ঢাকা, সোমবার, ২০ আগস্ট, ২০১৮ ২৩:১৭:২০

Ekushey Television Ltd.

৫ বছরে ৫০০ গাড়ি চুরির হোতা আটক

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১১:৫০ এএম, ১১ আগস্ট ২০১৮ শনিবার

ভারতের হায়দ্রাবাদ থেকে উড়োজাহাজে করে রাজধানী দিল্লীতে আসতো একটি দল। বিলাসবহুল, দামি এবং অত্যাধুনিক প্রযুক্তির গাড়ি চুরি করতো এই দল। এরপর আবার ফিরে যেতো হায়দ্রাবাদে। এভাবেই পাঁচ বছরে অন্তত পাঁচশটি গাড়ি চুরি করেছে এই দল। অবশেষে আটক হয়েছে দলের মূল হোতা।

এই গাড়ি চোর চক্রের দলপতি সাফরুদ্দিনের (২৯) ওপর ১ লক্ষ রুপি পুরস্কার ঘোষণা করেছিল ভারতের পুলিশ।

দিল্লী পুলিশের উপ পুলিশ কমিশনার রাজেশ দেও বলেন, “ইন্সপেক্টর নিরাজ চৌধুরী এবং সাব ইন্সপেক্টর কুলদিপের নেতৃত্বে একটি দল গত ৩ আগস্ট গগন সিনেমার কাছে একটি গাড়িকে থামতে বলে। কিন্তু গাড়িটি না থামিয়ে চলে গেলে পুলিশ সেটিকে তাড়া করা শুরু করে। প্রায় ৫০ কিলোমিটার তাড়া করার পর প্রগতি ময়দানের কাছে গিয়ে গাড়িটিকে থামানো যায় এবং এর চালককে আটক করা হয়। পরে জিজ্ঞাসাবাদে নিশ্চিত হওয়া যায় যে, আটককৃত চালকই সাফরুদ্দিন”।

রাজেশ দেও আরও জানান, “দিল্লীতে প্রতি বছর একশ বিলাসবহুল গাড়ি চুরির লক্ষ্য নির্ধারণ করেছিল সাফরুদ্দিন। মোহাম্মদ শরিক এবং দলের অন্যান্য সদস্যদের নিয়ে হায়দ্রাবাদ থেকে সে দিল্লী আসে। শেষবার আসার সময় তার সাথে ল্যাপটপ এবং উচ্চ প্রযুক্তির ডিভাইস ও সফটওয়্যার ছিলো। এসব দিয়ে বিলাসবহুল গাড়ির কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা, জিপিএস ফিচার এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা ব্যবস্থা নষ্ট করা হতো”।

দিল্লীর অধিবাসী হলেও পুলিশের হাতে গ্রেফতার এড়াতে হায়দ্রাবাদ থেকে বিমানে করে দলবল নিয়ে দিল্লীতে আসতেন সাফরুদ্দিন। গত ৫ জুন অল্পের জন্য পুলিশের হাত থেকে বেঁচে গিয়েছিলেন তিনি। তবে সেবার পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে তার এক সহযোগী নিহত হয়। পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছিল অন্য আরেক সহযোগি।

দিল্লী থেকে চুরি করা গাড়ি নিজেদের র‍্যাকেটের মাধ্যমে উত্তর প্রদেশ, পাঞ্জাব, রাজস্থানসহ অন্যান্য রাজ্যে বিক্রি করতেন সাফরুদ্দিন।

সূত্রঃ এনডিটিভি

//এস এইচ এস//

ফটো গ্যালারি



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি