ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ আগস্ট, ২০১৮ ২৩:৫৫:২১

ঢাবি উপাচার্যের সঙ্গে জাপানী অধ্যাপকের সাক্ষাৎ

ঢাবি উপাচার্যের সঙ্গে জাপানী অধ্যাপকের সাক্ষাৎ

জাপানের টিকো বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. তাকাকি উশিওকা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। আজ বৃহস্পতিবার ঢাবি উপাচার্যের কার্যালয়ে তাকিকি এ সাক্ষাৎ করেন। এ সময় তারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং জাপানের টিকো বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে যৌথ শিক্ষা ও গবেষণা প্রকল্প চালুর সম্ভাব্যতা নিয়ে আলোচনা করেন। শিক্ষা ও গবেষণা কার্যক্রম গতিশীল করতে উভয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা বিনিময়ের ওপরও তারা গুরুত্বারোপ করেন। সাক্ষাৎকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ফার্মাসিউটিক্যাল কেমিস্ট্রি বিভাগের অধ্যাপক ড. ফিরোজ আহমেদ এবং জাপান-বাংলাদেশ কালচারাল ফাউন্ডেশনের সিইও শেখ এমদাদ উপস্থিত ছিলেন।   তথ্যসূত্র: বাসস। এমএইচ/ এসএইচ/
গণ বিশ্ববিদ্যালয়ে শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা  

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে গণ বিশ্ববিদ্যালয়ে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবনে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।   অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন গণ বিশ্ববিদ্যালয়-এর উপাচার্য অধ্যাপক ডা. লায়লা পারভীন বানু। আলোচনা সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন রেজিস্ট্রার মো. দেলোয়ার হোসেন, স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা বিজ্ঞান অনুষদের ডীন ডা. মো. ইকবাল হোসেন, কলা ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডীন অধ্যাপক মনসুর মুসা, ভৌত ও গাণিতিক বিজ্ঞান অনুষদের ডীন ড. হাসিন অনুপমা আজহারী, গণস্বাস্থ্য সমাজ ভিত্তিক মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ফরিদা আদিব খানম ও পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মীর মুর্ত্তজা আলীসহ বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ও শিক্ষকবৃন্দ।    আলোচনা সভায় বক্তরা বলেন- ১৫ আগস্টে জাতির জনক ও তার পরিবারের সদস্যদের যে নির্মমভাবে হত্যা করা হয় বিশ্বের ইতিহাসে এ ধরণের রাজনৈতিক হত্যাকান্ড আর দ্বিতীয়টি নেই। রাজনৈতিক মতাদশের্র ক্ষেত্রে আমাদের মধ্যে ভেদাভেদ থাকলেও বঙ্গবন্ধুকে বিভাজন করা উচিৎ নয়। তিনি কোন রাজনৈতিক দলের নেতা নন, তিনি বাংলাদেশের সর্বসাধারণের নেতা। এসময় বিভিন্ন দেশে পালিয়ে থাকা বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে বিচারের রায় কার্যকর করার দাবি জানান তারা। এসময় ১৫ আগস্ট নিহত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ তার পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের আত্মার শান্তি কামনায় দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। এমএইচ/এসি       

জাবিতে ভর্তি পরীক্ষার রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম শুরু   

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) ২০১৮-২০১৯ শিক্ষাবর্ষে ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণীতে ভর্তি পরীক্ষার অনলাইন রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম শুরু হয়েছে।     আগামী ১৬ সেপ্টেম্বর রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত ভর্তি পরীক্ষার অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন করা যাবে। বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের পুরাতন প্রশাসনিক ভবনের কাউন্সিল কক্ষে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম।  উদ্বোধনকালে উপাচার্য বলেন, ‘এ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার অনলাইন রেজিস্ট্রেশন অত্যন্ত পরিচ্ছন্ন। এ কারণে শিক্ষার্থীরা খুব সহজে রেজিস্ট্রেশন করতে পারবে। আমরা আগামীতে পুরো ভর্তি প্রক্রিয়া অনলাইনে করবো। এ সময় ভর্তি পরীক্ষার কার্যক্রম সুন্দরভাবে শেষ করার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা কামনা করেন তিনি। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. নূরুল আলম, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক শেখ মো. মনজুরুল হক,  রেজিস্ট্রার, উপ-রেজিস্ট্রার (শিক্ষা) ও আইআইটি বিভাগের শিক্ষকবৃন্দ।   ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের মত এবারও অনলাইন ভর্তি রেজিস্ট্রেশন পরিচালনা করছে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট অব ইনফরমেশন টেকনোলজি (আইআইটি)। এমএইচ/এসি   

মুচলেকা নিয়ে ছাড়া হলো ঢাবির সেই ছাত্রীকে

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস থেকে এক ছাত্রীকে তুলে নেওয়ার পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) পরিচয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের শামসুন নাহার হলের সামনে থেকে তাকে তুলে ডিবি কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। এর কয়েক ঘণ্টা পর তাকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের জিম্মায় ছেড়ে দেয়া হয়। ওই ছাত্রীর নাম তাসনিম আফরোজ ইমি। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষের ছাত্রী। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিভিত্তিক সংগঠন ‘স্লোগান ৭১’-এর সাবেক সাধারণ সম্পাদক। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া সেন্টারের উপকমিশনার (ডিসি) মাসুদুর রহমান বলেন, ফেসবুকে গুজব ছড়ানো সংক্রান্ত বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ইমিকে আটক করা হয়েছিল। পরে মুচলেকা রেখে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়। ইমিকে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য ডিবি পুলিশ নিয়ে যাওয়া হয় বলে জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক এ কে এম গোলাম রব্বানী। / এআর /

‘২৪ বছরের সংগ্রামের মাধ্যমে তিনি ‘মুজিব’ থেকে ‘বঙ্গবন্ধু’ হয়েছেন’

জীবিত বঙ্গবন্ধুর চেয়ে মৃত বঙ্গবন্ধু অনেক বেশি শক্তিশালী বলে মন্তব্য করেছেন চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট)-এর ভাইস চ্যান্সেলর (ভিসি) অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীদের উদ্দেশ্য ছিল দেশের অগ্রযাত্রাকে পিছিয়ে দেওয়া। কিন্তু প্রতিক্রিয়াশীল গোষ্ঠী বুঝতে পারেনি, বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা যায় না। ভিসি বলেন, বঙ্গবন্ধু তার দীর্ঘ ২৪ বছরের সংগ্রামের মাধ্যমে ব্যক্তি ‘মুজিব’ থেকে সবার ‘বঙ্গবন্ধু’ হয়ে ওঠেন। বুধবার জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে চুয়েট পুরকৌশল বিভাগের সেমিনার কক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় ভিসি এসব কথা বলেন। এ সময় রফিকুল আলম বলেন, দেশে গত ৯ বছরে চার হাজার ৫০০ কোটি টাকা গবেষণা ও উন্নয়নকাজের জন্য বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। দেশের প্রায় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের অবকাঠামোগত উন্নয়ন এখন দৃশ্যমান। আমরা এখন সব দিক থেকে স্বয়ংসম্পূর্ণ জাতি। আমাদের নিজেদের অর্থায়নে এখন বাজেট হচ্ছে। ভিসি বলেন, ২০২১ সালে আমাদের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী। বঙ্গবন্ধুকন্যা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্ন উন্নত ও সম্মৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে প্রযু্ক্তিগত উৎকর্ষতা ঘটাতে হবে। সে ক্ষেত্রে আমাদের প্রকৌশলী সমাজের অনেক বড় ভূমিকা রয়েছে। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে হলে বর্তমান সরকারের চলমান অগ্রযাত্রায় সবাইকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে ঐক্যবদ্ধভাবে ভূমিকা পালন করতে হবে। এর আগে শোক দিবসের প্রথম প্রহরে চুয়েট স্বাধীনতা চত্ত্বর সংলগ্ন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালার উদ্বোধন করেন ভিসি অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে জাতীয় পতাকা ও শোকের প্রতীক কালো পতাকা উত্তোলন করা হয়। এরপর পুরকৌশল বিভাগের সেমিনার কক্ষে বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্ম নিয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম। চুয়েটের জাতীয় দিবস উদযাপন কমিটির সভাপতি এবং স্থাপত্য ও পরিকল্পনা অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. মো. সাইফুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. রণজিৎ কুমার সূত্রধর, পুরকৌশল অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. মো. আব্দুর রহমান ভূঁইয়া, তড়িৎ ও কম্পিউটার কৌশল অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. কৌশিক দেব, ছাত্রকল্যাণ পরিচালক অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ মশিউল হক। অনুষ্ঠানের শুরুতেই শোকাবহ ১৫ আগস্টের বর্বরোচিত হত্যাকাণ্ডের উপর নির্মিত এককি ডকুমেন্টারি উপস্থাপন করেন সহকারী রেজিস্ট্রার (সমন্বয়) মোহাম্মদ ফজলুর রহমান। পরে বঙ্গবন্ধু ও ১৫ আগস্ট নিহত সবার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনায় বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। একে//

জাবিতে গণপিটুনীর শিকার বুয়েট ছাত্রলীগ নেতা

আপত্তিকর অবস্থায় আটক হওয়ার পর জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থী ও নিরাপত্তাকর্মীদের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণ করার অভিযোগে গণপিটুনীর শিকার হয়েছে বুয়েট ছাত্রলীগের এক নেতা। বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের পুরাতন রেজিস্ট্রার ভবনের সামনে এ ঘটনা ঘটে। গণপিটুনীর শিকার ছাত্রলীগ নেতার নাম তাহমিদ আহমেদ। তিনি বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) যন্ত্রকৌশল বিভাগের ১৪ব্যাচের শিক্ষার্থী ও আহসানউল্লাহ হলের আবাসিক ছাত্র। তিনি বুয়েট ছাত্রলীগের আহসানউল্লাহ হল ইউনিটের পাঠাগার বিষয়ক সম্পাদক। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বুধবার বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের পুরাতন প্রশাসনিক ভবনের সামনের বেঞ্চে তাহমিদ তার বান্ধবীর সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় বসে ছিল। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান নিরাপত্তা কর্মকতা সুদীপ্ত শাহীন তার পরিচয় জানতে চাইলে সে প্রধান নিরাপত্তা কর্মকর্তার সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণ করে এবং জোর গলায় চিৎকার করে। তার চিৎকার শুনে আশেপাশের শিক্ষার্থীরা সেখানে জড়ো হয়। পরে  নিরাপত্তাকর্মী ও সাধারণ শিক্ষার্থীরা তাকে নিরাপত্তা অফিসে যেতে বলে। তাকে ধরে নিরাপত্তা অফিসে যাওয়ার সময় সে নিজেকে বুয়েট ছাত্রলীগের পাঠাগার সম্পাদক হিসেবে পরিচয় দেয়। এক পর্যায়ে সে আক্রমণাত্মক আচরণ করতে শুরু করে। এ সময় উপস্থিত সকলে তাকে থামাতে গেলে সে জাবির এক শিক্ষার্থীর বুকে লাথি মারে। এ ঘটনায় ক্ষিপ্ত হয়ে উপস্থিত শিক্ষার্থীদের পিটুনীর শিকার হয় তাহমিদ। পরে বেলা ১২টার দিকে নিরাপত্তা কর্মকর্তারা তাকে উদ্ধার করে নিরাপত্তা অফিসে নিয়ে যায়। এ সময় মুচলেকা নিয়ে তার বান্ধবীর জিম্মায় তাহমিদকে ছেড়ে দেওয়া হয়। এ ব্যাপারে প্রধান নিরাপত্তা কর্মকর্তা সুদীপ্ত শাহীন বলেন, ‘সে সাধারণ শিক্ষার্থী ও নিরাপত্তাকর্মীদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করায় শিক্ষার্থীরা তার উপর উদ্ধত হয়েছে। পরে আমরা তাকে উদ্ধার করে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দিয়েছি।’ একে//

যথাযথ মর্যাদায় মাভাবিপ্রবিতে জাতীয় শোক দিবস পালিত হচ্ছে

মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (মাভাবিপ্রবি) বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে যথাযথ মর্যাদায় পালিত হচ্ছে শোক দিবস। বুধবার সকাল ৮টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. আলাউদ্দিনের নেতৃত্বে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত ও কালো পতাকা উত্তোলনের পর প্রসাশনিক ভবনের সামনে থেকে একটি শোক র‍্যালি পুরো ক্যাম্পাসের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এরপর  শহীদ মিনারে স্থাপিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করে। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডিন ও মাভাবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. মুহাম্মদ শাহীন উদ্দিন, লাইফ সায়েন্স অনুষদের ডিন ড. এ.এস.এম সাইফুল্লাহ, প্রক্টর ড. মো. সিরাজুল ইসলাম, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান হল প্রভোস্ট ড. মোহাম্মদ খাদেমুল ইসলাম, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নান হল প্রভোস্ট ড. পিনাকী দে, শহীদ জিয়াউর রহমান হল প্রভোস্ট ও মাভাবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ড. মো. ইকবাল মাহমুদ, ছাত্রলীগের সভাপতি সজীব তালুকদার, সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান, রেজিস্ট্রার ড. মো. তৌহিদুল ইসলাম, মাভাবিপ্রবি অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মোহাম্মদ মফিজুল ইসলাম মজনুসহ সব বিভাগের চেয়ারম্যান, শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা, কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। দিবসটি উপলক্ষে বাদ যোহর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে দোয়া ও এতিমদের জন্য ভোজের আয়োজন করা হয়েছে। একে//

যথাযথ মর্যাদায় রাবিতে জাতীয় শোক দিবস পালিত হচ্ছে

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতীয় শোক দিবস পালিত হচ্ছে। দিবসটি উপলক্ষে বুধবার দিনব্যাপী নানা কর্মসূচি গ্রহণ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এদিন সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে প্রশাসন ভবনসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের গুরুত্বপূর্ণ ভবনে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত ও কালো পতাকা উত্তোলন করা হয়। সকাল ৭টায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা কালো ব্যাজ ধারণ করে শোক র‌্যালি বের করেন। শোক র‌্যালিটি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলে গিয়ে শেষ হয়। সেখানে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন তারা। পরে আবাসিক হল, বিভাগ, ইনস্টিটিউশনসহ বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন সেখানে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে। এরপর শহীদ মিনার মুক্তমঞ্চে শোক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এ সময়  উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা ও অধ্যাপক চৌধুরী মো. জাকারিয়া, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক একেএম মোস্তাফিজুর রহমান আল আরিফ, রেজিস্ট্রার অধ্যাপক এমএ বারী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। আলোচনায় উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের স্বাধীনতা এনে দিলেন আন্তর্জাতিক সাম্রাজ্যবাদী ও পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর করাল গ্রাস থেকে। পাক হানাদার বাহিনীর পরাজয়ের আক্রোশ থেকে এদেশের রাজাকারদের সহয়তায় জাতির পিতাকে হত্যা করলেও তার আদর্শকে বাংলার মাটি থেকে কেউ হত্যা করতে পারবে না।’ তিনি আরও বলেন, ‘বর্তমান যুব সমাজকে ভুল তথ্য দিয়ে দমিয়ে রাখতে পারবে না। তারা বঙ্গবন্ধুর আদর্শ নিয়ে গড়া। তারা বিচার করতে পারে কোনটা সত্যের রাজনীতি আর কোনটা মিথ্যার।’ এছাড়া সকাল নয়টায় শেখ রাসেল মডেল স্কুল ও সাড়ে নয়টায় বিশ্ববিদ্যালয় স্কুলে রচনা ও চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। এদিন জোহর নামাজ শেষে কেন্দ্রীয় মসজিদে কোরআনখানি ও মিলাদ মাহফিল এবং সন্ধ্যা ছয়টায় কেন্দ্রীয় মন্দিরে বিশেষ প্রার্থনার আয়োজন করা হয়। সন্ধ্যা সাতটায় শহীদ সুখরঞ্জন সমাদ্দার ছাত্র-শিক্ষক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে বঙ্গবন্ধুর ওপর নির্মিত তথ্যচিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছে। একে//

রাবি প্রশাসনের সিদ্ধান্ত অমান্য করে হল ছাড়ার নির্দেশ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) প্রশাসনের হল ছুটির সিদ্ধান্ত অমান্য করে মন্নুজান হলের শিক্ষার্থীদের একদিন আগে হল ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সোমবার বিকেলে হল প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক জিন্নাত ফেরদৌসী স্বাক্ষরিত এক নোটিসে ছাত্রীদের ১৬ আগস্ট বিকেল ৫টার মধ্যে হল ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। অথচ বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ১৭ আগস্ট দুপুর ১২টা পর্যন্ত হল খোলা রাখার নির্দেশ দিয়ে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। প্রশাসনের সিদ্ধান্ত না মেনে ১৭টি হলের মধ্যে শুধু মন্নুজান হলে এমন নির্দেশনা দেওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন হলটির আবাসিক ছাত্রীরা। ছাত্রীদের অভিযোগ- ১৬ আগস্ট বিকেল ৫টা পর্যন্ত অনেক বিভাগের পরীক্ষা ও ল্যাব রয়েছে। অথচ ওইদিন ৫টার মধ্যে হল ছাড়তে বলা হয়েছে। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ১৬ তারিখ বিকাল ৫টা পর্যন্ত বিজ্ঞান অনুষদের বিভিন্ন বিভাগে পরীক্ষা রয়েছে। ফলে দুর্ভোগের আশঙ্কা প্রকাশ করছেন হলের আবাসিক শিক্ষার্থীরা।নাম প্রকাশ না করার শর্তে হলের একজন আবাসিক ছাত্রী জানান, তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান অনুষদের একটি বিভাগে পড়াশোনা করেন। ১৬ আগস্ট ক্লাস না থাকলেও তার টিউটোরিয়াল পরীক্ষা রয়েছে। এছাড়া সকাল থেকে ল্যাবেও কাজ করতে হবে তাকে। বিকেল ৫টায় বিভাগ থেকে হলে ফিরে কীভাবে ব্যাগ ও বইপত্র গুছিয়ে বাড়ির উদ্দেশ্য রওয়ানা দেওয়া সম্ভব হবে তা নিয়ে দুঃশ্চিন্তার কথা জানান তিনি। বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দফতরের প্রশাসক অধ্যাপক ড. প্রভাষ কুমার কর্মকার বলেন, ‘১৭ আগস্ট দুপুর ১২টায় সব হল বন্ধ হবে। এর আগে কোনো হল বন্ধের নোটিশ দেওয়ার প্রশ্নই আসে না। যদি কোনো হলের প্রাধ্যক্ষ এমনটি করে থাকেন, তবে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।’ জানতে চাইলে হল প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক জিন্নাত ফেরদৌসী বলেন, প্রাধ্যক্ষ পরিষদ প্রথমে যে সুপারিশ করেছিল, সেই অনুযায়ী আমরা হলে নোটিশ টানিয়েছিলাম। তবে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ হল প্রাধ্যক্ষের সুপারিশ বিবেচনা না করে পরবর্তীতে যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে, সে ব্যাপারে আমাদেরকে লিখিতভাবে কিছু জানাইনি। তবে মৌখিকভাবে মঙ্গলবার বিষয়টি জেনেছি। প্রয়োজনে নোটিশ পরিবর্তন করে দেওয়া হবে।  

ঢাবির প্রথম বর্ষে ভর্তির আবেদনের সময় বাড়লো

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৮-২০১৯ শিক্ষাবর্ষে প্রথম বর্ষ স্নাতক সম্মান শ্রেণিতে অনলাইনের মাধ্যমে প্রার্থীদের ভর্তির আবেদন করার সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে। আগামী ২৮ আগস্ট মঙ্গলবার দুপুর ২টা পর্যন্ত এ সময় বাড়ানো হয়েছে। এর আগে এ সময়সীমা ছিল ২৬ আগস্ট রোববার রাত ১২টা পর্যন্ত। আজ মঙ্গলবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয় জনসংযোগ দফতর থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ে ঈদুল আজহার ছুটি বিবেচনায় নিয়ে আবেদনের এই সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে বলে ওই বিজ্ঞপ্তিতে। উল্লেখ্য, অনলাইনের মাধ্যমে প্রার্থীদের ভর্তির আবেদন প্রক্রিয়া গত ৩১ জুলাই ২০১৮ মঙ্গলবার শুরু হয়েছে । এসএইচ/

৩৬তম বিসিএস (স্বাস্থ্য) সহকারী সার্জনদের যোগদান ৩ সেপ্টেম্বর     

৩৬তম বিসিএস (স্বাস্থ্য) ক্যাডারের সহকারী সার্জনদের ৩ সেপ্টেম্বর যোগদানের নির্দেশ দিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। বিসিএস ক্যাডারের ১৮০জনকে ওইদিন সকালে যোগদানের এই নির্দেশ দেওয়া হয়। যুগ্ম সচিব মইনউদ্দিন আহমদ স্বাক্ষরিত মঙ্গলবার এক প্রজ্ঞাপনে এ আদেশ জারি করা হয়। আদেশে বলা হয়, ঢাকার জাতীয় প্রেস ক্লাবের বিপরীতে অবস্থিত বিএমএ ভবনের বিএমএ অডিটোরিয়ামে ৩ সেপ্টেম্বর সকাল ১০টায় যোগদানপত্র দাখিল করতে হবে।   প্রসঙ্গত, ৩৬তম বিসিএস পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের প্রায় ৩৭ মাস পর গত ৩১ জুলাই ওই নিয়োগের প্রজ্ঞাপন জারি করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। বাংলাদেশ সরকারি কর্মকমিশন (পিএসসি) যে সুপারিশ করেছিল, সেখান থেকে ১২১ জন প্রার্থী চূড়ান্ত প্রজ্ঞাপনে বাদ পড়েছেন। পিএসসি সূত্র জানায়, গত বছরের ১৭ অক্টোবর ২ হাজার ৩২৩ জনকে বিভিন্ন ক্যাডারে নিয়োগের জন্য সুপারিশ করে পিএসসি। কিন্তু আজ প্রকাশিত প্রজ্ঞাপনে দেখা যাচ্ছে, ২ হাজার ২০২ জন প্রার্থীকে নিয়োগের সুপারিশ করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। ফলে এতে ১২১ জন প্রার্থী চূড়ান্ত নিয়োগ থেকে বাদ পড়েছেন। এর আগে স্বাস্থ্য সহকারী সার্জন পদে ১৮৭ জনকে সুপারিশ করেছিল পিএসসি। এছাড়াও প্রশাসন ক্যাডারে ২৯২টি, পুলিশ ক্যাডারে ১১৭টি, কর ক্যাডারে ৪২টি, পররাষ্ট্র ২০, নিরীক্ষা ও হিসাব ১৫, কৃষি ৩২২, মৎস্য ৪৮, পশুসম্পদ ৪৩-সহ ২ হাজার ৩২৩ জন প্রার্থীকে সুপারিশ করা হয়। ৩৬তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয় ২০১৫ সালের ৩১ মে। দুই লাখের বেশি পরীক্ষার্থী এতে অংশ নেন। পরের বছরের সেপ্টেম্বরে লিখিত পরীক্ষা হয়। মৌখিক পরীক্ষা শেষ হয় ২০১৭ সালের জুনে। এসি     

প্রাথমিক ও ইবতেদায়ির সমাপনী পরীক্ষার সূচি প্রকাশ

প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার সময় সূচি প্রকাশ করা হয়েছে। আগামী ১৮ নভেম্বর পরীক্ষা শুরু হয়ে শেষ হবে ২৬ নভেম্বর। সকাল সাড়ে ১০টায় প্রতিটি পরীক্ষা শুরু হবে। মঙ্গলবার প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, অন্যান্য বছরে বেলা ১১টায় পরীক্ষা শুরু হলেও এবার প্রতিদিন পরীক্ষা শুরু হবে সকাল সাড়ে ১০টায়। আগে পরীক্ষার্থীদের খাতা অন্য উপজেলায় মূল্যায়ন করা হতো। কিন্তু এবার থেকে প্রত্যেকটি খাতা নিজ উপজেলায় মূল্যায়ন হবে। তবে অন্যান্য বারের মতো এবারও বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন পরীক্ষার্থীদের জন্য ৩০ মিনিট বেশি সময় বরাদ্দ রয়েছে। রুটিন থেকে জানা গেছে, ১৮ নভেম্বর ইংরেজি, ১৯ নভেম্বর বাংলা, ২০ নভেম্বর পিইসি শিক্ষার্থীদের জন্য বাংলাদেশ ও বিশ্ব পরিচয় এবং ইবতেদায়ি শিক্ষার্থীদের জন্য বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় এবং বিজ্ঞান, ২২ নভেম্বর পিইসি পরীক্ষার্থীদের জন্য প্রাথমিক বিজ্ঞান এবং ইবতেদায়ি পরীক্ষার্থীদের জন্য আরবি, ২৫ নভেম্বর গণিত, ২৬ নভেম্বর পিইসি পরীক্ষার্থীদের জন্য ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা এবং ইবতেদায়ি পরীক্ষার্থীদের জন্য ‘কুরআন মাজিদ ও তাজবিদ’ এবং ‘আকাইদ ও ফিকহ’ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। আরকে//

জাতীয় শোক দিবসে রাবি প্রশাসনের নানা কর্মসূচি

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে কালো ব্যাজ ধারণ, শোক র‌্যালিসহ নানা কর্মসূচি হাতে নিয়েছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) প্রশাসন। সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দফতর প্রশাসক অধ্যাপক প্রভাষ কুমার কর্মকার স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এদিন সুর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন ভবনসহ গুরুত্বপূর্ণ ভবনে অর্ধনমিত জাতীয় পতাকা ও কালো পতাকা উত্তোলন, সকাল সাড়ে ৭ টায় প্রশাসনের উদ্যোগে কালো ব্যাজ ধারণ, শোক র‌্যালি ও বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, সকাল ৭টা ৪০ মিনিটে শিক্ষক সমিতি, আবাসিক হলসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন সংগঠনের উদ্যোগে কালো ব্যাজ ধারণ, শোকর‌্যালি ও বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ। এরপর সকাল সাড়ে ৮ টায় বিশ্ববিদ্যালয় স্কুল চত্বরে শিক্ষা ও গবেষণা ইন্সটিটিউটরে আয়োজনে স্কুল শিক্ষার্থীদের জন্য চিত্রাংকণ প্রতিযোগিতা, সাড়ে ৯ টায় একই স্থানে রচনা প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া, যোহর নামাজ শেষে বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় মসজিদে কুরআনখানি ও মিলাদ মাহফিল, সন্ধ্যা ৬ টায় বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় মন্দিরে বিশেষ প্রার্থনা, সন্ধ্যা ৭ টায় শহীদ সুখরঞ্জন সমাদ্দার ছাত্র-শিক্ষক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র (টিএসসিসি) মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধুর উপর তথ্য প্রদর্শনী হবে। একে//

© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি