ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ আগস্ট, ২০১৮ ৫:১৬:০৯

নিজেদের উদ্যোগেই বাল্য বিয়ে  বন্ধ করছে ঠাকুরগাঁওয়ের মেয়েরা

এক সময় ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় বিয়ে দেওয়া হতো অল্পবয়সী মেয়েদের। অভিভাবকের চাপে মেয়েরা বাধ্য হতো বিয়ের পিড়িতে বসতে। কিন্তু এখন সেই দৃশ্যপট ভিন্ন, বেড়েছে সচেতনতা। নিজেদের বাল্য বিয়ে  ঠেকাতে প্রশাসনের সহায়তা নিচ্ছে মেয়েরা। বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা পরিষদের তথ্য মতে, ২০০৯, ১০ ও ১১ সালে ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে ভর্তি হওয়া শতকরা ৫৫ ভাগ মেয়ে এসএসসি পরীক্ষার আগেই ঝরে পড়তো। তাদের অধিকাংশই বাল্য বিয়ের শিকার। দরিদ্রতা, যৌতুক এবং সামাজিক নিরাপত্তার অভাবে কন্যা সন্তানকে বিয়ে দিতেন অভিভাবকরা। আর অল্প বয়সেই সন্তানের মা হওয়ায় জটিল রোগে আক্রান্ত হতো এসব মেয়ে। পাশাপাশি বিবাহ বিচ্ছেদের ঘটনাও ঘটতো অহরহ। এমন পরিস্থিতি মোকাবেলায় বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল মান্নান প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এটুআই প্রোগ্রামে একটি উদ্ভাবনী ধারণা পাঠান। সেই ধারণা থেকেই ২০১৬ সালে উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে বাল্য বিয়ে প্রতিরোধে স্টুডেন্টস ডাটা বেজ ও সচেতনতা কার্যক্রম শুরু হয়। এখন অভিভাবকরা তাদের স্কুল পড়ুয়া মেয়েদের গোপনে বিয়ের ব্যবস্থা করলেই প্রশাসনের দ্বারস্থ হচ্ছে এসব মেয়ে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল মান্নান জানান, ব্যাপক প্রচারনায় গ্রামাঞ্চলে গণজাগরণের সৃষ্টি হয়েছে। বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের ৬২টি স্কুল ও মাদ্রাসার ১৭ হাজার শিক্ষার্থীকে স্টুডেন্ট ডাটা বেজের আওতায় আনা হয়েছে। এছাড়া কাজী ও নিকাহ রেজিস্ট্রার এবং পুরোহিতদের পাশাপাশি পাড়া মহল্লায় গঠন করা হয়েছে বাল্য বিয়ে প্রতিরোধ কমিটি।   একে// 

হাসপাতাল থেকে তাড়িয়ে দেওয়ায় গাছের নিচে সন্তান প্রসব

প্রসব বেদনা নিয়ে হাসপাতালে গিয়েছিলেন এক নারী। কিন্তু নার্সরা তাকে ভর্তি না করে তাড়িয়ে দেন। অনেক অনুনয়ের পরও একবারও ফিরে তাকায়নি হাসপাতালের কেউ। উপয়ন্তর না পেয়ে গাছের তলায় পিঁপড়ার বাসার উপর সন্তান প্রসব করেন এক মা। দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রোববার ভোরে সন্তান প্রসবের জন্য নিয়ে যাওয়া হয় প্রসব ব্যথায় কাতর রিনা পারভীনকে (৩৫)। এ সময় চিৎকার করে ডাকার পরও কোনো সেবিকা বা হাসপাতালের কোনো কর্মকর্তা-কর্মচারী তার সেবায় এগিয়ে আসেননি বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এদিকে এ ঘটনার প্রতিবাদে এলাকার শত শত মানুষ হাসপাতালটি ঘেরাও করে বিক্ষোভ করেছেন। একই সঙ্গে তারা অমানবিক আচরণ করা বিশেষত সেবিকাদের শাস্তি দাবি করেছেন। ঘটনার শিকার রিনা পারভীন পার্বতীপুর উপজেলার হামিপুর ইউনিয়নের বাঁশপুকুর গ্রামের বাসিন্দা রিকশাচালক আবু তাহেরের স্ত্রী। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, প্রসব বেদনা শুরু হলে রিনা পারভীনকে গতকাল ভোর সাড়ে ৫টায় ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসা হয়। সে সময় হাসপাতালে কোনো চিকিৎসক ছিলেন না। দায়িত্বরত নার্স রোজিনা আক্তার ও আফরোজা খাতুন প্রসব বেদনায় ছটফট করতে থাকা রিনাকে চেকআপ না করেই ‘এখানে হবে না’ বলে পার্শ্ববর্তী টিএম হেলথ কেয়ার এমদাদ-সিতারা কিডনি সেন্টারে নিয়ে যেতে বলেন। স্বজনরা অন্তত একবার প্রসূতিকে দেখার অনুরোধ জানালে ওই দুই নার্স তাদের সঙ্গে খারাপ আচরণ করেন। একপর্যায়ে প্রসূতি ও তার সঙ্গে থাকা লোকজনকে জোরপূর্বক হাসপাতাল থেকে বের করে দেওয়া হয়। হাসপাতাল থেকে বিতাড়িত হয়ে স্বজনরা প্রসূতিকে নিয়ে বিপাকে পড়ে যান। কারণ প্রচণ্ড ব্যথায় প্রসূতিকে নিয়ে কোথাও যাওয়ার মতো অবস্থা ছিল না। এ অবস্থায় স্বজনরা রোগীকে হাসপাতাল চত্বরের পূর্ব পাশে কামরাঙা গাছতলায় তড়িঘড়ি শুয়ে দেন। একপর্যায়ে সেখানেই খোলা আকাশের নিচে এক চা দোকানির স্ত্রীর সহযোগিতায় রিনা পারভীন একটি কন্যাসন্তান প্রসব করেন। ঘটনার সময় রিনা পারভীনের দশম শ্রেণিতে পড়ুয়া ছেলে রিপন চিৎকার করে ডেকে ও কাছে গিয়ে অনুনয়-বিনয় করেও ওই দুই নার্সের মন গলাতে পারেনি। তারা কেউ প্রসূতির কাছে আসেননি। আর প্রসূতিকে যেখানে রাখা হয় সেখানে পিঁপড়ার বাসা থাকায় পিঁপড়ার কামড়ে মা ও শিশুর শরীর ফুলে যায়। বিষয়টি জানাজানি হলে এলাকার শত শত মানুষ এসে হাসপাতাল ঘেরাও করে বিক্ষোভ শুরু করে। তারা এমন অমানবিক আচরণের জন্য দোষী নার্সদের শাস্তি দাবি করে। খবর পেয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. নূরুল ইসলাম ঘটনাস্থলে এসে দোষীদের শাস্তির নিশ্চয়তা দিলে পরিস্থিতি শান্ত হয়। বর্তমানে সদ্যোজাত সন্তান নিয়ে মা রিনা পারভীন ওই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেই চিকিৎসাধীন। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার সঞ্চয় কুমার গুপ্ত বলেন, হাসপাতালে কোনো মেডিকেল অফিসার নেই। তাই অনেক সময় সব চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব হয় না। তবে নার্সদের খারাপ আচরণের বিষয়টি নিয়ে সকালে আমরা মিটিং করেছি। এ বিষয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করে দোষী নার্সদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা বলেন, মা ও শিশু দুজনই সুস্থ আছে। দোষী নার্সদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আরকে//

ঠাঁকুরগাওয়ে স্টেভিয়া চাষের বাণিজ্যিক সম্ভাবনা(ভিডিও)

ঠাঁকুরগাওয়ে ঔষুধি গুণসম্পন্ন স্টেভিয়া চাষের বাণিজ্যিক সম্ভাবনা দেখছে বাংলাদেশ ইক্ষু গবেষণা ইনস্টিটিউট। পরীক্ষামূলক চাষে সফল হওয়ার পর এবার কৃষক পর্যায়ে বাণিজ্যিক চাষ ছড়িয়ে দিতে কাজ করছে প্রতিষ্ঠানটি। এ চাষে কৃষক লাভবান হবে বলেই মনে করছে তারা। বায়ো-টেকনোলজি গবেষণা কেন্দ্রে স্টেভিয়া গাছের বংশ বিস্তার ও গুণাগুণ যাচাই করে ইক্ষু গবেষণা ইন্সটিটিউটের বিজ্ঞানীরা। পরে ২০০১ সালে থাইল্যান্ড থেকে গাছটি সংগ্রহ করা হয়। গত বছর পরীক্ষামূলক চাষে সফলতা আসে। এরপরই কৃষক পর্যায়ে স্টেভিয়া চাষ ছড়িয়ে দিতে চারা উৎপাদন শুরু হয়। প্রশিক্ষণও দেয়া হয় কৃষকদের। কৃষকও আগ্রহী হয়ে উঠেছেন স্টেভিয়া চাষে। বিজ্ঞানীরা জানান, প্রাকৃতিক মিষ্টিসমৃদ্ধ স্টেভিয়া পাতার নির্যাস ডায়াবেটিক রোগে খুবই কার্যকর। এছাড়া দাঁতের ক্ষয়রোধ, রক্তচাপ, স্কিন-কেয়ার, ব্যাকটেরিয়া সাইডালসহ এগারোটি রোগের প্রতিষেধক হিসেবে কাজ করে উদ্ভিদটি। থাইল্যান্ড, ভারত, ব্রাজিল, মেক্সিকো, চীন, জাপান ও কোরিয়াসহ অনেক দেশেই বিভিন্ন খাবার ও ওষুধ তৈরিতে ব্যবহার হয় স্টেভিয়ার উপাদান। ১৯৬৪ সালে প্যারাগুয়েতে প্রথম বাণিজ্যক চাষ শুরু হলেও বিশ্বের অনেক দেশেই এখন ফসল হিসেবে চাষ হচ্ছে স্টেভিয়া।

রংপুর আন্তঃজেলা বাস টার্মিনালের বেহাল দশা(ভিডিও)

বেহাল দশা রংপুর নগরীর আন্তঃজেলা বাস টার্মিনালের। অপেক্ষা কক্ষের ছাদের পলেস্তার খসে পড়ছে। পার্কিং খানাখন্দে ভরা। আর অল্প বৃষ্টিতেই জমে হাঁটু পানি। এতে দুর্ভোগে পড়তে করতে হচ্ছে যাত্রীদের। এই চিত্র রংপুর আন্তঃজেলা বাস টার্মিনালের। কাদা-পানি মাড়িয়ে বাসে উঠতে হয় যাত্রীদের। উত্তরাঞ্চলের জেলাগুলোসহ দেশের অন্যান্য জায়গাতেও বাস চলাচল এ টার্মিনাল থেকে। ভুক্তভোগিরা বলছেন, দীর্ঘদিন সংস্কার নেই টার্মিনালের। বৃষ্টি হলেই জলাবদ্ধতা। এরমধ্যেই চলে যাত্রী ওঠানামা। চালকরা জানালেন খানাখন্দ পড়ে প্রায়ই নষ্ট হচ্ছে গাড়ির যন্ত্রাংশ। জায়গায় জায়গায় খসে পড়ছে যাত্রী অপেক্ষাগারের ছাদের পলেস্তার। যেকোন সময় ঘটতে পারে দুর্ঘটনা। মালিক সমিতির অভিযোগ, সিটি কর্পোরেশন নিয়মিত টোল আদায় করলেও সংস্কারে নেই কোন উদ্যোগ । তবে নগর কর্তৃপক্ষ দুষছে ড্রেনেজ ব্যবস্থাকে। মেয়র জানালেন, নতুন উদ্যোগের কথা। টার্মিনালটি দ্রুত সংস্কারের দাবি যাত্রী ও পরিবহন সংশ্লিষ্টদের।

নীলফামারীতে গরু খামারীরা ব্যস্ত (ভিডিও)

ঈদুল আযহা সামনে রেখে প্রায় ৫০ হাজার পশু কোরবানীর লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে নীলফামারীতে খামারীরা ব্যস্ত প্রস্তুতকরণের কাজে। সংশ্লিষ্ট বিভাগের তদারকিতে, প্রাকৃতিক উপায়েই পশু মোটাতাজা করছেন তারা। গেল ঈদে প্রায় ৪৮হাজার পশু কোরবানী হলেও এবার লক্ষ্যমাত্রা ৫০ হাজার ধরে পশু প্রস্তুত হচ্ছে জেলার ২৩ হাজার খামারে। কোনো রকম হরমোন ও কেমিক্যাল ছাড়াই প্রাকৃতিক উপায়ে মোটাতাজা করা হচ্ছে এসব পশুকে। তবে বাজারদর কম হওয়ায় এবং ভারতীয় গরু আসলে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার আশংকা করছেন খামারীরা। প্রয়োজনীয় উদ্যোগ এবং মনিটরিংয়ের ফলে ওষুধ ব্যবহার করে পশু মোটাতাজাকরণ করা হয়নি বলে জানান প্রাণী সম্পদ বিভাগের কর্মকর্তারা। জেলার মোট খামারের মধ্যে ১৭ হাজার ৫শ’ ৮৯টি গরু এবং ৬ হাজার ১১টি ছাগলের খামার রয়েছে।

হাবিপ্রবি ছাত্রীদের মাঝে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা

হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (হাবিপ্রবি) অধ্যয়নরত ছাত্রীদের মাঝে দুই দিনব্যাপী বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হচ্ছে। দিনাজপুর ডায়াবেটিক এসোসিয়েশন এর উদ্যোগে এ চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হচ্ছে। শনিবার সকাল সাড়ে ৯টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী নিবাস শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিব হলে ২ দিনব্যাপী বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদানের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়। অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মু. আবুল কাসেম প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে উক্ত কর্মসূচির উদ্বোধন করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা বিভাগের পরিচালক প্রফেসর ড. মো. তারিকুল ইসলাম, ফজিলাতুন্নেসা মুজিব হলের সহকারী হল সুপার মো. রোকনুজ্জামান, দিনাজপুর ডায়াবেটিক এসোসিয়েশন এর সভাপতি এডভোকেট মো. আব্দুল লতিফ, সাধারন সম্পাদক মো. সফিকুল হক ছুটু এবং হলের ছাত্রীবৃন্দ। সহকারী হল সুপার মো. বেলাল হোসেন এর সঞ্চালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মু. আবুল কাসেম বলেন, ডায়াবেটিক এসোসিয়েশন, দিনাজপুর শাখাকে এমন মহতী উদ্যোগের জন্য সাধুবাদ জানাচ্ছি। আমি মনে করি, এই  কর্মসুচির মাধ্যমে আমাদের মেয়েরা আরও বেশি স্বাস্থ্য সচেতন হবে। তারাই আমাদের আগামী প্রজন্মের নির্মাতা। ফজিলাতুন্নেসা মুজিব হলের ছাত্রী প্রতিনিধি মারিয়াতুল জান্নাত মৌ তার অনুভূতি ব্যাক্ত করে বলেন, আমার অত্যন্ত ভাল লাগছে যে, আমাদের মেয়েদের জন্য এ রকম একটি ফ্রি চিকিৎসা সেবা প্রদানের ব্যবস্থা করা হয়েছে। আমি এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মু. আবুল কাসেম স্যারের প্রতি  আমাদের হলের মেয়দের পক্ষ হতে বিশেষ ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি। এছাড়া এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সব শিক্ষক ও দিনাজপুর ডায়াবেটিক এসোসিয়েশনের প্রতি আমি  কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি। আমি  প্রতিবছর এই ধারাকে অব্যাহত রাখতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে বিনীত অনুরোধ জানাচ্ছি। উল্লেখ্য, আগামীকাল রোববার সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত এই কর্মসুচি চলবে। একে//

গাইবান্ধায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২

গাইবান্ধার সাদুল্যাপুর উপজেলায় যাত্রীবাহী নৈশকোচ সাইফুল মিয়ার (৪০) ও চাদনি আক্তার (১০) নামে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও অন্তত ১০ জন। শুক্রবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে উপজেলার ধাপেরহাটের আরভি কোল্ড স্টোর সংলগ্ন এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। গোবিন্দগঞ্জ হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আক্তারুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছন। নিহত সাইফুল মিয়ার বাড়ি পঞ্চগড় জেলায়। তিনি কোচের চালক ছিলেন। এছাড়া নিহত চাদনি আক্তার (১০) সরফরাজের মেয়ে। সে তার মায়ের সঙ্গে সৈয়দপুরে খালার বাড়িতে বেড়াতে যাচ্ছিল। পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ঢাকা থেকে দিনাজপুরগামী অপু এন্টারপ্রাইজ যাত্রীবাহী কোচ উপজেলার ধাপেরহাটের আরভি কোল্ডস্টোর এলাকায় একটি পণ্যবাহী ট্রাককে ওভারটেক করতে গিয়ে চালক নিয়ন্ত্রণ হারালে কোচটি উল্টে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই দুইজনের মৃত্যু হয়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা আহতদের উদ্ধার করে পীরগঞ্জ ও পলাশবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এছাড়া দুর্ঘটনায় কবলিত কোচটি উদ্ধার করেছে পুলিশ। একে//

গাইবান্ধায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী নিহত

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় র‌্যাবের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে আবদুস ছালাম ওরফে ঠসা ছালাম (৪৮)  নামে এক মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। ‘বন্দুকযুদ্ধের’ এ ঘটনায় র‌্যাবের দুই সদস্যও আহত হয়েছেন। র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-১৩) এর গাইবান্ধা ক্যাম্পের সহকারী কমান্ডার এএসপি হাবিবুর রহমান হাবিব ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। মঙ্গলবার ভোর রাত ৩টার দিকে উপজেলার বামনডাঙ্গা ইউনিয়নের সাতগিরি জামাল গ্রামে ‘বন্দুকযুদ্ধের’ এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, ম্যাগজিনসহ ৩ রাউন্ড গুলি, ২০ বোতল ফেনসিডিল ও ১০ কেজি গাঁজা জব্দ করেছে র‌্যাব। নিহত আবদুস ছালাম একই উপজেলার বামনডাঙ্গা ইউনিয়নের সাতগিরি গ্রামের মৃত সফু করাতি ওরফে সবুর আলীর ছেলে বলে জানা গেছে। এএসপি হাবিবুর রহমান হাবিব জানান, গভীর রাতে ৪-৫ জন মাদক বিক্রেতা ওই এলাকায় মাদক কেনাবেচা করছিলো- এমন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব সদস্যরা অভিযানে যান। তাদের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক বিক্রেতারা গুলি ছোড়লে আত্মরক্ষার্থে র‌্যাবও পাল্টা গুলি ছোড়ে। এতে র‌্যাবের দুই সদস্য ও মাদক বিক্রেতা আবদুস ছালাম ঠসা গুলিবিদ্ধ হন। পরে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে সুন্দরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আবদুস ছালাম ঠসাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। একে//

পঞ্চগড়ে ৬৪১ বাড়িতে বিদ্যুতের নতুন সংযোগ

পঞ্চগড় জেলার দেবীগঞ্জ উপজেলার টেপ্রীগঞ্জ ইউনিয়নের ৭টি গ্রামে ৬৪১টি বাড়িতে গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় বিদ্যুতের নতুন সংযোগ দে্ওয়া হয়েছে। পঞ্চগড়-২ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট নুরল ইসলাম সুজন আনুষ্ঠানিকভাবে এ নতুন সংযোগের উদ্ধোধন করেন। ১ কোটি ৭০ লাখ টাকা ব্যয়ে ঠাকুরগাও পল্লী বিদ্যুত সমিতি এ  কাজের বাস্তবায়ন করেছে। টেপ্রীগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ এ উপলক্ষ্যে রামগঞ্জ বিলাসী ইদগাহ মাঠে এক আলোচনা সভার আয়োজন করেন। এ সভার সভাপতিত্ব করেন টেপ্রীগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি গোলাম রহমান সরকার । সংসদ সদস্য এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- উপজেলা চেয়ারম্যান হাসনাৎ জামান চৌধুরী জর্জ ও আওয়ামী লীগের সভাপতি আ.স.ম. নুরজ্জামান। অন্যদের মধ্যে পল্লী বিদ্যুতের জুনিয়র প্রকৌশলী রেজাউল করিম ও টেপ্রীগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. শাহজাহান আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন। এমএইচ/ এসএইচ/

নবাবগঞ্জে বজ্রপাতে একজনের মৃত্যু

দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে বজ্রপাতে একজনের মৃত্যু হয়েছে। এলাকাবাসী ও স্থানীয়রা জানান, উপজেলার দাউদপুর ইউনিয়নের সিরাজ (ভিটাপাড়া) গ্রামের মৃত ওসমান আলীর পুত্র রুহুল আমিন(৪০) মারা যান। আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় বাড়ীর পূর্ব পার্শ্বে করতোয়া শাখা নদীর ধারে জমিতে আমন ধান রোপনের জন্য জমিতে সার প্রয়োগ করছিলেন এই সময় হালকা বৃষ্টি পড়ছিল হঠাৎ বজ্রপাতের শব্দশুনে আমরা মাঠের দিকে তাকালে দেখতে পাই রুহুল আমিন মাঠে কাদায় পড়ে আছে। আমরা তাকে ধরে তোলার চেষ্টা করতেই বুঝতে পারি সে মারা গেছে।ওই সময় জমি চাষ করার করার সময় পাওয়ার টিলার চালক মো. শাহ আলম(২৫) গুরুতর আহত হলে সঙ্গে সঙ্গে নবাবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ কমপ্ল্রেক্সে ভর্তি করা করা হয়। এ ব্যপারে ইউপি চেয়ারম্যান মো. আব্দুল্লাহেল আজিম সোহাগ জানান, আমি মৃত্যুও খবর শুনেছি এবং এ ব্যপারে নবাবগঞ্জ উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তাকে অবহিত করেছি। এসএইচ/

ইসলামী ব্যাংক রংপুর জোনের গ্রাহক সমাবেশ অনুষ্ঠিত

ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড-এর রংপুর জোনের গ্রাহক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার দিনাজপুরের ব্র্যাক লার্নিং সেন্টারে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।   ব্যাংকের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট ও রংপুর জোনপ্রধান এ. কে. এম পেয়ার আহমাদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সভায় বিভিন্ন শাখার বিশিষ্ট গ্রাহকগণ তাদের মতামত ব্যক্ত করেন। এ সময় রংপুর জোনের ১৯টি শাখার ব্যবস্থাপক ও বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।  ব্যাংকের এডিশনাল অতিরিক্ত ব্যস্থাপনা পরিচালক মুহাম্মদ মুনিরুল মওলা প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ডেপুটি ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবু রেজা মো. ইয়াহিয়া ও মুহাম্মদ কায়সার আলী। একে//

রংপুর সিটির চিকলী বিল ও বিনোদন পার্ক (ভিডিও)

কয়েক বছরের মধ্যেই স্থানীয়দের মধ্যে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে রংপুর সিটির চিকলী বিল ও বিনোদন পার্ক। বিল পাড়ে মনোরম পরিবেশে দু’দণ্ড বসার ব্যবস্থা রয়েছে। তবে চিত্তবিনোদনের জন্য স্থাপিত মিনি রেলগাড়ি ও বিভিন্ন রাইড বিকল হওয়ায় দশনার্থীর সংখ্যা কিছুটা কমেছে। রাইডগুলো দ্রুত সচল করার দাবি নগরবাসীর। রংপুরের হনুমান তলা এলাকার শত বছরের প্রাচীন চিকলী বিল। শীতকালে অতিথি পাখির আগমনে মুখরিত থাকে এই জলাধার। বিলের চারপাশ সংরক্ষণ করে পুরো এলাকাটি বিনোদন পার্ক হিসেবে গড়ে তোলে সিটি কর্পোরেশন। বিলে ঘোরার জন্য আছে স্পীড বোট। গত কয়েক বছরে ভ্রমণপিপাসুদের আকর্ষণ কেড়েছে জায়গাটি। দুরদুরান্ত থেকে দল বেঁধে বনভোজন করতে আসেন অনেকেই। চিকলী বিলে শিশুদের চিত্ত বিনোদনের জন্য ট্রেন, চরকীসহ বিভিন্ন ধরনের রাইডও স্থাপন করে নগর কর্তৃপক্ষ। তবে সেগুলোর বেশিরভাগই বিকল হওয়ায় হতাশ দর্শনার্থীরা। রাইডগুলো ফের সচল করা হলে আরো অনেক মানুষ বেড়াতে আসবে বলে মনে করছেন নগরবাসী। সিটি কর্পোরেশনের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী জানালেন, চিকলী বিল ও বিনোদন পার্ক স্থায়ীভাবে ইজারা দিয়ে আধুনিক পর্যটন কেন্দ্র তৈরির উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে। যথাযথ পর্যটন ব্যবস্থাপনায় চিকলি বিলকে অন্যতম বিনোদন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলার দাবি রংপুরবাসীর।  

পঞ্চগড়ের বালু বিদেশেও রফতানি সম্ভব (ভিডিও)

পঞ্চগড়ের বালু, যার সুনাম এখন চারদিকে। উন্নত গুণমানের কারণে দিন দিন বাড়ছে এর চাহিদা। সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা পেলে, বিদেশেও রফতানি করা সম্ভব। এই বালি উত্তোলনের ফলে বাড়ছে নদীর নাব্যতা। মহানন্দা, করতোয়া, ডাহুকসহ পঞ্চগড় জেলায় ছোটবড় নদীর সংখ্যা ৩৩। রোজ এসব জলধারার অনেক জায়গায় বালু উত্তোলনে ব্যস্ত শ্রমিকরা। প্রতিদিন তোলা হয় অন্তত আড়াইশ ট্রাক বালু। যা সরবরাহ করা হয় বিভিন্ন জেলায়। এতে কর্মসংস্থান হয়েছে বহু মানুষের। উত্তরাঞ্চলের এই বালুর গুণগত মান খুবই ভালো বলে জানালেন সরকারি কর্মকর্তা। এই কর্মযজ্ঞের কারণে বাড়ছে নদীর নাব্যতা। ফলে সৃষ্টি হচ্ছে মাছ চাষের সুযোগ। পঞ্চগড়ের ১৫টি বালুমহাল ইজারা দেয়া হয়েছে। এ থেকে বছরে রাজস্ব আয় হয় এক কোটি ৩০ লাখ টাকা।

গাইবান্ধায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১

গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলায় সিএনজিচালিত অটোরিকশা ও ব্যাটারিচালিত ইজিবাইকের সংঘর্ষে ছাইদার রহমান (৫০) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। বুধবার দিবাগত রাতে উপজেলার ঘোড়াঘাট সড়কের বাগমারা ব্রিজ এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। পলাশবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল আলম দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। নিহত ছাইদার একই উপজেলার নিমদাশের ভিটা গ্রামের মৃত বয়ান ব্যাপারীর ছেলে বলে জানা গেছে। ওসি মাহমুদুল আলম জানান, বুধবার রাতে দিনাজপুর থেকে ইজিবাইকে করে ছাইদার পলাশবাড়ী যাচ্ছিলেন। এ সময় মেরিরহাট বাগমাড়া ব্রিজ এলাকায় পৌঁছালে সিএনজিচালিত অটোরিকশার সঙ্গে ইজিবাইকের সংঘর্ষে ছাইদার গুরুতর আহত হন। পরে স্থানীয়রা তাকে দ্রুত উদ্ধার করে পলাশবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। একে//

গাইবান্ধায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১

গ্রেফতারের একদিন পর গাইবান্ধায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ছামছুল হক (৩৮) নামের এক যুবক নিহত হয়েছেন।পুলিশের দাবি, নিহত শামসুল ডাকাত দলের সদস্য ছিলেন। তিনি একাধিক ডাকাতি মামলার আসামি ছিলেন। শামসুলের বাড়ি পলাশবাড়ী উপজেলার বেতকাপা ইউনিয়নের সাকোয়া গ্রামে।রোববার ভোরে পলাশবাড়ী উপজেলার সাকোয়া ব্রিজ এলাকায় গাইবান্ধা-পলাশবাড়ী সড়কে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।গাইবান্ধা সদর থানার ওসি খান মো. শাহারিয়ার জানান, শনিবার দুপুরে যৌথ অভিযান চালিয়ে শামসুলকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে তার তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ অস্ত্র উদ্ধার ও অন্য সঙ্গীদের গ্রেফতারে আজ ভোরে সাকোয়া ব্রিজ এলাকায় অভিযান চালায়। এ সময় শামসুলকে ছিনিয়ে নিতে তার সঙ্গীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে।একপর্যায়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে শামসুল গুলিবিদ্ধ হন। পরে উদ্ধার করে গাইবান্ধা সদর হাসপাতালে নিলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।নিহতের মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য গাইবান্ধা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।নিহত শামসুল আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সদস্য ছিলেন। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় হত্যা ও ডাকাতির ১২টি মামলা রয়েছে বলে জানান ওসি।এসএ/  

গাইবান্ধায় বজ্রপাতে একই পরিবারের ৩ জনের মৃত্যু

গাইবান্ধার সাদুল্যাপুরে বজ্রপাতে মা ও ছেলেসহ একই পরিবারের তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। রোববার দুপুরে উপজেলার ভাতগ্রাম ইউনিয়নের দক্ষিণ সন্তোলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মৃতরা হলেন- এই গ্রামের সবুজের স্ত্রী রাশেদা বেগম (৩৫), ছেলে আশিফ ওরফে জয় (১৪) ও ভাগ্নে কামাল হোসেনের ছেলে সিয়াম বাবু (১১)। ভাতগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রেজানুল ইসলাম বাবু জানান, দুপুরে বৃষ্টিপাত শুরু হয়। এ সময় দক্ষিণ সন্তোলা গ্রামের সবুজ মিয়ার নির্মাণাধীন বাড়ির একটি ঘরে অবস্থানকালে হঠাৎ বজ্রপাত হয়। এতে ঘটনাস্থলেই তাদের মৃত্যু হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করে সাদুল্যাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রহিমা খাতুন বলেন, ঘটনার পর আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যাই। মৃতদের প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে অনুদান দেওয়া হয়েছে। এসএইচ/

দিনাজপুরে আমের বাজার ধসে দিশেহারা চাষীরা

দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে চলতি বছরের শুরু থেকে আমের জন্য অনুকূল আবহাওয়া বিরাজ করায় এ বছর আমের বাম্পার ফলন হয়েছে। তবে বাজারগুলোতে ব্যাপক আমের আমদানি হওয়ায় কেনাবেচায় ধস নেমেছে। এতে বিপাকে পড়েছেন স্থানীয় আম বাগান মালিক ও ব্যবসায়ীরা। নবাবগঞ্জে চলতি মৌসুমে আম বিদেশে রফতানির লক্ষ্যে উপজেলার মাহমুদপুর ফলচাষি সমবায় সমিতি লিমিটেডের বাগানিরা আম বাগানের নিবিড় পরিচর্যা শুরু করেছে। উপজেলা কৃষি অধিফতরের সহায়তায় বিষমুক্ত ও রফতানিযোগ্য আম উৎপাদনের জন্য তারা মনোসেক্স ফেরোমন ফাঁদ ও ফ্রুট ব্যাগিং পদ্ধতি ব্যবহারের করেছে। ইতিপূর্বে চাষিরা এর ওপর প্রশিক্ষণও গ্রহণ করেছে। উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, আম চাষে জেলার সবচেয়ে উপযুক্ত ও নির্ভরযোগ্য এলাকা মাহমুদপুর ইউনিয়ন। আমের ভাল ফলন হওয়ায় ইউনিয়নের প্রতিটি গ্রামেই শত শত বিঘাতে আমের বাগান গড়ে তোলা হয়েছে। কৃষি জমিতে ধান, গম, সরিষা, আলুর সাথে সাথী ফসল হিসেবে উন্নতমানের হাড়িভাঙ্গা, আম্রপালি, বোম্বাই প্রজাতির আম চাষ হয় এবং চলতি বছরে ফলনও আশানুরূপ হয়েছে। মাহমুদপুর ফল সমবায় সমিতি লি.-এর সাধারণ সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর আলম জানান, এ এলাকার আম গুণগতমান ভালো। এখানকার আম বিদেশে রপ্তানিকল্পে উপজেলা কৃষি অফিস ও উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে মানসম্মত আম উৎপানের জন্য গেল বছর চাঁপাইনবাবগঞ্জ আম গবেষণা কেন্দ্র থেকে গবেষকদের নিয়ে এসে আম চাষিদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে।  এ বছর আমের বাম্পার ফলন হয়েছে। আবহাওয়া অনুকূলে ও রোগ বালাই না থাকায় এবং রফতানিতে প্রক্রিয়ায় সহায়তা পেলে এ বছর নবাবগঞ্জ উপজেলা থেকে ১০০ মে: টন উন্নত জাতের আম বিদেশে রফতানি করার লক্ষমাত্রা নির্ধারণ করা হয়। নবাবগঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আবু রেজা মো. আসাদুজ্জামান জানান, উপজেলাতে প্রায় ৮০৫ হেক্টর জমিতে আমচাষ করা হয়েছে। এ বছর উপজেলাতে ৫০ হাজার মে. টন আম উৎপাদনের লক্ষমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। উপজেলা কৃষি অফিস থেকে আম উৎপাদনে চাষিদের সব ধরনের সহায়তা করা হচ্ছে। উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, নতুন ও পুরাতন মিলে এ বছর প্রায় ৮০৫ হেক্টর জমিতে আমবাগান রয়েছে, যা গত বছরের তুলনায় প্রায় ২৫ হেক্টর বেশি। গত মৌসুমে আমের উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিল  ৪০ হাজার মে. টন এবং বর্তমানে  উৎপাদন হয়েছে প্রায়  ৫০হাজার মে. টন আম।  এ বছর বেশিরভাগ বাগানে আম দেখা দেয়ায় এবং আবহাওয়া অনুকূল থাকায় লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে প্রায়  ৫০ হাজার মে. টন আম। এতে চলতি বছর এ অঞ্চলের আমবাগান মালিক ও ব্যবসায়ীদের কয়েক কোটি টাকা লোকসান হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। আমের দাম কম থাকায় আগামী বছরের জন্য নতুন করে আমবাগান কেনাবেচাও হচ্ছে না। বিগত বছরগুলোতে বেশি লাভের আশায় কিছু অসাধু ব্যবসায়ী ও বাগান মালিক মৌসুম শুরুর আগেই অপরিপক্ষ আম ভাঙ্গা শুরু করত। পরে তারা ওই আমের রং ভালো করতে বিভিন্ন রাসায়নিক ওষুধ ব্যবহার করত। যার কারণে সরকার আম বাজারজাতকরণে সময় নির্ধারণ করে দিয়েছে। আর এ কারণে একসঙ্গে সবাই আম ভাঙার কারণে আমের বাজারে ধস নেমেছে। মাহমুদপুরের আম বাগান মালিক মো. আবুল কাশেম বলেন, এ বছরের প্রথম থেকে আমের বাজারে প্রভাব পড়েছে। এছাড়া উৎপাদনের চেয়ে বাজারে আমের চাহিদা অনেক কম। যার ফলে আমের দাম বিগত বছরগুলোর তুলনায় অনেক কম হয়েছে। আমের ব্যাপক দরপতন হওয়ায় ধারণা করা হচ্ছে এ বছর আম ব্যবসায়ী ও চাষীদের কয়েক কোটি টাকা লোকসান হবে।  এসএইচ/

গাইবান্ধায় সড়ক দুর্ঘটনায় একজন নিহত

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জের ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের কালিতলা এলাকায় যাত্রীবাহী একটি বাস উল্টে আব্দুল মালেক নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। এই দুর্ঘটনায় তিন যাত্রী আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।রবিবার দিবাগত রাতে দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটে।জানা গেছে, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা নীলফামারীগামী একটি যাত্রীবাহী বাস কালিতলা এলাকায় পৌঁছালে চালক নিয়ন্ত্রণ হারায়। এতে বাসটি রাস্তার উপর উল্টে গেলে আব্দুল মালেক নামের এক ব্যক্তি ঘটনাস্থলেই মারা যান ও তিনজন যাত্রী আহত হন।গোবিন্দগঞ্জ হাইওয়ে থানার ওসি মো. আকতারুজ্জামান সাংবাদিকদের জানান, বাসটিকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। ঘটনার পরে বাসের চালক ও হেলপার পালিয়ে গেছে।এসএ/

© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি