ঢাকা, শুক্রবার, ১৭ আগস্ট, ২০১৮ ২১:৫৩:০৫

আবারও শুরু আমিন খান-পপির ‘সাহসী যোদ্ধা’

আবারও শুরু আমিন খান-পপির ‘সাহসী যোদ্ধা’

আবারও শুরু হয়েছে ‘সাহসী যোদ্ধা’র শুটিং। গত ১৩ আগস্ট থেকে মধুমতি মডেল টাউনে আটকে যাওয়া এই সিনেমাটির শুটিং শুরু হয়। যা চলবে আরও বেশ কয়েক দিন।নির্মাতা সাদেক সিদ্দিকী বলেন, ‘মাঝে মধ্যে আমি নাটকও নির্মাণ করি। নাটক নির্মাণের ক্ষেত্রে হাতে সময় থাকে দুই দিন কিংবা বেশি হলে তিন দিন। কিন্তু সেই আমি যখন চলচ্চিত্র নির্মাণ করি, তখন যথেষ্ট সময় নিয়ে ভালোভাবে কাজটা শেষ করার চেষ্টা করি। কারণ চলচ্চিত্র বিশাল ক্যানভাসের বিষয়। খুব ছোট ভুলগুলোও বড় হয়ে চোখের সামনে ধরা দেয়। তা যেন না হয়।’ সিনেমার নায়ক আমিন খান বলেন, ‘একজন অভিনয়শিল্পী হিসেবে আমি আমার যেকোনো কাজের প্রতি অনেক বেশি দায়িত্বশীল। ‘সাহসী যোদ্ধা’র গল্প আমার কাছে অনেক ভালো লেগেছে। সেই সঙ্গে আমার চরিত্রটিও। আমি আমার সাধ্যমতো পরিচালকের সুবিধামতো কাজটি শেষ করে দেয়ার চেষ্টা করছি।’ একই সঙ্গে চিত্রনায়িকা পপি বলেন, ‘সাহসী যোদ্ধা শেষ হতে যাচ্ছে, এটাই অনেক আনন্দের বিষয়। মাঝে যে জটিলতা সৃষ্টি হয়েছিল তা আর নেই এখন। ধন্যবাদ সাদেক সিদ্দিকী ভাইকে আন্তরিকতা নিয়ে সিনেমাটি শেষ করার উদ্যোগ নেয়ার জন্য। একটি সিনেমা একজন শিল্পী হিসেবে আমাদের একেকটি স্বপ্নপূরণের গল্প। ‘সাহসী যোদ্ধা’ ঠিক তেমনি একটি স্বপ্নপূরণের গল্পের মতো। আমি খুব আশাবাদী সিনেমাটি নিয়ে।’ উল্লেখ্য, কয়েক মাস আগে সাদেক সিদ্দিকীর নির্দেশনায় চিত্রনায়ক আমিন খান ও চিত্রনায়িকা পপির নতুন চলচ্চিত্র ‘সাহসী যোদ্ধা’র শুটিং শুরু হয়। টানা বেশ কিছু দিন শুটিংয়ের পর হঠাৎ একটি বিশেষ কারণে ‘সাহসী যোদ্ধা’র শুটিং বন্ধ থাকে। বিষয়টি এমনপর্যায়ে এসে দাঁড়ায় যে ‘সাহসী যোদ্ধা’র বাকি কাজ বন্ধ হয়ে যাওয়ার উপক্রম হয়। কিন্তু পরিচালক সাদেক সিদ্দিকী নিজেই নতুন ভাবে যাত্রা শুরু করেন। ‘সাহসী যোদ্ধা’ চলচ্চিত্রটি এখন প্রযোজনা করছে সাদেক সিদ্দিকীর প্রযোজনা সংস্থা আনন্দ বাজার মাল্টিমিডিয়া। এই প্রযোজনা সংস্থার ব্যানারে এর আগে তিনি ‘সুন্দরী বেউলা’, ‘ভালোবাসা ছাড়া কেউ কি বাঁচে’ এবং ‘হৃদয়ে ৭১’ নির্মাণ করেন। এসএ/  
ঈদ নাটকে রুহীর ব্যস্ততা

নৃত্যশিল্পী, মডেল ও অভিনেত্রী নুসরাত জান্নাত রুহী। ঈদ উপলক্ষে নির্মিত ছয়টি নাটকে অভিনয় করেছেন তিনি। সম্প্রতি নেপালের মনোরম সব লোকেশনে চিত্রায়ন হয়েছে নাটকগুলোর। সৈয়দ ইকবাল, কামাল আহমেদ ও গল্পওয়ালার রচনায় নাটকগুলো পরিচালনা করেছেন যথাক্রমে আহমেদ কামাল, নাজমুল রনি ও রাহাত মাহমুদ।রুহী অভিনীত নাটকগুলো হচ্ছে- ক্রসচেক, দ্বিতীয় দেখা, গোলকধাঁধা, ট্রুথ অর ডেয়ার, বিপরীত ভালোবাসা ও অপশনাল বয়ফ্রেন্ড। নাটকগুলোতে রুহীর বিপরীতে অভিনয় করেছেন সজল, কল্যাণ কোরাইয়া, এসএম জনি ও এলেন শুভ্র।এ প্রসঙ্গে রুহী বলেন, ‘ভিন্ন সব গল্পে নেপালে চিত্রায়িত নাটকগুলোতে অভিনয় করেছি, যেখানে আমাকে ভিন্ন সব চরিত্রে দেখা যাবে। নেপালের মনোরম লোকেশনে শুটিংয়ের ফলে নাটকগুলো দর্শক দেখে বেশ আনন্দ পাবে।’ আসছে ঈদে বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে নাটকগুলো প্রচার হবে বলে জানান রুহী। এসএ/  

মুক্তি পেল ‘চাঁদ কথা’র টাইটেল গান (ভিডিও)

মুক্তি পেয়েছে গোলাম আলি জিন্নাহ পরিচালিত চলচ্চিত্র ‘চাঁদ কথা’র প্রথম গান। বৃহস্পতিবার রাতে ‘চাঁদ কথা’ শিরোনামের টাইটেল গানটি প্রকাশ করা হয়। ১৯৭৫ সালের আবহে একটি ত্রিভূজ প্রেমের গল্প নিয়ে নির্মাণ করা হয়েছে সিনেমাটি। গানের দৃশ্যায়নে সে চিত্রই ফুটে উঠেছে। নির্জন আজাদ ও মেঘলা মায়ার অভিনয়ে গানটিতে লোক গল্পের গতি খুঁজে পাওয়া গেছে।টাইটেল গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন, রকার সোহেল ও বিন্দি খান। গানের সুর ও কথা লেখার পাশাপাশি সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন এমআর খান। একইসঙ্গে পুরো চলচ্চিত্রের চিত্রনাট্যও তারই তৈরি করা। এটি প্রযোজনা করছেন তিনি।‘চাঁদ কথা’ সিনেমাটি আরও অভিনয় করেছেন, আদিবা ইশরাত, তৃষ্ণা সরকার, নাবিলা আলম, তারা খান, বাবুসহ অনেকে। শিগগির এটির মুক্তির তারিখ জানানো হবে বলে জানান নির্মাতা। উল্লেখ্য, ছোট পর্দায় নিয়মিত মুখ নির্জন আজাদ। অসংখ্য জনপ্রিয় টিভি সিরিজে দেখা গেছে তাকে। এবারই প্রথমবারের মতো বড় পর্দায় অভিষিক্ত হচ্ছেন তিনি। সিনেমার অধিকাংশ কাজ ইতিমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। এসএ/  

প্রথমবারের মতো নাটকের গানে ঐশী

প্রথমবারের মতো মৌলকি গান নিয়ে শ্রোতা-দর্শকের মধ্যে হাজির হচ্ছেন ২০১৭-এর চ্যানেল আই সেরাকণ্ঠ’ চ্যাম্পিয়ন ঐশী। অভিনেতা, নাট্যকার, নির্মাতা, সুরকার এবং গীতিকার সোহেল আরমানের লেখা গানে কণ্ঠ দিয়েছেন তিনি। সোহেল আরমানের আগামী ঈদের বিশেষ নাটক ‘হৃদয় আছে যার’র জন্য গানটি তৈরি করা হয়েছে। গানটি সুর-সংগীতায়োজন করেছেন তাসনুভ নাওয়াল। এরই মধ্যে রাজধানীর পান্থপথে একটি স্টুডিওতে গানটির রেকর্ডিংয়ের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। এতে ঐশীর সহশিল্পী হিসেবেও থাকছেন তাসনুভ নাওয়াল। ‘নীল আকাশে বসে’ শিরোনামের এই গানটিতে ঐশীর গায়কি প্রসঙ্গে সোহেল আরমান বলেন, ‘আমরা যারা নির্মাতা তারা যখন কোনো নাটক বা চলচ্চিত্রের জন্য গান লিখি তখন অনেক ক্ষেত্রে কিছু কিছু কথায় কণ্ঠ শিল্পীর আবেগ দেয়া কঠিন হয়ে পড়ে। যা সাধারণত বড় বড় শিল্পীরা ছাড়া সেই আবেগ দিতে পারেন না। কিন্তু ঐশী সেসব ক্ষেত্রে তার আবেগ যথাযথভাবে দিতে পেরেছে এবং এত কঠিন একটি গান ঐশী এতটা সহজেই গেয়েছে যে, আমি মুগ্ধ হয়েছি। সত্যিই তার কণ্ঠটি ভীষণ মিষ্টি এবং আমার দোয়া রইল নিশ্চয়ই ঐশী তার চেষ্টা দিয়ে তার লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারবে।’ ঐশী বলেন, ‘আমি ভীষণ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি সোহেল আরমান ভাইয়ার কাছে। কারণ তিনি আমার গায়কির প্রতি আস্থা রেখে আমাকে যে সুযোগটি দিয়েছেন তা আমার জন্য সত্যিই অনেক বড় পাওয়া। গানটি গাওয়ার সময়ই আমি ভীষণ উপভোগ করেছি। আমারও ভীষণ ভালো লাগেছে গানটি।’ উল্লেখ্য, সোহেল আরমানের লেখা ‘আমি তোমার মনের ভেতর একবার ঘুরে আসতে চাই’, ‘তুমি আমার ঘুম’, ‘যাক না উড়ে’, ‘বেশ বেশ শাবাশ বাংলাদেশ’সহ আরও বহু জনপ্রিয় গান রয়েছে।এসএ/  

নাঈম-সাবিলার ‘রিকশায় কোনো রিস্ক নেই’

রিকশায় চড়া অন্যার একদম অপছন্দ। অন্যদিকে জনির সবচেয়ে পছন্দের বাহন হচ্ছে রিকশা। ভালোবাসার খাতিরে এখন দুজনেরই রিকশা পছন্দ। সমস্যা হচ্ছে, প্রতিদিন জনি রিকশায় করে অফিসে যাওয়ার কারণে দেরি হয়। এ কারণে জনির বস তার ওপর খুবই বিরক্ত হন। তিন বছরে তার চাকরিতেও কোনো উন্নতি নেই শুধু অফিসে দেরি করে আসার কারণে। এসব নিয়ে জনিরও খুব একটা মাথাব্যথা নেই। কিন্তু যত সমস্যা অন্যার। তার বাবা সোজা বলে দিয়েছে, অলস ছেলের সঙ্গে তিনি তার মেয়ের বিয়ে দেবেন না। কিন্তু অন্যা বাবার সঙ্গে বাজি ধরে জনিকে অলসতা থেকে ফিরিয়ে আনবে এবং বিয়ে জনিকেই করবে। এমন গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে নাটক ‘রিকশায় কোনো রিস্ক নেই’। শিবরাম চক্রবর্তীর ‘রিকশায় কোনো রিস্ক নেই’ গল্প থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে নাটকটি নির্মাণ করেছেন হাবীব শাকিল। এতে অন্যা ও জনির চরিত্রে অভিনয় করেছেন সাবিলা নূর ও নাঈম। এ নাটকে অভিনয় প্রসঙ্গে সাবিলা নূর বলেন, ‘সম্পূর্ণ প্রেমের নাটক এটি। আশা করছি সবার ভালো লাগবে। দর্শক মন ভরে দেখবেন।’ নাটকটি আসছে ঈদে এনটিভিতে প্রচার হবে বলে জানান নির্মাতা। এ নাটক ছাড়াও আসছে ঈদের জন্য আরও কয়েকটি নাটকে অভিনয় করেছেন বলে জানিয়েছেন সাবিলা নূর।এসএ/

ঈদে ছোট পর্দায় ঈশিতা

অবশেষে দর্শকদের অপেক্ষার পালা শেষ। একসময়ের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ঈশিতা ভক্তদের জন্য সুখবর। এবারের ঈদে তাকে দেখা যাবে ছোট পর্দায়। একটি নাটক ও টেলিফিল্মে দেখা মিলবে তার। জুলাইয়ের শেষ প্রান্তে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় বড় ভাই রাজীবের কাছে গিয়েছিলেন ঈশিতা। সঙ্গে তার স্বামী ও দুই সন্তান যাবির ও আযরিন। সেখানেই ঈদ করেন ঈশিতা। বিরতির পর গেল ঈদে তিনি সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে রাফায়েলের নির্দেশনায় ‘কাঠপেন্সিল’ টেলিফিল্মে অভিনয় করেন। তবে ঈশিতা বলেন, ‘সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে কলকাতার অংশের কাজ আমি বেশ ভালোভাবে শেষ করেছি। আমি নিশ্চিত কাজটা ভালো হবে, কারণ প্রত্যেক পরিচালকই চান তার কাজটি যেন ভালো হয়। কিন্তু তার পরও আমি দ্বিধান্বিত, কারণ ঢাকার অংশের কাজটুকু ভালোভাবে শেষ করা হয়নি।’ এই টেলিফিল্মটি এবারের ঈদে একটি স্যাটেলাইট চ্যানেলে প্রচার হবে বলে জানান ঈশিতা। সম্প্রতি কেরানীগঞ্জে এই টেলিফিল্মের শুটিংয়ে অংশ নেন মাজনুন মিজান ও বীথি সরকার। এ দিকে, আগামী ঈদে চ্যানেল আইতে প্রচারের জন্য রেদওয়ান রনি নির্মাণ করেন ঈশিতাকে নিয়ে ‘ঝরা পাতার দিন’ নাটকটি। এই নাটকে অভিনয় প্রসঙ্গে ঈশিতা বলেন, ‘খুবই প্রস্তুতি নেয়া এবং হোম ওয়ার্ক করা একটি ইউনিট ছিল রেদওয়ান রনির। একজন শিল্পীর কাছ থেকে নির্মাতা কী চান তা বেশ গুছিয়ে বলতে পারেন রনি। ক্যামেরায় নতুন একটি ছেলে নাজমুল কাজ করেছেন, এক কথায় তার কাজে মুগ্ধ আমি। মূল কথা হলো রনির ইউনিটের প্রত্যেকের মাথায় এটি ছিল যে একটি ভালো কাজ করতে হবে। আমি খুবই আশাবাদী ‘ঝরা পাতার দিন’ নাটকটি নিয়ে।’ অভিনয়ে নিয়মিত হওয়া প্রসঙ্গে ঈশিতা বলেন, ‘আমি আমার ব্যক্তিগত কাজ নিয়ে এত ব্যস্ত যে ভালো স্ক্রিপ্ট পেলেই হলো না, সময়টাও আমার কাছে খুব গুরুত্বপূর্ণ। তবে এটাই সত্যি আমার ভক্ত-দর্শকের কথা চিন্তা করেই আমি ‘কাঠপেন্সিল’ এবং ‘ঝরা পাতার দিন’-এ অভিনয় করেছি।’ প্রয়াত আবদুল্লাহ আল মামুনের নির্দেশনায় ‘বিহঙ্গ’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছিলেন ঈশিতা। এরপর আর গল্প ভালো লাগেনি বিধায় নতুন কোনো চলচ্চিত্রে তাকে দেখা যায়নি। চার বছর আগে ঈশিতা শহীদুজ্জামান সেলিমের নির্দেশনায় ‘চোর গেল ভূত এলো’, ‘ভূত গেল ডাকাত এলো’ নাটকে সর্বশেষ অভিনয় করেন। এরপর তাকে আর অভিনয়ে দেখা যায়নি।এসএ/  

কিংবদন্তিতুল্য গায়ক আর্থা ফ্রাঙ্কলিন আর নেই

‘কুইন অব সোউল’ খ্যাত কিংবদন্তিতুল্য গায়ক আর্থা ফ্রাঙ্কলিন আর নেই। ৭৬ বছর বয়সে বৃহস্পতিবার ডেট্রয়েটে নিজ বাড়িতে মারা গেছেন তিনি। গত ছয় দশক ধরে তিনি তার শ্রোতা ও ভক্তদের হৃদয় জয় করে রেখেছেন।আর্থা ফ্রাঙ্কলিন ‘রেসপেক্ট’(১৯৬৭), ‘ন্যাচারাল ওমেন’ (১৯৬৮) এবং ‘আই ছে এ লিটল প্রেয়ার’(১৯৬৮) অ্যালবামের মাধ্যমে কয়েক দশক ধরে নারী গায়কদের উৎসাহিত ও অনুপ্রাণিত করে আসছেন।পরিবারের পক্ষ থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, একাধিকবার গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড পাওয়া এই শিল্পী দীর্ঘদিন প্যানক্রিয়েটিক ক্যান্সারে ভুগছিলেন। বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় সকাল ৯টা ৫০ মিনিটে তিনি পরিবারের সদস্য ও আত্মীয়-স্বজনের উপস্থিতিতে মারা যান।আর্থা ফ্রাঙ্কলিন যুক্তরাষ্ট্রের টেনেসি রাজ্যে ১৯৪২ সালের ২৫ মার্চ জন্মগ্রহণ করেন। এসএ/  

ঈদে হানিফ সংকেতের ‘শেষ অশেষের গল্প’

প্রতি ঈদেই নাটক নির্মাণ করেন নন্দিত উপস্থাপক ও নির্মাতা হানিফ সংকেত। সেই ধারাবাহিকতায় আগামী ঈদের জন্যও তিনি তৈরি করেছেন নাটক। এর নাম ‘শেষ অশেষের গল্প’। নাটকটির গল্পও লিখেছেন তিনি। গ্রামের এক দরিদ্র ও অসহায় যুবকের একই গ্রামের অবস্থাপন্ন পরিবারের একটি মেয়ের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এক সময় জীবিকার তাগিদে যুবকটি বিদেশে চলে যায়। প্রেমিকের অনুপস্থিতিতে মেয়েটিকে ঘিরে গ্রামে ঘটতে থাকে নানা ঘটনা ও রটনা। এসব ঘটনাকে কেন্দ্র করেই গড়ে উঠেছে এ নাটকের গল্প।ঈদের নাটক প্রসঙ্গে হানিফ সংকেত বলেন, ‘ঈদের নাটক মানেই যে হাসির নাটক নির্মাণ করতে হবে, এর মানে নেই। আমি একেক বছর, একেক সময় একেক গল্প নিয়ে আসি। তবে দর্শককে হাসানোর জন্য আমার কোনো চেষ্টা থাকে না।’তিনি বলেন, ‘আমাদের চলমান জীবনে আমরা অনেক ঘটনা দেখে থাকি। যেমন আমার এবারের ঈদের নাটকটি হাসির নয়। মূলত আমাদের সমাজে যৌতুক প্রথা এখনও আছে। আমি বলব যৌতুক একটি মারাত্মক ব্যধি। এটার বিরুদ্ধে আমার এ নাটকে একটি বক্তব্য আছে।’ নাটকটির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন- আবুল হায়াত, শর্মিলী আহমেদ, রিয়াজ, মীর সাব্বির, কুসুম শিকদার, সাঈদ বাবু, সুভাশীষ ভৌমিক, শামীম, রকিবুল হাসান, নজরুল ইসলাম, গুলশান আরা, পুতুল, বাহার, মতিউর রহমানসহ অনেকে।নাটকটির চিত্রায়ণ হয়েছে মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইরে অবস্থিত ফাগুন নিকেতনে। নাটকের সূচনা সঙ্গীতের কথা লিখেছেন মোহাম্মদ রফিকউজ্জামান, সুর করেছেন হানিফ সংকেত, সঙ্গীতায়োজন করেছেন মেহেদী, কণ্ঠ দিয়েছেন পান্থ কানাই। আবহসঙ্গীত পরিচালনা করেছেন ফরিদ আহমেদ। এটি ঈদের দিন রাত ৮টা ৩০ মিনিটে এটিএন বাংলায় প্রচার হবে। এসএ/  

ঈদে মেসবাহর উপস্থাপনায় ইটিভিতে ‘গজল ফরএভার’

দেশের বিশিষ্ট গজল শিল্পী মেসবাহ্ আহমদ। দীর্ঘ ২৭ বছর ধরে গজল পরিবেশন করে আসছেন তিনি। দেশে-বিদেশে বিভিন্ন সময়ে তার বহু একক গজলসন্ধ্যা অনুষ্ঠিত হয়েছে। যা দর্শক-শ্রোতাদের সবসময়ই মুগ্ধ করেছে। আর এ কারণেই গজলপ্রেমীদের কাছে এক মুগ্ধতার নাম মেসবাহ্ আহমেদ। মেসবাহ আহমেদ তার সেই গজলের মুগ্ধতা ছড়িয়ে দেয়ার পাশাপাশি এবার তিনি গজল পরিবেশনা এবং উপস্থাপনা দুটোই একসঙ্গে করতে যাচ্ছেন। আগামী ঈদে একুশে টেলিভিশনের পর্দায় প্রথমবারের মতো উপস্থাপনা করেছেন মেসবাহ আহমেদ। ইতিমধ্যে অনুষ্ঠানটির রেকর্ডিং সম্পন্ন হয়েছে। অনুষ্ঠানটি প্রযোজনা করেছেন- মাসুমা লিসা ও শতরূপা দত্ত। একুশে টেলিভিশনে আগামী ঈদে টানা সাতদিন মেসবাহ্ আহমেদের উপস্থাপনায় প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে ৯টা পর্যন্ত প্রচার হবে ‘গজল ফর এভার’র অনুষ্ঠানটি। এই অনুষ্ঠানে মেসবাহ্ আহমেদ নিজেও গজল পরিবেশন করবেন। তবে গজল পরিবেশনের চেয়ে গজল নিয়ে আমন্ত্রিত অতিথিদের সঙ্গে তার কথোপকথন বেশি গুরুত্ব পাবে। আমন্ত্রিত অতিথিরা শ্রোতা-দর্শকের জন্য গজল পরিবেশন করবেন। মেসবাহ্ আহমেদের নিমন্ত্রণে টানা সাত দিন গজল পরিবেশন করবেন- সালাহ উদ্দিন আহমেদ, ইয়াসমিন মুশতারী, সানী জুবায়ের, মো: শোয়েব, আলিফ লায়লা, আরিফুল ইসলাম মিঠু ও শেখ জসীম। প্রথমবারের মতো উপস্থাপনা প্রসঙ্গে মেসবাহ্ আহমেদ বলেন, ‘যেহেতু আমি দীর্ঘ দিন যাবৎ গজল পরিবেশন করে আসছি, তাই একুশে টিভি কর্তৃপক্ষ আমার এই গজলসাধনার প্রতি শ্রদ্ধা রেখে গজল ফর এভার-এর উপস্থাপনার জন্য আমাকে নিমন্ত্রণ করেছেন। আমি সত্যিই ভীষণ সম্মানিত বোধ করেছি। হৃদয়ের গভীর থেকে অনুষ্ঠানটির প্রতি ভালো লাগা নিয়ে উপস্থাপনা করেছি। আমন্ত্রিত অতিথিদের সঙ্গে গজল বিষয়ে প্রাসঙ্গিক অনেক আলোচনাও করেছি। সব মিলিয়ে সাতটি পর্বতেই আমার অনেক ভালো লাগা ছিল। এসএ/  

ঈদের দুই অনুষ্ঠান নিয়ে সোহাগ মাসুদ

এবারের ঈদ উল আযহায় একুশে টেলিভিশনের সাতদিন ব্যাপি বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানমালায় প্রচার হবে সাত পর্বের বিশেষ ঈদ সেলিব্রেটি টক শো ‘তারকার হাট’।  মাসুদুজ্জামান সোহাগের প্রযোজনায় এবং সোনিয়া হোসেনের উপস্থাপনায় ঈদের দিন থেকে ঈদের সপ্তম দিন পর্যন্ত প্রতিদিন সন্ধ্যা ৬টা ১০মিনিটে একুশে টেলিভিশনের পর্দায় অনুষ্ঠানটি প্রচার হবে।  এছাড়া ঈদের দিন থেকে ঈদের সপ্তম দিন পর্যন্ত প্রতিদিন রাত ১২টায় সোহাগ মাসুদের প্রযোজনায় একুশে টেলিভিশনের স্টুডিও থেকে সরাসরি সম্প্রচার হবে ঈদের বিশেষ ‘ফোনো লাইভ স্টুডিও কনসার্ট’।  সেলিব্রেটি অনুষ্ঠান ‘তারকার হাট’ এ ঈদের দিন অতিথি হিসেবে থাকবেন নিরব, ইমন এবং তমা মীর্জা, দ্বিতীয়দিন থাকবেন সিয়াম, নাবিলা এবং বিদ্যা সিনহা মীম, তৃতীয়দিন অতিথি আড্ডায় থাকবেন ইমরান, পড়শী এবং মিনার, চতুর্থদিন তানিয়া আহমেদ, মারিয়া নূর এবং সালমান মুক্তাদির, পঞ্চম দিন আড্ডায় থাকবেন আজরা, রুমা এবং বুলবুল টুম্পা, ষষ্ঠদিন থাকবেন জোভান, আইরিন এবং নোভা। এছাড়া ঈদের সপ্তমদিন অতিথি আড্ডায় অংশ নিবেন ফারুখ আহমে, কচি খন্দকার, ম ম মোর্শেদ। অনুষ্ঠানে অতিথিরা  ঈদের আলাপন ছাড়াও বিভিন্ন ছোট ছোট গেমস্ এ অংশ নিয়েছেন।এছাড়া স্বাগতার উপস্থাপনায় ফোনো লাইভ স্টুডিও কনসার্টে ঈদের দিন সঙ্গীত পরিবেশন করবেন আখিঁ আলমগীর, দ্বিতীয়দিন থাকবেন জনপ্রিয় ব্যান্ড অবসকিউর, তৃতীয়দিন সঙ্গীত পরিবেশন করবেন জনপ্রিয় শিল্পী সামিনা চৌধুরী, ঈদের চতুর্থদিন থাকবেন ব্যান্ড জলের গান, ঈদের পঞ্চমদিন সঙ্গীত পরিবেশন করবেন জনপ্রিয় ফোক শিল্পী ফকির সাহবুদ্দিন, জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পী ডলি সায়ন্তনী সঙ্গীত পরিবেশন করবেন ঈদের ষষ্ঠদিন, এছাড়া ঈদের সপ্তমদিন সঙ্গীত পরিবশন করবেন জনপ্রিয় শিল্পী কুমার বিশ্বজিৎ। অনুষ্ঠান দুটি সম্পর্কে প্রযোজক মাসুদুজ্জামান সোহগ জানান, ‘বিগত বছরের মত এ বছর দর্শকে ভিন্ন কিছু উপহার দেয়ার ভাবনা থেকেই আমাদের এই প্রচেষ্টা। তারকার হাট অনুষ্ঠানটি মোট তিনটি রাউন্ডে ভাগ করে নির্মান করা হয়েছে। পুরো কাজটিতে মোট ২১ জন সেলিব্রেটি অংশ নিয়েছেন। আর ফোনো লাইভ স্টুডিও কনসার্টে বরাবরের মতই দর্শক পছন্দ মাথায় রেখেই দেশের স্বনামধন্য শিল্পীদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করেছি। আশা করছি এবারের ঈদে দর্শক ভিন্ন মাত্রার অনুষ্ঠান দেখবেন।’ উল্লেখ্য, মাসুদুজ্জামান সোহাগ ইতোপূর্বে বাংলাদেশের দুই সুপার স্টার সাকিব আল হাসান এবং শাকিব খানকে নিয়ে ‘সাকিব বনাম শাকিব’ অনুষ্ঠানটি নির্মাণ করেছেন। এছাড়াও নিয়মিত ৫টি সাপ্তাহিক অনুষ্ঠান নির্মাণ করছেন, যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে মিডিয়ার তারকা দম্পত্তি নিয়ে নির্মিত সরাসরি অনুষ্ঠান ‘সিম্পল লাভ স্টোরী’ এবং স্বাক্ষাতকার ভিত্তিক অনুষ্ঠান ‘উইথ নাজিম জয়। এসএ/  

ঈদ উপলক্ষে সিনেপ্লেক্সে ‘মাইল ২২’ ও ‘আলফা’

ঈদ উপলক্ষে স্টার সিনেপ্লেক্সে মুক্তি পাচ্ছে হলিউডের সিনেমা ‘মাইল ২২’ এবং ‘আলফা’। আন্তর্জাতিক মুক্তির সঙ্গে বাংলাদেশের দর্শকও একই দিনে এই সিনেমা দুটি উপভোগ করতে পারবেন। আমেরিকান-চায়নিজ অ্যাকশন থ্রিলারভিত্তিক ‘মাইল ২২’ সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন পিটার বার্গ। এতে অভিনয় করেছেন মার্ক ওয়ালবার্গ, জন মালকোভিচ, লরেন কোহান, রন্ডা রাউসি প্রমুখ।সন্ত্রাসীদের শিকার ২২ মাইলের উচ্চ মূল্যবান সম্পদ উদ্ধারে সিআইএর একটি এলিট টাস্কফোর্সের অভিযানে রয়েছে সিআইএর ইউনিটে সক্রিয় জেমস সিলভা। প্রতিকূল ২২ মাইল এলাকায় মূল্যবান গোয়েন্দা সম্পদ হুমকির মুখে পড়লে তা উদ্ধারে এগিয়ে যায় সে। অভিযানে গিয়ে বিপদে পড়ে সে নিজেও। কিন্তু উচ্চ পর্যায়ের একটি কমান্ডো দল গোপন কৌশলে তাকে সহায়তা করে। নানা ঘাত-প্রতিঘাত আর বিপদসংকুল অবস্থার মধ্য দিয়ে সংগ্রাম চালিয়ে যায় অনেক দূর। তবে শেষ পরিণতি কী হয় তা নিয়ে এগিয়ে যায় সিনেমার গল্প। অন্য আরেকটি সিনেমা ‘আলফা’ পরিচালনা করেছেন আলবার্ট হিউজেস। বরফযুগে এক তরুণ শিকারির সঙ্গে একটি আহত নেকড়ের বন্ধুত্ব নিয়ে নির্মিত হয়েছে এ সিনেমা। সনি পিকচার্সের পরিবেশনায় অ্যাডভেঞ্চারধর্মী সিনেমাটির বিভিন্ন চরিত্রে দেখা যাবে কোডি স্মিট-ম্যাকফি, লিওনর ভ্যারেলা এবং জেন্স হালটেন। এসএ/

চিত্রার কণ্ঠে সাজ্জাদ-মৌমিতার ‘তোর কারণে’ (ভিডিও)

ধ্রুব মিউজিক স্টেশনের ব্যানারে প্রকাশিত হয়েছে কণ্ঠশিল্পী চিত্রার নতুন গানের মিউজিক ভিডিও ‘তোর কারণে’। গানটির কথা ও সুর করেছেন শাওন গানওয়ালা, আর সঙ্গীতায়োজন আমজাদ হোসেনের। সাভারের আমিনবাজারে মধুমতি মডেল টাউনে দুই দিন চিত্রায়ণ করা হয়েছে গানটির ভিডিও। মৌমিতা বিশ্বাসের গল্পে গানটির ভিডিও নির্মাণ করেছেন শুভব্রত সরকার। ভিডিওতে কণ্ঠশিল্পী চিত্রার পাশাপাশি মডেল হয়েছেন ‘হ্যান্ডসাম দ্য আলটিমেটম্যান’ প্রতিযোগিতার চ্যাম্পিয়ন অভিনেতা ইরফান সাজ্জাদ। ভিডিওতে প্রেমিক জুটির ভালোবাসার চিত্র ফুটিয়ে তুলেছেন নির্মাতা। গানটি শুনতে পাওয়া যাবে ডিএমএস ওয়েবসাইট, জিপি মিউজিক ও বাংলালিংক ভাইবে। গানটি সম্পর্কে চিত্রা বলেন, ‘তোর কারণে’ রোমান্টিক একটি গান। অনেক যত্ন করে, সময় নিয়ে গানটি করেছি। এর ভিডিওতে দারুণ একটি গল্প তুলে ধরা হয়েছে। আশা করছি, শ্রোতা-দর্শকের ভালো লাগবে গানটি। এসএ/  

ঝাঁসির রানির অবতারে কঙ্গনা, মুক্তি পেল প্রথম লুক  

বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত অভিনয় দক্ষতা দিয়ে নিজেকে অন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন। এবার ভারতের ৭২তম স্বাধীনতা দিবসের দিনেই মুক্তি পেল কঙ্গনা রানাউতের পরবর্তী ছবি মণিকর্নিকার পোস্টার। ছবিতে ঝাঁসির রাণি লক্ষ্মীবাই-য়ের চরিত্রে দেখা যাবে কঙ্গনাকে। পোস্টারেও সে অবতার একেবারে স্পষ্ট। যোদ্ধা লুকে একেবারে অন্য অবতারে এই অভিনেত্রী। এই ছবির জন্য নিজেকে দীর্ঘদিন ধরে তৈরি করেছেন কঙ্গনা। লক্ষ্মীবাই-য়ের চরিত্র ফুটিয়ে তোলার জন্য তলোয়ার চালনা থেকে শুরু ঘোড়ায় চড়া, সবই শিখেছেন এই অভিনেত্রী। ইন্ডাস্ট্রিতে নিজেকে ইতিমধ্যেই অভিনেতা হিসেবে প্রমাণ করেছেন কঙ্গনা। এবারও তাই তাঁর ছবি মণিকর্ণিকাকে নিয়ে প্রত্যাশা একটু বেশী। ছবিতে তাঁতিয়া টোপির চরিত্রে দেখা যাবে অতুল কুলকর্নিকে এবং সদাশীব-এর চরিত্রে দেখা যাবে সনু সুদকে।      এসি      

© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি