ঢাকা, বুধবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৭ ১১:৫০:৫৩

এখনও সময় আছে, ফিরে এসো : হ্যাপি

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৯:৫৭ এএম, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৭ সোমবার | আপডেট: ০৯:০৭ পিএম, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭ মঙ্গলবার

জাতীয় দলের ক্রিকেটার রুবেল হোসেনের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে নিয়ে তুমুল হইচই বাধিয়ে দিয়েছিলেন উদীয়মান অভিনেত্রী নাজনীন আক্তার হ্যাপি। ধর্ষণের অভিযোগ এনে রুবেলের বিরুদ্ধে মামলাও করেছিলেন। পরে অবশ্য সেই মামলা থেকে খালাস পান রুবেল।

মিডিয়াজগৎ ছেড়ে সম্প্রতি পুরোপুরি পর্দামত চলছেন হ্যাপি। বিয়ে করে সংসারও শুরু করেছেন সাবেক এই নায়িকা। অনেকটা নিজেকে আড়ালেই রেখেছেন।

তবে শুক্রবার বিকালে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে তার দেওয়া একটি স্ট্যাটাস আবারও তাকে খবরের শিরোনামে এনেছে।

ফেসবুক স্ট্যাটাসে রীতিমতো বোমা ফাটিয়েছেন হ্যাপি। নায়িকাদের পরবর্তী জীবনের ভয়ংকর শাস্তির কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে তাদের মিডিয়া ছেড়ে ভালো পথে আসার আহ্বান জানান হ্যাপি। একইসঙ্গে মিডিয়াপাড়ায় যেসব নোংরামি চলে তাও তুলে ধরেন তিনি।

হ্যাপি স্ট্যাটাসে লেখেন, বেশিরভাগ নায়িকা, গায়িকাদের শেষ বয়সের পরিণতি "অর্থাভাবে চিকিৎসা হচ্ছে না" টাইপ শিরোনামে নিউজ! এছাড়া নায়িকা-গায়িকারা অর্থের অভাব থাকুক বা না থাকুক তাদের জন্য পারিশ্রমিক হিসেবে জাহান্নাম তো থাকছেই (তওবা না করলে)!

এরা এত বোকা কেন হয়! এরা কি বোঝে না তাদের রূপ-যৌবনকে পুঁজি করে ব্যবসা চলে, রমরমা ব্যবসা!  কাজ শেষ তো, থুথুর মতো ফেলে দেয়! অথচ আজকের নায়িকা-গায়িকারা গর্ব করে দুনিয়া কাঁপাচ্ছে। কাল কী হবে, কোনো হুশ আছে?

সিনেমাপাড়ায়, মিডিয়াপাড়ায় ক্যামেরার সামনে-পেছনে কতরকম নোংরামি চলে তা তো সবার কম বেশি জানা। আজকের এই রূপ কয়দিন? এই রূপ দিয়ে কোটি কোটি পুরুষের রাতের ঘুম হারাম করাই শুধু সম্ভব, একজন জান্নাতি জন্ম দেওয়া সম্ভব নয়।

আমিও ছিলাম তোমাদের কাতারে! রূপ-যৌবন তোমাদের চেয়ে কম ছিল না। জান্নাত পাবো কিনা জানি না। তবে জাহান্নামের দিকে নিয়ে যাওয়ার এই জঘন্য অন্ধকার পথ থেকে আল্লাহ আমাকে ফিরিয়ে এনেছেন আলহামদুলিল্লাহ! এখন তাই আশা করার সাহস করি, হয়তো আল্লাহ জাহান্নাম থেকে হেফাজত করবেন!

যারা তোমরা মিডিয়া-ফিল্ম নিয়ে পড়ে আছ, তোমরা স্বীকার করো বা না করো, এটা যে কত নোংরাজগৎ তা তোমরা ভালোমতই জানো। এখনও সময় আছে, ফিরে আস! অবশ্যই আল্লাহতায়ালা তোমাদের পুরস্কৃত করবেন ইনশাআল্লাহ!
//এআর


 
 

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি