ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ১৫:৩১:৩৫

হবিগঞ্জে বিএনপির ২০ নেতা-কর্মী গুলিবিদ্ধ

হবিগঞ্জে বিএনপির ২০ নেতা-কর্মী গুলিবিদ্ধ

দুর্নীতি মামলায় দণ্ডিত দলীয় চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে হবিগঞ্জে বিএনপির বিক্ষোভ পুলিশ গুলি ছোঁড়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এতে বিএনপির ২০ নেতা–কর্মী গুলিবিদ্ধ হয়েছেন বলে দাবি করেছে জেলা বিএনপি। হবিগঞ্জ বিএনপির নেতাকর্মীদের দাবি, জেলা বিএনপি কার্যালয় থেকে বেলা ১১ টার দিকে মিছিল নিয়ে বের হয়ে মিছিলটি শহরের শায়েস্তানগর এলাকায় পৌঁছালে পুলিশ তাঁদের বাধা দেয়। এ নিয়ে পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে হবিগঞ্জ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র জিকে গউছের বাগ্‌বিতণ্ডা হয়। এ সময় পুলিশ জিকে গউছকে লাঞ্ছিত করলে উপস্থিত নেতাকর্মীরা উত্তেজিত হয়ে পড়েন। উত্তেজিত কর্মীদের ওপর পুলিশ উপর শটগানের গুলি ছোড়ে। এতে ২০ জন গুলিবিদ্ধ হন। মেয়র জিকে গউছ দাবি করেন, পুলিশ তাঁর গায়ে হাত তোলা ছাড়াও বিনা উসকানিতে তাঁদের মিছিলে অতর্কিতভাবে গুলি চালিয়েছে। হবিগঞ্জ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আয়াতুন্নবী জানান, পুলিশ অহেতুক হামলা চালায়নি। পুলিশকে উদ্দেশ্য করে বিএনপি নেতাকর্মীরাই প্রথমে হামলা চালায়। পরে আত্মরক্ষার্থে পুলিশ গুলি ছুড়েছে। একে// এআর
রাজশাহীতে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৩

রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে যাত্রীবাহী দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে শিশুসহ কমপক্ষে তিনজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন অন্তত ১২ জন। নিহতের একজন বাসচালক মারুফ হোসেন (৩৫)। মারুফ উপজেলার কুঠি গ্রামের আতাউর রহমান টিটুর ছেলে। অন্য দুজনের পরিচয় তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি। স্থানীয়দের সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে উপজেলার কামারপাড়ায় রাজশাহী-চাঁপাইনবাবগঞ্জ মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। গোদাগাড়ী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আলতাব হোসেন জানান, মঙ্গলবার সকালের দিকে উপজেলার কামারপাড়ার রাজশাহী-চাঁপাইনবাবগঞ্জ মহাসড়কে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই দুজনের মৃত্যু হয়। এরপর হাসপাতালে নেওয়ার পথে আরও একজনের মৃত্যু হয়। তিনি আরও বলেন, ঢাকা থেকে চাপাইনবাগঞ্জ যাওয়ার পথে একতা পরিবহনের একটি বাসের সঙ্গে বিপরীত দিকে থেকে আসা মহানন্দা পরিবহনের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই বাসচালকসহ দুইজন এবং সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এক শিশুর মৃত্যু হয়। এমজে/

মেয়ের চিকিৎসায় দিনমজুর বাবার আকুতি

দুরারোগ্য লিভার ইনফেকশনে আক্রান্ত মেয়ে মেধাবী ছাত্রী মিমের জীবন বাঁচাতে আর্থিক সহযোগিতার আকুল আবেদন জানিয়েছেন দিন মজুর পিতা খলিলুর রহমান প্যাদা। মিম (১০) পঞ্চম শ্রণীর ছাত্রী। সে ইট বারিয়া কদমতলা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একজন মেধাবী ছাত্রী। গত চার মাস থেকে অনেক অসুস্থ সে। অসুস্থতার কারণে ঢাকার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে হেমাটোলজি বিভাগে ডি ব্লকের ৫ম তলায় ৫১৪ নং ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছে। অধ্যাপক ডা. এ এস এম বজলুল করিম তাকে হাসপাতালে ভর্তি করেছেন। ডাক্তার জানিয়েছে মিমের লিভারের ইনফেকশন হয়েছে। মিমের বাবা খলিলুর রহমান প্যাদা বলেন, আমার মেয়ের উন্নত চিকিৎসার জন্য আর্থিক সাহায্য দিতে আপনাদের নিকট শরনাপন্ন হলাম। আমার দরিদ্র পরিবারের কথা চিন্তা করে আমার মেয়ের সুচিকিৎসার জন্য আর্থিক সহযোগিতা করে পিতা হিসেবে আমার মেয়েকে বাঁচিয়ে রাখার চেষ্টায় সহযোগিতা করেন। খলিলুর জানান, তার বাড়ী বরগুনা সদর থানার পাতাকাটা ইউনিয়নের জাংগালিয়া গ্রামে। তিনি একজন সামান্য দিন মজুর। তাকে পরিবারের ৬ সদস্যের ভরণ-পোষন চালাতে হয়। যা তার একার পক্ষে অসম্ভব হয়ে উঠেছে। পরিবারের এ টানাটানির মধ্যে মেয়ের চিকিৎসা খরচ মেটানো তার পক্ষে একেবারেই অসম্ভব। তাই তিনি মেয়ের জীবন বাঁচাতে সবার প্রতি সহযোগিতার হাত বাড়াতে আকুল আবেদন জানিয়েছেন।  আরকে//এসি 

টেকনাফে দুর্ঘটনায় ৩ বন্ধু নিহত

প্রাইভেটকার নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে তিন বন্ধু নিহত হয়েছেন; আহত হয়েছেন আরও দুইজন। ঘটনাটি ঘটে কক্সবাজারের টেকনাফে।  সোমবার টেকনাফ-শাহপরীর দ্বীপ সড়কের নূর আহমদ চেয়ারম্যানের বাঁকে এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে জানান টেকনাফ মড়েল থানার ওসি মো. মাইন উদ্দিন খান। নিহত তিনজন হলেন, টেকনাফের জালিয়াপাড়ার মাহবুবুর রহমান মাবু, আছারবনিয়া গ্রামের মোহাম্মদ ইসমাইল ও টেকনাফ সদরের মৌলভীপাড়ার হেলাল উদ্দিন। দুপুরে তাদের লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।  আহত জালিয়াপাড়ার নিয়াজ উদ্দিন ও পানছড়িপাড়ার মো. রাসেলকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। পুলিশ বলছে, হতাহতদের বয়স ২৫-৩০ বছর হতে পারে। ওসি জানান, ‘টেকনাফ থেকে প্রাইভেটকারে পাঁচ বন্ধু রোববার কক্সবাজার বেড়াতে যান। সোমবার ভোরে টেকনাফ ফেরার পথে নূর আহমদ চেয়ারম্যানের টেক (বাঁক) গাড়িটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাশের বাগানের সুপারি গাছের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এতে ঘটনাস্থলে ওই তিন বন্ধু নিহত হন।’ প্রাইভেটকারটি ইতিমধ্যে জব্দ করে এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলে জানান মাইন উদ্দিন।  এসি/

চাঁপাইয়ে ৭ লাখ জাল রুপিসহ দুই চোরাচালানী গ্রেফতার

চাঁপাইনবাবগঞ্জ এলাকায় অভিযান চালিয়ে অন্তত ৭ লাখ ভারতীয় জাল রুপিসহ চোরাচালান চক্রের দুই সদস্য গ্রেফতার করছে র‌্যাব-৫। তাদের কাছ থেকে ২ টি মোবাইল ফোন ও তিনটি সিমকার্ডও ‍উদ্ধার করা হয়। রোববার রাতে র‌্যাব মিডিয়া সেন্টার থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়। বিবৃতিতে বলা হয়, রোববার রাতে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ থানাধীন সাতরশিয়া গ্রামে বিশেষ অভিযানকালে ভারতীয় জাল রুপিসহ দুইজন ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার ব্যাক্তিরা হলো-মো. উজ্জল (২৮), মোঃ সুজাল (২৪)। তারা সহোদার। তারা শিবগঞ্জের মৃত মাইনুল ইসলামের ছেলে। এসময় তাদের কাছ থেকে সাত লাখ আট হাজার ভারতীয় জাল রুপি। ২ টি মোবাইল ফোন ও তিনটি সিমকার্ড ‍উদ্ধার করা হয়।  গ্রেফতার ব্যাক্তিরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, তারাসহ একটি চক্র দীর্ঘদিন ধরে জাল টাকার বাণিজ্য করছে। তারা ভারতীয় জাল রুপি সহ বিভিন্ন দেশের জাল মুদ্রার চোলাচালানের সঙ্গে জড়িত। / এআর /  

‘জাদুঘর থেকে জানা যাবে গোটা বাংলাদেশকেই’

ভোলায় নির্মিত হয়েছে স্বাধীনতা জাদুঘর। এটি সাজানো হয়েছে আধুনিক প্রযুক্তির মাধ্যমে।বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদের এই স্বপ্নের স্বাধীনতা জাদুঘর থেকে জানতে পারবেন মুক্তিযুদ্ধ, বঙ্গবন্ধু এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতার বিভিন্ন দিক। শনিবার স্বাধীনতা জাদুঘর ঘুরে দেখেন মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক  ও বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। জাদুঘরের বিভিন্ন প্রযুক্তি ও স্থাপনা  প্রদর্শন করে তিনি জানান, এখানে  প্রবেশ করলে জানা যাবে গোটা বাংলাদেশকেই।  তোফায়েল আহমেদ বলেন, ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলন থেকে শুরু করে পাকিস্তানের জন্ম, বাংলাদেশের স্বাধীনতা এবং মুক্তিযুদ্ধের সব সংগ্রামের যে ঐতিহ্য, যে চিত্র সেটি এখান থেকে দেখতে পারবেন। এটা সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে। তিনি আরোও জানান, এখানে গাইড থাকবে। বাংলাদেশ কীভাবে স্বাধীন হয়েছে, কী ত্যাগ করতে হয়েছে কীভাবে ৩০ লাখ মানুষ মাবোন লাঞ্ছিত হয়েছেন, শহীদের মৃতদেহ রাজপথে পড়ে আছে, সব কিছু দেখতে পারবেন। গত ২৫ জানুয়ারি এ জাদুঘরটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন, রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। ভোলা সদর উপজেলার বাংলাবাজারে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদের মায়ের নামে জাদুঘরটি স্থাপন করা হয়েছে। ২০১৫ সালের মার্চে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত জাদুঘরটির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। ফাতেমা খানম কমপ্লেক্সে তোফায়েল আহমেদ ট্রাস্টি বোর্ডের উদ্যোগে জাদুঘরটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। প্রায় এক একর জমির উপর নির্মিত জাদুঘরটির ডিজাইন করেছেন দেশের স্বনামধন্য স্থপতি ফেরদৌস আহমেদ। এমএইচ/ এআর  

খাগড়াছড়িতে প্রতিপক্ষের গুলিতে ইউপিডিএফ কর্মী খুন

খাগড়াছড়ি সদরে ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের (ইউপিডিএফ)এক কর্মী খুন হয়েছেন। নিহতের নাম দীলিপ কুমার চাকমা ওরফে বিনয় (৪২)। শনিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে সদরের হরিনাথপাড়া এলাকায় প্রতিপক্ষের গুলিতে তার মত্যু হয়েছে। নিহত বিনয় হরিনাথ পাড়ার সন্তোষ কুমার চাকমার ছেলে। তিনি ইউপিডিএফের রাঙাপানি ছড়া এলাকার সাংগঠনিক দায়িত্বপ্রাপ্ত। গড়াছড়ি সদর থানার ওসি তারেক মুহাম্মদ আব্দুল হান্নান জানান, সকালে নিজের বাড়ির সামনে দিলীপসহ কয়েকজন বসে ছিলেন। এ সময় কতিপয় অস্ত্রধারী তাদের ধাওয়া করে পেছন থেকে গুলি করলে দীলিপ কুমার চাকমা ঘটনাস্থলেই মারা যান। এ ঘটনার জন্য নব্য মুখোশ বাহিনী ইউপিডিএফ-কে (গণতান্ত্রিক) দায়ী করেছেন ইউপিডিএফের জেলা সংগঠক মাইকেল চাকমা। ওসি জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। উল্লেখ্য, এর আগে গত ৩ জানুয়ারি আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে খাগড়াছড়ির পানখাইয়া পাড়ায় প্রতিপক্ষের গুলিতে ইউপিডিএফের সংগঠক মিঠুন চাকমা প্রকাশ জুম্মা নিহত হন। একে// এআর

১০০ টাকার জন্য যুবককে গলাকেটে হত্যা

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় পাওনা ১০০ টাকা চাওয়ায় চাচাত ভাইকে গলাকেটে হত্যার অভিযোগ ওঠেছে এক এসএসসি পরীক্ষার্থী বিরুদ্ধে। শুক্রবার রাতে উপজেলার হেলাতলায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকে এসএসসি পরীক্ষার্থী ওই কিশোর পলাতক বলে জানিয়েছে পুলিশ। নিহতের নাম রুবেল হোসেন (৩০)। তিনি হেলাতলা গ্রামের হাসান দফাদারের ছেলে। কলারোয়া থানার ওসি বিপ্লব কুমার নাথ জানান, ১০০ টাকা পাওনা নিয়ে রুবেলের সাথে তার চাচাত ভাইয়ের বিরোধ ছিলো। শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে ওই টাকা চাওয়ায় রুবেলকে কয়েক দফা ইট ছুড়ে মারে তার চাচাত ভাই। পরে ছুরি দিয়ে তার গলাকেটে পালিয়ে যায়। পরে গ্রামবাসীর সহায়তায় সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথে রুবেলের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় রাতেই রুবেল বাবা ওই কিশোর ও তার মায়ের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন বলে জানান ওসি। একে// এআর

ভারতে পাচারের সময় ২০ পিস সোনার বার উদ্ধার

ভারতে পাচারের সময় বেনাপোলের ধান্যখোলা সীমান্তে অভিযান চালিয়ে ২০ পিস স্বর্ণের বার উদ্ধার করেছে বিজিবি সদস্যরা। শুক্রবার সকালে ধান্যখোলা সীমান্তের একটি মাঠ থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় ওই স্বর্ণের বারগুলো উদ্ধার করা হয়। তবে এ সময় কোন চোরাকারবারীকে আটক করতে পারেনি বিজিবি সদস্যরা। যশোর ৪৯ বিজিবি ব্যাটালিয়নের বেনাপোল আইসিপি ক্যাম্পের সুবেদার শফিকুল ইসলাম বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিপুল পরিমাণ স্বর্ণের একটি চালান ভারতে পাচারের কথা আমরা জানতে পারি। জানার পর অভিযান চালিয়ে ধান্যখোলা ২৬ পিলারের কাছে সরিষা ক্ষেতের পাশে কাপড়ের ব্যাগে মোড়ানো পরিত্যক্ত অবস্থায় ২০ টি স্বর্ণের বার উদ্ধার করি। তিনি আরোও জানান, আটক ২০ পিস স্বর্ণের ওজন ৮৬৫ গ্রাম। যার মূল্য ৩৩ লাখ ৩৭ হাজার ১ শত ৭০ টাকা। এ ব্যাপারে বেনাপোল পোর্ট থানায় একটি মামলা দায়ের করার কথাও জানান তিনি। এমএইচ/এসি

বই পড়ে পুরস্কার পেলো ১৪৪৬ জন শিক্ষার্থী

বই পড়ে পুরস্কার পেলো রাজশাহীর ১ হাজার ৪৪৬ জন শিক্ষার্থী। শুক্রবার সকালে বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের উদ্যোগে শিক্ষা বোর্ড মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ চত্ত্বরে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বই পড়া কর্মসূচীতে বিজয়ী শিক্ষার্থীদের হাতে পুরস্কার হিসেবে বই তুলে দেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি কথাসাহিত্যিক অধ্যাপক হাসান আজিজুল হক। পুরস্কার জয়ীদের অভিনন্দন জানিয়ে কথাসাহিত্যিক হাসান আজিজুল হক বলেন, ভাষার উপর ভিত্তি করেই আমাদের দেশ ও জাতির জন্ম হয়েছে। আমাদের সংস্কৃতি আমাদের মনে গভীরভাবে মিশে রয়েছে। একে উন্নত করার জন্য আমাদের অবশ্যই পাঠ্য বইয়ের বাইরে প্রচুর বই পড়তে হবে। এই বই যত বেশি পড়বে তত বেশি জানবে। বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের বইপড়া কার্যক্রম প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার বাইরে নিজেকে বিকশিত করার এক মহা সুযোগ বলে উল্লেখ করেন হাসান আজিজুল হক। একই সঙ্গে বইপড়া কার্যক্রম পরিচালনার জন্য বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রকে ধন্যবাদ জানান তিনি। পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী জেলা প্রশাসক হেলাল মাহমুদ শরীফ, উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষক প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট, রাজশাহী অঞ্চলের পরিচালক প্রফেসর ড. রীনা রানী দাস, বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের নাটোর শাখার সংগঠক অধ্যাপক অলক মৈত্র, দু’বার এভারেস্ট বিজয়ী একমাত্র বাংলাদেশি এম.এ মুহিত, বাংলাদেশের প্রথম নারী এভারেস্ট বিজয়ী নিশাত মজুমদার, রাজশাহী শিক্ষা বোর্ড মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ তাইফুর রহমান, গ্রামীণফোনের রাজশাহী সার্কেল এর হেড অব মার্কেটিং মোহাম্মদ সোহেল মাহমুদ এবং বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের উপদেষ্টা অঞ্জন কুমার দে প্রমুখ। আয়োজকরা গণমাধ্যমকে বলেন, বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের আয়োজনে রাজশাহী নগরীর পুরস্কার বিতরণী উৎসবে ৩৫টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মোট ১ হাজার ৪৪৬ জন শিক্ষার্থীর হাতে পুরস্কার দেয়া হয়। পুরস্কারের বইসহ উৎসব আয়োজনে সার্বিক সহযোগিতা করেছে গ্রামীণফোন লিমিটেড।  কেআই/

© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি