ঢাকা, বুধবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১১:৩৫:১৩

বৃষ্টি কমতে পারে কাল থেকে

বৃষ্টি কমতে পারে কাল থেকে

রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে আজ বুধবার সকাল থেকে আকাশ আংশিক মেঘলা থাকতে পারে। আর দেশের কোথাও কোথাও হালকা বৃষ্টি থেকে ভারি বৃষ্টি বা ভারি বর্ষণও হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর। আবহাওয়া অধিদফতরের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রুহুল কুদ্দুস জানান, আজ সারাদেশের দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। তিনি আরো জানান আগামীকাল ২১ সেপ্টেম্বর থেকে সারাদেশেই বৃষ্টিপাতের পরিমান কমতে পারে। আজ ঢাকা, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় রাজশাহী, ময়মনসিংহ, ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রংপুর বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হতে পারে। আজ ঢাকার আশেপাশের এলাকার উপর দিয়ে দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ১০ থেকে ১৫ কি.মি. বাতাস প্রবাহিত হতে পারে। সেইসঙ্গে আজ ভোর ৫ টা থেকে দুপুর ১ টা পর্যন্ত  দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দর সমুহের জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে- রংপুর, রাজশাহী, পাবনা, বগুড়া, ঢাকা, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, যশোর, কুষ্টিয়া, ফরিদপুর, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার এবং সিলেট অঞ্চলের উপর দিয়ে দক্ষিণ অথবা দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে দমকা বা ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে এবং বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টিও হতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরগুলোকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। এছাড়াও উত্তর বঙ্গোপসাগর এলাকায় গভীর সঞ্চালনশীল মেঘমালা তৈরির কারণে উত্তর বঙ্গোপসাগর বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা এবং সমুদ্র বন্দরসমূহের উপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। তাই চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরসমূহকে ৩ নম্বর  স্থানীয় সতর্কতা সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। আরকে//এআর
খামারে ব্যবসায়ী দুই বন্ধুর লাশ

মাগুরায় পোলট্রি খামার থেকে দুই ব্যবসায়ী বন্ধুর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। মঙ্গলবার দিবাগত রাতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে তাঁদের মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করছেন চিকিৎসকরা। মাগুরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইলিয়াস হোসেন গণমাধ্যমকে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। দুই ব্যবসায়ী হলেন মাগুরা সদর উপজেলার সাজিয়াড়া গ্রামের টিটুল কাজী (৩০) ও দারিয়াপুর গ্রামের মো. হাসান (২৮)। সাজিয়াড়া গ্রামের বাসিন্দা ইমরান হোসেন বলেন, টিটুল কাজী ও মো. হাসান দুজন ঘনিষ্ঠ বন্ধু ছিলেন। সাজিয়াড়ায় টিটুল কাজীর ও দারিয়াপুরে মো. হাসানের পোলট্রির খামার আছে। বুধবার ভোর ছয়টার দিকে টিটুল কাজীর খামারে মুরগির খাবার দিতে গিয়ে এক কর্মচারী দেখেন, টিটুল কাজী ও মো. হাসান মৃত অবস্থায় খামারের ভেতর পড়ে আছেন।পরে সকাল পৌনে সাতটার দিকে টিটুল কাজীকে মাগুরা সদর হাসপাতালে আনা হলে চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। রাতে টিটুল কাজীর খামারে মো. হাসান বেড়াতে এসেছিলেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। মাগুরা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক রবিউল ইসলাম বলেন, সকালে টিটুল কাজীকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়। সম্ভবত বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে তাঁর মৃত্যু হয়েছে। বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে একটি হাতের কিছু জায়গা পুড়ে যাওয়ার চিহ্ন ছিল। আরকে//এআর

পর্নো দেখিয়ে শিশু ধর্ষণের চেষ্টা!

পিরোজপুর সদরে মুঠোফোনে পর্নো ছবি দেখিয়ে ৬ বছরের এক মেয়ে শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা করেছে এক তরুণ। তাকে (১৯) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আসামির বাড়ি সদর উপজেলার শিকদার মল্লিক ইউনিয়নে। পুলিশ ও শিশুর পরিবার জানায়, শিশুর বাড়ি উপজেলার শিকদার মল্লিক ইউনিয়নে। সোমবার বেলা আড়াইটার দিকে শিশুটি বাড়ির উঠানে খেলা করছিল। এ সময় প্রতিবেশী ওই তরুণ শিশুটিকে তাঁর ঘরে ডেকে নিয়ে যান। এরপর তরুণ শিশুটিকে মুঠোফোনে পর্নো ছবি দেখায় এবং ধর্ষণের চেষ্টা চালান। শিশুটির চিৎকার শুনে তার বড় বোন সেখানে যায়। তখন তরুণ পালিয়ে যান। মঙ্গলবার সকালে পুলিশ ওই তরুণকে গ্রেফতার করে। পিরোজপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুমুর রহমান বিশ্বাস বলেন, দুপুরে তরুণকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ কর্মকর্তার ভিক্ষুক মায়ের দায়িত্ব নিলেন এমপি টিপু সুলতান

দুই ছেলে পুলিশ কর্মকর্তা, একছেলে পুলিশ সদস্য, এক ছেলে ব্যবসায়ী, আরেক ছেলে ইজিবাইক চালান, আর একমাত্র মেয়ে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা। কিন্তু কেউই সত্তরোর্ধ্ব মায়ের ভরণপোষণ দিতেন না। বাধ্য হয়ে ভিক্ষা করে কোনো রকমে জীবন চালাতেন মনোয়ারা বেগম। অসুস্থ্য শরীর নিয়ে ঠিকমতো ভিক্ষাও করতে পারতেন না তিনি। অবশেষে সেই বৃদ্ধা মায়ের দায় দায়িত্ব নিলেন তার সন্তানেরা হয়তো ভুলেই গেছেন  বরিশাল-৩ (বাবুগঞ্জ-মুলাদী) আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট শেখ মো. টিপু সুলতান। টিপু সুলতানের উদ্যোগে মনোয়ারা বেগমকে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সোমবার দুপুর ১২টার দিকে সাংসদ টিপু সুলতানের নির্দেশে বাবুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) দীপক কুমার রায় মনোয়ারা বেগমের বাড়িতে যান। তিনি অসুস্থ মনোয়ারা বেগমকে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে পাঠান। সোমবার সকালে একটি অনলাইন নিউজপোর্টালে মনোয়ারা বেগমকে নিয়ে একটি সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার পর বিষয়টি আলোচনায় চলে আসে। সংবাদটি প্রকাশের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে যায়। অনেকে ওই বৃদ্ধার জন্য সহমর্মিতা প্রকাশ করে তার সন্তানদের শাস্তি দাবি করেন। বৃদ্ধা মায়ের প্রতি অবহেলার কারণে পুলিশে কর্মরত তিন ছেলে এবং শিক্ষিকা মেয়ের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, বরিশাল জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার ও ইউএনও’র সঙ্গে কথা বলেছেন সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট শেখ মো. টিপু সুলতান। বাবুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) দীপক কুমার রায় জানান, মায়ের প্রতি অবহেলার কারণে মনোয়ারা বেগমের মেয়ে বাবুগঞ্জ উপজেলার পূর্ব ভূতেরদিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা মরিয়ম সুলতানাকে শোকজ করা হয়েছে। স্থানীয়রা জানান, স্বামী আইয়ুব আলী বেঁচে থাকা অবস্থায় ছয় সন্তান নিয়ে ভালোভাবেই দিন কেটেছে মনোয়ারার। কিন্তু ২০১৪ সালে আইয়ুব আলী সরদার মারা যান। সংসারে টানাটানি থাকলেও ছয় সন্তানকে কমবেশি শিক্ষিত করে গড়ে তুলেছেন। কিন্তু সেই গর্ভধারিণী মাকে দুইবেলা খাবারের জন্য মানুষের দ্বারে দ্বারে ভিক্ষা করতে হচ্ছে। বয়সের ভার আর অসুস্থতার কারণে ভিক্ষা করাও কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে মনোয়ারা বেগমের জন্য। গত ১৬ ফেব্রুয়ারি ভিক্ষা করতে গিয়ে পা ফসকে পড়ে গিয়ে পায়ের হাড় ভেঙে যায় তার। সেই থেকে আজ পর্যন্ত বাবুগঞ্জে স্টিল ব্রিজের পশ্চিম প্রান্তের একটি ঝুপড়ি ঘরে বিনা চিকিৎসায় অর্ধাহারে বেঁচে আছেন তিনি। সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট শেখ মো. টিপু সুলতান জানান, সকালে বিষয়টি জানার পর তিনি খুবই কষ্ট পেয়েছেন। সকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে পাঠিয়ে অসুস্থ মনোয়ারা বেগমকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে নিয়ে এসে ভর্তি করানোর ব্যবস্থা করা হয়। আর বৃদ্ধা মায়ের প্রতি অবহেলার কারণে পুলিশ কর্মকর্তা তিন ছেলে এবং শিক্ষিকা মেয়ের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, বরিশাল জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার ও ইউএনও’র সঙ্গে তিনি কথা বলেছেন। অসুস্থ মনোয়ারা বেগমের চিকিৎসাসহ যাবতীয় ব্যয়ভার তিনিই বহন করবেন। ডব্লিউএন

হত্যা মামলায় টাঙ্গাইলে বাবা ও তিন ছেলের যাবজ্জীবন

টাঙ্গাইলে হত্যা মামলায় বাবা ও তিন ছেলের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। একই সঙ্গে দণ্ডিত ব্যক্তিদের এক লাখ টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে এক বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। আজ সোমবার দুপুরে টাঙ্গাইলের জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক রবিউল হাসান এই রায় দেন। মামলায় দণ্ডিত ব্যক্তিরা হলেন টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার উপজেলার পাছ এলাসিন গ্রামের সাগর মিয়া (৬০), তাঁর তিন ছেলে এরশাদ মিয়া (২৮), রাশেদ মিয়া (২৬) ও মনিরুল ইসলাম (২২)। এ মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণীতে বলা হয়, ২০১৫ সালের ১৮ জুলাই বাড়ির সীমানাসংক্রান্ত জটিলতা নিয়ে দেলদুয়ার উপজেলার পাছ এলাসিন গ্রামের মজনু মিয়ার (৩৫) সঙ্গে ঝগড়ার একপর্যায়ে দণ্ডিত আসামিরা তাঁকে হত্যা করেন। পরে নিহত মজনু মিয়ার স্ত্রী খাদিজা বেগম বাদী হয়ে দেলদুয়ার থানায় মামলা করেন। রায় ঘোষণার পর চার আসামিকেই টাঙ্গাইল জেলা কারাগারে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। রাষ্ট্রপক্ষের মামলা পরিচালনা করেন সরকারি কৌঁসুলি আলমগীর খান। আসামিপক্ষে ছিলেন বাকি মিয়া। কেআই/ডব্লিউএন    

বুনো হাতির হামলায় শিশুসহ দুই রোহিঙ্গার মৃত্যু

কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার কুতুপালং রোহিঙ্গাশিবিরের পশ্চিমে মধুরছড়া সংরক্ষিত পাহাড়ে বন্য হাতির হামলায় শিশুসহ দুই রোহিঙ্গা শরনার্থী মৃত্যু হয়েছে। সোমবার ভোররাতে এ ঘটনা ঘটে। সকালে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তাদের লাশ উদ্ধার করেছে। নিহত রোহিঙ্গারা হলেন মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের ফকিরাবাজার এলাকার শামসুল আলম (৫৫) ও তিন বছরের শিশু ছৈয়দুল আমিন। উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল খায়ের গণমাধ্যমকে বলেন, উখিয়ার কুতুপালং শিবিরে দুই লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা রয়েছে। নতুন আসা রোহিঙ্গারা আশ্রয়ের জন্য বনজঙ্গল কেটে ফেলছে। ভোররাতে বন্য হাতির দল রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা করে। এ সময় অনেকে পালিয়ে যায়। কিন্তু শিশুসহ ওই রোহিঙ্গা হাতির পায়ের নিচে চাপা পড়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান। বন বিভাগ বলছে, নতুন আসা রোহিঙ্গারা বন বিভাগের পাহাড় ও জঙ্গল কেটে মাথা গোঁজার ঠাঁই করে নেওয়ার চেষ্টা করছে। এতে বন্য হাতির হামলার শিকার হচ্ছে। এর আগেও মধুরছড়ার সংরক্ষিত ওই পাহাড়ে বন্য হাতির হামলায় এক ব্যক্তি মারা গিয়েছিল।//এআর

চালকল মা‌লিক স‌মি‌তির সভাপ‌তির মি‌লে ফের অভিযান

চালকল মা‌লিক সমি‌তির কেন্দ্রীয় সভাপ‌তি আব্দুর র‌শি‌দের কু‌ষ্টিয়ার চা‌লের মি‌লে আবারও অভিযান চা‌লি‌য়ে‌ছে বাজার ম‌নিট‌রিং টিম। রোববার বিকাল ৪টা থে‌কে ৫টা পর্যন্ত সদর উপজেলার খাজানগরে ‘রশিদ অ্যাগ্রো ফুড প্রোডাক্টস’নামের চালকলে এ অভিযান চালানো হয়। এতে নেতৃত্ব দেন কুষ্টিয়ার ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক হা‌বিবুর রহমা‌ন। এর আগে গত ১১ সেপ্টেম্বর চালকল মা‌লিক স‌মি‌তির সভাপ‌তির মালিকানাধীন ওই চালকলে অভিযান চালায় কু‌ষ্টিয়া জেলা টাস্ক‌ফোর্স। সেসময় অতি‌রিক্ত ধান মজু‌দের প্রমাণ মেলায় ৫০ হাজার টাকা জ‌রিমানার পাশাপাশি তা‌কে সতর্ক করে ভ্রাম্যমাণ আদালত। চা‌লের দাম বাড়ার জন্য দেশে মিনিকেট চালের প্রধান মোকাম খাজানগ‌রের চালকল মা‌লিক‌দের দায়ী ক‌রে সম্প্র‌তি মন্ত্রণাল‌য়ে প্রতিবেদন দেয় একাধিক গো‌য়েন্দা সংস্থা। এরপর সংবাদপ‌ত্রে এ খবর প্রকাশের পর ন‌ড়েচ‌ড়ে ব‌সে প্রশাসন। এরইভি‌ত্তিতে চালকল মা‌লিক স‌মি‌তির সভাপ‌তির মিলে অ‌ভিযান চালানো হয়। খাজানগরে অটোরাইস মিল রয়েছে অন্তত ৩১টি। এখান থেকে প্রতিদিন ১৫ টন চাল নিয়ে একশ’ট্রাক ঢাকা ও চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্নস্থানে পাঠানো হয়। এর মধ্যে ৩০ ট্রাক চাল সরবরাহ করে চালকল মালিক সমিতির সভাপতির মালিকাধীন রশিদ অ্যাগ্রো। দ্বিতীয় দফা অভিযান শেষে ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক হা‌বিবুর রহমান বলেন, নিয়‌মিত বাজার ম‌নিট‌রিংয়ের অংশ হি‌সে‌বে বাংলা‌দেশ চালকল মা‌লিক সমি‌তির কেন্দ্রীয় সভাপ‌তি আব্দুর র‌শি‌দের চালক‌লে এ অ‌ভিযান চালা‌নো হয়। আজকের মতো অভিযান শেষ হয়েছে।’তবে এ অভিযান অব্যাহত থাক‌বে বলে জানান তিনি। উল্লেখ্য, কোরবানির ঈদের আগে বাজারে মিনিকেট চালের দাম ছিল কেজিপ্রতি ৫৪ টাকা। গত বৃহস্পতি ও শুক্রবার এই চাল বিক্রি হয়েছে ৬০ টাকা দরে। আরকে//এআর

সৈয়দপুরে দুই ট্রাকের সংঘর্ষে নিহত ৩

নীলফামারীর সৈয়দপুরে দুটি ট্রাকের সংঘর্ষে তিন জন নিহত হয়েছেন। সোমবার ভোর রাতে বাইপাস সড়কের ধলাগাছ মতির মোড়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- ট্রাকচালক মো. দুলাল, চালকের সহকারী মো. আতিকুল। অপর জনের নাম পরিচয় পাওয়া যায়নি। পুলিশ জানায়, ধলাগাছ মতির মোড়ে একটি বিকল ট্রাক মেরামত করছিল চালক ও হেলপার। এ সময় ট্রাকটিকে পিছন দিক থেকে আসা অপর একটি ট্রাক ধাক্কা দেয়। এতে দুই ট্রাক রাস্তার ধারে খাদে পড়ে। দুর্ঘটনায় ঘটনাস্থলে তিন জন মারা যান। পরে পুলিশ ঘটনাস্থালে গিয়ে লাশগুলো উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন। সৈয়দপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. জাহাঙ্গীর গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।//এআর

অটোরিকশা চালিয়ে পড়ার খরচ জোগাড় করা কলেজছাত্র খুন

বগুড়া শহরের ছিলিমপুর এলাকায় দুর্বৃত্তদের ধারাল অস্ত্রের আঘাতে কলেজছাত্র আল-আমিন (২০) খুন হয়েছে। শনিবার গভীর রাতে ছিলিমপুর উত্তরপাড়া এলাকার রাস্তার মধ্যে এ খুনের ঘটনা ঘটে। নিহত আল আমিন পড়ালেখার পাশাপাশি রাতে অটোরিকশা চালিয়ে পড়ার খরচের টাকা জোগাড় করতেন। তার বাড়ি নন্দীগ্রাম উপজেলার জামরুল গ্রামে। পুলিশ জানায়, আল আমিন বগুড়া সরকারি আজিজুল হক কলেজের সম্মান শ্রেণির ইসলামের ইতিহাস বিভাগের ১ম বর্ষের ছাত্র। ঘটনার পর ভোররাতে বগুড়া সদর থানা পুলিশ নিহত আল আমিনের ছিনতাই হওয়া রিকশা উদ্ধারের পাশাপাশি করিম নামে এক সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করেছে। সদর থানা পুলিশের ওসি (অপারেশন) আবুল কালাম আজাদ গণমাধ্যমকে জানান, হত্যকাণ্ডের ঘটনা ও ছিনতাইয়ের সঙ্গে আরও কয়েকজন জড়িত রয়েছে। গ্রেফতার হওয়া করিম বগুড়া শহরের মালগ্রাম মধ্যপাড়া এলাকার আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে। নিহত আল আমিনের একটি নিজস্ব অটোরিকশা ছিল। যা নিজে চালিয়ে পড়ালেখার খরচ চালাতেন বলে জানিয়েছেন নিহতের খালু নুরুল ইসলাম। বগুড়া পুলিশের সিলিমপুর ফাড়ির টিএসআই আশুতোষ জানান, শনিবার রাতে এক রিকশাচালক সিলিমপুর বাইপাস সড়কের পাশে আল আমিনকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে তাকে জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসে। জরুরি বিভাগের অপারেশন থিয়েটারে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তার মৃত্যু হয়েছে বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন। তিনি জানান, নিহত আল আমিন বগুড়া শহরের খান্দার এলাকায় একটি ছাত্রাবাসে থাকতেন। ময়নাতদন্ত শেষে রোববার তার মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। কেআই/ডব্লিউএন

প্রবাসী স্বামীর সঙ্গে কথা বলেই আত্মহত্যা!

ফরিদপুরের চরভদ্রাসন উপজেলায় এক গৃহবধূর অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে। পরিবারের লোকজন বলছেন, প্রবাসী স্বামীর সঙ্গে ফোনে কথা বলার পর ওই গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন। গতকাল শুক্রবার বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে চরভদ্রাসন সদর ইউনিয়নের কে এম ডাঙ্গি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ওই গৃহবধূর নাম সুবর্ণা বেগম (২২)। তিনি ওই গ্রামের কৃষক শেখ আবদুল খালেকের মেয়ে। তিন ভাই ও দুই বোনের মধ্যে তিনি তৃতীয়। তাঁর স্বামী শামীম প্রামাণিক (২৭) পাশের সদরপুর উপজেলার চর বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ আলমনগর গ্রামের নিজাম প্রামাণিকের ছেলে। তিন বছর আগে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে প্রবাসী শামীমের সঙ্গে সুবর্ণার বিয়ে হয়। সুবর্ণার পরিবারের সদস্যের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, তিন বছর আগে শামীম তাঁর এক বন্ধুর সঙ্গে সুবর্ণাদের বাড়িতে আসেন। এর এক মাস পর শামীম বাহরাইন চলে যান। শামীম বাহরাইনে যাওয়ার এক মাস পর ফোনের মাধ্যমে সুবর্ণার সঙ্গে তাঁর বিয়ে হয়। তবে বিয়ের পর গত তিন বছরেও শামীম দেশে আসেননি। সুবর্ণা শ্বশুরবাড়ি ও বাবার বাড়ি দুই জায়গাতেই থাকতেন। সুবর্ণার ভাবি বিউটি আক্তার জানান, সুবর্ণা প্রতিদিনই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইমোতে শামীমের সঙ্গে কথা বলতেন। গতকাল বিকেলে তিনি বাড়ির বাইরে ছিলেন। তখন শামীম তাঁকে ফোন করে সুবর্ণার খোঁজ নিতে বলেন। বাড়ি ফিরে দেখেন, ঘরের আড়ার সঙ্গে গলায় ফাঁস দিয়ে সুবর্ণা আত্মহত্যা করেছেন। পরে প্রতিবেশীদের সহায়তায় সুবর্ণাকে নামিয়ে চরভদ্রাসন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। ওই সময় বাড়িতে কেউ ছিল না বলে জানান বিউটি আক্তার। চরভদ্রাসন উপজেলার স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ বলেন, সুবর্ণাকে মৃত অবস্থায় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসা হয়েছিল। সুবর্ণার বাবা শেখ আবদুল খালেক বলেন, সুবর্ণার সঙ্গে তাঁর স্বামীর প্রায়ই মুঠোফোনে ঝগড়া হতো। তবে তাঁদের কী নিয়ে ঝামেলা হতো, তা জানা নেই। চরভদ্রাসন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রামপ্রসাদ ভক্ত বলেন, এ ব্যাপারে চরভদ্রাসন থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা করা হয়েছে। দুই পরিবারের কোনো আপত্তি না থাকায় বিনা ময়নাতদন্তে লাশ দাফনের জন্য সুবর্ণার পরিবারের সদস্যদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। আরকে/ডব্লিউএন

বান্দরবান সীমান্তে মাইন বিস্ফোরণে নিহত ২

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির সীমান্তের ওপারে মিয়ানমারে স্থলমাইন বিস্ফোরণে দুইদিনে বাংলাদেশিসহ দুইজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও এক রোহিঙ্গা। নাইক্ষ্যংছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম তৌহিদ কবীর জানান, মঙ্গলবার রাতে বাংলাদেশি নাগরিক হাসেম উল্লাহ (৪০) ও সোমবার রাতে মিয়ানমার নাগরিক মোক্তার আহমদ (৪৫) নিহত হন। আহত আবদুল কাদেরকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। ওসি তৌহিদ বলেন, “মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তের চাকঢালা চারার মাঠ এলাকায় বাংলাদেশে আসা রোহিঙ্গার মাঝে ত্রাণ বিতরণ করেন হাসেম উল্লাহ। পরে ৪৪ নম্বর সীমান্ত পিলারের আশপাশে ঘোরাঘুরির এক পর্যায়ে মাইন বিস্ফোরণে ঘটনাস্থলেই হাসেম মারা যান। এ সময় আহত হন মিয়ানমার নাগরিক আবদুল কাদের। ঘটনার পরপর তাকে বিজিবি সদস্যরা উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান।” নিহত হাসেম উল্লাহ নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা সদরের আদর্শ গ্রামের বাসিন্দা আবদুস সালামের ছেলে। ওসি তৌহিদ আরও বলেন, সোমবার রাত ১১টার দিকে নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তের বড় ছনখোলা এলাকা দিয়ে বাংলাদেশে আসার সময় ৪৬ নম্বর পিলারের কাছে মাইন বিস্ফোরণে ঘটনাস্থলেই নাগরিক মোক্তার আহমদ নিহত হন। রাখাইনের বুচিডং দারিয়া বাজার গ্রামে তার বাড়ি ।  

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি