ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৭ ১২:১৫:০৯

কাতারে সড়ক দুর্ঘটনা, ২ বাংলাদেশি নিহত

কাতারে সড়ক দুর্ঘটনা, ২ বাংলাদেশি নিহত

কাতারে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন দুই বাংলাদেশি। নিহত দুইজনের মধ্যে একজনের পরিচয় পাওয়া গেলেও অন্যজনের পরিচয় পাওয়া যায়নি। নিহত একজনের নাম সামসুদ্দীন রিয়াদ চৌধুরী। তার বাড়ি চট্টগ্রামের মীরসরাইয়ে। অন্যজনের নাম জানা না গেলেও তার বাড়ি চট্টগ্রামের রাউজানে বলে জানা গেছে। গতকাল সোমবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টায় এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় তারা মারা যান। বর্তমানে নিহতদের মরদেহ কাতারের ওয়াকরা হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। কাতারের মীরসরাই সমিতির সূত্র থেকে জানা গেছে, নিহত রিয়াদ চট্টগ্রামের মীরসরাই উপজেলার ১নং করেরহাট ইউনিয়নের পশ্চিম অলি নগরের বাহার চৌধুরীর ছেলে। রিয়াদ কাতারের আল খোর এলাকায় কর্মরত ছিলেন্। একে//
বাংলাদেশে আকায়েদের জঙ্গি সংশ্লিষ্টাতা পাওয়া যায়নি : সিটিটিসি

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের বাস টার্মিনালে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় আটক বাংলাদেশি যুবক আকায়েদ উল্লাহর বাংলাদেশে অবস্থানের সময় কোনো ধরনের অপরাধ পায়নি পুলিশ। আকায়েদ ইন্টারনেটের মাধ্যমে সেলফ র‌্যাডিকালাইজড হয়েছে বলে ধারণ করছেন কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্স ন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম। বুধবার দুপুরে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া সেন্টারে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন। মনিরুল ইসলাম বলেছেন, ‘আমরা তার স্ত্রী ও শ্বশুর-শ্বাশুড়িকে ডেকে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করেছি। তাদের কাছ থেকে পাওয়া তথ্যানুযায়ী মনে হয়েছে ২০১১ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার আগ পর্যন্ত আকায়েদ বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন সাধারণ শিক্ষার্থী ছিল।’ তিনি আরও বলেছেন, ‘আমারা সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স অনুসরণ করছি। আকায়েদ বাংলাদেশে এসে কাদের সঙ্গে মিশেছে, এদেশের তার কোনও সহযোগী আছে কি-না এ বিষয়গুলো আমরা জানার চেষ্টা করছি।’ উল্লেখ্য, গত সোমবার সকালে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের বাস টার্মিনালে বিস্ফোরণ ঘটে। এর সঙ্গে আকায়েদ উল্লাহ নামে এক বাংলাদেশি যুবকের সংশ্লিষ্টতা পায় নিউ ইয়র্ক পুলিশ। বিস্ফোরণে তার শরীর পুড়ে যাওয়। জখম অবস্থায় এখন সে হাসপাতালে ভর্তি আছে। চট্টগ্রামের আকায়েদ ২০১১ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে বাবা-মায়ের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রে যায়। পরে আকায়েদ মার্কিন নাগরিকত্ব গ্রহণ করে সেখানে ড্রাইভিংয়ের কাজ করা শুরু করে।   একে//

নিউইয়র্কে হামলাকারী আকায়েদের বিচার চেয়েছে বাংলাদেশ

নিউইয়র্কের ম্যানহাটন বাস টার্মিনালে গতকাল সোমবার বিস্ফোরণের ঘটনায় এক বাংলাদেশি যুবকের জড়িত থাকার বিষয়টি জানার পর ওয়াশিংটনে বাংলাদেশ দূতাবাসের এক বিবৃতিতে দেশের অবস্থান স্পষ্ট করা হয়েছে। বিবৃতিতে হামলাকারী আকায়েদ উল্লার বিচার দাবি করা হয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সন্ত্রাসী সন্ত্রাসীই, তার ধর্ম কিংবা জাতীয়তা যাই হোক না কেন। তাকে অবশ্যই বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করাতে হবে। সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ সরকারের যে জিরো টলারেন্স নীতি, তার প্রতি অঙ্গীকার থেকে বাংলাদেশ বিশ্বের যে কোনো প্রান্তে সন্ত্রাস ও উগ্রবাদের নিন্দা জানায়। নিন্দা জানায় সোমবার সকালে নিউইয়র্ক শহরের এই ঘটনায়ও। গতকাল সোমবার সকালে ম্যানহাটনের পোর্ট অথরিটি বাস টার্মিনালে বিস্ফোরণের পর আহত অবস্থায় আকায়েদ উল্লাহ নামে ২৭ বছর বয়সী এক বাংলাদেশি যুবককে আহত অবস্থায় গ্রেপ্তার করে নিউইয়র্ক পুলিশ। সাত বছর আগে বাংলাদেশ থেকে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান আকায়েদ। তিনি একটি ইলেকট্রিক কোম্পানিতে চাকরি করেন। আকায়েদের বাড়ি চট্টগ্রামে। নিউইয়র্ক পুলিশের ভাষ্য অনুযায়ী, আকায়েদ নিজের সঙ্গে বাঁধা বিস্ফোরকের বিস্ফোরণ ঘটিয়েছিলো।   //এমআর

কাতারে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই বাংলাদেশি নিহত

কাতারে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন। নিহত দুইজনের মধ্যে একজনের পরিচয় পাওয়া গেলেও অন্যজনের পরিচয় পাওয়া যায়নি। নিহত একজনের নাম সামসুদ্দীন রিয়াদ চৌধুরী। তার বাড়ি চট্টগ্রামের মীরসরাইয়ে। অন্যজনের নাম জানা না গেলেও তার বাড়ি চট্টগ্রামের রাউজানে বলে জানা গেছে। গতকাল সোমবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টায় কাতারের আল সোমাল রোডে এ মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনাটি ঘটে। বর্তমানে নিহতদের মরদেহ কাতারের ওয়াকরা হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। কাতারের মীরসরাই সমিতির সূত্র থেকে জানা গেছে, নিহত রিয়াদ চট্টগ্রামের মীরসরাই উপজেলার ১নং করেরহাট ইউনিয়নের পশ্চিম অলি নগরের বাহার চৌধুরীর ছেলে। তিনি দীর্ঘদিন কাতারের আল খোর এলাকায় কর্মরত ছিলেন। ।

‘রোহিঙ্গাদের স্বাস্থ্যসেবায় ওআইসির এগিয়ে আসা দরকার’

বাংলাদেশে অনুপ্রবেশকারী রোহিঙ্গা শরণার্থীদের জরুরি স্বাস্থ্যসেবায় এগিয়ে আসার জন্য ওআইসি সদস্য দেশগুলোকে আহ্বান জানিয়েছে বাংলাদেশ। জেদ্দায় ওআইসির স্বাস্থ্যমন্ত্রীদের ষষ্ঠ সম্মলনে বাংলাদেশ বুধবার এ আহ্বান জানানো হয়। বাংলাদেশ থেকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের একটি প্রতিনিধিদল ও বাংলাদেশ দূতাবাসের মিশন উপ-প্রধান ও ওআইসির অ্যাসিটেন্ট পারমেনান্ট রিপ্রেজেনটিটিভ ড. এমডি নজরুল ইসলাম সম্মলনে অংশগ্রহণ করেন। এ সম্মলনের থিম “সব নীতিতে স্বাস্থ্য”। সম্মেলনে বাংলাদেশ জানায় সম্প্রতি মিয়ানমার থেকে বিতাড়িত হয়ে প্রায় ছয় লাখ রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশকারীদের সাস্থসেবা প্রদান করা বাংলাদেশের জন্য বিরাট চ্যালেঞ্জের বিষয়। মিয়ানমার থেকে আসা শিশু, নারী ও বয়স্ক রোহিঙ্গা নাগরিকদের অধিকাংশই দুর্বল ও নানাবিধ রোগে আক্রান্ত। বাংলাদেশ সরকার জাতিসংঘ ও অন্যান্য দাতা সংস্থার সঙ্গে সাধ্যমত তাদের দ্রুত স্বাস্থ্য সেবা ও ওষুধ প্রদান করে আসছে। তবে প্রয়োজনের তুলনায় তা যথেষ্ট নয়, তাই ওআইসি সদস্য রাষ্ট্রগুলোকে রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য বাংলাদেশ আহ্বান জানায়। সম্মেলনে বাংলাদেশের প্রতিনিধি জানায়, ওআইসি সদস্য রাষ্ট্রগুলোর সঙ্গে বাংলাদেশ স্বাস্থ্য খাতের চ্যালেঞ্জগুলো অতিক্রম করে জাতিসংঘের টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করতে চায়। বাংলাদেশ ইতোমধ্যে শিশুমৃত্যুর হার কমিয়ে সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার পুরস্কার অর্জন করেছে। উন্নয়নের এ ধারা বাংলাদেশ টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ও ধরে রাখতে চায়। ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ একটি মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হবে, এ লক্ষে সবার জন্য জ্ঞান-ভিত্তিক ডিজিটাল স্বাস্থ্য ব্যবস্থা গড়ে তোলার জন্য বাংলাদেশ কাজ করছে। জনগনের দোর গোঁড়ায় স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দেওয়ার লক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে ইতিমধ্যে ১৩ হাজারের বেশি কমিউনিটি ক্লিনিক গড়ে তোলা হয়েছে। বাংলাদেশের প্রতিনিধি জানান ইসলামিক দেশগুলির বেশিরভাগ মানুষ স্বাস্থ্যগত বিপর্যয়ের পাশাপাশি প্রাকৃতিক দুর্যোগের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ এবং এসব ঝুঁকি মোকাবেলার অনেক অভিজ্ঞতা আমাদের আছে এবং ওআইসি সদস্য রাষ্ট্রগুলির সঙ্গে বাংলাদেশ তার অভিজ্ঞতা সবসময় ভাগ করে থাকে। সম্মেলনে বাংলদেশ স্বাস্থ্য খাতের অবস্থা উন্নত করার জন্য ও দুর্বল দেশগুলির জন্য টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করতে বরাদ্দ বাড়ানোর আহ্বান জানায়। সম্পদের সর্বোত্তম ব্যবহার করে এবং বিজ্ঞানভিত্তিক জ্ঞান ব্যবহার করে স্বাস্থ্য খাতের চ্যালেঞ্জগুলিকে পরাজিত করবে বাংলাদেশ। সবার জন্য সুস্থতা ও উন্নত স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করার জন্য ওআইসির সব সদস্য রাষ্ট্রের সঙ্গে কাজ করার জন্য প্রস্তুত বলে ও বাংলাদেশ জানায়। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিদলের মধ্যে যুগ্ম সচিব জাকিয়া সুলতানা ও সিভিল সার্জন ড. জাকির হোসাইন খান সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন। এসএইচ/

যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশি ছাত্রকে গুলি করে হত্যা

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যানসাস রাজ্যের উচিটা শহরে গত শনিবার রাতে এক বাংলাদেশি তরুণ মেধাবী ছাত্রকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। ২৬ বছর বয়সী ওই তরুণের নাম হাসান রহমান বাঁধন। সোমবার উচিটা পুলিশ সংবাদ সম্মেলন করে এ খবর নিশ্চিত করেছে। প্রেস ব্রিফিংয়ে বলা হয়েছে, উচিটা শহরের সেন্ট্রাল রক রোডের পাশে ৭৮০০ পেজন্ট লাইভ ওক স্ট্রিট অ্যাপার্টমেন্টের সামনে একটি গাড়িতে ২৬ বছরের এক যুবকের  লাশ পাওয়া গেছে। পুলিশ জানায়, বাঁধন পিৎজা হাট ডেলিভারির কাজ করতেন। এদিন রাতে পিৎজা ডেলিভারি দিয়ে সঠিক সময়ে পিৎজা সেন্টারে না পৌঁছায় পিৎজা কর্তৃপক্ষ পুলিশকে অবহিত করে। গত রবিবার বেলা ১১টায় পুলিশ ৭৮০০ পেজন্ট লাইভ ওক স্ট্রিট অ্যাপার্টমেন্টের সামনে তাঁর লাশ গাড়ির ট্যাংক থেকে উদ্ধার করে। ধারণা করা হচ্ছে, দুর্বৃত্তরা তাঁকে গুলি করার পর গাড়ির ট্যাংকে ঢুকিয়ে নিয়ে ওই এলাকায় ফেলে আসে। পুলিশ নিশ্চিত করেছে, গাড়িটি বাঁধনের। এ ব্যাপারে পুলিশ জনগণের সহযোগিতা কামনা করেছে। ময়নাতদন্ত শেষে আইনি প্রক্রিয়ার পর বাঁধনের লাশ বাংলাদেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হবে। বাঁধনের গ্রামের বাড়ি গাজীপুর চৌরাস্তা টেরিপাড়ায়রা। তিনি পরিবারের একমাত্র ছেলে। বাঁধনের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে উচিটা শহরে বাঙালি কমিউনিটির মাঝে শোকের ছায়া নেমে আসে। উচ্চশিক্ষার আশায় দীর্ঘ সাত বছর আগে বাঁধন যুক্তরাষ্ট্রে আসেন। বাটলার কমিউনিটি কলেজ থেকে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে অ্যাসোসিয়েট শেষ করে আগামী সেশনে ক্যানসাস ইউনিভার্সিটিতে ভর্তির চূড়ান্ত প্রক্রিয়া শেষ করেছিলেন। আগামী ডিসেম্বরে তাঁর কেইউতে ভর্তি হওয়ার কথা ছিল। //এমআর  

সৌদি আরবের সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি প্রবাসী নিহত

সৌদি আরবের আছির প্রদেশে সড়ক দুর্ঘটনায় একজন প্রবাসী বাংলাদেশি শ্রমিক নিহত হয়েছেন। নিহতের নাম সোহাগ মিয়া। মোহাম্মদ সোহাগ মিয়া ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার শিমরাইল গ্রামের মো. সফি আলম এর বডড় ছেলে। শুক্রবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৫ টার সময় সৌদি আরবের আছির প্রদেশের মা`দ্দা এলাকা থেকে খামিস মোশায়েত আসার পথে এই সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থলেই মো. সোহাগ মিয়া মারা যান। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশটি উদ্ধার করে মা`দ্দা জেনারেল হাসপাতালে পাঠালে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ মরদেহটি হিমাগারে রাখে। ঘটনাস্থল থেকে মোহাম্মদ ওসমান নামে একজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান, আছিল প্রদেশ থেকে ফেরার পথে একটি ট্রেলারকে ওভার টেক করতে চাইলে ট্রেলারটি চাপা দিলে গাড়ি উল্টে ঘটনাস্থলে প্রাণ হারান মো. সোহাগ মিয়া। মো. সোহাগ মিয়া তিন ভাই দুই বোনের মধ্যে সবার বড় সেই। সোহাগই পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি বলে পারিবারিক সূত্রে জানায়।   টিকে

সরকারের উন্নয়ন নিয়ে জেদ্দায় আলোচনা

বর্তমান সরকারের উন্নয়ন নিয়ে সৌদি আরবের জেদ্দায় আলোচনা হলো। বুধবার  এ আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। এতে পদ্মা সেতু  প্রকল্প নিয়ে আলোচনা করা হয়। "পদ্মা সেতু: আমাদের অর্থে আমাদের সেতু" স্লোগানকে সামনে রেখে সৌদি আরবের জেদ্দায় বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল "সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড সরাসরি প্রবাসীদের অবহিত করন" শীর্ষক বিষয়ক পাওয়া পয়েন্ট প্রজেক্টেশন উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ সরকারের সেতু বিভাগের সিনিয়র সচিব ও সেতু বিভাগের নির্বাহী চেয়ারম্যান খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম। আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে ও কার্যকর পদক্ষেপের ফলে এ সেতু যথাসময়ে নির্মিত হবে। নির্মাণ কাজের অগ্রগতি সন্তোষজনক উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, এই সেতু দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের প্রায় ৩ কোটি মানুষের জীবনযাত্রার মান উন্নয়নে সাহায্য করবে। তিনি বলেন, এ সেতু নির্মিত হলে আঞ্চলিক বাণিজ্যের সুবিধা, শিল্প উন্নয়ন এবং বাণিজ্যিক কর্মকাণ্ড বৃদ্ধি পাবে। পাশাপাশি কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে।  তিনি আরও বলেন, এই সেতু নির্মাণের পেছনে প্রবাসীরা অগ্রণী ভূমিকা পালন করছেন। আপনাদের পাঠানো রেমিটেন্সের কারণে বাংলাদেশে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ বেড়েছে।  বুধবার সন্ধ্যায় কনস্যুলেট প্রাঙ্গণে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেদ্দার, কনসাল জেনারেল এফ. এম বোরহান উদ্দিন।  কনসাল কাজী সালাউদ্দিন এর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন- বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রণালয়ের প্রধান তথ্য কর্মকর্তা কামরুন্নাহার।   এসএইচ/

৪৪০ অবৈধ অভিবাসী আটক মালয়েশিয়ায়

মালয়েশিয়ায় অভিবাসন কর্তৃপক্ষ এবং পুলিশের এক বিশেষ অভিযানে ৪৪০ জন অবৈধ অভিবাসী আটক হয়েছেন। মঙ্গলবার স্থানীয় সময় বিকাল ৪টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত রাজধানী কুয়ালালামপুরের বুকিত বিনতাং জালান আলো এলাকায় পরিচালিত এ অভিযানে আটক হয় এসব অবৈধ অভিবাসী। সঠিক সংখ্যা এখনও জানা না গেলেও আটক ব্যাক্তিদের মধ্যে বাংলাদেশী নাগরিকও আছে বলে নিশ্চিত করে কর্তৃপক্ষ। অভিবাসন কর্তৃপক্ষ জানায়, অভিযানের সময় ৯১৫ জন বিদেশীকে তল্লাশী করা হয়। এরমধ্যে ৪৪০ জন ব্যক্তিকে অবৈধ হিসেবে চিহ্নিত করে আটক করা হয়। অভিবাসন বিভাগের মহাপরিচালক দাতুক সেরী মোস্তফার আলী জানিয়েছেন, আটক ব্যাক্তিদের মধ্যে ৩৮৯ জন পুরুষ, ৪৭ জন নারী এবং ৪ জন শিশু রয়েছে। আটককৃতরা বাংলাদেশ, ভিয়েতনাম, ইন্দোনেশিয়া, পাকিস্তান, ভারত, ওমানসহ বিভিন্ন দেশের নাগরিক রয়েছে। তবে কোন দেশের ঠিক কতজন নাগরিক আছে তা এখনো নির্দিষ্ট করে জানায়নি কর্তৃপক্ষ। আটককৃতদের আরও তদন্তের জন্য বুকিত জলিল ইমিগ্রেশন ডিপারেন্টে রাখা হয়েছে। সূত্রঃ নিউ স্ট্রেইট টাইমস //এস এইচ// এআর

সৌদি আরবে ফুডেক্স মেলায় বাংলাদেশের অংশগ্রহণ

প্রক্রিয়াজাত ‍খ্যাদ্যপণ্য নিয়ে পঞ্চমবারের মতো জেদ্দায় শুরু হয়েছে ‘ফুডেক্স সৌদি আরব ২০১৭’ মেলা। এতে অংশগ্রহণ করেছে বাংলাদেশও। গত সোমবার জেদ্দাস্থ আন্তর্জাতিক পরিদর্শন কেন্দ্রে মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন সৌদি আরবের রাজ পরিবারের সদস্য প্রিন্স খালেদ বিন আব্দুল্লাহ বিন আব্দুল আজিজ আল সউদ। এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সৌদি আরবের নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম মসিহ, সৌদি সফররত অর্থ মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব কাজি সফিকুল আজম, রপ্তানি উন্নয়ন বোর্ডের যুগ্ম সচিব মোহাম্মদ জাহাঙীর হোসেন, রিয়াদ দূতাবাসের ইকোনমিক কাউন্সিলর ড. আবুল হাসান, প্রেস উইং এর কনসাল ফখরুল ইসলাম, জেদ্দাস্থ কনস্যুলেটের কনসাল মোস্তফা জামিল, কনসাল মুজিবুর রহমান সহ প্রবাসী ব্যবসায়ী ও বিভিন্ন গনমাধ্যমে প্রতিনিধি গন।                                                                  রাষ্ট্রদূত গোলাম মসিহ্ বলেন, বর্তমান সরকার দেশের ক্রমবর্ধমান জনগণের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করার বিষয়টিকে অগ্রাধিকার দিচ্ছে। সেই সাথে বাংলাদেশের জনগণের চাহিদা মিটিয়ে দেশের গন্ডি পেরিয়ে বিদেশেও রপ্তানি করে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের জন্য বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছেন। সৌদি আরবে ফুড বাজার অনেক ভালো তাই এই দেশে বাংলাদেশী পণ্যের চাহিদা রয়েছে। আমাদের দেশে বিশ্ব মানের ফুড কোম্পানির রয়েছে। তারা যদি এই দেশের বাজার সৃষ্টি করতে পারে আমরাও দেশের পন্য পাব পাশাপাশি বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করব।   সোমবার বিকাল থেকেই মেলায় দর্শনার্থীদের সমাগম শুরু হয়েছে। ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত চলবে মেলাটি।   /এমআর

কুয়ালালামপুরে ৬০ বাংলাদেশি আটক

মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরে গার্মেন্ট সামগ্রীর পাইকারী মার্কেট হাংতুয়া কেনাঙ্গা হোলসেল সিটিতে অভিযান চালিয়ে ৬০ বাংলাদেশিকে আটক করা হয়েছে। বুধবার  পরিচালিত এ অভিযানে বিভিন্ন দেশের প্রায় শতাধিক শ্রমিককে আটক করেছে দেশটির পুলিশ। কেনাঙ্গা হোলসেল সিটি মার্কেটে কর্মরত বাংলাদেশি শ্রমিকরা জানান, স্থানীয় সময় বেলা ১১টায় সাদা পোশাকের ইমিগ্রেশন বিভাগ ও পুলিশসহ যৌথ বাহিনীর সদস্যরা মার্কেটে ঢুকে কাগজপত্র চেক করতে শুরু করে। এ সময় পুরো মার্কেটজুড়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। দুপুর ২টা পর্যন্ত চলে এ অভিযান। কর্মরত ৬০ বাংলাদেশিসহ বিভিন্ন দেশের প্রায় শতাধিক শ্রমিককে আটক করা হয়। কেনাঙ্গা হোলসেল সিটিতে কর্মরত নোয়াখালীর পিয়াস মাহমুদ জানান, আটক বাংলাদেশিদের অনেকের কাগজপত্র ছিল। কাগজ থাকার পরও যৌথবাহিনী তাদের আটক করে নিয়ে যায়। তাদের বৈধ কাগজপত্র ও চলমান বৈধকরণ প্রক্রিয়া মাই-ইজি ও ই-কার্ড অন্য মালিকের নামে করা আছে। ডব্লিউএন

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি