ঢাকা, শনিবার, ১৮ আগস্ট, ২০১৮ ১৪:০৮:৩৪

ঈদে ঘরমুখো মানুষ নির্বিঘ্নে বাড়ি ফিরতে পারবে: আইজিপি

ঈদে ঘরমুখো মানুষ নির্বিঘ্নে বাড়ি ফিরতে পারবে: আইজিপি

পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বলেছেন, ঈদে ঘরমুখো মানুষ নির্বিঘ্নে বাড়ি ফিরতে পারবে। সারাদেশে সড়ক ও মহাসড়কে যানজট মোকাবেলায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন। তিনি আজ শুক্রবার বিকেলে আসন্ন কোরবানীর ঈদকে কেন্দ্র করে সাভারের নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কে যান চলাচল পরিস্থিতি পরিদর্শন শেষে আশুলিয়ার বাইপাইলে উপস্থিত সাংবাদিকদের এ কথা বলেন। এ সময় তার সঙ্গে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। আইজিপি বলেন,পশুবাহী ট্রাকগুলো যাতে অবাধে গন্তব্যের হাটে যেতে পারে সে জন্য পুলিশ তৎপর রয়েছে। ঈদে বিভিন্ন শিল্প কারখানার শ্রমিকরা যাতে তাদের ন্যায্য মজুরি পান ও কোন বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি যাতে না হয়, সেদিকে নজর দিতে কারখানার মালিকদের প্রতি আহ্বান জানান আইজিপি। তথ্যসূত্র: বাসস। কেআই/ এসএইচ/
গুজব ছড়ানোর অভিযোগে ফারিয়া মাহজাবিন তিন দিনের রিমান্ডে

নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের সময় ফেইসবুকে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে রাজধানীর ধানমণ্ডি এলাকার এক কফিশপ মালিক ফারিয়া মাহজাবিনকে (২৮) গ্রেফতারের পর তিন দিনের রিমান্ড দিয়েছেন আদালত। আজ শুক্রবার ঢাকার মহানগর হাকিম এ কে এম মঈন উদ্দিন সিদ্দীকি এ আদেশ দেন। আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা (জিআরও) মকবুল হোসেন বলেন, আজ শুক্রবার ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিমের আদালতে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ফারিয়া মাহজাবিনকে হাজির করে সাত দিনের রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করেন। অন্যদিকে আসামির পক্ষ থেকে জামিন চাওয়া হয়। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন। আজ সকালে এ নারীকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)। তিনি ধানমণ্ডিতে একটি কফি শপ চালান। তাঁর স্বামীর নাম মোহাম্মদ রিয়াসাত। তিনি রাজধানীর নর্থ ওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটিতে পড়াশুনা শেষ করছেন। টিআর/

নমণ্ডির কফিশপ মালিক গ্রেফতার

নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের সময় ফেইসবুকে ‘উসকানিমূলক পোস্ট দেওয়ার অভিযোগে রাজধানীর ধানমণ্ডি এলাকার এক কফিশপ মালিককে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। র‌্যাবের মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক মুফতি মাহমুদ খান বলেন, বৃহস্পতিবার রাতে হাজারীবাগ থানাধীন হাজী আফসার উদ্দিন রোডের একটি ভবন থেকে ফারিয়া মাহজাবিন (২৮) নামের ওই তরুণীকে তারা  গ্রেফতার করেন। তার মোবাইল ফোনটিও জব্দ করা হয়। মুফতি মাহমুদ খান বলেন, ফারিয়া মাহজাবিন ধানমণ্ডিতে নার্ডি বিন কফি হাউজ নামে একটা কফিশপ চালান। তিনি লেখাপড়া করেছেন নর্থ ওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটিতে। র‌্যাবের পক্ষ থেকে গণমাধ্যমে পাঠানের এক সংবাদ বিবৃতির মাধ্যমে জানানো হয়েছে, ফারিয়া ফেসবুক মেসেঞ্জার ব্যবহার করে ছাত্র আন্দোলনকে ‘ভিন্নখাতে প্রবাহিত ও দীর্ঘায়িত করে আইন-শৃঙ্খলার অবনতি ঘটানোর উদ্দেশ্যে’ বিভিন্ন রকম ‘উসকানিমূলক মিথ্যা তথ্য সম্বলিত আডিও ক্লিপ’ ছড়াচ্ছিলেন। সরকার শিক্ষার্থীদের দাবি মেনে নেওয়ার পরও ফারিয়া ও তার ‘সহযোগীরা অন্যায়ভাবে বিক্ষোভ কর্মসূচি পরিচালনা এবং রাস্তায় সাধারণ মানুষের ওপর হামলা করার উদ্দেশ্যে অপতৎপরতা’ চালাচ্ছিলেন বলেও সেখানে অভিযোগ করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে নতুন কোনো মামলা হবে, নাকি পুরনো কোনো মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হবে- সে বিষয়ে কোনো তথ্য দেননি র‌্যাব কর্মকর্তারা। র‌্যাব-২ এর অধিনায়ক লেফটেনেন্ট কর্নেল আনেয়ার উজ জামান বলেন,“আমরা তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিচ্ছি। নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের সাম্প্রতিক আন্দোলনের সময় গুজব ছড়ানোর অভিযোগে তথ্য প্রযুক্তি আইনে ঢাকার বিভিন্ন থানায় আটটি মামলা হয়েছে। এসব মামলায় এর আগে মোট ২৯ জনকে আসামি করা হয়েছে। টিআর/

বিএনপি নেতা আমীর খসরুকে দুদকে তলব  

অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে বিএনপি নেতা আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীকে তলব করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। ব্যাংকে কোটি কোটি টাকা লেনদেনসহ বিভিন্ন দেশে মুদ্রা পাচার ও অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ পেয়ে এই পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে বলে দুদকের একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে। বৃহস্পতিবার (১৬ আগস্ট) দুদকের পরিচালক কাজী শফিকুল আলম স্বাক্ষরিত এক নোটিশে আগামী ২৮ আগস্ট বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্যকে সেগুনবাগিচায় দুদক কার্যালয়ে হাজির হতে বলা হয়। দুদকের চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, আমির খসরু ব্যাংকে কোটি কোটি টাকার অবৈধ লেনদেন, বেনামে পাঁচ তারকা হোটেল ব্যবসা, বিভিন্ন দেশে অর্থ পাচার এবং নিজ, স্ত্রী ও পরিবারের অন্যান্য সদস্যের নামে শেয়ার ক্রয়সহ জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জন করেছেন। এসি 

জনতা ব্যাংকের অফিসার নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল

রাষ্ট্রায়ত্ব জনতা ব্যাংক লিমিটেডের নির্বাহী কর্মকর্তা (এক্সিকিউটিভ অফিসার) পদে নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল করেছেন আদালত। সেই সঙ্গে দ্রুত ওই পরীক্ষা নতুন করে নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে রায়ে। আজ বৃহস্পতিবার বিচারপতি জুবায়ের রহমান চৌধুরী ও বিচারপতি মোহাম্মদ ইকবাল কবীরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ–সংক্রান্ত রুলের চূড়ান্ত শুনানি শেষে এ রায় দেন। গত বছর ২১ এপ্রিল ওই লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগ তুলে ১৫ জন পরীক্ষার্থী রিট করেছিলেন। প্রাথমিক শুনানি নিয়ে ২২ মে হাইকোর্ট রুলসহ অন্তর্বর্তীকালীন আদেশ দেন। এ রুল রুল যথাযথ ঘোষণা করে আজ এ রায় দেওয়া হলো। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী জ্যোতির্ময় বড়ুয়া ও সুপ্রকাশ দত্ত অমিত। পরীক্ষা গ্রহণকারী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক অনুষদের ডিনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মোমতাজ উদ্দিন ফকির ও মজিবর রহমান সম্রাট। রায়ের পর আইনজীবী সুপ্রকাশ দত্ত অমিত গণমাধ্যমকে বলেন, জনতা ব্যাংকের নির্বাহী কর্মকর্তা পদে লিখিত পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়েছে বলে প্রতীয়মান হয়। এ প্রেক্ষাপটে হাইকোর্ট জনতা ব্যাংকের নির্বাহী কর্মকর্তা নিয়োগে অনুষ্ঠিত ওই লিখিত পরীক্ষা বাতিল ঘোষণা করেছেন। পাশাপাশি দ্রুত নতুন করে লিখিত পরীক্ষা নিতে ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটির চেয়ারম্যানকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। / এআর /

সুপ্রিম কোর্টের নিয়মিত কার্যক্রম বন্ধ থাকবে দেড় মাস

সুপ্রিম কোর্টে নিয়মিত বিচার কার্যক্রম বন্ধ থাকবে আগামী দেড় মাস। ঈদুল আজহার ছুটি, সরকারঘোষিত অন্যান্য ছুটি, সপ্তাহিক ছুটি এবং কোর্টে অবকাশকালীন ছুটিতে যাবেন বিচারপতিরা। আজ বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হয়ে এ ছুটি চলবে আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। তবে এ সময়ে জরুরি বিষয় শুনানি বা নিষ্পত্তির জন্য সুপ্রিম কোর্টের আপিল ও হাইকোর্ট বিভাগের অবকাশকালীন বেঞ্চ বিচার কার্যক্রম পরিচালনা করবেন। প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন সুনির্দিষ্ট বিচারিক এখতিয়ার দিয়ে এরইমধ্যে হাইকোর্ট বিভাগে অবকাশকালীন বিভিন্ন বেঞ্চ গঠন করে দিয়েছেন। এ ছাড়া সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের চেম্বার কোর্টে তারিখ ও সময় নির্ধারণ করে আদালত নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে। সূত্র : বাসস। / এআর /

হোটেল ওলি’র বিস্ফোরণ মামলার তদন্ত ১ বছরেও শেষ হয়নি(ভিডিও)

এক বছরেও শেষ হয়নি রাজধানীর পান্থপথে হোটেল ওলি’র বিস্ফোরণ মামলার তদন্ত। এ পর্যন্ত ১৪ জন গ্রেফতার হলেও জামিনে আছে দুজন। এদিকে শিগরিরই তদন্ত শেষ করে অভিযোগপত্র দেয়া হবে জানিয়ে কর্মকর্তারা বলেছেন ১৫ই আগস্ট ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে হামলার পরিকল্পনা করেছিল জঙ্গিরা। ২০১৭ সালের ১৪ই আগস্ট নব্য জেএমবির সদস্য সাইফুল বোমা নিয়ে ওলিও ইন্টারন্যাশনালের একটি কক্ষে উঠে। উদ্দেশ্য ছিল ১৫ আগস্ট ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বোমা হামলা। গোপন সংবাদেও ভিত্তিতে ১৪ই আগস্ট রাত থেকে ওলিও হোটেল ঘেরাও করেন আইন শূংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। ভোরের দিকে আত্মঘাতি বিস্ফোরনে মারা যায় জঙ্গী সাইফুল। ঘটনার পরদিন কলাবাগান থানার এসআই সৈয়দ ইমরুল সাহেদ বাদী হয়ে সন্ত্রাসবিরোধী আইনে অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে মামলা করেন। হামলার মূল পরিকল্পনাকারী জঙ্গি আকরাম হোসেন নিলয়কে ২১ মার্চ বগুড়া থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ডিএমপির তথ্য মতে, এ মামলায় গ্রেফতার হয় মোট ১৪ আসামী। এর মধ্যে ১০ জন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। তবে জামিন পেয়েছে আবু তোরাব খান ও হুমায়রা জাকির নাবিলা। কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট বলছে, শিগগিরই তদন্ত শেষ করে অভিযোগপত্র আদালতে জমা দেয়া হবে। এদিকে ডিএমপি জানিয়েছে, জঙ্গিদের পরিকল্পনা ছিল ৩২ নম্বরে হামলা করে আন্তর্জাতিকভাবে নিজেদের অবস্থান তুলে ধরা। তা নস্যাৎ করা হয়েছে এবং দেশের প্রচলিত আইনে অপরাধীদের সর্বোচ্চ সাজা নিশ্চিত করা হবে। 

মায়ার সাজা বিষয়ে হাইকোর্টের রায় ৭ অক্টোবর

  আওয়ামী লীগ নেতা মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়াকে জজ আদালতের দেওয়া ১৩ বছর সাজার রায় বহাল থাকবে কি না- সেই সিদ্ধান্ত ৭ অক্টোবর জানাবে হাই কোর্ট। দুর্নীতির অভিযোগে এক দশক আগে জরুরি অবস্থার মধ্যে তার সাজার রায় দেওয়া হয়েছিল। বর্তমান সরকারের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মায়ার আপিলের ওপর পুনঃশুনানি শেষে মঙ্গলবার বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলমের হাই কোর্ট বেঞ্চ রায়ের এই দিন ঠিক করে দেয়। আদালতে দুর্নীতি দমন কমিশনের পক্ষে শুনানি করেন খুরশীদ আলম খান। মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়ার পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী আবদুল বাসেত মজুমদার, ড. বশির আহমেদ ও সাঈদ আহমেদ রাজা। আর রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল রোনা নাহরীন ও এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক। খুরশীদ আলম খান পরে সাংবাদিকদের বলেন, শুনানি শেষ হয়েছে। রায়ের জন্য ৭ অক্টোবর দিন ধার্য করেছেন হাই কোর্ট। ২৯ লাখ টাকার অবৈধ সম্পদের মালিক হওয়ার অভিযোগে ২০০৭ সালের ১৩ জুন দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সহকারী পরিচালক নূরুল আলম সূত্রাপুর থানায় এ মামলা করেন। জরুরি অবস্থার মধ্যেই ২০০৮ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি ঢাকার বিশেষ জজ আদালত এই আওয়ামী লীগ নেতাকে ১৩ বছর কারাদণ্ড দেয়; সেই সঙ্গে তাকে পাঁচ কোটি টাকা জরিমানাও করা হয়। আরকে//  

মানহানির মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন

বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধকে নিয়ে কটুক্তির অভিযোগে দায়ের করা মানহানি মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে ছয় মাসের জামিন দিয়েছেন আদালত। আজ মঙ্গলবার বিচারপতি মুহাম্মদ আবদুল হাফিজ ও বিচারপতি কাশেফা হোসেনের হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেন। আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে শুনানি করেন জেষ্ঠ্য আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন ও এ জে মোহাম্মদ আলী। এর আগে গতকাল সোমবার মুক্তিযুদ্ধে বঙ্গবন্ধুর অবদান ও শহীদদের সংখ্যা নিয়ে কটুক্তির এই মামলায় হাইকোর্টে জামিন আবেদন করেন বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। ২০১৬ সালের ৫ জানুয়ারি ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে (সিএমএম) মামলাটি করেন জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এ বি সিদ্দিকী। মামলার বিবরণে বলা হয়েছে, ২০১৫ সালের ২১ ডিসেম্বর বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দল আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি ওই বক্তব্য দেন। ‘খালেদা জিয়ার ওই বক্তব্য পরদিন বিভিন্ন জাতীয় পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত হয়। যেহেতু ওই বক্তব্য বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের নিয়ে কটাক্ষ করে, স্বাধীনতা যুদ্ধে বঙ্গবন্ধুর অবদান এবং ভূমিকাকে প্রশ্নবিদ্ধ করে। যা দণ্ডবিধি ৫০০ ধারার অপরাধ।’   এ মামলায় গত ৭ আগস্ট খালেদা জিয়ার আবেদন নাকচ করেছিলেন বিচারিক আদালত। আদেশে আদালত বলেছেন, আসামির বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা পেন্ডিং আছে। তিনি এখনো এ মামলায় গ্রেপ্তার হয়নি। এ অবস্থায় উল্লিখিত আসামির পক্ষ জামিন শুনানির আবেদনটি রক্ষণীয় নয় বিধায় নাকচ করা হলো। পরে হাইকোর্টে জামিন আবেদন করেন খালেদা জিয়া। প্রসঙ্গত, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ৫ বছর দণ্ডিত হয়ে খালেদা জিয়া কারাবন্দি। তার মুক্তির দাবি করছে বিএনপি। / এআর /

© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি