ঢাকা, সোমবার, ২৩ অক্টোবর, ২০১৭ ৮:১১:৫১

ঢাবি অধিভুক্ত কলেজে স্নাতক ভর্তি আবেদন ২৫ অক্টোবর

ঢাবি অধিভুক্ত কলেজে স্নাতক ভর্তি আবেদন ২৫ অক্টোবর

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) অধিভুক্ত সাত কলেজে ২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষে সম্মান শ্রেণিতে অনলাইনে ভর্তি পরীক্ষার আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হবে আগামী ২৫ অক্টোবর থেকে। ঢাবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান আগামী ২৫ অক্টোবর বিকাল সাড়ে ৫টায় এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এই ভর্তি প্রক্রিয়ার উদ্বোধন করবেন। একই সঙ্গে অধিভুক্ত সাত কলেজের ওয়েবসাইটও উদ্বোধন করা হবে। চলতি বছর ফেব্রুয়ারিতে রাজধানীর সাতটি কলেজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত হয়। কলেজগুলো হলো- ঢাকা কলেজ, ইডেন মহিলা কলেজ, সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ, কবি নজরুল কলেজ, বেগম বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজ, মিরপুর সরকারি বাঙলা কলেজ ও সরকারি তিতুমীর কলেজ। অধিভূক্ত এসব কলেজে অনার্স ও মাস্টার্স পর্যায়ে বর্তমানে এক লাখ ৬৭ হাজার ২৩৬ জন ছাত্রছাত্রীসহ এক হাজার ১৪৯ জন শিক্ষক রয়েছেন।   আর
এমবিবিএস কোর্স বিএসএমএমইউ’র অধীনে

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) অধীনে এসেছে এমবিবিএস, বিডিএস, বিএসসি নার্সিং ও বিএসসি মেডিকেল টেকনোলজিসহ সব কোর্স। রোববার বিএসএমএমই ‘র ভিসি অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সিন্ডিকেট সভায় এ অনুমোদন দেয়া হয়। সভায় বলা হয়, নবপ্রতিষ্ঠিত চট্টগ্রাম মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় এবং প্রস্তাবিত সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত সরকারি/বেসরকারি মেডিকেল কলেজ/ডেন্টাল কলেজসমূহ বিএসএমএমই’র বাইরে থাকবে। এগুলো ছাড়া অন্যান্য সব মেডিকেল কলেজ/ডেন্টাল কলেজসমূহে বিদ্যমান এমবিবিএস, বিডিএস, বিএসসি নার্সিং, বিএসসি মেডিকেল টেকনোলজি কোর্সসমূহ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের আওতায় অধিভুক্ত করা হবে। সভায় উপস্থিত ছিলেন, ভিসি অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান, সংসদ সদস্য ডা. মো. রুস্তম আলী ফরাজী, অতিরিক্ত সচিব সরদার আবুল কালাম, অধ্যাপক মো. নজরুল ইসলাম, বিএসএমএমইউ প্রো-ভিসি (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মো. শহীদুল্লাহ সিকদার, প্রো-ভিসি (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ, প্রো-ভিসি (শিক্ষা) অধ্যাপক ডা. এ এস এম জাকারিয়া স্বপন, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আলী আসগর মোড়ল, বিএমডিসি’র সভাপতি অধ্যাপক মোহাম্মদ সহিদুল্লা, অধ্যাপক ডা. কাজী শহীদুল আলম, বাংলাদেশ ফেডারেল ইউনিয়ন অব জার্নালিস্ট-এর সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল, বিএসএমএমইউ মেডিসিন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ডা. এবিএম আব্দুল্লাহ, ডেন্টাল অনুষদের ডিন অধ্যাপক ডা. গাজী শামীম হাসান, নার্সিং অনুষদের ডিন অধ্যাপক অসীম রঞ্জন বড়ুয়া, কার্ডিওলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. সজল কৃষ্ণ ব্যানার্জি, রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ডা. এ বি এম আব্দুল হান্নান, ঢাকা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. খান আবুল কালাম আজাদ, স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. মো. বিল্লাল আলম, বিএসএমএমইউ’র অধ্যাপক ডা. ছয়েফ উদ্দিন আহমেদ, সহযোগী অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ হোসেন, সহকারী অধ্যাপক ডা. সাদিয়া শারমিন প্রমুখ।   আর

ঢাবির ‘ঘ’ ইউনিটের ফল প্রকাশ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার ‘ঘ’ ইউনিটের ফল প্রকাশ করা হয়েছে। প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগের মধ্যেই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার সবচেয়ে কম সময়ের মধ্যে এ প্রকাশ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। আজ দুপুর ২ টা ২০ মিনিটে ফল প্রকাশ করা হয়। প্রকাশিত ফলে দেখা যাচ্ছে, উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীর সংখ্যা ১০ হাজার ২৬৪। ফলে দেখা যাচ্ছে ৮৫ দশমিক ৬৫ শতাংশ পরীক্ষার্থী-ই অনুত্তীর্ণ হয়েছেন। অনুত্তীর্ণ শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৬১ হাজার ২৭৬। ‘ঘ’ ইউনিটের ফল admission.eis.du.ac.bd ওয়েবসাইট থেকে জানা যাবে। শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার রোল নম্বর, বোর্ডের নাম, পাসের সাল এবং মাধ্যমিক পরীক্ষার রোল নম্বরের মাধ্যমে তাদের ফল জানতে পারবেন। এছাড়া যেকোনো মোবাইল ফোন থেকে DU<>GHA<>Roll টাইপ করে ১৬৩২১ নম্বরে এসএমএস পাঠিয়েও ফল জানা যাবে।

ঢাবির ‘খ’ ইউনিটে ভর্তিচ্ছুদের সাক্ষাৎকার পিছিয়েছে

দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘খ’ ইউনিটে ভর্তিচ্ছুদের সাক্ষাৎকার পেছানো হয়েছে। রোববার থেকে এই সাক্ষাৎকার শুরু হওয়ার কথা থাকলেও এক সপ্তাহ পিছিয়ে তা ২৯ অক্টোবর নির্ধারণ করা হয়েছে। শনিবার বিকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দপ্তর থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, “দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে শিক্ষার্থীদের অসুবিধার কথা বিবেচনা করে বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা অনুষদের ডিন আগামীকাল রোববার ২২ অক্টোবর থেকে অনুষ্ঠেয় ভর্তির সাক্ষাৎকারের সময় পরিবর্তন করে ২৯ অক্টোবর রোববার থেকে নির্ধারণ করেছে।” পরিবর্তিত সাক্ষাৎকারের সময়সূচি বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট এবং কলা অনুষদের ডিন কার্যালয়ের নোটিশ বোর্ড থেকে জানা যাবে। কেআই/ডব্লিউএন

যুক্তরাজ্যে উচ্চশিক্ষা নিতে চান, আবেদন করুন এখনই

যুক্তরাজ্য সরকারের অর্থায়নে সম্পূর্ণ বিনা খরচে সেদেশের লেখাপড়ার সুযোগ এসেছে। বহির্বিশ্বের শিক্ষার্থীদের জন্য এবারও শিভেনিং স্কলারশিপ অফার করেছে যুক্তরাজ্য সরকার। যারা যুক্তরাজ্যের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে মাস্টার্স কিংবা পিএইচডি করতে চান তারা আবেদন করুন এখন থেকেই।  আবেদনের শেষ তারিখ : ৭ নভেম্বর ২0১৭ যোগ্য আফ্রিকান দেশ : উন্নয়নশীল দেশগুলি স্কলারশিপ দেওয়া হয়: ১৯৮৩ সাল থেকে বৃত্তির সংখ্যা: ১৫০০ যেসব বিষয়ে পড়া যাবে : যুক্তরাজ্যর যেকোনো বিশ্ববিদ্যালয়ে রাজনীতি, সরকার, ব্যবসা, গণমাধ্যম, পরিবেশ, নাগরিক সমাজ, ধর্ম ইত্যাদি বিষয়ে পড়ার সুযোগ রয়েছে। স্কলারশিপ সম্পর্কিত কিছু তথ্য : যাদের শক্ত একাডেমিক ভিত্তি ও যাদের মধ্যে নেতৃত্ব-সম্ভাবনা আছে তাদেরকে শিভেনিং স্কলারশিপ প্রদান করা হয়। এই বৃত্তিটি যুক্তরাজ্যের নেতৃস্থানীয় বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে মাস্টার্স ডিগ্রি এবং ৪৪ হাজার প্রাক্তন ছাত্রীদের প্রভাবশালী বিশ্বব্যাপী নেটওয়ার্কের অংশ হওয়ার জন্য আর্থিক সহায়তা প্রদান করে থাকে। ২০১৮-১৯ সেশনের জন্য বিশ্বব্যাপী আনুমানিক ১৫০০টি শিভেনিং স্কলারশিপ রয়েছে। এই বৃত্তি পরবর্তী বিশ্ব নেতা তৈরির ক্ষেত্রে যুক্তরাজ্যের উল্লেখযোগ্য বিনিয়োগের কথা তুলে ধরে।   যোগ্যতা একটি শিভেনিং স্কলারশিপের জন্য যোগ্য হতে হলে আপনাকে অবশ্যই নিম্ন লিখিত বিষয়গুলোর শিভেনিং-যোগ্য দেশের নাগরিক হতে হবে। স্কলারশিপ শেষ হওয়ার পর দুই বছরের মধ্যে নিজ দেশে ফিরে আসতে হবে। যুক্তরাজ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতকোত্তর প্রোগ্রামে প্রবেশ করতে হলে আপনার অস্নাতক ডিগ্রি থাকতে হবে। এটি সাধারণত যুক্তরাজ্যের উচ্চতর দ্বিতীয় শ্রেণীর ২:১ সম্মান ডিগ্রীর সমতুল্য। অন্তত দুই বছর কাজের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।   যেভাবে আবেদন করবেন:  শেভেনিং বৃত্তি জন্য আবেদন করার জন্য অনলাইনে একটি আবেদনপত্র পূরণ করতে হবে এবং জমা দিতে হবে। নিচের লিংকে গিয়ে আবেদন করা যাবে: http://www.chevening.org/apply স্কলারশিপ সম্পর্কে বিস্তারিত নিচের লিংকে http://scholarship4all.com/uk-uk-government-fully-funded-chevening-scholarship-international-students-2018/   এমআর/ এআর      

রাত ৮টার মধ্যে টিএসসি বন্ধের নির্দেশ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রে (টিএসসি) বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক চর্চার কেন্দ্রবিন্দু। সাংবাদিক সমিতিসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করে এখানে । এদিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রে (টিএসসি) সব ধরনের কার্যক্রম রাত আটটার মধ্যে শেষ করার নির্দেশ দিয়েছে । টিএসসির পরিচালক মহিউজ্জামান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, টিএসসিতে অবস্থিত সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনগুলোকে  নিরাপত্তার স্বার্থে নিজ নিজ কার্যক্রম রাত আটটার মধ্যে শেষ করতে হবে। তবে কাজের স্বার্থে  কর্তৃপক্ষের বিশেষ অনুমতি নিয়ে  রাত ১১টা পর্যন্ত তাদের কাজ চালিয়ে যেতে পারে। এম/ এআর

ঢাবি প্রশ্নপত্র ফাঁস : ছাত্রলীগের রানা বহিষ্কার

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘ঘ’ ইউনিটের প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগে আটক ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সহ-সম্পাদক মহিউদ্দিন রানাকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় দপ্তর সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন শাহজাদা শুক্রবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছেন । বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত তিনটার দিকে সিআইডি এবং বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ শহীদুল্লাহ হলে তার নিজ কক্ষ থেকে প্রশ্ন ফাঁসের উপযোগী ডিভাইসসহ আটক করে। তার কাছ থেকে জব্দ করা প্রশ্ন ফাঁসের বিভিন্ন অডিও, ভিডিও ক্লিপস। যা সিআইডির হেফাজতে রয়েছে বলে জানা গেছে। রানা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের ২০১১-২০১২ সেশনের শিক্ষার্থী। তিনি ছাড়াও ১৪ জনকে আটক করা হয়েছে। এদিকে, শুক্রবার সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার (এসএস) মোল্লা নজরুল ইসলাম এক ব্রিফিংয়ে জানিয়েছেন, একটি বিশেষ কমিউনিকেশনস ডিভাইসের মাধ্যমে প্রশ্নের সমাধান দেওয়ার জন্য ৫ লাখ টাকার চুক্তি করেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সহ-সম্পাদক ও পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের ২০১১-২০১২ সেশনের শিক্ষার্থী মহিউদ্দিন রানা। তার সহযোগী হিসেবে ছিলেন একই বিশ্ববিদ্যালয়ের ফলিত রসায়নের ২০১৪-২০১৫ সেশনের শিক্ষার্থী আব্দুল্লাহ মামুন। তিনি জানান, জালিয়াতির ঘটনায় আটকের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা বিষয়টি স্বীকার করেছেন। ডব্লিউএন

ঢাবির ‘ঘ’ ইউনিটের প্রশ্নপত্র ফাঁস!

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় প্রশ্নপত্রের ইংরেজি অংশটি ফাঁস হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতেই প্রশ্নের এ অংশটি ফাঁস হয়। শুক্রবার সকাল ১০টায় ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার পর প্রশ্ন মিলিয়ে তার প্রমাণও মিলেছে। একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে, বৃহস্পতিবার রাতেই পরীক্ষার্থীদের ইমেইলে ইংরেজি প্রশ্নের অংশটি পাঠানো হয়। আর শুক্রবার সকালে পরীক্ষা শুরুর আগে মোবাইলে এসএমএস বার্তার মাধ্যমে পাঠানো হয় ফাঁস হওয়া প্রশ্নের উত্তর। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর এম আমজাদ আলী গণমাধ্যমকে বলেন, পরীক্ষা চলাকালে কয়েকজন পরীক্ষার্থী জালিয়াতির চেষ্টা করেছে। তাদেরকে আটক করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে ইতোমধ্যে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। তিনি বলেন, প্রশ্ন ফাঁসের কোনো অভিযোগ আমাদের কাছে আসেনি। আর প্রশ্ন ফাঁসের প্রশ্নই ওঠে না।

ঢাবিতে ভর্তি জালিয়াতি, আটক ১৪

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতির অভিযোগে ১৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ। আজ শুক্রবার সকাল ১০টায় পরীক্ষা শুরুর পর বিশ্ববিদ্যালয়ের বাইরের বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে তাদের আটক করা হয়। আটক ১৪ জনের মধ্যে দু’জন বৃহস্পতিবার রাতে প্রক্টরিয়াল বডি এবং সিআইডির অভিযানে ডিজিটাল ডিভাইসসহ আটক হন। এরা দু’জন হলেন- ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের মহিউদ্দিন রানা এবং ফলিত রসায়ন বিভাগের আব্দুল্লাহ আল মামুন। এর মধ্যে মহিউদ্দিন রানা কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ সম্পাদক। এছাড়া আজ ১২ জনকে আটক করা হয় শুক্রবার সকালে। তারা হলেন- নুর মো. মাহবুব, ফরহাদুল আলম রানা, ইশরাক হোসেন রাফি, আব্দুল্লাহ আল মুকিম, রিশাদ কবির, আসাদুজ্জামান মিনারুল, ইশতিয়াক আহমেদ, জয় কুমার সাহা, রেজওয়ানা শেখ শোভা, মাশুকা নাসরীন, তারিকুল ইসলাম, নাছিরুল হক নাহিদ।

৩৭তম বিসিএস : লিখিতের ফল আগামী সপ্তাহের যেকোনো দিন

অবশেষে অবসান হতে যাচ্ছে ৩৭তম বিসিএস পরীক্ষার্থীদের প্রতিক্ষার। লিখিত পরীক্ষার ফল খুব শিগগিরই প্রকাশ করা হচ্ছে। মঙ্গলবার ৩৬তম বিসিএস পরীক্ষার চূড়ান্ত ফল প্রকাশের পর এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী সপ্তাহের যেকোনো দিন ৩৭তম বিসিএস লিখিত পরীক্ষার ফল প্রকাশ হতে পারে। এমন আভাস পাওয়া গেছে পিএসসি সূত্রে। সূত্র জানায়, ৩৭ তম বিসিএস পরীক্ষার খাতা মূল্যায়ন ও ফলাফল তৈরির কাজ চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে। এগুলো এই সপ্তাহের মধ্যেই শেষ হয়ে যাবে। ৩৭ তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষার সম্ভাব্য তারিখ সম্পর্কে পিএসসির  একজন উর্দ্ধতন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ৩৭তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষার ফল অল্প সময়ের মধ্যে প্রকাশ করা হয়। লিখিত পরীক্ষার ফলাফলও চূড়ান্ত পর্যায়ে আছে। দ্রুত প্রকাশের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। আগামী সপ্তাহের মধ্যেই ফল প্রকাশের প্রস্তুতি চলছে। এ লক্ষ্যে যাবতীয় প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। সব ঠিক থাকলে আগামী সপ্তাহে যে ৩৭ তম বিসিএসের লিখিতের ফল ঘোষণা করা হবে সেটি নিশ্চিত করেছেন পিএসসির চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ সাদিক। মঙ্গলবার ৩৬ তমের ফল ঘোষণার পর তিনি বলেছিলেন, আগামী সাত দিনের মধ্যে ৩৭তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হবে। গত বছরের ১ নভেম্বর ৩৭তম বিসিএস প্রিলিমিনারি পরীক্ষার ফল ঘোষণা করা হয়। এতে উত্তীর্ণ হন ৮ হাজার ৫২৩ জন। বিসিএসের ইতিহাসে ওইবার এতো কম সময়ের মধ্যে প্রথম ধাপের ফল ঘোষণা হয়। গত ৩০ সেপ্টেম্বর এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এতে অংশ নেন ২ লাখ ৪৩ হাজার ৪৭৬ জন পরীক্ষার্থী। মঙ্গলবার প্রকাশিত ৩৬তম বিসিএসের চূড়ান্ত ফলে দুই হাজার ৩২৩ জনকে বিভিন্ন ক্যাডারে নিয়োগের সুপারিশ করেছে সরকারি কর্ম কমিশন। এছাড়া আরও তিন হাজার ৩০৮ জনকে প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির নন-ক্যাডার পদে নিয়োগের জন্য অপেক্ষমান রাখা হয়েছে। / এআর /

ঢাবির সব হলের খাবারের দাম এক

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) সব হলের ক্যান্টিনে খাবারের নতুন মূল্যতালিকা প্রকাশ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। নতুন তালিকা অনুযায়ী হলের ক্যান্টিনগুলোতে সকাল, দুপুর ও রাতে একই মূল্যে বিভিন্ন খাবার পাবেন শিক্ষর্থীরা। গত সোমবার বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের এক সভায় নতুন এই মূল্যতালিকা সুপারিশ করা হয়। নতুন মূল্যতালিকা অনুযায়ী সকালের খাবারে দাম রাখা হবে প্রতিটি পরোটার মূল্য তিন টাকা, ডাল, ভাজি বা সবজি পাঁচ টাকা, ডিম ভাজি ১০ টাকা, ফুল প্লেট খিচুড়ি ১২ টাকা ও হাফ প্লেট খিচুড়ি ছয় টাকা। এছাড়া সকাল ও রাতে ফুল প্লেট ভাত ছয় টাকা, হাফ প্লেট ভাত তিন টাকা, মুরগির মাংস ২০ টাকা, ভাতের সঙ্গে মুরগির মাংস ও ডাল ৩০ টাকা, গরুর মাংস ৩০ টাকা, ভাতের সঙ্গে গরুর মাংস ও ডাল ৪০ টাকা,  তেলাপিয়া বা পাঙ্গাস বা নলা মাছ বা ছোট মাছ বা শুটকি মাছ ১৮ টাকা, ভাতের সঙ্গে তেলাপিয়া বা পাঙ্গাস বা নলা মাছ বা ছোট মাছ বা শুটকি মাছ ২৮ টাকা, রুই বা কাতলা মাছ ২২ টাকা ও ভাতের সঙ্গে রুই বা কাতলা মাছ ও ডাল ৩২ টাকা। গত ১১ অক্টোবর ঢাবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. আক্তারুজ্জামানের সভাপতিত্বে প্রভোস্ট কমিটির সভায় সব হলের খাবারের মূল্য তালিকা এক করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পরে বিভিন্ন হলের আবাসিক শিক্ষক ও ১৫ জন ক্যান্টিন মালিকের উপস্থিতিতে এক সভায় তিনি নতুন এ মূল্যতালিকা সুপারিশ করেন।   আর/এআর

জবির ‘ডি’ ইউনিটের পরীক্ষা শুক্রবার

২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) সম্মান প্রথমবর্ষের `ডি` ইউনিটের (সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত) ভর্তি পরীক্ষা শুক্রবার (২০ অক্টোবর) অনুষ্ঠিত হবে। জবি ক্যাম্পাসসহ ১২টি কেন্দ্রে একযোগে বিকাল ৩টা থেকে ৪টা পর্যন্ত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। সূত্র জানায়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘ডি’ ইউনিটের (শাখা পরিবর্তন) ৫৮০টি আসনের বিপরীতে ২৮, ৭৪৩ জন শিক্ষার্থী ভর্তি পরীক্ষার জন্য আবেদন করেছেন। প্রতি আসনের বিপরীতে প্রায় ৫০ জন শিক্ষার্থী ভর্তির জন্য লড়বেন। আসন বিন্যাস: ৪০০০০১ থেকে ৪২৯০১৫ পর্যন্ত জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে, ৪০৭৪৫৯ থেকে ৪০৮৫৫৮ পর্যন্ত ঢাকা গভঃ মুসলিম হাই স্কুলে (লক্ষীবাজার), ৪০৮৫৫৯ থেকে ৪০৯৫৭৫ পর্যন্ত বাংলাবাজার সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে (বাংলাবাজার), ৪০৯৫৭৬ থেকে ৪১০৭৭৫ পর্যন্ত ঢাকা কলেজিয়েট স্কুলে (সদরঘাট), ৪১০৭৭৬ থেকে ৪১২৭৩৪ পর্যন্ত গভর্নমেন্ট ল্যাবরেটরি হাই স্কুল (নিউমার্কেট), ৪১২৭৩৫ থেকে ৪১৪৮৩৪ পর্যন্ত শেখ বোরহানুদ্দিন পোস্ট গ্রাজুয়েট কলেজে (নাজিমুদ্দিন রোড), ৪১৪৮৩৫ থেকে ৪১৬৪৩৪ পর্যন্ত উদয়ন উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে (ফুলার রোড, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়), ৪১৬৪৩৫ থেকে ৪১৮১৩৪ পর্যন্ত ইঞ্জিনিয়ারিং ইউনিভার্সিটি স্কুল এন্ড কলেজে (বুয়েট ক্যাম্পাস), ৪১৮১৩৫ থেকে ৪১৯৮৩৪ পর্যন্ত ইউনিভার্সিটি ল্যাবরেটরি স্কুল এন্ড কলেজে (আই.ই.আর, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়), ৪১৯৮৩৫ থেকে ৪২৩১৩৪ পর্যন্ত উইলস্ লিটল ফ্লাওয়ার স্কুল এন্ড কলেজে (কাকরাইল), ৪২৩১৩৫ থেকে ৪২৫৩৩৪ পর্যন্ত আইডিয়াল কলেজে (৬৫, সেন্ট্রাল রোড, ধানমন্ডি), ৪২৫৩৩৫ থেকে ৪২৮৭৩৪ পর্যন্ত বেগম বদরুন্নেছা সরকারি মহিলা কলেজে (বকশীবাজার) অনুষ্ঠিত হবে। নির্দেশনা: পরীক্ষা কেন্দ্রে ৩০ মিনিট পূর্বেই আসন গ্রহণ করতে হবে। পরীক্ষা কক্ষে মোবাইল ফোন, ক্যালকুলেটর, ঘড়ি ও অন্য যে কোনো প্রকার ইলেকট্রনিক ডিভাইস সঙ্গে নিয়ে আসা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। পরীক্ষার্থীদের হাফ শার্ট ও স্যান্ডেল (জুতা ও মোজা ব্যতীত) পরিধান করে পরীক্ষা কেন্দ্রে আসতে হবে তবে ধর্মীয় অনুশাসন মেনে যারা পোশাক পরিধান করবে তাদের জন্য পোশাকের শর্ত শিথিলযোগ্য। বিস্তারিত তথ্য জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট admission.jnu.ac.bd অথবা admissionjnu.info-এ পাওয়া যাবে।   আর/ডব্লিউএন

ঢাবির ‘ক’ ও ‘চ’ ইউনিটের ফল জানবেন যেভাবে

২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ক’ ও চারুকলা অনুষদভুক্ত ‘চ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়েছে। আজ বুধবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান আনুষ্ঠানিকভাবে এ ফল প্রকাশ করেন।      শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট এবং মোবাইল ফোন থেকে পরীক্ষার ফলাফল জানতে পারবেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট admission.eis.du.ac.bd থেকে ফলাফল জানতে পারবেন শিক্ষার্থীরা। এ ছাড়া ‘ক’ ইউনিটের শিক্ষার্থীরা যেকোনো অপারেটরের মোবাইল ফোনের মেসেজ অপশনে গিয়ে DU স্পেস Kh স্পেস (ভর্তি পরীক্ষার রোল নম্বর) লিখে ১৬৩২১ নম্বরে পাঠালে ফিরতি এসএমএসে ফল জানতে পারবেন। ‘চ’ ইউনিট থেকে DU স্পেস cha স্পেস (ভর্তি পরীক্ষার রোল নম্বর) লিখে ১৬৩২১ নম্বরে পাঠালে ফিরতি এসএমএসে ফল জানতে পারবেন শিক্ষার্থীরা। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায়, এ বছর বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ক’ ইউনিটে পাশের হার ২৩ দশমিক ৩৭ শতাংশ এবং ‘চ’ ইউনিটে পাশের হার ২ দশমিক ৭৫ শতাংশ। ‘ক` ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেয় ৮২ হাজার ৪৫৩ শিক্ষার্থী এবং ‘চ’ ইউনিটে ১১ হাজার ৭২জন শিক্ষার্থী ভর্তি পরিক্ষায় অংশ নেয়। আর/এআর

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি