ঢাকা, বুধবার, ১৫ আগস্ট, ২০১৮ ৪:০৪:৫২

Ekushey Television Ltd.

বৈশাখে চুলের সাজ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০২:৪৬ পিএম, ১৪ এপ্রিল ২০১৮ শনিবার | আপডেট: ০৫:৪৪ পিএম, ১৪ এপ্রিল ২০১৮ শনিবার

বৈশাখ উৎসবে প্রকৃতির সঙ্গে সঙ্গেও সেজে উঠে মন। সাজ শুধু পোশাকেই নয়, রয়েছে চুলেও। বৈশাখে চুলের সাজই খুব আকর্ষণীয় সাজ। হয়তো অনেকেই এই সাজটাকে প্রাধান্য দেয় না। যেন তেন করে কোন রকম চুলটা বেধে বের হয়। কিন্তু চুলের সাজের মধ্যেই সৌন্দর্য লুকিয়ে থাকে বলে অনেকেই মনে করেন। তবে চুলের আকার ও ধরন অনুযায়ী সাজের বিভিন্ন দিক নিয়ে পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

চুলের সাজের জন্য যা করা যেতে পারে-

খোপায় দেওয়ার গহনা

প্রায় নারীরা শাড়ি পড়লেই চুল সাজানোর বেলায় খোপা করে। এ সময় খোপার সৌন্দর্য বাড়াতে বিভিন্ন ডিজাইনের কাটা চুলের ভিতরে গুঁজে দেওয়া যায়। খোপাতে ঝুমকোও লাগাতে পারেন। এছাড়া গোলাপ আকৃতির কিছু ছোট ছোট ব্যান্ড বেরিয়েছে সেগুলো খোপার চারপাশে লাগিয়ে নিতে পারেন। নেটের তৈরি খোঁপার জালিও পাওয়া যায়, এগুলি খোপায় পড়লে খুব চমৎকার দেখা যায়। এছাড়া মাঝখানে সিঁথি করে খোপা করলে সিঁথিতে টিকলিও পরতে পারেন।

বেণিতে দেওয়া গহনা

পহেলা বৈশাখে বাঙালি ভাবটা সাজের মধ্যে অবশ্যই থাকতে হয়। তাই চুলের সাজের ক্ষেত্রে আনতে পারেন ভিন্নতা। বৈশাখী চুলের সাজে বেণি সবার আগে প্রাধান্য পেয়ে থাকে। বিশেষ করে এ দিনটিতে মেয়েদের চুলের বেণির সাজে তাদের বেশি আকর্ষণীয় করে তোলে। আবার এসব ক্ষেত্রেও রয়েছে অসংখ্য সাজ। তাই সাজের মাধ্যমে বেণিকে ফুটিয়ে তুলতে বিভিন্ন গহনা দিয়ে সাজানো হয়। অনেকে বেণীতে পরেন চোটি, যা লম্বা বেণী লেসের মতো বিভিন্ন ধাতব উপাদান দিয়ে নকশা খচিত অলঙ্কার। তারপর আছে বেণী পাটি। বেণির ফাঁকে ফাঁকে বসানোর মতো অনেক ডিজাইনের পাথর পাওয়া যায়। এগুলো লাগালে বেণি চমৎকার ফুঁটে উঠে।

চুলের অন্যতম গহনা ফুল

বৈশাখীতে চুল সাজার গহনা হিসেবে ফুল অন্যতম। ফুল দিয়েই আপনি আপনার চুলকে আকর্ষণীয়ভাবে সাজিয়ে তুলতে পারেন। খোপা করে কানের নিচে তিনটে ফুল গুজে দিলেন, এতেই আপনার সৌন্দর্য ফুটে উঠবে। তাছাড়া খোপার জন্য বেলী ফুলের মালা অন্যতম। বেণি করে বেণির ঠিক গোড়ায় রজনীগন্ধার ফুলের মালা গেঁথে সুন্দরভাবে আটকিয়ে দিন। অথবা অনেক লম্বা করে গেঁথে পুরো বেণি পেঁচিয়ে ফেলতে পারেন।

কেএনইউ/ এসএইচ/      

  



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি