ঢাকা, শনিবার, ২৫ নভেম্বর, ২০১৭ ০:৩০:২৫

বৈরি আবহাওয়ায় : নৌ চলাচল বন্ধ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৯:৫৪ এএম, ২১ অক্টোবর ২০১৭ শনিবার | আপডেট: ১০:৩৮ এএম, ২১ অক্টোবর ২০১৭ শনিবার

নিম্নচাপে কারণে সদরঘাট থেকে নৌ চলাচল বন্ধ ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ চলাচল কর্তৃপক্ষ (বিআইডাব্লিউটিএ) শুক্রবার বিকাল থেকে দেশের নদী পথের সকল রুটে নৌযান চলাচল বন্ধ ঘোষণা করে নৌ চলাচল কর্তৃপক্ষ

বিআইডব্লিউটি সূত্র জানায়, বৈরি আবহওয়ার কারণে সারা দেশে ৬৫ ফুটের কম দৈর্ঘ্যের ধরনের নৌযানের ক্ষেত্রে এই নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি উপকূলীয় এলাকা হাতিয়া, বেতুয়া ও রাঙ্গাবালিতে সব ধরনের লঞ্চ চলাচল বন্ধ থাকবে বলেও জানানো হয়েছে।

পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া: বৈরি আবহাওয়ায় বাতাসের বেগ বেড়ে যাওয়ায় পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল বন্ধ রেখেছে কর্তৃপক্ষ। দীর্ঘ সময় ফেরি চলাচল বন্ধ থাকায় নৌরুটের উভয় ফেরিঘাট এলাকায় যানবাহনের লাইন কয়েক কিলোমিটার ছাড়িয়ে গেছে। এ অবস্থায় সীমাহীন দুর্ভোগে পড়েছেন যাত্রী ও পরিবহন শ্রমিকরা। শুক্রবার মধ্যরাত থেকে পাটুরিয়া দৌলতদিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল বন্ধ রাখা হয়। দীর্ঘ সময় ফেরি চলাচল বন্ধ থাকার কারণে যানবাহনের লাইন দৌলতদিয়া ফেরিঘাট এলাকা থেকে কয়েক কিলোমিটার ছাড়িয়ে গেছে।

পাটুরিয়া ফেরিঘাট বাণিজ্য বিভাগের সহকারী মহাব্যবস্থাপক জিল্লুর রহমান জানান, ফেরি চলাচল বন্ধ থাকার কারণে পাটুরিয়া ঘাটের জিরো পয়েন্ট থেকে প্রায় চার কিলোমিটার এলাকা পর্যন্ত বাসের লাইন রয়েছে।

শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি: দেশের দক্ষিণাঞ্চলের প্রবেশদ্বার শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে সকল নৌযান চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এ অবস্থায় পারাপারের অপেক্ষায় ঘাট এলাকায় প্রায় পাঁচ শতাধিক যানবাহন রয়েছে।

টানা বর্ষণ ও পদ্মায় ঢেউ থাকার কারণে স্বল্প পরিসরে ফেরি চলাচল করলেও শুক্রবার রাত ১০টা থেকে ফেরি চলাচলও সম্পূর্ণ বন্ধ করে দেওয়া হয়। এর আগে বেলা ১২টার মধ্যে স্পিডবোট ও লঞ্চসহ অন্যান্য নৌযান বন্ধ করে দেয় কর্তৃপক্ষ।

হাতিয়ায়: নিম্নচাপে সাগর উত্তাল থাকায় ও তিন নম্বর স্থানীয় সর্তক সংকেতের কারণে নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার চরচেঙ্গা-চেয়ারম্যানঘাট ও চেয়ারম্যানঘাট-নলচিরা রুটে সকল নৌযান চলাচল বন্ধ রয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না পাওয়া এ দুই রুটে সকল নৌযান বন্ধ থাকবে বলে জানায় কর্তৃপক্ষ।

নোয়াখালী থেকে হাতিয়ায় যাত্রীদের যাতায়তের জন্য বিআইডব্লিউটিসির চরচেঙ্গা-চেয়ারম্যানঘাট রুটে শহীদ আবদুর রব সেরনিয়াবাদ ও চেয়ারম্যানঘাট-নলচিরা রুটে শেখ ফজলুল হক মনি নামের দুটি সি-ট্রাক রয়েছে। এই সি-ট্রাক দুটি বন্ধ থাকায় ভোগান্তিতে পড়েছেন বিচ্ছিন্ন এ উপজেলার হাজারো মানুষ।

 

আর

ফটো গ্যালারি


 
 

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি