১৮ সালের ১ জানুয়ারি ১৮ বছর বা তার বেশি হবে এবার ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রমে তাদের ভোটার করা হচ্ছে। ভোটার হওয়ার যোগ্য কেউ ইতোপূর্বে হালনাগাদ কার্যক্রম থেকে বাদ পড়ে থাকলে তাদেরকেও ভোটার করা হচ্ছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো উল্লেখ করা হয়েছে, বাড়ি বাড়ি গিয়ে তথ্য সংগ্রহের সময় ভোটার হওয়ার যোগ্য কারও তথ্য সংগ্রহ করা না হয়ে থাকলে তারাও নিবন্ধন কেন্দ্রে গিয়ে তথ্য ফরম পূরণ করে ভোটার হতে পারবেন। বাদ পড়া ভোটারদের ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন সার্টিফিকেটের কপি, এসএসসি বা সমমানের পরীক্ষার সার্টিফিকেটের ফটোকপি (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে), ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বা পৌরসভা ও সিটি কর্পোরেশেনের ওয়ার্ড কাউন্সিলরের কাছ থেকে নাগরিকত্বের সনদপত্র, পিতা ও মাতার জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি, ঠিকানা প্রমাণের স্বপক্ষে বাসা/বাড়ির ট্যাক্স প্রদানের রশিদ/চৌকিদারের রশিদ/যেকোনো ইউটিলিটি বিলের কপি/জমির দলিলের ফটোকপি সঙ্গে নিয়ে নিবন্ধন কেন্দ্রে যেতে হবে।

নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইট থেকে বিস্তারিত তথ্য জানা যাবে www.ecs.gov.bd। এছাড়া হটলাইন ১০৫ নম্বরে ফোন করেও জানা যাবে।

ডব্লিউএন

 

ফটো গ্যালারি


 
 

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি