ঢাকা, শনিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ২:৪৮:১২

স্বাভাবিকভাবে শ্বাস নিতে পারছেন মেয়র আনিস

স্বাভাবিকভাবে শ্বাস নিতে পারছেন মেয়র আনিস

মস্তিষ্কের জটিল রোগে আক্রান্ত ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আনিসুল হকের কৃত্রিম শ্বাসযন্ত্র খুলে নেওয়া হয়েছে। তিনি এখন প্রাকৃতিকভাবেই শ্বাস নিতে পারছেন। তবে সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় চিকিৎসকেরা তাঁকে এখনো ঘুম পাড়িয়ে রাখছেন। লন্ডনের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মেয়রের শারীরিক অবস্থার সর্বশেষ পরিস্থিতি নিয়ে তাঁর পারিবারিক বন্ধু আব্দুন নূর তুষার মেয়রের স্ত্রী রুবানা হকের বরাত দিয়ে গণমাধ্যমকে  বলেন, মেয়রকে এখন পর্যন্ত ঘুম পাড়িয়ে রাখা হলেও ঘুমের ওষুধের মাত্রা কমিয়ে দিয়েছেন চিকিৎসকেরা। উনি এখনো নিবিড় পর্যবেক্ষণে আছেন। নিজ থেকে স্বাভাবিকভাবে ঘুম থেকে পুরোপুরি জেগে ওঠার পর তাঁর শরীরে রোগটি কতখানি প্রভাব ফেলেছে, সে ব্যাপারে ধারণা পাওয়া যাবে। তিনি আরও জানান, এক সপ্তাহ আগে তিনি লন্ডন থেকে ফেরার সময়েই মেয়রের কৃত্রিম শ্বাসযন্ত্র খুলে নেওয়া হয়েছিল। এখন পর্যন্ত তিনি যন্ত্রের সাহায্য ছাড়াই শ্বাস নিতে পারছেন। গত ২৯ জুলাই ব্যক্তিগত সফরে সপরিবারে যুক্তরাজ্যে যান মেয়র আনিসুল হক। অসুস্থ হয়ে পড়লে ১৩ আগস্ট তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।//এআর
শ্যামপুরে আগুনে একই পরিবারের পাঁচজন দগ্ধ

রাজধানীর শ্যামপুরে মধ্যরাতে আগুনে দগ্ধ হয়েছেন একই পরিবারের পাঁচজন সদস্য। এদের মধ্যে তিনজনই শিশু। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে শ্যামপুরে লাল মসজিদ সংলগ্ন ৩ নম্বর রোডের ৫ তলা বাড়ির নিচতলায় আগুন ওই অগ্নিকাণ্ড ঘটে। দগ্ধ ব্যাক্তিরা হলেন মুদি দোকানী মোহাম্মদ এনায়েত (৪০), তার স্ত্রী মরিয়ম বেগম (৩৫), তাদের ৩ সন্তান এ্যানি (৫), হাবিবা (৩) ও জুবায়ের (২)। পরে পাঁচজনকেই উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ভর্তি করা হয়েছে। এনায়েতের স্বজনরা জানিয়েছেন, রাত আনুমানিক ৩টার দিকে তাদের ভাড়া বাসার এক রুমে আগুন ধরে যায়। এতে পাঁচজন দগ্ধ হয়। ধারণা করা হচ্ছে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুন লেগেছে।  ঢামেক জরুরি বিভাগের চিকিৎসকরা জানান, দগ্ধদের সবার আশঙ্কাজনক। সবার সারা শরীর ঝলসে গেছে।   //আর//এআর

র‌্যাম্প মডেল থেকে জঙ্গি নেতা

ঢাকার বনশ্রী এলাকা থেকে বুধবার রাতে গ্রেফতার হওয়া যুবকের পরিচয় শনাক্ত হয়েছে। মেহেদী হাসান নামে ওই যুবক এক সময় র্যা ম্প মডেল ছিলেন। পরে তিনি যোগ দেন জামাতুল মোজাহেদিন বাংলাদেশে । গ্রেফতারের আগ পর্যলন্ত তিনি নিষিদ্ধ ঘোষিত ওই জঙ্গি সংগঠনের একজন ‘প্রথম সারির নেতা’ ছিলেন। রাজধানীর কারওয়ানবাজারে র্যালব মিডিয়া সেন্টারে বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব-৩ এর অধিনায়ক (সিও) লে. কর্নেল তুহিন মোহাম্মদ মাসুদ এসব তথ্য জানান। তিনি জানান, ঢাকার দারুল ইহসান বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিবিএ পাস করা মেহেদীর বাড়ি পটুয়াখালী জেলার বাউফল উপজেলার রাজাপুর গ্রামে। তার বাবা খোরশেদ আলম পুলিশের একজন অবসরপ্রাপ্ত এএসআই। ছাত্রাবস্থায় মেহেদী নামে মডেলিং করতেন ওই যুবক। লেখাপড়া শেষ করে শুরু করেন ব্যবসা। জঙ্গিবাদে জড়ানোর পর ইমাম মেহেদী হাসান ওরফে আবু জিব্রিল নাম নিয়ে তিনি সাংগঠনিক কর্মকাণ্ড চালিয়ে আসছিলেন।

খিলগাঁওয়ে জেএমবির কমান্ডার গ্রেফতার

রাজধানীর খিলগাঁও এলাকা থেকে জামা’আতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (জেএমবি) এক নেতাকে গ্রেপ্তারের তথ্য জানিয়েছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।বৃহস্পতিবার সকালে র‌্যাবের এক খুদে বার্তায় এ তথ্য জানানো হয়। বার্তায় বলা হয়, র‌্যাবের অভিযানে রাজধানীর খিলগাঁও থানাধীন দক্ষিণ বনশ্রী এলাকা থেকে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জেএমবির সারোয়ার-তামিম গ্রুপের ব্রিগেড আদ্-দার-ই কুতনীর কমান্ডার ইমাম মেহেদী হাসান ওরফে আবু জিবরিলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। র‌্যাবের লিগ্যাল এন্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার মুফতি মাহমুদ খান বলেন, বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে কারওয়ান বাজারে র‌্যাবের মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য জানানো হবে। আরকে//এআর

রোহিঙ্গা সংকটে জঙ্গিবাদ মেনে নেওয়া হবে না : আইজিপি

পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) এ কে এম শহীদুল হক বলেছেন, চলমান রোহিঙ্গা সংকটকে ইস্যু করে কেউ জঙ্গিবাদে যুক্ত হওয়ার চেষ্টা করলে এবং অন্য কোনো দেশে হামলা চালানোর মাধ্যমে বাংলাদেশকে ব্যবহারের চেষ্টা করলে আমরা তা অ্যালাউ (সহ্য) করবে না। সোমবার দুপুরে পুলিশ সদর দফতরে সাম্প্রতিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি বিষয়ক আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। ত্রাণ দেয়ার নামে বিভিন্ন সংগঠন রোহিঙ্গা শিবিরে যাচ্ছেন-এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে তিনি বলেন, এ ধরনের অপতৎপরতা রোধে আমাদের গোয়েন্দা নজরদারি অব্যাহত রয়েছে। কেউ রিলিফ (ত্রাণ) দিতে চাইলে কক্সবাজার জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে দিতে হবে। যার খুশি সেই যাবেন সেটা হবে না। বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গারা দেশের বিভিন্ন এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে প্রচলিত আইন অনুযায়ী তারা অবৈধ ব্যক্তি হিসেবে গণ্য হবেন বলে জানান আইজিপি এ কে এম শহীদুল হক। তিনি বলেন, মানবিক দিক বিবেচনা করে রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে আশ্রয় দেয়া হয়েছে। তাদের জন্য ২ হাজার একর জমিতে শরণার্থী শিবিরের ব্যবস্থা করা হয়েছে। কিন্তু নির্দিষ্ট শিবিরের বাইরে ছড়িয়ে পড়লে আইন অনুযায়ী অবৈধ ব্যক্তি হিসেবে গণ্য হবেন। তিনি আরও বলেন, রোহিঙ্গারা ছড়িয়ে পড়লে প্রচলিত আইনে তাদের গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করার কথা। কিন্তু মানবিক দিক বিবেচনায় কোনো রোহিঙ্গা নির্ধারিত এলাকার বাইরে পাওয়া গেলে তাকে রেসকিউ (উদ্ধার) করে নির্দিষ্ট শিবিরে পাঠানো হবে। এখন পর্যন্ত দুই শতাধিক রোহিঙ্গাকে বাইরে থেকে উদ্ধার করে শিবিরে পাঠানো হয়েছে। আইজিপি বলেন, রোহিঙ্গাদের প্রবেশের সময় প্রথমে বিজিবি ও কোস্টগার্ড তাদের বাধা দিয়েছিল। কিন্তু ২৭০ কিলোমিটার সীমানাজুড়ে রোহিঙ্গা স্রোতের মুখে আর বাধা দেয়া সম্ভব হয়নি। পরে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে মানবিক দিক বিবেচনায় বাংলাদেশে আশ্রয় দেয়া হয়েছে। নির্ধারিত স্থানে তাদের জন্য বাসস্থান, খাদ্য, চিকিৎসা ও নিরাপত্তার ব্যবস্থ করা হয়েছে। রোহিঙ্গা ব্যক্তিদের আইডি কার্ড দেয়া হচ্ছে, তাদের সবকিছু ডাটাবেইজে সংরক্ষিত থাকবে। সম্পূর্ণ ব্যবস্থাপনা এবং সামাজিক সমস্যা বিবেচনায় তাদের নির্দিষ্ট স্থানে থাকতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। রোহিঙ্গাদের ভিসা-পাসপোর্ট নেই, তারা বাইরে যাবেই বা কেন? তাদের যদি আইডি কার্ড না হয়, তাহলে ভবিষ্যতে সব ধরনের সুবিধা থেকে বঞ্চিত হবে বলেন তিনি। শহীদুল হক বলেন, রোহিঙ্গারা ছড়িয়ে পড়লে হয়তো এ দেশের নাগরিক হতে চাইবে, নয়তো কাজ করার চেষ্টা করবে। তারা হয়তো কোনো অপরাধে জড়িয়ে পড়বে কিংবা কোনো প্রতারক চক্রের মাধ্যমে অপরাধে শিকার হবেন। রোহিঙ্গারা দেখতে আমাদের মতো হলেও ভাষাগত দিকে এক নয়, তাই ছড়িয়ে পড়লে ধরা পড়বেই। বিদেশি নাগরিক অবৈধভাবে আশ্রয় নিলে যেভাবে গণ্য করা হয় তাদেরও তখন সেভাবে গণ্য করা হবে। আরকে/ডব্লিউএন

শাহজালালে ৫ কেজি স্বর্ণ উদ্ধার

রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে প্রায় পৌনে ৫ কেজি ওজনের ৪০টি স্বর্ণবার উদ্ধার করেছে ঢাকা কাস্টমস হাউসের প্রিভেনটিভ টিম। সোমবার সকাল ৭টা ৫৫ মিনিটে ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্সের  ফ্লাইট নং বিএস ৩০৮ এর সিটের ভেতর থেকে এগুলো উদ্ধার করা হয়। ঢাকা কাস্টম হাউসের সহকারী কমিশনার সাইদুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ওই ফ্লাইটে তল্লাশিকালে সিটের পেছনে শক্ত ধাতব বস্তুর সন্ধান পাওয়া যায়। পরে সিটের ফোম তুলে দেখা যায়, আঠা লাগানো ছোট কালো ব্যাগ সিটের সঙ্গে বাঁধা রয়েছে। পরে ব্যাগটি উদ্ধার করে বিমানবন্দরের কাস্টম হলে নিয়ে আসা হয়। সেখানে ব্যাটিঁ খুলে বাদামি স্কচটেপ মোড়ানো ১০ তোলা ওজনের ৪০টি স্বর্ণবার পাওয়া যায়। তিনি আরও জানান, ৪ দশমিক ৬৪ কেজি ওজনে ৪০টি স্বর্ণবারের আনুমানিক বাজার মূল্য দুইকোটি ৩২ লাখ টাকা।এর মালিককে পাওয়া যায়নি। আরকে//এআর

আবাসিক হোটেল ঘিরে পুলিশের ৮ দফা নির্দেশনা

রাজধানীর আবাসিক হোটেলগুলোকে নিরাপত্তা জোরদার করতে ৮ দফা নির্দেশনা দিয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। পান্থপথের হোটেল অলিও ইন্টারন্যাশনালে গত ১৫ আগস্ট জঙ্গিবিরোধী অভিযানের পর এই নির্দেশনা দেওয়া হয়। ওই অভিযানে এক জঙ্গি আত্মঘাতী হন। নির্দেশনার ব্যাপারে ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া গণমাধ্যমকে বলেন, অতিথি (বোর্ডার) রাখার ক্ষেত্রে আবাসিক হোটেলগুলোকে যেসব নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে, তা মানতে হবে। না মানলে হোটেলমালিকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ডিএমপি কমিশনারের নির্দেশনা-সংবলিত চিঠি ইতিপূর্বে আবাসিক হোটেলগুলোকে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট থানার ওসিরা। আট দফা নির্দেশনার মধ্যে রয়েছে হোটেলে আসা সব অতিথির (বোর্ডার) নাম-ঠিকানা লেখার পাশাপাশি তাঁদের ছবি তুলে রাখতে হবে। অতিথির পাসপোর্ট বা ড্রাইভিং লাইসেন্সের কপি, ফোন নম্বর রাখতে হবে। ফোন নম্বরে তাৎক্ষণিক কল করে নিশ্চিত হতে হবে নম্বরটি ঠিক আছে কি না। হোটেলে আর্চওয়ে রাখতে হবে এবং এর ভেতর দিয়ে অতিথিকে নিতে হবে। আর্চওয়ে না থাকলে মেটাল ডিটেক্টর দিয়ে তল্লাশির ব্যবস্থা করতে হবে। অতিথি যতবার হোটেলে প্রবেশ করবেন, ততবারই তাঁকে তল্লাশি করতে হবে। সব লাগেজ স্ক্যানার দিয়ে তল্লাশি করতে হবে। অতিথির সঙ্গে কেউ দেখা করতে এলে তাঁকে ও তাঁর ব্যাগ তল্লাশি করতে হবে। ক্লোজড সার্কিট ক্যামেরা সচল রাখতে হবে। যানবাহন তল্লাশির (ভেহিক্যাল) স্ক্যানার দিয়ে গাড়িও তল্লাশি করতে হবে। কমিশনারের চিঠিতে বলা হয়, পান্থপথের হোটেলে নিহত জঙ্গি বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক নিয়ে ওই হোটেলে অবস্থান করছিলেন। জাতীয় শোক দিবসের শোভাযাত্রায় আত্মঘাতী হামলার পরিকল্পনা ছিল না। এতে আরও বলা হয়, ঢাকা মহানগরকে জঙ্গিমুক্ত করার অংশ হিসেবে ঢাকায় বসবাসরত ভাড়াটেদের তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। এই ব্যবস্থায় জঙ্গি তৎপরতাসহ নানা ধরনের অপরাধ প্রবণতা কমে যাবে। কিন্তু রাজধানীর আবাসিক হোটেলে আগতদের তথ্য সংগ্রহ, তাঁদের শরীর ও লাগেজ তল্লাশি ইত্যাদি কার্যক্রম সচল না থাকলে সন্ত্রাসীরা নির্বিঘ্নে আবাসিক হোটেলগুলোতে আশ্রয় নেওয়ার সুযোগ পাবে। জানতে চাইলে ঢাকা মহানগরের তেজগাঁও থানার ওসি মো. মাজহারুল ইসলাম বলেন, তেজগাঁও এলাকার আবাসিক হোটেলগুলোতে ডিএমপি কমিশনারের নির্দেশনা পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। হোটেলমালিকেরা তা মানতেও শুরু করেছেন। দারুস সালাম থানার ওসি সেলিমুজ্জামান বলেন, আবাসিক হোটেলগুলো নির্দেশনা মানছে কি না, থানা-পুলিশ তা পর্যবেক্ষণ করছে। আরকে//এআর

ঢাকায় উবারের প্রিমিয়ার সেবা চালু

বিশ্বের সবচেয়ে বড় ও অন-ডিমান্ড রাইড শেয়ারিং কোম্পানি উবার যাত্রীদের জন্য চালু করল প্রিমিয়ার সার্ভিস। ঢাকায় উবারের জেনারেল ম্যানেজার অর্পিত মুন্ড্রাসহ প্রতিষ্ঠানের অন্যান্য কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে শুক্রবার এ সেবা চালু করা হয়। তবে বাংলাদেশ সরকার এখনও উবারকে অনুমোদন দেয়নি। নতুন এই সেবায় যাত্রীরা এখন থেকে আরো বেশি আরামদায়ক রাইড উপভোগ করতে পারবেন। এই প্রোডাক্টটি প্রথমে পাইলট হিসেবে চালু করা হয়। যাত্রী ও চালক উভয়ের কাছ থেকে এটি ইতিবাচক সাড়া পায়। ঢাকায় উবারের জেনারেল ম্যানেজার অর্পিত মুন্ড্রা বলেন, উবারে সব সময় প্রযুক্তির ব্যবহার ও স্থানীয়ভাবে উপযুক্ত প্রোডাক্টের মাধ্যমে যাত্রীদের আরো উন্নত ভ্রমণ-অভিজ্ঞতা দেওয়ার চেষ্টা করে। অর্পিত মুন্ড্রা আরো বলেন, ঢাকায় উবার প্রিমিয়ার চালু করতে পেরে এবং এর মাধ্যমে যাত্রীদের ব্যক্তিগত গাড়িতে ভ্রমণের মতো অভিজ্ঞতা দিতে পেরে আমরা আনন্দিত। গাড়ির ব্যক্তিগত মালিকানার বিকল্প পথ সৃষ্টি করে ট্রাফিক জ্যামের সমস্যা কমাতে আমরা বদ্ধপরিকর। উবারে মিটিংয়ে যাওয়া, শপিং করতে যাওয়া, পরিবার ও বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে যাওয়া, বিজনেস পার্টনারের সঙ্গে দেখা করা, এয়ারপোর্টে যাওয়া বা অন্য যে উদ্দেশে ভ্রমণের প্রয়োজন হোক না কেন, প্রিমিয়ারকে এমনভাবে প্রস্তুত করা হয়েছে যাতে করে যাত্রীদের ভ্রমণকালীন চাহিদা পূরণ করতে পারে। আরকে/ডব্লিউএন

ভাড়া কমলো উবার এক্সে

সড়কে প্রাইভেট কার পাওয়ার মোবাইল অ্যাপ উবারের সেবায় ঢাকার জন্য নতুন যোগ হয়েছে `প্রিমিয়ার সার্ভিস`। একই সঙ্গে পুরনো `উবার এক্স` সার্ভিসের ভাড়াও কিছুটা কমানো হয়েছে। শুক্রবার উবারের ব্লগ পোস্টে এ তথ্য দেওয়া হয়েছে। এতে বলা হয়, এখন থেকে উবার প্রিমিয়ার সার্ভিসে উন্নত মডেলের প্রাইভেট কার সেবা পাওয়া যাবে। এ সেবার জন্য প্রাথমিক ভিত্তিমূল্য ৮০ টাকা, প্রতি কিলোমিটার ২২ টাকা এবং অপেক্ষার জন্য প্রতি মিনিট তিন টাকা হারে মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে। একই সঙ্গে সাধারণ মানের প্রাইভেট কারের জন্য `উবার এক সার্ভিসের` মূল্য কিছুটা কমিয়ে নতুন করে নির্ধারণ করা হয়েছে। এই সেবার জন্য এখন প্রাথমিক ভিত্তিমূল্য ৪০ টাকা, প্রতি কিলোমিটার ১৮ টাকা এবং অপেক্ষার জন্য প্রতি মিনিট ৩ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। ঢাকায় উবারের জেনারেল ম্যানেজার অর্পিত মুন্ড্রা বলেন, উবারে সব সময় প্রযুক্তির ব্যবহার ও স্থানীয়ভাবে উপযুক্ত প্রোডাক্টের মাধ্যমে যাত্রীদের আরো উন্নত ভ্রমণ-অভিজ্ঞতা দেওয়ার চেষ্টা করে। ঢাকায় উবার প্রিমিয়ার চালু করতে পেরে এবং এর মাধ্যমে যাত্রীদের ব্যক্তিগত গাড়িতে ভ্রমণের মতো অভিজ্ঞতা দিতে পেরে আমরা আনন্দিত। আরকে//এআর

বিমানবন্দরে স্বর্ণমুদ্রাসহ ভারতীয় নাগরিক আটক

হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ২৫০ পিস স্বর্ণমুদ্রাসহ রমজান আলী (৪৭) নামের এক ভারতীয় নাগরিককে আটক করা হয়েছে। মঙ্গলবার দিবাগত রাতে ঢাকা কাস্টমস হাউসের প্রিভেনটিভ টিম তাকে আটক করে।   আটক ভারতীয় নাগরিক রমজান আলী পেশায় একজন মাংস ব্যবসায়ী। তিনি দর্শনা সীমান্ত দিয়ে গত ৯ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশে প্রবেশ করেন। এ বিষয়ে কাস্টমসের সহকারী কমিশনার (প্রিভেনটিভ) সাইদুল ইসলাম গণমাধ্যমকে বলেন, রমজানের কাছ থেকে উদ্ধার করা স্বর্ণের মূল্য আনুমানিক প্রায় ৮৩ লাখ ১৫ হাজার টাকা। তাকে গ্রেফতারের পর বিমানবন্দর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় শুল্ক আইন, ১৯৬৯ অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে তার বিরুদ্ধে।//আর//এআর  

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি