ঢাকা, শুক্রবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৭ ২০:১৫:১৩

২৩ অক্টোবর মিয়ানমার যাচ্ছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৫:৪৩ পিএম, ১২ অক্টোবর ২০১৭ বৃহস্পতিবার

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে আলোচনার জন্য আগামী ২৩ অক্টোবর মিয়ানমার সফরে যাবেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে নিজ দফতরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে মন্ত্রী এ কথা জানান।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আগামী ২৩ অক্টোবর মিয়ানমার সফরে যাব। ফিরব ২৫ অক্টোবর। মিয়ানমার সফরে রোহিঙ্গা প্রত্যাবসন বিষয়ে আলোচনা হবে। এছাড়া সফরে অন্য অমীমাংসিত বিষয় নিয়েও মিয়ানমারের সঙ্গে আলোচনা হবে বলে জানান আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। মন্ত্রী আশা প্রকাশ করেন, তার সফরের মাধ্যমে রোহিঙ্গা সমস্যার উন্নয়ন হবে।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, আমাদের মূল এজেন্ডা হবে বাংলাদেশে আসা রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানো এবং এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি যাতে না ঘটে- সে বিষয়ে আলোচনা করা। রোহিঙ্গা সঙ্কট ছাড়াও দ্বিপক্ষীয় চারটি পূর্বনির্ধারিত বিষয়ে মিয়ানামার কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা হবে বলে জানান কামাল।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দুই সচিব, পুলিশ প্রধান, বিজিবি প্রধান, কোস্টগার্ড প্রধান, মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের প্রধান, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (রাজনৈতিক) এই সফরে মন্ত্রীর সঙ্গে থাকছেন।

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে নতুন করে দমন অভিযান শুরুর পর ২৫ আগস্ট থেকে এ পর্যন্ত সোয়া পাঁচ লাখ রোহিঙ্গা পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। সীমান্ত পেরিয়ে প্রতিদিনই রোহিঙ্গারা আসছে; এখনও রাখাইনে দমন-পীড়ন চলার খবর মিলছে তাদের কাছে।

রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব দিতে আপত্তি জানিয়ে আসা মিয়ানমার সরকারের স্টেট কাউন্সেলর অং সান সু চি আন্তার্জাতিক চাপের মুখে গত ১৯ সেপ্টেম্বর দেশটির পার্লামেন্টে ভাষণ দেন। সেখানে তিনি বলেন, নব্বইয়ের দশকে করা প্রত্যাবসন চুক্তির আওতায় ‘যাচাইয়ের মাধ্যমে’ বাংলাদেশে থাকা শরণার্থীদের ফিরিয়ে নিতে তার দেশ প্রস্তুত আছে।

সে সময় বাংলাদেশের পক্ষ থেকে বলা হয়, রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব যাচাইয়ের কাজটি জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে করতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে প্রস্তাব দেওয়া হবে।

এরপর সু চির দপ্তরের মন্ত্রী কিয়া তিন্ত সোয়ে ঢাকায় এসে গত ২ অক্টোবর বাংলাদেশ সরকারের মন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠক করেন। রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবসনের জন্য একটি ‘জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপ’ গঠনের সিদ্ধান্ত হয় সেখানে।

এ বিষয়ে আরও আলোচনার জন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শিগগিরই মিয়ানমার সফরে যাবেন বলে সেদিনই জানিয়েছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী।

আরকে/ডব্লিউএন

ফটো গ্যালারি


 
 

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি