ঢাকা, শুক্রবার, ২২ জুন, ২০১৮ ১৭:৩১:১৩

বাঁশিতেই জীবিকা নির্বাহ অনেকের

ভারতীয় উপমহাদেশের সুপ্রাচীন বাদ্যযন্ত্র বাঁশি বা বংশী। হিন্দু পৌরাণিক কাহিনীতেও বাঁশির বহুল ব্যবহার দেখা যায়। বাঁশির সুর মানুষের মনকে বিমোহিত করে। কুমিল্লার হোমনায় বাঁশি পল্লীতে নানান ধরনের বাঁশি তৈরি করে জীবিকা নির্বাহ করে অনেকে। ভারতীয় উপমহাদেশের প্রাচীন বাদ্যযন্ত্র বাঁশি। বাংলায় বাঁশিকে মুরালি, মোহন বাঁশি, বংশী অথবা বাঁশরিও বলা হয়। বাঁশি তৈরিতে ব্যবহৃত হয় বিশেষ ধরনের মুলিবাঁশ। বর্তমানে হাতির দাঁত, ফাইবার গ্লাস আর নানা ধাতু দিয়েও বাঁশি তৈরি করা হয়। কুমিল্লার হোমনায় শ্রীমদ্দির প্রায় ১০০টি পরিবার সারা বছর নানা ধরণের বাঁশি তৈরি করে জীবিকা নির্বাহ করে। বিভিন্ন উৎসব, পার্বন সামনে রেখে বেড়ে যায় তাদের ব্যস্ততা। কারিগররা জানালেন, মুরালী ও বেলুন বাঁশির চাহিদা সবচেয়ে বেশি। তবে বাঁশ ও অন্যান্য কাঁচামালের দাম বৃদ্ধির কারণে খুব বেশি লাভ হয় না বলে জানালেন তারা। বাঁশি শিল্পের সঙ্গে জড়িতদের পৃষ্ঠপোষকতার আশ্বাস দিলেন জেলা প্রশাসক। বাঁশি বাঙালীর ঐতিহ্যের সঙ্গে জড়িয়ে আছে হাজার বছর ধরে। এই শিল্প টিকিয়ে রাখতে সবার সহযোগিতা চেয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। একে//

দূষণে হালদায় মরছে মাছ

দক্ষিণ এশিয়ার একমাত্র মিঠা পানির মৎস্যপ্রজনন ক্ষেত্র হালদায় ভেসে উঠছে মরা রুই, কাতলা, মৃগেলসহ বিভিন্ন ধরনের মাছ। চারপাশে ছড়াচ্ছে কটূ গন্ধ। গত প্রায় ১০ দিন ধরে চলছে এ অবস্থা। যারা নদীর পানি ব্যবহার করছে তাদের শরীরের বিভিন্নস্থানে চুলকানির সঙ্গে ফোসকা উঠছে। হালদা পাড়ের মানুষের সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য পাওয়া গেছে। দূষণের কারণে নদীতে ময়লা পানির আধিক্যে অক্সিজেন কমে যাওয়াতে এভাবে মাছ মারা যাচ্ছে বলে দাবি করছেন কেউ কেউ। স্থানীয়রা জানান, গত ১২ থেকে ১৬ জুন পর্যন্ত টানা বর্ষণে উত্তর চট্টগ্রামের হাটহাজারী, রাউজান ও ফটিকছড়ি উপজেলার অধিকাংশ এলাকা পানিতে ডুবে যায়। হালদা নদীও এই তিন উপজেলায়। ফলে বন্যার সময় খাল, বিল, ডোবা ও পুকুরের পানি একাকার হয়ে যায়। পরে দূষিত হয়ে এসব পানি আবার গিয়ে পড়ে হালদা নদীতে। এরপর থেকে মরা মাছ ভেসে উঠতে দেখছেন স্থানীয়রা। হালদা নদীর দূষণ প্রতিরোধে আগামীকাল শনিবার দুপুরে মদুনাঘাটে মানববন্ধনের ডাক দিয়েছেন স্থানীয়রা। অন্যদিকে গতকাল বৃহস্পতিবার পরিবেশ অধিদফতর পানি দূষণের কারণ নির্ণয়ে নমুনা সংগ্রহ করেছে। পরিবেশ অধিদফতর চট্টগ্রাম মহানগরের পরিচালক আজাদুর রহমান মল্লিক বলেন, খবর পেয়ে আমরা হালদা নদীতে গিয়েছিলাম। সেখানে স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জেনেছি, বৃষ্টিতে বন্যার পানি একাকার হওয়ায় পানি দূষিত হয়ে যায়। তবে প্রকৃত কারণ উদঘাটনে বৃহস্পতিবার আমাদের টিম হালদা নদী থেকে পানি সংগ্রহ করেছে। সেটা পরীক্ষার পর মাছ মরে যাওয়ার কারণ জানা যাবে। একে//

সন্দ্বীপ ফ্রেন্ডস সার্কেল এসোসিয়েশনের মাদকবিরোধী আলোচনা

‘উঠো, জাগো এবং শ্রেয়কে বরণ করো এই মন্ত্রে দীক্ষিত সন্দ্বীপ ফ্রেন্ডস সার্কেল এসোসিয়েশনের উদ্যোগে মাদকবিরোধী আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার ১৮ জুন সন্দ্বীপ উপজেলার মগধরা ১নং ওয়ার্ডের গুপ্তছড়া বাজারস্থ  সংগঠনের নিজ কার্যালয়ে ‘মাদককে না বলি, তরুণ ও আমাদের অস্তিত্বকে রক্ষা করি’ শীর্ষক আলোচনা সভা ও কার্যালয়ের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন- চেয়ারম্যান মাস্টার শাহজাহান বিএ,সভায় সভাপতিত্ব করেন মুক্তিযোদ্ধা শফিকুল মাওলা মানিক। বিশেষ অতিথি ছিলেন- মগধরা ইউপি চেয়ারম্যান এস এম আনোয়ার হোসেন, সন্দ্বীপ থানার ওসি (তদন্ত) আব্দুল হালিম, প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস কামাল বাবু, সহ-সভাপতি সুফিয়ান মানিক, সদস্য বাদল রায় স্বাধীন, নাট্যকার আবুল কাসেম শিল্পী, সংগঠনের উপদেষ্টা কাজী মনজুরুল আলম। প্রধান অতিথি মাস্টার শাহজাহান বিএ বলেন, সরকার মাদক নির্মূলে যে পদক্ষেপ হাতে নিয়েছে তাতে অবশ্যই দেশ মাদক মুক্ত হবে। মাদকের কালো হাত ভেঙ্গে দিতে হলে রাজনৈতিক নেতা কর্মীদের সজাগ থাকতে হবে। পাশাপাশি এই সংগঠনের মত সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। ‘উঠো জাগো এবং শ্রেয়কে বরং করো এ শ্লোগান নিয়ে এগিয়ে যাওয়া সংগঠনটি বায়ান্ন ও একাত্তরের চেতনাকে বুকে ধারণ করে  সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও মাদকবিরোধী সংগঠন হিসেবে গত দশ বছর ধরে সন্দ্বীপে ব্যাপক সুনাম কুড়িয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় সন্দ্বীপে যেন মাদকের অভয়ারন্য না হতে পারে সেজন্য সংগঠনটির ভূমিকা অত্যন্ত যুগান্তকারী।’ সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা কাজী ইফতেখারুল আলম তারেক বলেন, ‘মাদক সন্দ্বীপের তরুণ সমাজকে মাদকে আসক্ত করে ফেলছে ফলে তরুণ সমাজের অমিত সম্ভাবনা মাদকের ভয়াল থাবায় হারিয়ে যাচ্ছে। সমাজে নীরবে নিবৃতে মাদক ব্যবসা চলছে। যদি এর প্রভাব থেকে তরুণদের মুক্ত করা না যায় তবে আমাদের অস্তিত্ব বিপন্ন হবে। তাই আমি প্রশাসন ও রাজনীতিবিদদের কাছে সহযোগিতা কামনা করছি। একই সঙ্গে মাদক ও জঙ্গিবাদ নির্মূলে সংগঠনের শত তরুণ সবসময় সোচ্চার থাকবে।’    সভায় বক্তারা আরও বলেন, সরকার মাদকের বিরুদ্ধে  যুদ্ধ ঘোষনা করে ইতোমধ্যে মাদক নির্মুলে অনেকটা সফল হয়েছে। কিন্তু সন্দ্বীপের বিষয়টি ব্যতিক্রম। এখানে ছোট খাটো যে কয়জন মাদকসেবী ও মাদক ব্যাবসায়ীকে ধরা হয়েছে তারা ২/১ দিন পর আবার এলাকায় ফিরে এসে পুরনো কাজে জড়িয়ে পড়ে বড় মাদক ব্যবসায়ীরা ধরাছোয়ার বাইরে রয়েছেন। যে কয়জন মাদকসেবী ও মাদকবিক্রেতা ধরা পড়েছে সেগুলো মাদকের অভয়ারন্য সন্দ্বীপে অনেকটা লোক দেখানোর মতো। তাই সন্দ্বীপের পুলিশ প্রশাসনকে মাদকের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নেওয়ার আহব্বান জানান। সংগঠনের সদস্য হায়দার গাজী ও তারিনা ইয়াসমিনের ঝরার উপস্থাপনায় বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের এবি কলেজ শাখার সহ-সাধারণ সম্পাদক সোহাগ হোসেন, এস এম শরিফুল ইসলাম সৌরভ, এবি কলেজ শাখার সহ সভাপতি জিহাদ হোসেন, এম আর কলেজ শাখার সাধারণ সম্পাদক আবেদ হোসেন রানা, এবি কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি শাহেদুর রহমান ফাহাদ, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হামিদ, কাজী রকিবুল আহসান, সন্দ্বীপ থানার ওসি (তদন্ত) আব্দুল হালিম, প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস কামাল বাবু, সহ-সভাপতি সুফিয়ান মানিক, সদস্য বাদল রায় স্বাধীন, নাট্যকার আবুল কাসেম শিল্পী, সংগঠনের উপদেষ্টা কাজী মনজুরুল আলম ও সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা কাজী ইফতেখারুল আলম তারেক, সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি রিদোয়ানুল বারী প্রমুখ। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক রবিউল আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুল হাসান, নাট্যকার কামাল উদ্দিন তালুকদার, মগধরা ইউনিয়ন পরিষদের ১নং ওয়ার্ডের সদস্য এস এম সোহেল, সাজ্জাদ হোসেন,সাবেক ছাত্রনেতা নাসির উদ্দিনসহ এলাকার উল্লেখযোগ্য ব্যক্তিবর্গ। এসএইচ/

ফেনীর সেই নিখোঁজ ব্যাবসায়ী ৮দিন পর উদ্ধার

ফেনীর ফুলগাজী উপজেলার মুন্সীরহাট বাজারের ইলেক্ট্রিক ব্যাবসায়ী মোঃ ইব্রাহিম হোসেন সোহাগকে নিখোঁজের ৮দিন পর মৌলভীবাজার হতে উদ্ধার করেছে স্বজনরা। নিখোঁজ সোহাগের চাচাতো ভাই কামাল উদ্দিন ইব্রাহিমের উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, গত ১০ জুন ফেনী শহরের তমিজিয়া মসজিদে তারাবির নামাজ আদায়ের পর থেকে তার জ্যাঠাতো ভাই সোহাগ নিখোঁজ হয়। নিখোঁজের পর থেকে বিভিন্ন অজ্ঞাত নাম্বার থেকে বড় অঙ্কের মুক্তিপণ দাবি করে আসছিলো অপহরণকারীরা। পরে সোহাগ সংঘবদ্ধ অপহরণকারী চক্রের আস্তানা হতে কৌশলে পালিয়ে এসে মৌলভী বাজারের শমসের নগরের (কুলাউড়া) একটি বাড়ীতে ডুকে স্বজনদের মোবাইলে কল করে তাকে উদ্ধারের অনুরোধ করেন। ফোনের সূত্র নিশ্চিত হয়ে ১৮ জুন সোহাগকে অসুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করে তার স্বজনরা ফেনীর একটি হাসপাতালে ভর্তি করেন। নিখোঁজ ব্যবসায়ী সোহাগ ফুলগাজী উপজেলার মুন্সীরহাটের কমুয়া গ্রামের মাষ্টার আবদুল জলিলের ছেলে। ফেনী মডেল থানার এসআই আলাউদ্দিন জানান, ব্যবসায়ী সোহাগ নিখোঁজ হওয়ার পর থেকে তাকে উদ্ধারে পুলিশ সব ধরনের চেষ্টা চালিয়েছে। পরে স্বজনদের দেওয়া তথ্যমতে তাকে মৌলভী বাজার থেকে অসুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। ব্যবসায়ী সোহাগকে চেতনানাশক খাইয়ে অপহরণ করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এনইউ/ এমজে

উখিয়ায় রোহিঙ্গা খুন

কক্সবাজারের উখিয়ার পালংখালীর বালুখালী ক্যাম্পে  আরিফ উল্লাহ (৪৫) নামে এক রোহিঙ্গাকে গলা কেটে হত্যা করেছে  দুর্বৃত্তরা।  উখিয়া থানার ওসি আবুল খায়ের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। সোমবার রাত ৯টার দিকে বালুখালী ১১নং ক্যাম্পের সি ব্লকে হত্যাকাণ্ডের এ ঘটনা ঘটে। নিহত আরিফ উল্লাহ ১১ নং ক্যাম্পের সি ব্লকের এখলাছ মিয়ার ছেলে বলে জানা গেছে। তিনি দুই ছেলের জনক।  জিওগ্রাফি বিষয়ে অনার্স-মাস্টার্স সম্পন্ন করা আরিফ উল্লাহ সবার প্রিয় ছিল বলে জানিয়েছেন ওই ক্যাম্পের একই ব্লকের বাসিন্দা মোহাম্মদ আলী। ওসি আবুল খায়ের জানান, দুর্বৃত্তের হাতে খুন হওয়ার খবর পেয়ে ক্যাম্প থেকে নিহত আরিফ উল্লাহর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।  অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জের ধরে তাকে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে বলে মনে করছেন ওসি। একে//

দেশে ফিরেছেন এমপি বদি

মাদকবিরোধী অভিযানের মাঝেই ওমরা পালনের জন্য সৌদি আরব যাওয়া এমপি বদি দেশে ফিরেছেন। রোববার সন্ধ্যা ৬টায় সৌদি এয়ারলাইন্সের একটি বিমানে তিনি হজরত শাহাজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান। বদির সঙ্গে তার স্ত্রী শাহিন আকতার ও ছেলে শাওন আরমানও দেশে ফিরেছেন।বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন এমপি বদির ব্যক্তিগত সহকারী হেলাল উদ্দিন।মাদকবিরোধী অভিযান চলাকালে গত ৩১ মে এমপি বদি হঠাৎ দেশ ত্যাগ করে সৌদি আরবে ওমরা পালনে চলে যান। সে সময় বদির বিদেশ গমনকে নিয়ে সারা দেশে নানা গুঞ্জন ওঠে।স্বপরিবারে দেশ ছাড়ায় বদির দেশে ফিরে আসা নিয়ে অনেকেই সংশয় প্রকাশ করেছিলেন। মাদকবিরোধী অভিযানের ভয়ে বদি গোপনে দেশ ছেড়েছেন বলে মনে করা হচ্ছিল। মাদকবিরোধী অভিযান থেকে রেহাই পেতে বদি স্বপরিবারে ওমরা পালনে যাওয়াকে কৌশল হিসেবে মনে করেছিলেন অনেকে।তবে সৌদি আরবে যাওয়ার আগে এমপি বদি গণমাধ্যমকে বলেছিলেন, অভিযানের ভয়ে তার দেশ ছাড়ার তথ্যটি সম্পূর্ণ অসত্য। তিনি অনেক আগেই ওমরা পালনের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। নিয়ম অনুযায়ী তিনি যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমতিও নিয়েছেন। ওমরা পালন শেষ আগামী ১৭ জুন দেশে ফিরে আসার কথা জানিয়েছিলেন ইয়াবা সংশ্লিষ্টতা নিয়ে বহুল আলোচিত-সমালোচিত এমপি বদি।এমপি বদির ব্যক্তিগত সহকারী হেলাল উদ্দিন জানান, বদি বর্তমানে ঢাকার ন্যাম ভবনে তার সরকারি বাসায় রয়েছেন। তিনি সংসদ অধিবেশনে যোগদান করবেন। আগামী সপ্তাহে এমপি বদি কক্সবাজারে আসবেন।এসএ/

কক্সবাজারে পর্যটকদের ভিড় (ভিডিও)

ঈদের ছুটি কাটাতে সাগরকণ্যা কক্সবাজারে ভিড় করেছেন পর্যটকরা। সমুদ্রস্নানতো আছেই, সেইসাথে বিভিন্ন পর্যটন স্পট ঘুরে বেড়াচ্ছেন ভ্রমণপিপাসুরা। পর্যটকদের নিরাপত্তায় সতর্ক প্রশাসন। ঈদের টানা ছুটিতে পর্যটকদের ভীড় বেড়েছে কক্সবাজারে। কেউ কেউ ঈদের আগে থেকেই অবস্থান করছেন। আবাসিক হোটেলগুলোতে তিল ধারনের ঠাই নেই একটু প্রশান্তির খোঁজে পরিবার নিয়ে, কেউ বা দল বেঁধে সমুদ্রবিলাসে ছুটে এসেছেন। কেবল সাগরপাড়ই নয়, অন্যান্য স্পটগুলোতেও দর্শনর্থীদের ব্যাপক সমাগম। ছুটি কাটাতে আসা পর্যটকদের নিরাপত্তায় পুলিশের পক্ষ থেকে নেয়া হয়েছে বাড়তি ব্যবস্থা। জেলা শহর ছাড়াও বিভিন্ন ষ্পটে পুলিশ সতর্কতার সাথে দায়িত্ব পালন করছে। এদিকে, ভৈরবে ছুটির আনন্দ উপভোগ করতে নানা বয়সের মানুষর ঢল নেমেছে মেঘনা পাড়ে। নৌকায় চড়ে নির্মল হাত্তয়া গায়ে মেখে চলছে ঘোরাঘুরি। বিভিন্ন স্থানে বসেছে ঈদ মেলা।

জনসংহতি সমিতির সদস্যকে গুলি করে হত্যা 

খাগড়াছড়ি জেলায় পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি (এমএন লারমা) গ্রুপের এক সদস্য নিহত হয়েছেন। পানছড়ি উপজেলার দুর্গম পাইয়ংপাড়ায় দুর্বৃত্তের গুলিতে বিজয় ত্রিপুরা (৩৫) নামে এই সদস্যকে হত্যা করা হয়।  আজ বিকেল ৩টার দিকে এই ঘটনা ঘটে। একদল অস্ত্রধারী লোক তার ঘরে ঢুকে খুব কাছ থেকে গুলি করে পালিয়ে যায়। এদিকে পানছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ মিজানুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলের দিকে গেছে। পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি (এমএন লারমা) গ্রুপের কেন্দ্রীয় তথ্য সম্পাদক সুধাকর ত্রিপুরা ঘটনার জন্য ইউপিডিএফ কে দায়ি করেছেন। অবশ্য ইউপিডিএফ অভিযোগ অস্বীকার করেছে। এসি  

কর্পূরের মতো উড়ে যাবে বিএনপির আন্দোলনের স্বপ্ন : কাদের

বিএনপির আন্দোলনের রঙিন স্বপ্ন কর্পূরের মতো উড়ে যাবে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। শনিবার নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে নিজ বাড়ির মসজিদে ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ মন্তব্য করেন।ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপির আন্দোলনের রঙিন স্বপ্ন কর্পূরের মতো উড়ে যাবে। বিএনপি গত সাড়ে ৯ বছর পর্যন্ত আন্দোলনের হুমকি দিয়ে আসছে। কিন্তু কোনো লাভ নেই। জনগণ তাদের আন্দোলনে সাড়া দেবে না। সেতুমন্ত্রী বলেন, বিএনপির আন্দোলনের কোনো ইস্যু নেই। তারা ইস্যু খোঁজার চেষ্টা করছে। তাদের নেত্রী খালেদা জিয়ার অসুস্থতাকে পুঁজি করে আন্দোলনের পাঁয়তারা করছে। এতে তারা রাজনৈতিক মাঠে হাকডাক দেওয়ার চেষ্টা করছে। কিন্তু কোনো লাভ হবে না।এসএ/

লংগদুতে ইউপিডিএফ-জেএসএস ত্রিমুখী সংঘর্ষে নিহত ১

রাঙ্গামাটির লংগদু উপজেলায় সশস্ত্র আঞ্চলিক সংগঠনগুলোর মধ্যে ত্রিমুখী সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে জঙ্গলী চাকমা (৩২) নামে একজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় সুমতী চাকমা (৩০) নামে একজন গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরতর আহত হয়েছেন। শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার দজরপাড়া এলাকায় সংঘর্ষের এ ঘটনা ঘটে। লংগদু থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রঞ্জন কুমার সামন্ত ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। সূত্র জানিয়েছে, ইউপিডিএফ প্রসীত গ্রুপের সদস্যরা আধিপত্য বিস্তারের জন্য উপজেলার দোসরপাড়া স্টিল ব্রিজ এলাকায় প্রবেশ করে। ওই সময় সেই এলাকায় অবস্থান করা জেএসএস সংস্কার এবং ইউপিডিএফ বর্মা গ্রুপের সঙ্গে কয়েক রাউন্ড গুলি বিনিময় হয়। এ সময় জংগলী চাকমা নামে একজন গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই নিহত হন। তিনি জেএসএস (এমএম লারমা) দলের সাবেক কর্মী বলে দাবি করছে সংগঠনটি। এ ঘটনায় জেএসএস (এমএন লারমা) ইউপিডিএফকে দায়ী করলেও ইউপিডিএফ বরাবরের মতোই অভিযোগ অস্বীকার করেছে। একে//

এবারের ঈদযাত্রা স্বস্তিদায়ক হয়েছে : ওবায়দুল কাদের

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সমন্বিত ব্যবস্থাপনার ফলে এবারের ঈদযাত্রা স্বস্তিদায়ক হয়েছে। তাই সড়কপথ রেলপথ ও নৌপথে ঘরমুখি মানুষ আনন্দে রওয়ানা হয়েছে। শুক্রবার সকালে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ফেনীর ফতেহপুরে নির্মাণাধীন রেলওয়ে ওভারপাস পরিদর্শনে এসে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। মন্ত্রী বলেন, বৃষ্টি বাদল, তুমুল বর্ষণ উপেক্ষা করে লাখ লাখ মানুষ বাড়ি পৌঁছেছে। নির্বিঘ্নে চলতে পেরে মানুষ দারুন খুশি। এজন্য জেলা প্রশাসন, জেলা পুলিশ, হাইওয়ে পুলিশ, র‌্যাব ও মালিক-শ্রমিক প্রতিনিধিসহ সংশ্লিষ্টদের আন্তরিক ধন্যবাদ জানান তিনি। শহীদ বুদ্ধিজীবী সেলিনা পারভিনের ছেলে সুমন জাহিদের মৃত্যুর কারণ অধিকতর তদন্ত হচ্ছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক। তিনি বলেন, এটি বড়ই উদ্বেগের বিষয়। কিছুদিন আগে মুন্সিগঞ্জেও এ ধরনের একটি হত্যাকান্ড ঘটেছে। এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, আগামী নির্বাচনে সেনা মোতায়েন হবে পরিস্থিতি অনুযায়ী। সেনাবাহিনী একটি স্বতন্ত্র প্রতিষ্ঠান। বিভিন্ন সময় নির্বাচনে সেনাবাহিনী স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে থাকে। সেনাবাহিনী প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধিনে হওয়ায় প্রয়োজন অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রী সিদ্ধান্ত নেবেন। প্রয়োজন না হলে সেনাবাহিনী মোতায়েন হবেনা। সেনাবাহিনীকে বিতর্কিত করা যাবেনা। এসময় ফেনী জেলা প্রশাসক মনোজ কুমার রায়, পুলিশ সুপার এসএম জাহাঙ্গীর আলম সরকার, জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুর রহমান বিকম, ফেনী পৌরসভার প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলাম স্বপন মিয়াজী, ঢাকাস্থ ফেনী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক শেখ আবদুল্লাহ, জেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক শুসেন চন্দ্র শীল প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন। আরকে//

© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি