ঢাকা, বুধবার, ১৫ আগস্ট, ২০১৮ ০:১৮:১৬

বিকিনিতে উত্তাপ ছড়াচ্ছেন ইলিয়ানা

বিকিনিতে উত্তাপ ছড়াচ্ছেন ইলিয়ানা

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মাঝে মাঝেই তাক লাগানো ছবি দিয়ে ভক্তদের মনোরঞ্জন করেন ইলিয়ানা ডি ক্রুজ। তাঁকে অনুসরণ করেন অথবা তার বিষয়ে জানতে চান এমন ভক্তদের আগ্রহ বেশ উদযাপন করেন বলিউডের এই গুণী অভিনেত্রী। সম্প্রতি ভক্তদের জন্য তেমনি আরেকটি খোড়াক দিয়েছেন ইলিয়ানা।
এভ্রিলের পথচলা 

মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ থেকে বাদ পড়েছিলেন জান্নাতুল নাঈম এভ্রিল। এ নিয়ে আলোচনা কম হয়নি। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল বিবাহিত হয়েও তিনি এ প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছেন, যেটা নিয়মের পরিপন্থি। তবে বিষয়টি পরে প্রকাশ পায়। যার কারণে এভ্রিলকে বাদ দেয়া হয়। পরে এভ্রিল জানান, তিনি বাল্যবিবাহের শিকার হয়েছিলেন। এভ্রিলের ভাষ্য তার অমতে তাকে বিয়ে দেয়া হয়েছিল। বিষয়টি নিয়ে মিডিয়ায় ব্যাপক হইচই শুরু হয়। কেউ এভ্রিলের এমন কাজকে অন্যায় ও প্রতারণা বলে অভিহিত করেন। আবার অনেকে বাল্যবিবাহের শিকার একটি মেয়ের সঙ্গে এমন করা উচিত হয়নি বলে মত প্রকাশ করেন। তবে সে যা-ই হোক, এরপর থেকে ঘুরে দাঁড়ানোর জন্য নিজেকে বেশ ভালোভাবে প্রস্তুত করেন এভ্রিল। বাল্যবিবাহ রোধেও কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। পাশাপাশি মিডিয়ায় নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার জন্য প্রাণপণ চেষ্টা চালিয়ে যান। যার ফলস্বরূপ দু-তিনটি নাটকেও অভিনয় করেন তিনি। পাশাপাশি আসিফ আকবরের ‘কসম’ শিরোনামের একটি গানে মডেল হিসেবে কাজ করেন। তবে এর কোনোটিতেই ততটা প্রশংসা কুড়াতে পারেননি এভ্রিল, যতটা আশা করা হয়েছিল।    এদিকে কদিন আগেই শাকিব খানের সঙ্গে জুটিবদ্ধ হয়ে তিনি বড় পর্দায় আসছেন এমন ঘোষণা আসে। বিষয়টি বেশ ফলাও করে প্রচারও করা হয়। তখন এভ্রিল বলেন, একটি ছবির মিটিংয়ে বসেছিলাম। ছবিটিতে কাজ করার জন্য আমি চূড়ান্তও হয়েছি। তবে এখনই এ বিষয়ে কিছু বলা যাবে না বলে শর্ত দিয়েছে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান। কারণ, ১৫ই আগস্টের পর এ বিষয়ে বিস্তারিত জানাবেন তারা। তবে এ সম্পর্কে এখনো কিছু জানা যায়নি। এ বিষয়ে এভ্রিলও কোনো কথা বলছেন না। বর্তমানে এভ্রিলের হাতে তেমন কাজ নেই। যে কাজ গুলো করেছেন সে গুলোও গড়পড়তা ও গতা-নুগতিক। সব মিলিয়ে তাহলে কোন পথে হাঁটছেন এভ্রিল? এমন প্রশ্ন অনেকেরই। কারণ মিস ওয়ার্ল্ড প্রতি-যোগিতায় বাদ পড়লেও গ্ল্যামারাস এভ্রিলকে নিয়ে প্রত্যাশা ছিল বেশ। কিন্তু সে প্রতাশা পূরণে তেমন কিছু করে দেখাতে পারেননি তিনি। এসি   

সংস্কৃতি অঙ্গণে দিনব্যাপী জাতীয় শোক দিবসের কর্মসূচি   

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে রাজধানীতে সংস্কৃতি অঙ্গণে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও সংগঠনের পক্ষ থেকে নানা কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পার্ঘ অর্পণের মধ্যদিয়ে তাঁর প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন, বঙ্গবন্ধুর ওপর চিত্র প্রদর্শনী ও আলোকচিত্র প্রদর্শনী, আলোচনা সভা, বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে লেখা বই প্রদর্শনী, গানের অনুষ্ঠান, বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে লেখা কবিদের কন্ঠে কবিতাপাঠ ও মিলাদ মাহফিল।   বাংলা একাডেমির চারদিনের কর্মসূচির শেষ দিনে আগামীকাল ১৫ আগস্ট সকালে ধানমন্ডিতে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পার্ঘ অর্পণের মধ্যদিয়ে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করা হবে। এতে একাডেমির কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা অংশ নেবেন। এ ছাড়া একাডেমির আবুদল করিম সাহিত্য বিষারদ মিলনায়তনের সন্মুখে দিনব্যাপী বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে লেখা বিভিন্ন লেখকের পুস্তক প্রদর্শনী। এতে বঙ্গবন্ধুর ওপর পাঁচ শতাধিক বই প্রদর্শিত হচ্ছে। বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে দিনব্যাপী বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে আঁকা বিভিন্ন শিল্পীদের চিত্রকর্ম প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হবে। এতে বিভিন্ন শিল্পীর আঁকা পঞ্চাশটি চিত্রকর্ম প্রদর্শিত হবে। এ ছাড়া বিকেলে রয়েছে আলোচনা সভা ও দিনব্যাপী বঙ্গবন্ধুর ওপর আলোকচিত্র প্রদর্শনী। সকালে একাডেমির পক্ষ থেকে ধানমন্ডিতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পার্ঘ অর্পণ করে তাঁর প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হবে। বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরে দিনব্যাপী বঙ্গবন্ধুর ওপর আলোকচিত্র প্রদর্শনী এবং বিকেলে আলোচনা ও কবিতা পাঠ ও গানের অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। বাংলাদেশ শিশু একাডেমির দিবসের কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে মিলাদ মাহফিল,আলোচনা সভা,শিশুদের আঁকা চিত্র প্রদশর্নী এবং বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে শিশুদের বক্তৃতা এবং সংগীতানুষ্ঠান। দিবসটি উপলক্ষে একাডেমির পত্রিকা ‘শিশু’র বিশেষ সংখ্যা প্রকাশ করা হবে। রয়েছে ছড়কারদের বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ছড়া ও কবিতা পাঠ। ‘শ্রাবণ প্রকাশনী ও বই নিউজ’এর পক্ষ থেকে মাসব্যাপী ‘বঙ্গবন্ধুর ওপর বইয়ের ভ্রাম্যমান প্রদর্শনী ’র অংশ হিসেবে কাল দিনব্যাপী শাহবাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকাসহ নগরীর বিভিন্ন স্থানে বই প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হবে। জিয়নকাঠি সাহিত্য আসর’র পক্ষ থেকে দিবসটিতে নগরীর শাহবাগে প্রজন্ম চত্বরে বিশেষ কবিতা পাঠের আয়োজন করেছে। এই অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করবেন জাতীয় সংসদ সদস্য কবি কাজী রোজী। এতে বিশিষ্ট লেখক, সাহিত্যিক ও কবিরা বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে আলোচনা ও কবিতাপাঠে অংশ নেবেন। এতে সভাপতিত্ব করবেন সংগঠনের সভাপতি শিল্পী ভাস্কর রাশা। বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে দিনব্যাপী কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। সকালে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি পুস্পার্ঘ অর্পণের মধ্যদিয়ে জাতির পিতার প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করা হবে। একই সঙ্গে ঢাকার ধানমিন্ডতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে এবং গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির জনকের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানানো হবে। দুপুরে মীরপুর মাজার রোডে অনুষ্ঠিত হবে কাঙ্গালীভোজ, দোয়া মাগফিল। সন্ধ্যায় ঢাকায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে অনুষ্ঠিত হবে প্রদীপ প্রজ্জ্বলন। এতে প্রধান অতিথি থাকবেন সাবেক সাংসদ ও নায়িকা সারা বেগম কবরী। বাসস  এসি   

‘ধাক্কা খেয়ে বুঝেছিলাম,অনেক কিছুর সম্মুখীন হতে হবে’

শ্রদ্ধা কাপুর একের পর এক সিনেমায় অভিনয় করে যাচ্ছেন। স্বল্প সময়ে দর্শকদের মনে জায়গা করে নিয়েছেন তিনি। বর্তমানে তার মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে স্ত্রী ছবিটি। এ বিষয়ে কথা বলেন আনন্দবাজারের সঙ্গে। তার সাক্ষাৎকারটি তুলে ধরা হলো- প্র: এই প্রথম রাজকুমার রাওয়ের সঙ্গে কাজ করছেন। কেমন অভিজ্ঞতা?    উ: মনে হয়, আমাদের জুটি দর্শকের ভাল লাগবে। রাজকুমার ভীষণ ভাল অভিনেতা। যখন শুনেছিলাম আমার বিপরীতে রাজকুমার আছেন, খুব খুশি হয়েছিলাম। ছবিতে পঙ্কজ ত্রিপাঠীও আছেন। দু’জনই অসাধারণ। যে কারণে শুটিংয়ের সময়ে বেশ নার্ভাস লাগত। সতর্ক থাকতাম। স্ক্রিপ্ট শোনার সময়ে হাসতে হাসতে পেটে ব্যথা হয়ে গিয়েছিল। সেটে খুব মজা হয়েছিল। প্র:‘স্ত্রী’ হরর কমেডি। আপনি ভূতে ভয় পান? উ: ভীষণ! হরর ফিল্ম দেখতে পারি না। দেখতে বসলেও চোখ বন্ধ করে থাকি! আমাকে অনেকে বলেছেন অনুষ্কা শর্মার ‘পরি’ দেখতে। কিন্তু আমি এত ভিতু যে, দেখে উঠতে পারিনি। মনে হয় না কোনও দিন ওই রকম ছবিতে অভিনয় করতে পারব। অন্য ছবির চেয়ে দর্শক এখানে আমাকে আলাদা রূপে পাবেন। পরিচালক অমর কৌশিকের সঙ্গে যখন স্ক্ৰিপ্ট রিড করছিলাম, উনি বলেছিলেন আমার চাল-চলনে যেন শান্ত ভাব থাকে। সংলাপ বলার সময়ে যেন তাড়াহুড়ো না করি। মধ্যপ্রদেশের চান্দেরিতে আমাদের শুটিং হয়েছিল। এই প্রথম কোনও হিন্দি ছবির শুটিং ওখানে হল। আমাদের পরে বরুণ-অনুষ্কা গিয়েছিলেন ‘সুই ধাগা’র শুটিং করতে। প্র: শেষ দুটো ছবি ফ্লপ হওয়া সত্ত্বেও অনেক ভাল ভাল কাজের প্রস্তাব পাচ্ছেন। সাধারণত এমনটা হয় না! উ: আমার প্রথম দুটো ছবিই খুব বাজে ভাবে ফ্লপ করে। তার পরে ‘আশিকি টু’ কেমন সফল হয়েছিল, সেটা আপনারা সকলেই জানেন। কেরিয়ারের শুরুতেই ব্যর্থতার ধাক্কা খেয়ে বুঝেছিলাম, ইন্ডাস্ট্রিতে আমাকে অনেক কিছুর সম্মুখীন হতে হবে। আর ছোটবেলা থেকে একটাই স্বপ্ন ছিল, বড় হয়ে অভিনেত্রী হব। সেই স্বপ্ন সফল হয়েছে। আর কী চাই? আমি তো নিজেকে খুব ভাগ্যবতী মনে করি। নিজের প্রতি বিশ্বাস কোনও দিন হারাব না। মন দিয়ে পরিশ্রম করে যাব। ফ্যানদের ভালবাসা আমাকে সেই মনের জোর দেয়। প্র: ‘স্ত্রী’র দেশি লুক তো বেশ ভাল ক্যারি করেছেন। উ: হ্যাঁ। লুকটা এত ভাল লাগছে যে, ছবির প্রচারেও ওই রকম সাজগোজ করছি। শাড়ি আমার খুব প্রিয় পোশাক। সুযোগ পেলেই মরাঠিদের ট্র্যাডিশনাল শাড়ি পৈঠানি পড়ে থাকি। বিশেষ করে গণপতি উৎসবের সময়ে। এ ছাড়া নাকছাবি আমার খুব পছন্দের। প্র: ‘সাহো’তে প্রভাসের সঙ্গে কাজের অভিজ্ঞতা কেমন? উ: প্রভাস ভীষণ অমায়িক। ও যে অত বড় সুপারস্টার, সেটা দেখে বোঝা যাবে না। ‘সাহো’ শুটিংয়ের সময়ে আমার উপর দিয়ে খুব বড় ফাঁড়া গিয়েছে সম্প্রতি। পরে দৃশ্যটার ভিডিও দেখেই হা়ড়হিম হয়ে যাচ্ছিল। চেষ্টা করেছিলাম, অ্যাকশন দৃশ্যে যাতে বডি ডাবল ব্যবহার করতে না হয়। প্র: পরপর কাজ করে যাচ্ছেন। ‘মি টাইম’-এ কী করেন? উ: যখন মুম্বইয়ে থাকি, তখন সকালের চা-টা আমার কাছে খুব গুরুত্বপূর্ণ। সকালে উঠে মা-বাবার সঙ্গে চা খাওয়ার মজাই আলাদা। ওখান থেকেই সারাদিনের এনার্জি পেয়ে যাই। দিনটাও ভাল কাটে। কাজের জন্য খুব ভোরে উঠতে হলে মা-বাবাকে আর ডাকি না। তখন আমার চায়ের সঙ্গী শাইলো (শ্রদ্ধার পোষ্য)। সাইনা নেহওয়ালের বায়োপিকের জন্য ব্যাডমিন্টন প্র্যাকটিস করছি। কাজের অজুহাতে নতুন কিছু শিখছি। বেশ উপভোগ করছি খেলাটা। জানতাম, বছরের এই সময়টায় খুব ব্যস্ত হয়ে যাব। তাই কিছু দিন আগেই মা-বাবা আর ভাইয়ার সঙ্গে ছুটি কাটিয়ে এসেছি। আর ছুটিতে ফোনে একদম হাত দিই না। তখন শুধু পরিবারের সঙ্গে নির্ভেজাল সময় কাটাই। প্র: পরিবারই আপনার কাছে তা হলে খুব স্পেশ্যাল? উ: অবশ্যই। বাবা তো এখনও আমাকে বাচ্চা ভাবেন। এ বারের ছুটির পুরো দায়িত্ব আমি নিয়েছিলাম। সব খরচপাতি আমিই করেছি। কিন্তু তাতে কী? বাবা আমাকে এখনও সেই ছোট্ট মেয়ের মতো ট্রিট করেন। পারলে এখনও আমাকে পকেটমানি দেন। যদিও আমি কোনও মতে কাটানোর চেষ্টা করি (হাসি)! এসি  

এক বছরে প্রিয়ঙ্কার আয় প্রায় ৭০ কোটি  

প্রিয়ঙ্কা চোপড়া শুধু নামেই নয় আয়ের দিক থেকেও কম যান না। তার আয় শুধু বলিউডে কখনো সীমাবদ্ধ ছিল না। ২০০০ সালে মিস ওয়ার্ল্ড খেতাব জয় করার পর থেকেই বহু জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ডের এন্ডর্সমেন্ট করে চলেছেন তিনি। এই এন্ডর্সমেন্ট গুলি থেকে যে কোনও অভিনেত্রী বা মডেলই প্রচুর টাকা আয় করে থাকেন। ফোর্বস ম্যাগাজিনের প্রতিবেদন অনুযায়ী প্রিয়ঙ্কার মোট আয়ের ৫০ শতাংশ আসে এই এন্ডর্সমেন্টগুলি থেকে। ফোর্বস ম্যাগাজিনের ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে প্রিয়ঙ্কা ১ জুন, ২০১৬ থেকে ১ জুন ২০১৭ সাল— এই এক বছরের সময়কালের মধ্যে ১০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করেছেন। ভারতীয় মুদ্রা ‘টাকা’-র বর্তমান বাজারমূল্যের নিরিখে ১০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার প্রায় ৭০ কোটি টাকার সমতুল্য।   এই মোট আয়ের মধ্যে অবশ্য তাঁর হলিউড ও কোয়ান্টিকো সিরিজের আয়ও রয়েছে। ফোর্বস-এর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে ‘কোয়ান্টিকো’-র এক একটি সিজনের জন্য প্রিয়ঙ্কা ৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের বেশি আয় করেন। এবিসি টিভি-র আরও একটি সিটকমেও দেখা যেতে পারে প্রিয়ঙ্কাকে। সব মিলিয়ে বলিউডের হায়েস্ট পেইড তালিকায় ক্রমশই উপরে উঠে আসছেন তিনি। এসি  

কণ্ঠশিল্পী সালমাকে আঙটি পরালেন তানজিব!

কণ্ঠশিল্পী সালমার অনামিকায় আঙটি পরিয়ে দিচ্ছেন তানজিব সারোয়ার। ফেসবুকে একটি ছবি শেয়ার করে সেখানে শিরোনামে তানজিব উল্লেখ করেন `সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন`। এমন শিরোনাম দেখে যে কেউ চমকে উঠবে। ভক্তরাও দ্বিধায় পড়ে গেছেন। এর রহস্য কী? তবে সব জল্পনার অবসান ঘটালেন তানজিব সারোয়ার। তিনি বললেন, নতুন একটি মিউজিক ভিডিওর দৃশ্য এটি। সালমা আর তানজিব প্রথমবারের মতো একসাথে একই গানে কণ্ঠ দিলেন। পোড়ামন নামের এই গানের মিউজিক ভিডিও শিগগির আসছে। শুটিং সম্পন্ন হয়েছে।   এই গানের কথা লিখেছেন ওমর ফারুক। সুর ও সঙ্গীত আয়োজন করেছেন বিবেক। গানটি ধ্রুব মিউজিক স্টেশন থেকে মুক্তি দেওয়া হবে। তানজিব সারোয়ার বলেন, পোড়ামন গানের শুটিং টাঙ্গাইলের মহেরা জমিদার বাড়িতে ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। আমার আর সালমার প্রথম কাজ এটি। আমরা দুজনই মডেল হয়েছি। আর অনামিকায় বিয়ের আঙটি পরানোর একটি দৃশ্য রয়েছে এই ভিডিওতে। বেশ চমৎকার একটি কাজ হয়েছে। যার কারণে এর একটি স্টিল ছবি ফেসবুকে শেয়ার করতে ইচ্ছে হলো। এসি     

ইটালিতেই রণবীর-দীপিকার বিয়ে, ফাঁস করলেন বেদী     

আসছে নভেম্বরেই জমকালো বিয়ের আয়োজন হতে যাচ্ছে দীপিকা পাড়ুকোন ও রণবীর সিং। এতদিনে নিশ্চিত তথ্য পাওয়া গেল। কারণ এবার কথাটি প্রকাশ্যে জানিয়ে দিয়েছেন বর্ষীয়ান অভিনেতা কবীর বেদী। ইটালিতেই ডেস্টিনেশন ওয়েডিং সারবেন বলিউডের বাজিরাও-মস্তানি। সে কথা স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন বেদী। বিয়ের জন্য দুই তারকাকে প্রকাশ্যেই শুভেচ্ছাও জানিয়েছেন তিনি।    বলিউডের সব জায়গায় এ নিয়ে চলছিল ব্যাপক জল্পনা। কান পাতলেই শোনা যাচ্ছিল, নিজেদের সম্পর্ককে পরিণতি দিতে চলেছেন রণবীর ও দীপিকা। এ বছরই গাঁটছড়া বাঁধতে চলেছেন দু’জনে। দুই পরিবার নাকি ইতিমধ্যেই বিয়ের শপিং শুরু করে দিয়েছে। প্রসিদ্ধ গয়নার দোকানে যেতেও দেখা গিয়েছে দীপিকার মা-কে। এতে গুঞ্জন আরও জোরদার হয়। প্রথমে শোনা গিয়েছিল, বেঙ্গালুরুতেই বিয়ে সারবেন দীপ-বীর জুটি। কিন্তু পরে শোনা যায় ডেস্টিনেশন ওয়েডিং করতে চলেছেন বলিউডের জনপ্রিয় জুটি। সৈকত বেশ পছন্দের রণবীর সিংয়ের। তাই প্রথমে মনে করা হয়েছিল, এমন কোনও জায়গাই বিয়ের জন্য বেছে নেবেন দু’জন। কিন্তু পরে বিরুষ্কার মতো ইটালিকেই বিয়ের স্থান হিসেবে বেছে নেন তাঁরা। সঞ্জয় লীলা বনশালির ‘গলিওঁ কি রাসলীলা রামলীলা’ সিনেমার সময় থেকেই দু’জনের সম্পর্কের সূত্রপাত। অনস্ক্রিনের মতো অফস্ক্রিনেও রসায়ন ছিল জমজমাট। তারপর থেকে পরিচালক সঞ্জয় লীলা বনশালিরও প্রিয় জুটি হয়ে ওঠে রণবীর-দীপিকা। ‘বাজিরাও-মস্তানি’, ‘পদ্মাবত’, দুই সিনেমাতেইে দর্শকদের মন জয় করে নিয়েছে এই জুটি। ব্যক্তিগত জীবনে নিজেদের সম্পর্কের কথা সরাসরি না বললেও, কখনও ভালবাসা অস্বীকার করেননি রণবীর-দীপিকা। দীপিকার নাম শুনেই লাজুক হয়েছেন রণবীর। আবার রণবীরে নামে দীপিকার চেনা পরিচিত টোল পড়া গালের হাসিটি দেখা গিয়েছে। সব ঠিক থাকলে এবার সেই সম্পর্ক পরিণতি পেতে চলেছে নভেম্বর মাসের ২০ তারিখ। সংবাদ প্রতিদিন এসি   

তৈমুরের মা হওয়ার জ্বালা কতটা, জানালেন কারিনা

পাপারাজ্জির সামনে সব সময় পোজ দিতে ব্যস্ত তৈমুর আলি খান। কখনও সেটা মায়ের সঙ্গে আবার কখনও সেটা নানীর সঙ্গে। এসব নিয়ে তৈমুরের যত আনন্দ। ঠিক তার উল্টো মা কারিনা কাপুরের। বেশ জ্বালা পোহাতে হচ্ছে। যদিও এগুলো নিয়ে আমুদে সময় কাটছে এ সুদর্শনীর।   শিশু স্টারকে নিয়ে ভালোই সময় কাটছে কারিনা কাপুরের। সারাক্ষণ খুঁনসুটিতে মেতে থাকতে হচ্ছে। এতো সুখের মধ্যে কিছুটা বিরক্তিও আছে। এ বিষয়ে কারিনা বলেন, শুটিং সেরে বাড়ি ফেরার পর তিনি যখন ছেলের কাছে যেতে পারেন না, তখন কষ্ট পান। তৈমুরের মা হওয়ার পর এটাই তাঁর কাছে সবচেয়ে কষ্টের জিনিস বলেও জানান সইফ-পত্নী। অর্থাৎ, তৈমুরের কাছে গিয়েও তাকে আদর করতে না পারা, তাকে চটকাতে না পারাই তাঁর কাছে সবচেয়ে কঠিন মুহূর্ত বলেও মন্তব্য করেন করিনা কাপুর খান। অনিল-কন্যা রিয়া কাপুরের সিনেমা ‘ভিরে দি ওয়েডিং’-এর সাফল্যের পর লন্ডনে ছুটি কাটাতে যান কারিনা কাপুর খান। ওই সময় স্বামী সাইফ আলী খান এবং ছেলে তৈমুর আলি খান-কে নিয়েই বিদেশে যান কারিনা। শোনা যায়, ছুটি কাটানোর মাঝেই একটি বিজ্ঞাপনের ফটোশুট করে ফেলেন সাইফ-কারিনা। লন্ডনে বসেই দিদি করিশ্মা কাপুরের জন্মদিনও সেলিব্রেট করেন সাইফ, কারিনারা। লন্ডন থেকে ফেরার পর এবার করণ জহরের সিনেমার জন্য তোড়জোড় শুরু করেছেন করিনা কাপুর খান। করণের ধর্মা প্রোডাকশনের ‘তখত’-এই নাকি এবার দেখা যাবে কারিনাকে। রণবীর সিং-এর বিপরীতে এই সিনেমায় দেখা যাবে কারিনাকে। তবে রণবীর, োরিনার সঙ্গে ‘তখত’-এ স্ক্রিন শেয়ার করবেন আলিয়া এবং বরুণ ধাওয়ান-ও। সূত্র : জিনিউজ। / এআর /

কারিনার পারিশ্রমিক কত জানেন?

সাইফ আলী খানের সঙ্গে বিয়ে, ছেলে তৈমুরের জন্ম, সবকিছু নিয়ে বেশ কিছুদিন ক্যামেরা থেকে আড়ালে ছিলেন সুদর্শনী কারিনা কাপুর। তৈমুরের জন্মের পরপরই পরিচালক রিয়া খানের হাত ধরে অভিনয়ে ফেরেন। ‘ভিরে দি ওয়েডিং’ ছবির মধ্য দিয়ে তার নতুন করে অভিষেক। ছবিটি বেশ হিটও হয়েছিল। আর সেই কারণেই পারিশ্রমিকের মাত্রাও বাড়িয়ে দিয়েছেন। সম্প্রতি অক্ষয় কুমারের বিপরীতে ‘গুড নিউজ’-এ স্ক্রিন শেয়ার করছেন কারিনা। অন্যদিকে করণ জহরের ‘তখত’-এও এবার স্বাক্ষর করেছেন। ফলে, পর পর দুটি বড় প্রজেক্টের হাত ধরে এবার পারিশ্রমিক দ্বিগুণ বাড়িয়ে দিয়েছেন কাপুর-কন্যা। শোনা যাচ্ছে, এবার থেকে এক একটি সিনেমার জন্য কারিনা নাকি ৮ কোটি রুপি করে পারিশ্রমিক দাবি করছেন। অর্থাৎ, আগে যেখানে এক একটি বড় বাজেটের সিনেমার জন্য ৪-৫ কোটি করে পারিশ্রমিক নিতেন, সেখানে এবার ৮ কোটি করে দাবি করছেন তিনি। যা নিয়ে বলিউডে ইতিমধ্যেই গুঞ্জন শুরু হয়েছে। করণ জহরের ‘তখত’-এ করিনা কাপুরের সঙ্গে এই প্রথম দেখা যাবে রণবীর সিং-কে। এই সিনেমায় রণবীরের দিদির চরিত্রে অভিনয় করবেন করিনা কাপুর খান। তবে এই সিনেমায় রণবীর এবং কারিনার পাশাপাশি দেখা যাবে আলিয়া ভাটকেও। ঐতিহাসিক প্লটের উপর নির্ভর করেই করণ জহর ‘তখত’ তৈরি করছেন বলে খবর।  করণ জহরের এই সিনেমায় রণবীর কাপুরেরও অভিনয় করার কথা ছিল। রণবীর সিং-এর ভাইয়ের ভূমিকাতেই রণবীর সিং-কে পছন্দ ছিল করণের। কিন্তু, কোনও ‘নেগেটিভ’ চরিত্রে অভিনয় করবেন না বলেই শেষ পর্যন্ত করণ-এর সিনেমা থেকে রণবীর কাপুর সরে গিয়েছেন বলে খবর। যদিও, এ বিষয়ে কোনও মন্তব্য করেননি রণবীর কাপুর। সূত্র : জিনিউজ। / এআর /

প্রকাশ পেয়েছে ‘সুই ধাগা’র ট্রেলার (ভিডিও)

ঘর ভর্তি কাপড়। সেখানে একটি সেলাই মেশিনের ওপর বসে রয়েছেন বরুণ ধবন। গায়ে সোয়েটার। গলায় ঝোলানো মাপ নেওয়ার ফিতে। পিছনে ঘোমটা দিয়ে হাসিমুখে দাঁড়িয়ে আনুশকা শর্মা। ঠিক এভাবেই দিন কয়েক আগে মুক্তি পেয়েছিল ‘সুই ধাগা’র প্রথম পোস্টার। আর গতকাল মুক্তি পেল ছবির ট্রেলার। সব কিছু ঠিক থাকলে আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর মুক্তি পাবে ছবিটি। শরত্ কাটারিয়া পরিচালিত এই ছবির দম্পতি বরুণ এবং অনুষ্কার নাম মউজি এবং মমতা। এই ছবিতে বরুণ পেশায় দর্জি। আর তার স্ত্রী আনুশকা জামা-কাপড়ে সুতোর কাজ করেন। মউজির কাজে সাহায্য করতেন মমতা। এভাবেই এগিয়েছে ছবির গল্প। এক বেকার গৃহবধূর আর্থিকভাবে স্বনির্ভর হওয়ার জার্নি এ ছবিতে দেখবেন দর্শক। ভোপাল, দিল্লি এবং মুম্বাইতে হয়েছে এই ছবির শুটিং। অন্য ছবির মতো এ ক্ষেত্রেও বাছাইয়ের সময় আনুশকা সবচেয়ে বেশি জোর দিয়েছিলেন চিত্রনাট্যের ওপর। যশ রাজ ফিল্মসের ব্যানারে তৈরি এই ছবিতে ভারতের বিভিন্ন প্রদেশের সুতোর কাজকে তুলে ধরা হবে। সব মিলিয়ে ফের একটি ভিন্ন ধারার ছবি উপহার দেবেন বরুণ-আনুশকা। এমনটাই মনে করছেন বলি মহলের একটা বড় অংশ। সূত্র: আনন্দবাজার একে//

নামি-দামি কী কী আছে শাহরুখের?

বলিউড সুপারস্টার শাহরুখ খান। এ তারকার মোট সম্পত্তির পরিমাণ প্রায় পাঁচ হাজার একশো কোটি টাকা। ইউটিউব চ্যানেল এক্সপেন্স সূত্রে খবর, চার কোটি টাকার মেক আপ ভ্যানও রয়েছে কিং খানের। এ রকমই কিছু জিনিসের কথা জেনে নেওয়া যাক, যেগুলো বাদশার পছন্দের। ট্যাগ গ্র্যান্ড কাররেরা ক্যালিবার ট্যাগ হিউয়ার নামে একটি আন্তর্জাতিক ঘড়ি নির্মাতা সংস্থার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর এসআরকে। এই সংস্থার বে্শ কয়েকটি ঘড়ি রয়েছে শাহরুখের কাছে। একেকটির দাম প্রায় আড়াই লাখ টাকা। বাইক হারলে ডেভিডসনের একটি ডায়ানা স্ট্রিট বব ক্রুজার মোটরসাইকেল রয়েছে শাহরুখের। দাম দশ লাখের কাছাকাছি। বেন্টলে কন্টিনেন্টাল জিটি বিশ্বের অন্যতম বিলাসবহুল এই গাড়িটির মূল্য চার কোটি। এর ইন্টিরিয়র শাহরুখের জন্য বিশেষভাবে তৈরি। অন্যতম বিলাসবহুল গাড়ি এটি। এসআরকে-র একটি অডি এ-সিক্সও রয়েছে, যার দাম প্রায় ৫৬ লাখ। রোলস রয়েস আর বিএমডব্লিউ বলিউডের খুব কম তারকার কাছেই রোলস রয়েস রয়েছে। এসআরকে তাদের একজন। গাড়িটির মূল্য চার কোটি দশ লাখ টাকা। এ ছাড়াও বিএমডব্লিউ-সিক্স সিরিজের এক কোটি ত্রিশ লাখ টাকার একটি গাড়ি, বিএমডব্লিউ-সেভেন সিরিজের কোটি কোটি টাকার একটি গাড়ি, বিএমডব্লিউ আই-এইট সিরিজের দুই কোটি ষাট লাখ টাকার একটি গাড়িও রয়েছে কিং খানের গ্যারাজে। বুগাত্তি ভেইরন কিং খানই একমাত্র বলিউড তারকা, যার কাছে এই গাড়িটি রয়েছে। দাম ১৪ কোটি টাকা। গতিবেগ ঘণ্টায় প্রায় ৪০০ কিমি। এ ছাড়াও শাহরুখের রয়েছে একটি মার্সিডিজ বেঞ্জ এস৬০০। দাম প্রায় দুই কোটি আশি লাখ টাকা। সবচেয়ে নিরাপদ গাড়ির অন্যতম এটি। ‘কাস্টমাইজড’ মেক আপ ভ্যান শাহরুখের কাছে রয়েছে বেশ কয়েকটি ‘কাস্টমাইজড’ মেক আপ ভ্যান। তবে সবচেয়ে মূল্যবান মেক আপ ভ্যানটির দাম প্রায় তিন কোটি আশি লাখ টাকা। দুবাইয়ের ভিলা পাম জুমেরিয়াতে রয়েছে শাহরুখের নিজস্ব ভিলা। ১৪ হাজার বর্গফুট জায়গা জুড়ে এই ভিলা তৈরি করা হয়েছে। শুধু জমি কিনতেই শাহরুখের খরচ হয়েছিল ২৪ কোটি টাকা। ভিলায় নিজস্ব সিনেমা হল থেকে ‘ইন্ডিপেনডেন্ট বিচ’ সবই রয়েছে। লন্ডনের বাড়ি লন্ডনের পার্ক লেন ব্রিটিশদের অভিজাত এলাকা। ২০০৯ সালে ১৭২ কোটি টাকা দিয়ে এখানেই বাড়ি কেনেন বাদশা। মন্নত বান্দ্রার সমুদ্রতটের কাছে বাদশার নিজের বাড়ি। অনুরাগীদের ভিড় লেগেই থাকে শাহরুখকে এক ঝলক দেখার জন্য। গ্রিক স্থাপত্য শৈলীতে নির্মিত এই বাড়ির নকশা তৈরি করা হয়েছিল। এই বাড়িটির বর্তমান বাজার দর ২০০ কোটি টাকারও বেশি। সূত্র: আনন্দবাজার একে//

শাকিব-শ্রাবন্তীর প্রেম গুঞ্জন

সম্প্রতি স্বামী কৃষাণ ভিরাজের সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়ে গেছে টালিউডের জনপ্রিয় নায়িকা শ্রাবন্তীর। ঠিক কি কারণে এই বিচ্ছেদ তা এখনও ভেদ হয়নি। এই সম্পর্কে ইতি টানার পর শ্রাবন্তী দাবি করছেন তিনি এখনও সিঙ্গেল। মনের মতো কাউকে এখনও খুঁজে পান নি। যদিও টালিগঞ্জের স্টুডিও পাড়ায় কান পাতলে শোনা যাচ্ছে অন্যকথা। একই কথা শোনা যাচ্ছে বাংলাদেশের ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতেও। অনেকেই বলছেন বাংলাদেশের সুপারস্টার শাকিব খানের সঙ্গে নাকি সম্পর্কে রয়েছেন অভিনেত্রী। অনেকে এর যোগসূত্র টানছেন এভাবে যে, অপু বিশ্বাসের সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হয়ে যাওয়ার পর সিঙ্গেল শাকিব। তার মনও ভালো যাচ্ছে না। এই মুহূর্তে তার একজন সঙ্গী দরকার। আর শ্রাবন্তীর সঙ্গে তার রসায়ন বেশ জমে। তাই শ্রাবন্তীতেই আস্থা রাখছেন শাকিব। প্রসঙ্গত, এই মুহূর্তে `শাকিবের সঙ্গে `ভাইজান এলো রে` বলে একটি ছবিতে কাজ করছেন শ্রাবন্তী। লন্ডনে এই ছবির শ্যুটিং চলাকালীনই তাঁদের সম্পর্কের গুঞ্জন শোনা যায়। শোনা যায়, সিনেমায় একটি দৃশ্যের শ্যুটিংয়ের জন্য রোম্যান্টিক পোজ দিচ্ছিলেন শ্রাবন্তী-শাকিব। এই দৃশ্যটি শ্যুট হয়ে গেলেও তাঁরা নাকি দুজনে ওই একই ভাবে দাঁড়িয়ে থাকেন। আর এই দৃশ্যটি ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়ে যাওয়ার পরই শ্রাবন্তী-শাকিবের সম্পর্ক নিয়ে গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে। যদিও তাঁদের সম্পর্কের কথা পুরোপুরি অস্বীকার করেছেন শ্রাবন্তী। শাকিব খানও পুরো বিষয়টিই গুজব বলে এড়িয়ে গেছেন। তবে শুধুই শাকিব নন, কেউ কেউ তো বলছেন শ্রাবন্তী নাকি টালিগঞ্জের এক নায়কের সঙ্গেও প্রেম করছেন। যদিও তিনি কে, তা জানা যায়নি। তবে অনেকেই এবিষয়টি নেহাতই গুজব বলেই উড়িয়ে দিয়েছেন। সূত্র : জিনিউজ। / এআর /

শাবনূর আমার চেয়ে জনপ্রিয়: মৌসুমী

চিত্রনায়িকা মৌসুমীর চলচ্চিত্রে পথচলার রজতজয়ন্তী পূর্ণ হয়েছে কিছুদিন আগে। এই ২৫ বছরে পথচলার ইতিবৃত্ত নিয়ে ঈদে হাজির হচ্ছেন এ নায়িকা। তাকে নিয়ে ঈদে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজ করা হয়েছে। অনুষ্ঠানটির নাম ‘স্টার নাইট’। এতে উঠে এসেছে মৌসুমীর বলা না বলা বহু কথা।   সম্প্রতি অনুষ্ঠানের চিত্রধারণ সম্পন্ন হয়। অনুষ্ঠানে ২৫ বছর কিংবা তারও আগে মডেলিং সময়কার বিভিন্ন তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র দিয়ে মৌসুমীকে সারপ্রাইজ দেওয়া হয়। এসব সারপ্রাইজ পেয়ে মৌসুমীও আবেগতাড়িত হয়ে পড়েন। ক্যারিয়ারের সঙ্গে, জীবনের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে থাকা কিছু মানুষের মন্তব্য ও ভিডিওবার্তা দেখে বেশ উচ্ছ্বসিত হন। অনুষ্ঠানে মৌসুমী নিজের লেখা কবিতা আবৃত্তি করেন, গান গেয়ে শোনান। পাশাপাশি জানিয়েছেন, বলিউডে মিঠুন চক্রবর্তী ও আমির খানের সঙ্গে একটা সময় হিন্দি ছবিতে অভিনয় করার কথা ছিল তার। কোনো এক কারণে সেটি আর করা হয়ে ওঠেনি। সমসাময়িক নায়িকাদের প্রসঙ্গে মৌসুমী জানান, শাবনূর আর তার মধ্যে শাবনূরই সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়। শাবনূর তারও প্রিয় অভিনেত্রী। এমনকি নিজের স্বামী ওমর সানীর চেয়ে জনপ্রিয়তার দৌড়ে প্রয়াত সালমান শাহকে এগিয়ে রাখেন তিনি। রুম্মান রশীদ খানের গ্রন্থনা ও পরিকল্পনায় অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেছেন মারিয়া নূর। এটি মাছরাঙা টেলিভিশনের ঈদ আয়োজনে প্রচার হবে। / এআর /

© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি