ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৭ ৪:৫৭:২২

ময়মনসিংহের ফুলপুরে ইসলামী ব্যাংকের শাখা উদ্বোধন

ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড-এর ৩৩১তম শাখা ময়মনসিংহের ফুলপুরে উদ্বোধন করা হয়েছে। মঙ্গলবার ময়মনসিংহের ফুলপুরে শাখাটির উদ্বোধন করেন ব্যাংকের চেয়ারম্যান আরাস্তু খান। ব্যাংকের এডিশনাল ম্যানেজিং ডাইরেক্টর মো. মাহবুব উল আলম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ফুলপুর পৌর মেয়র মো. আমিনুল হক, ফুলপুর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো. হাবিবুর রহমান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মনোয়ারা বেগম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাশেদ হোসেন চৌধুরী। “ইসলামী ব্যাংকিংয়ের শ্রেষ্ঠত্ব” শীর্ষক আলোচনা করেন ব্যাংকের এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং শরীয়াহ্ সেক্রেটারিয়েট প্রধান মো. শামসুল হুদা। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ময়মনসিংহ জোনপ্রধান আবু সাঈদ মো. ইদ্রিস ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন শাখা ব্যবস্থাপক মো. আ. হান্নান। অনুষ্ঠানে আরাস্তু খান বলেন, ইসলামী ব্যাংক ন্যায়, নীতি ও শরীয়াহ্ আলোকে পরিচালিত হয়। নিয়ন্ত্রণকারী সকল সংস্থা ও দেশের সকল নিয়ম-নীতি যথাযথ পরিপালনের মাধ্যমে ইসলামী ব্যাংক দেশের সর্ববৃহৎ ব্যাংক। দেশের আপামর জনগণের আস্থার ফলে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশের একমাত্র ব্যাংক হিসেবে বিশ্বের শ্রেষ্ঠ এক হাজার ব্যাংকের তালিকায় অন্তর্ভূক্ত হওয়ার মর্যাদা অর্জন করতে পেরেছে। ইসলামী ব্যাংক ধর্ম, বর্ণ, গোত্র নির্বিশেষে সকল মানুষের ব্যাংক।   আর

ময়মনসিংহে অস্ত্র তৈরির সরঞ্জামসহ যুবক আটক

ময়মনসিংহ শহরের আকুয়া মিলনবাগ এলাকার একটি বাসায় অভিযান চালিয়ে চারটি পিস্তল, সাত রাউন্ড গুলি ও অস্ত্র তৈরির সরঞ্জামসহ সোহেল নামে একজনকে আটক করেছে র‌্যাব। বুধবার দুপুরে সাংবাদিক সম্মেলনে এ তথ্য জানান র‌্যাবের অধিনায়ক শরিফুল ইসলাম। সাংবাদিক সম্মেলনে বলা হয়, মিলনবাগের মাইনুদ্দিনের বাসায় ছোট আকারের কারখানা গড়ে তোলে পিস্তলসহ দেশীয় অস্ত্র তৈরি করা হতো। এ অস্ত্র ময়মনসিংহসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় বিক্রি করার কথা জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছে আটককৃত সোহেল। তিনি আরও জানান, সোহেল অস্ত্র ব্যবসায়ী নূর উদ্দিনের সহযোগী হিসেবে ও কারিগর হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছে। অভিযানের সময় বাসার মালিক মাইনুদ্দিনের পুত্র আরমানকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করার কথা জানান র‌্যাব অধিনায়ক। এসএইচ/

আলোর পথে ১৮৯ মাদকসেবী

জামালপুর জেলার ১৮৯ জন মাদকসেবী ও মাদক ব্যবসায়ী তাদের অন্ধকার জীবন ছেড়ে আলোর পথে ফিরে এসেছেন। আজ বৃহস্পতিবার জামালপুর পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক অনুষ্ঠানে তারা মাদক ছেড়ে সুস্থ জীবনে ফিরে আসার অঙ্গীকার করেন। পুলিশ সুপার দেলোয়ার হোসেনের সভপতিত্বে মাদকসেবী ও ব্যবসাীয়দের স্বেচ্ছায় আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পুলিশের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক মো. মোখলেছুর রহমান। বক্তব্য রাখেন, জেলা প্রশাসক আহমেদ কবীর, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফারুক আহমেদ চৌধুরী, পৌর মেয়র মির্জা সাখাওয়াতুল আলম মনি, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট বাকী বিল্লাহ, সরকারি আশেক মাহমুদ কলেজের অধ্যক্ষ মুজাহিদ বিল্লাহ ফারুকী, সিভিল সার্জন ডা. মোশায়ের উল ইসলাম, মুক্তিযোদ্ধা সুজায়াত আলী। অনুষ্ঠানে মোখলেছুর রহমান বলেন, স্বেচ্ছায় মাদক ছেড়ে দেয়ায় সবার চিকিৎসা ও পুনর্বাসনে সব ধরনের সহযোগিতা করা হবে। তিনি বলেন, মাদকের ব্যাপারে আমাদের সব সময় জিরো টলারেন্সে থাকতে হবে। যে কোনো দলের কোনো নেতা এমনকি পুলিশের কোনো সদস্য এর সঙ্গে যুক্ত থাকলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিতে হবে। অনুষ্ঠানে মাদকসেবীরাও বক্তব্য রাখেন। আর/ডব্লিউএন

নবম ওয়েজবোর্ডের দাবিতে ময়মনসিংহে বিএফইউজের মানববন্ধন

নবম ওয়েজবোর্ড গঠন দাবি ও এটি ঘোষণায় ব্যর্থতার দায়ে তথ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবিতে ময়মনসিংহে মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে)। শনিবার ময়মনসিংহ প্রেস ক্লাব চত্বরে আয়োজিত এই মানববন্ধনে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি এবং একুশে টেলিভিশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও প্রধান সম্পাদক মনজুরুল আহসান বুলবুল, সংগঠনটির মহাসচিব ওমর ফারুক, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি শাবান মাহমুদসহ সাংবাদিক নেতারা অংশ নেন। মানববন্ধনে বিএফইউজের সভাপতি বলেন, নবম ওয়েজবোর্ড গঠনের দাবিতে দুই বছর ধরে আন্দোলন করছেন সাংবাদিকরা। তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুর ব্যর্থতার কারণেই ওয়েজবোর্ড হচ্ছে না। সাংবাদিক নেতারা দ্রুত নবম ওয়েজ বোর্ড ঘোষণা ও তথ্যমন্ত্রীর পদত্যাগের দাবি জানান। / এআর /

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

শেরপুরের নকলা উপজেলা চেয়ারম্যান মাহাবুব আলী চৌধুরী ওরফে মুনির চৌধুরীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার পৌরশহরের ইশিদপুর এলাকায় নিজ বাড়ি থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত মাহবুব এবারই প্রথম উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হন। তিনি জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক এবং উপজেলার চরঅষ্টধর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ছিলেন। নকলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খান আবদুল হালিম সিদ্দিকী বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, তিনি গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে আত্মহত্যা করেছেন। লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করার পর ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে। মুনির চৌধুরী সাবেক হুইপ প্রয়াত জাহেদ আলী চৌধুরীর ছোট ভাই। তিনি ২০১৪ সালে নকলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। মাহবুব আলী চৌধুরী নকলা উপজেলা বিএনপির সভাপতি ছিলেন। এর আগে তিনি একাধিকবার চরঅষ্টধর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ছিলেন। আর/ডব্লিউএন

ময়মনসিংহে ডাকাতের গুলিতে পুলিশ সদস্য আহত

ময়মনসিংহে ‘ডাকাতের’ গুলিতে এক পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় এক ডাকাতকে আটক করা হয়েছে। জেলার ভালুকা উপজেলায় মেহেরাবাড়ি এলাকায় মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। ভালুকা থানার ওসি মামুন অর রশিদ জানান, মেহেরবাড়ি এলাকায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের পাশে আব্দুল আহাদের মুদি দোকানে হানা দেয় তিন ডাকাত। আহাদের চিৎকারে টলহ পুলিশ এগিয়ে গেলে ডাকাতরা গুলি ছোড়ে। এতে কনস্টেবল রাসেলের হাতে ও পায়ে গুলি লাগে। তিনি বলেন, আহত কনস্টেবল রাসেলকে (৩৮) প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে, পরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় স্থানীয়রা আব্দুস ছাত্তার (২৫) নামে এক ডাকাতকে আটক করে পুলিশ দেয়। আর/ডব্লিউএন  

ঢাকা-ময়মনসিংহ রুটে ট্রেন চলাচল শুরু

ময়মনসিংহের গফরগাঁও-এ ঢাকাগামী আন্তনগর যমুনা এক্সপ্রেস ট্রেনের পাওয়ার কার বগি লাইনচ্যুত হলে তিন ঘণ্টা ঢাকা-ময়মনসিংহ রেলপথে ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকে। বুধবার সকাল পৌনে ৬টার দিকে বগি লাইনচ্যুতের এ ঘটনা ঘটে। পরে লাইনচ্যুত বগিটি উদ্ধার করা হলে ৮টা ৪০ মিনিটে ট্রেনটি গফরগাঁও রেলস্টেশন ছেড়ে যায়। ঘটনার সময় যাত্রীদের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দিলেও হতাহতের কোনো ঘটনা ঘটেনি। গফরগাঁও রেলস্টেশনের ভারপ্রাপ্ত স্টেশন মাস্টার মো. আলাউদ্দিন জানান, ট্রেনটি স্টেশনে প্রবেশের সময় লুব লাইনের কাছে বগি লাইনচ্যুত হয়। এতে স্টেশনের দুটি লাইন বন্ধ হয়ে ময়মনসিংহ বিভাগের সব রুটের সঙ্গে ঢাকার রেলযোগাযোগ বন্ধ থাকে। তিনি বলেন, পরে সকাল ৮টা ৪০ মিনিটে বগি উদ্ধার হলে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়। ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত হলে একটি স্লিপার ভেঙে গেছে। আর/ডব্লিউএন

বোনের বাড়িতে বেড়াতে এসে গণধর্ষণের শিকার ‍গৃহবধূ

নেত্রকোনায় বোনের বাড়িতে বেড়াতে এসে গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন সুনামগঞ্জ জেলার ছাতক উপজেলার এক গৃহবধূ। ওই গৃহবধূ গত ৩ অক্টোবর নেত্রকোনার দুর্গাপুর উপজেলার গাঁওকান্দিয়া ইউনিয়নে দুবরাজপুর গ্রামে চাচাতো বোন আমেনা খাতুনের বাড়িতে বেড়াতে আসেন। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গৃহবধূ ওই বাড়িতে আসার পর থেকে থেকেই গ্রামের তিন বখাটে ফজলু মেম্বারের ছেলে মো. কাশেম মিয়া (৩২), শেখ ফরিদের ছেলে মো. জব্বার মিয়া (২৮) ও উসমান আলীর ছেলে মো. রাশেদ মিয়া (৩০) আমেনার বাড়িতে আসা-যাওয়া শুরু করে। শনিবার দিবাগত রাতে ঘরের দরজা ভেঙে গৃহবধূকে অস্ত্রের মুখে তুলে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে ওই তিন বখাটে। এসময় তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন আসলে বখাটেরা পালিয়ে যায়। এ ঘটনা প্রকাশ করলে তাকেসহ চাচাতো বোনের স্বামীকে খুন করার হুমকি দেয় বখাটেরা। পরে রোববার ভিকটিম নিজে বাদী হয়ে দুর্গাপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে তিনজনকে আসামি করে মামলা করেন। দুর্গাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান গণমাধ্যমকে বলেন, এঘটনায় মামলা হয়েছে। অভিযুক্তদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।   /আর/এআর

ময়মনসিংহে ৩ ছাত্রী ধর্ষণের শিকার

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ ও নান্দাইল উপজেলায় তিন ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এর মধ্যে একজন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের (১২), একজন মাদরাসার (১৫) ও আরেকজন কলেজছাত্রী (১৮)। নান্দাইলে ধর্ষণের ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। তবে নান্দাইল ও ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার অন্য দুই ঘটনায় সালিস হয়েছে। আজ রোববারের মধ্যে অভিযুক্ত দুই ধর্ষককে ওই দুই ছাত্রীকে বিয়ে করতে বলা হয়েছে। তা না হলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেছেন সালিসকারীরা। নান্দাইলের ধর্ষণের শিকার কলেজছাত্রী জানিয়েছেন, তিনি স্থানীয় একটি কলেজে উচ্চ মাধ্যমিক দ্বিতীয় বর্ষে পড়ছেন। বছরখানেক আগে উপজেলার চণ্ডীপাশা গ্রামের আবদুর রহমানের ছেলে মোস্তাফিজুর রহমান ওরফে রাব্বির (২১) সঙ্গে তাঁর পরিচয় হয়। মোস্তাফিজুর রাজধানীর একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ছে। একপর্যায়ে বিয়ের কথা বলে মোস্তাফিজুর ওই ছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণ করে। শুক্রবার রাতে মোস্তাফিজুর ওই ছাত্রীর বাড়িতে যায়। তখন ছাত্রী তাঁকে বিয়ে করতে বললে মোস্তাফিজুর বেকে বসেন। পরে এলাকার লোকজন মোস্তাফিজুরকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। ওই ছাত্রীকেও পুলিশ হেফাজতে দেয় এলাকাবাসী। তবে পুলিশ অভিযুক্তের বিরুদ্ধে আপাতত ব্যবস্থা না নিয়ে বিয়ে করতে সময় দিয়েছে। অভিযুক্ত ধর্ষককে হেফাজতে পেয়েও আটক বা গ্রেফতার না করার ব্যাপারে জানতে চাইলে নান্দাইল থানার ওসি ইউনূস আলী বলেন, ধর্ষণের শিকার কলেজছাত্রী ও অভিযুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রকে তাদের নিজ নিজ পরিবারের জিম্মায় দেওয়া হয়েছে। আজকের মধ্যে ফয়সালা না করলে মামলা হবে। নান্দাইল পৌরসভা এলাকার একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় থানায় মামলা করেছেন ছাত্রীর বাবা। মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে, ওই ছাত্রীর প্রতিবেশী যুবক বাদল মিয়া (২২) গাজীপুরে একটি পোশাক কারখানার কর্মী। কোরবানির ঈদের কয়েক দিন পর বাদল মিয়া ওই ছাত্রীকে বাড়িতে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করে। তখন ঘটনাটি প্রকাশ করে দেওয়ার কথা জানালে বাদল ওই ছাত্রীকে বিয়ে করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে কর্মস্থলে চলে যায়। সম্প্রতি ঘটনাটি জেনে ওই ছাত্রীর বাবা গত শুক্রবার মেয়েকে নিয়ে থানায় গিয়ে বাদল মিয়াকে অভিযুক্ত করে মামলা করেন। //এআর

বাঁধ ভেঙে ঝিনাইগাতীর ১৫ গ্রাম প্লাবিত

ভারী বর্ষণের ফলে উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে শেরপুরে ঝিনাইগাতী উপজেলায় মহারশি নদীর তীর রক্ষা বাঁধ ভেঙে গেছে। এতে ওই এলাকার চারটি ইউনিয়নের ১৫ গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার রাতভর ভারি বর্ষণের ফলে এ বাঁধ ভেঙে যায়। এর ফলে ডুবে গেছে ঝিনাইগাতী-রাংটিয়া সড়ক। এখন ঝিনাইগাতী বাজারে চার ফুট উচ্চতায় ঢলের পানি প্রবাহিত হচ্ছে। স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে মহারশি নদীতে প্লাবন সৃষ্টি হয়। এতে রামেরকুড়া এলাকায় নদীর তীর রক্ষা বাঁধের প্রায় ৭০ থেকে ৮০ ফুট ভেঙে যায়। এতে ঝিনাইগাতী-রাংটিয়া সড়ক ডুবে প্রবল স্রোতে পানি নিম্নাঞ্চলের দিকে নামতে থাকে। গরুহাটি ও ঝিনাইগাতী বাজার প্রায় চারফুট পানিতে তলিয়ে যায়। পাহাড়ি ঢলে ঝিনাইগাতীর ধানশাইল, ঝিনাইগাতী সদর, মালিঝিকান্দা ও হাতিবান্দা ইউনিয়নের অন্তত ১৫টি গ্রামের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। ঝিনাইগাতী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ফারহানা করিম গণমাধ্যমকে জানান, ভারী বর্ষণের কারণেই পহাড়ি ঢলের সৃষ্টি হয়। এতে বিভিন্ন এলাকা প্লাবিত হয়েছে।   আর/টিকে

নদীতে মিলল চিকিৎসকের লাশ

নেত্রকোনায় নিখোঁজের তিন দিন পর এক পল্লীচিকিৎসকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার সকালে জেলার মোহনগঞ্জ উপজেলার বেতাই নদীর কচুরিপানার ভেতর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মোহনগঞ্জ উপজেলার তেতুলিয়া ইউনিয়নের ঢাকাপাড়া গ্রামের পল্লীচিকিৎসক কাজী মজিবুর রহমান (৪৫) গত সোমবার রাতে বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে নিখোঁজ হন। ওদিন রাতেই মজিবুর রহমানের ভাই মোহনগঞ্জ থানায় জিডি করেন। মোহনগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিন্নাত আলী আনসারী গণমাধ্যমকে বলেন, আজ বৃহষ্পতিবার সকালে বেতাই নদীর কচুরিপানার মধ্যে মজিবুরের মরদেহ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা পুলিশকে জানায়। পরে পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে। তিনি বলেন, তার গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। আর এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে চারজনকে আটক করা হয়েছে। আর/ডব্লিউএন

মেয়র রুকুনুজ্জামান ঢামেকে ভর্তি

নিখোঁজের দু’দিন পর উদ্ধার হওয়া জামালপুরের সরিষাবাড়ি পৌরসভার মেয়র ও ব্যবসায়ী মো. রুকুনুজ্জামানকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বুধবার রাতেই মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল থেকে ঢাকায় আনা হয়। ডিবি কার্যালয়ে জিজ্ঞাসাবাদের পর ঢামেকে ভর্তি করা হয় মেয়র রুকুনুজ্জামানকে। পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, তিনি ঢামেক হাসপাতালের নতুন ভবনের ৬০১ নং কেবিনে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তার হার্টের সমস্যা ও উচ্চ রক্তচাপজনিত সমস্যা রয়েছে। মেয়রের বরাত দিয়ে মৌলভীবাজার পুলিশ সুপার গণমাধ্যমকে জানান, তাকে একটি কাল মাইক্রোবাস থেকে এখানে নামিয়ে দেয়া হয়। মাইক্রোবাসে থাকা অবস্থায় তার চোখ বাঁধা ছিল। প্রসঙ্গত, ২৫ সেপ্টেম্বর সকালে রাজধানীর উত্তরার ১১ নং সেক্টর থেকে মেয়র রুকুনুজ্জামান নিখোঁজ হন। ভাইয়ের সন্ধান চেয়ে থানায় জিডি করেন তার বড় ভাই সাইফুল ইসলাম টুকন। উত্তরা পশ্চিম থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) নং-১৬১১। এরপর স্থনীয়দের সহযোগিতায় মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল থেকে গতকাল বুধবার তাকে উদ্ধার করে শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশ। সাইফুল ইসলাম টুকন বলেন, মেয়রের হার্টের সমস্যা, মেয়র শারীরিকভাবে অসুস্থতার কথা জানালে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। উল্লেখ্য, রুকুনুজ্জামান এক সময় বিএনপির রাজনীতি করলেও তিন বছর আগে আওয়ামী লীগে যোগ দেন। আওয়ামী লীগ থেকে প্রার্থী হয়ে সরিষাবাড়ি পৌরসভার মেয়র নির্বাচিত হন তিনি। বর্তমানে পৌর মেয়রের পাশাপাশি পৌর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন রুকুনুজ্জামান রুকন।   /আর/এআর

সরিষাবাড়ির নিখোঁজ মেয়রকে শ্রীমঙ্গল থেকে উদ্ধার

রাজধানীর উত্তরা থেকে নিখোঁজ হওয়া জামালপুরের সরিষাবাড়ী পৌরসভার মেয়র রুকুনুজ্জামানকে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশ বুধবার দুপুর ১টার দিকে উপজেলার কালিঘাট ইউনিয়ন অফিসের সামনে থেকে তাকে উদ্ধার করে। শ্রীমঙ্গল থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) সোহেল রানা গণমাধ্যমকে জানান, উপজেলার কালীঘাট ইউনিয়নের কালীঘাট রোডে তাকে পাওয়া যায়। কিছুটা অস্বাভাবিক অবস্থায় দেখতে পেয়ে স্থানীরা তার পরিচয় জানতে চান। পরে পুলিশ এসে প্রথমে তাকে শ্রীমঙ্গল থানায় ও দুপুরে মৌলভীবাজার পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে নিয়ে যায়। তিনি জানান, রুকুনুজ্জামান দাবি করেছেন বুধবার ভোর সাড়ে ৩টা দিকে গাড়িতে করে কিছু লোক তাকে ফেলে গেছে। তবে তিনি তাদের কাউকে চিনতে পারেননি। উল্লেখ্য, গত সোমবার (২৫ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ৯টায় তিনি রাজধানীর উত্তরার ১৩ নম্বর সেক্টরের গাউসুল আজম রোডের বাসা থেকে বের হন। এরপর তার আর কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি। এ বিষয়ে সোমবার রাতে তার ভাই সাইফুল ইসলাম টুকন উত্তরা পশ্চিম থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। আর/ডব্লিউএন

চোর সন্দেহে কিশোরকে পিটিয়ে হত্যা

ময়মনসিংহে চোর সন্দেহে সাগর আহম্মেদ (১৬) নামের এক কিশোরকে খুঁটিতে বেধে পিটিয়ে হত্যা করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। নিহত কিশোর গৌরীপুর উপজেলার নাটকঘর এলাকার মোহাম্মদ শিপন মিয়ার ছেলে। এলাকাবাসীর বরাত দিয়ে গৌরীপুর থানার ওসি দেলোয়ার আহমেদ গণমাধ্যমকে বলেন, সোমবার সকালে চরশিরামপুর গ্রামের গাউছিয়া নামের একটি মাছের হ্যাচারির মালিক আক্কাস আলী ও তার ছেলে কাইয়ুমসহ চার-পাঁচজন চোর সন্দেহে সাগরকে আটক করেন। পরে তাকে হ্যাচারির খুঁটিতে বেঁধে মারধর করেন। অজ্ঞান হয়ে পড়লে তাকে তারা অটোরিকশায় করে নিয়ে যান। ওসি জানান, পরে এদিন সকাল সাড়ে ১১টার দিকে হ্যাচারির পাশের একটি জঙ্গল থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনার পর থেকে অপরাধীরা সবাই পলাতক। জড়িতদের আটকের চেষ্টা চলছে। ডৌহাখলা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান শহিদুল হক সরকার জানান, অনেকের মোবাইল ফোনে খুঁটিতে বাধা রক্তাক্ত অবস্থায় কিশোরের ছবি আমি দেখেছি। নৃশংস এই ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তারের দাবি জানান তিনি। নিহত সাগরের বাবা শিপন মিয়া বলেন, সাগর ভাঙ্গারি কুড়িয়ে বেচতেন। সোমবার ভাঙ্গারি কুড়াতে গিয়ে আর ফিরে আসেনি। সকালে জঙ্গল থেকে তার লাশ উদ্ধারের খবর পাই। আর/ডব্লিউএন

উত্তরা থেকে সরিষাবাড়ির পৌর মেয়র ‘নিখোঁজ’

ব্যবসায়িক কাজে ঢাকায় এসে নিখোঁজ হয়েছেন জামালপুরের সরিষাবাড়ি পৌর মেয়র রুকুনুজ্জামান (রুকন)। তিনি পৌর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ছিলেন। সোমবার সকাল সাড়ে ৯টায় রাজধানীর উত্তরার ১৩ নম্বর সেক্টরের গাউসুল আজম রোডের ৬০ নং বাসা থেকে বের হওয়ার পর থেকেই রুকুনুজ্জামান নিখোঁজ রয়েছেন অভিযোগ করেছে তার পরিবার। এদিন দুপুর থেকে তার মোবাইল নম্বর বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। অনেক খোঁজাখুঁজির পর সন্ধান না পাওয়ায় থানায় জিডি করেছেন রুকুনুজ্জামানের বড় ভাই সাইফুল ইসলাম টুকন। উত্তরা পশ্চিম থানায় করা সাধারণ ডায়েরি নং-১৬১১। থানা সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত রুকনের খোঁজ মেলেনি। জিডিতে বলা হয়, সোমবার (২৫ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বাসার পাশের পার্কে যাওয়ার কথা বলে বের হন রুকুনুজ্জামান। সোমবার দুপুরের পর থেকে তার মোবাইল নম্বরটিও বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। সাইফুল ইসলাম টুকন গণমাধ্যমকে বলেন, সোমবার সকাল সাড়ে ৯টার পর মোবাইলে ২০-২৫ বার ফোন করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি। এরপর দুপুর ১টার পর থেকে মোবাইল নম্বরটি বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত তার খোঁজও মেলেনি। উত্তরা পশ্চিম থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুর রাজ্জাক গণমাধ্যমকে বলেন, সরিষাবাড়ির পৌর চেয়ারম্যান রুকুনুজ্জামানের নিখোঁজের ঘটনায় পুলিশ কাজ শুরু করেছে। আমরা তথ্যপ্রযুক্তির সহযোগিতা নিয়ে তদন্ত করছি। বিভিন্ন পর্যায়ে খোঁজ-খবর নেয়া হচ্ছে। উল্লেখ্য, নিখোঁজ রুকুনুজ্জামান জামালপুর জেলার সরিষাবাড়ি পৌরসভার মেয়র এবং পৌর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি। পৌর মেয়রের দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি তিনি ব্যবসা করেন।   /আর/এআর

জামালপুরে কিশোর খুন

জামালপুরে সিনেমা হলে বাকবিতণ্ডার জেরে মমিনুল ইসলাম জিসান নামের এক কিশোরকে ছুরি মেরে হত্যা করা হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। জামালপুর সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ রাশেদুল ইসলাম গণমাধ্যমকে জানান, জিসানসহ কয়েকজন বন্ধু রোববার রাতে মনোয়ার সিনেমা হলে যায়। এসময় হলের ভেতরে মোবাইল ফোনের আলো জ্বালানো নিয়ে কয়েকজন যুবকের সঙ্গে তার কথা কাটাকাটি হয়। সিনেমা হল থেকে বের হওয়ার পর রাত সাড়ে ১১টার দিকে ওই যুবকেরা জিসানকে মারধর শুরু করে। এক পর্যায়ে জিসানের পেটে ছুরি মেরে পালিয়ে যায় তারা। পরে স্থানীয়রা জিসানকে উদ্ধার করে জামালপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সোয়া ২টার দিকে তার মৃত্যু হয়। তিনি বলেন, জিসান জামালপুর সিংহজানী বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র ছিল এবং ছাত্রলীগের সঙ্গে জড়িত ছিল। এ ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা করছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।   আর/ডব্লিউএন

নেত্রকোণায় হত্যা মামলায় একজনের ফাঁসি

নেত্রকোণায় পরকীয়ার জের ধরে ১৪ বছর আগে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যার দায়ে একজনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। দণ্ডপ্রাপ্ত দিলোয়ার ওরফে দিলু (২৫) নেত্রকোণার কেন্দুয়া উপজেলার দুর্গাপুর গ্রামের কাজীম উদ্দিনের ছেলে। মঙ্গলবার দুপুরে নেত্রকোণা জেলা ও দায়রা জজ রাশেদুজ্জামান রাজা আসামির উপস্থিতিতে এ রায় দেন। একই সঙ্গে তাকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। অতিরিক্ত পিপি মো. সাইফুল আলম প্রদীপ মামলার নথির বরাত দিয়ে জানান, দুর্গাপুর গ্রামের সম্রাজ আলীর সঙ্গে একই গ্রামের দিলোয়ারের বন্ধুত্ব ছিল। এরই সূত্র ধরে তারা একে ওপরের বাড়িতে আসা-যাওয়া করতেন। এক সময় সম্রাজের স্ত্রী জাহানারা আক্তারে সঙ্গে দিলোয়ার সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হলে বন্ধুকে তাদের বাড়িতে আসতে নিষেধ করেন সম্রাজ। এই ঘটনার জের ধরে ২০০৩ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর সকালে গ্রামের রাস্তায় সম্রাজকে কুপিয়ে হত্যা করেন দিলোয়ার। ঘটনার পরদিন নিহতের মা জুলেখা খাতুন বাদী হয়ে কেন্দুয়া থানায় দিলোয়ারকে আসামি করে হত্যা মামলা করেন। তদন্ত শেষে পরের বছর ১৯ মার্চ আদালতে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। কেআই/টিকে

ভালুকার বাড়িতে আরও বিস্ফোরক উদ্ধার

ময়মনসিংহের ভালুকায় সন্দেহভাজন জঙ্গি আস্তানায় তল্লাশি চালিয়ে আরও বিস্ফোরক উদ্ধার করেছে পুলিশের বোমা নিষ্ক্রিয়কারী দল। ভালুকার হবিরবাড়ি ইউনিয়নের কাশর এলাকায় বিস্ফোরণে একজন নিহত হওয়ার পর রোববার রাত থেকে বাড়িটি ঘিরে রেখেছিল পুলিশ।  ঢাকা থেকে পুলিশের বোমা নিষ্ক্রিয়কারী দলের সদস্যরা সোমবার সকালে সেখানে তল্লাশি শুরু করে। এসময় বেশ কিছু বোমা, গ্রেনেড এবং বোমা তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়। ময়মনসিংহের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (দক্ষিণ) নূরে আলম দুপুরে সাংবাদিকদের বলেন, নিহত জঙ্গির ঘর থেকে বড় আকারের তিনটি শক্তিশালী বোমা, তিনটি ট্রেসার, একটি গ্রেনেড ও বোমা তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে। এখন সেগুলো নিস্ক্রিয় করার কাজ চলছে। এর আগে রোববার বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে আধা-পাকা ওই বাড়িতে বিকট শব্দে বিস্ফোরণ ঘটে। বিস্ফোরণের পরপরই বাড়ির অন্য সদস্যরা পালিয়ে যান। পরে পর ঘরের ভেতরে একজনের রক্তাক্ত নিথর দেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়। হবিরবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তোফায়েল আহমেদ বাচ্চু গণমাধ্যমকে জানান, বোমা বিস্ফোরণের পর দুই সন্তানকে নিয়ে পালিয়ে যান নিহতের স্ত্রী। পরে মসজিদের মাইকে তাদের ধরতে জনসাধারণের সহযোগিতা চাওয়া হয়। রাত সাড়ে ৯টার দিকে হবিরবাড়ী বাসন্ট্যান্ড এলাকা থেকে ওই তিনজনকে আটক করে পুলিশ। বাড়ির মালিক আজিম উদ্দিনের বরাত দিয়ে পুলিশ সুপার জানান, সুতার ব্যবসায়ী পরিচয় দিয়ে স্ত্রী পারভীন আক্তার ও দুই ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে গত ২৪ অগাস্ট ওই বাড়িতে ওঠে ৩৫ বছর বয়সী ওই ‘জঙ্গি’। তখন সে তার নাম বলেছিল আবদুল্লাহ, বাড়ি কুষ্টিয়ায়। আর/ডব্লিউএন

নেত্রকোনায় স্ত্রী হত্যা, স্বামী আটক

নেত্রকোনায় স্ত্রী খুনের ঘটনায় সাইফুল ইসলাম (২৮) নামের একজনকে আটক করেছে পুলিশ। রোববার রাত পৌনে ৮টার দিকে পারিবারিক কলহের জেরে নেত্রকোনা সদর উপজেলার সিংহের বাংলার ইউনিয়নের ফরিদপুর নয়াপাড়া গ্রামের নজরুল ইসলামের মেয়ে রুমা আক্তারকে (২৩) কুপিয়ে হত্যা করে তার মাদকাসক্ত স্বামী। ঘাতক সাইফুল একই এলাকার ধিতপুর গ্রামের হেকমত আলীর ছেলে। সে আট বছর আগে রুমা আক্তারকে বিয়ে করে শ্বশুর বাড়িতে বসবাস করছিল। নেত্রকোনা মডেল থানার এসআই আল আমিন গণমাধ্যমকে জানান, রোববার রাতে অভিযান চালিয়ে নিহতের স্বামী সাইফুলকে আটক করা হয়েছে। মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্যে সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। আর/ডব্লিউএন

ধর্ষণ মামলায় সাবেক ছাত্রলীগ নেতা কারাগারে

ময়মনসিংহে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের মামলায় সাবেক এক ছাত্রলীগের নেতাকে কারাগারে পাঠিয়েছেন নারী ও শিশু নির্যাতন আদালত। বৃহস্পতিবার দুপুরে ময়মনসিংহের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের বিচারক হেলাল উদ্দিন এ আদেশ দেন। ওই ছাত্রলীগ নেতার নাম আলমগীর কবির। তিনি ভালুকা উপজেলার হবিরবাড়ী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি। জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের উপপরিদর্শক ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন গণমাধ্যমকে জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করেন এ ছাত্রলীগ নেতা। আদালত জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাঁকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। আর/ডব্লিউএন

ময়মনসিংহে ২ জনকে খুন করে গরু ডাকাতি

ময়মনসিংহ সদর উপজেলায় দুইজনকে খুন করে আকাশী অ্যাগ্রো নামের একটি খামারে গরু ডাকাতির খবর পাওয়া গেছে। রোববার রাতে উপজেলার পোটামারা গ্রামে ওই খামার থেকে ১০টি গরু ডাকাতির অভিযোগ পাওয়া গেছে। সেখান থেকে উদ্ধার করা হয়েছে খামারের এক পাহারাদার ও স্থানীয় একজনের লাশ। নিহতরা হলেন ওই গ্রামের ইদ্রিস আলী (২৮) ও মোজাফফর হোসেন (৪৫)। খামারের পাহারাদার আব্দুল হামিদ বলেন, আট-দশ ডাকাতের একটি দল ইদ্রিসকে খুন করে হাত-পা বেঁধে পাশের পুকুরে ফেলে দেয়। আর আমাকে মারধর করে হাত-পা বেঁধে রাখে। এরপর সকালে খামারের কাছের বাগান থেকে স্থানীয় বাসিন্দা মোজাফফরের লাশও উদ্ধার করে। খামারের পরিচালক হারুন অর রশিদ বলেন, ডাকাতদের দেখে ফেলায় মোজাফফরকে খুন করে থাকতে পারে। ইদ্রিস চার মাস আগে সেখানে চাকরি নেন। ডাকাতরা খামারের ১০টি গরু নিয়ে গেছে। এর বাজার দর প্রায় আট লাখ টাকা।   //আর//এআর

স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়ায় স্ত্রীকে হত্যার দায়ে এক ব্যক্তির ফাঁসির আদেশ দিয়েছে আদালত। রোববার ময়মনসিংহের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক হেলাল উদ্দিন এ রায় দেন। মৃত্যুদণ্ড ছাড়াও তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানাও করা হয়। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী কবীর উদ্দিন ভূঁইয়া জানান, হত্যায় জড়িত না থাকায় মামলা থেকে আব্দুল মোতালেব ও মালেকা খাতুনকে অব্যহতি দেওয়া হয়েছে। আদালত উভয় পক্ষের ১৫ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ করে। দণ্ডিত সাইফুল ইসলাম ফুলবাড়িয়ার হাতিলেইট গ্রামের আব্দুল মোতালেবের ছেলে। রায় ঘোষণার সময় অভিযুক্ত তিনজন আদালতে উপস্থিত ছিলেন, যাদের মধ্যে দুজনকে খালাস দেওয়া হয়। এরা হলেন সাইফুলের বাবা ও মা। জানা যায়, সাইফুল ইসলাম বিয়ের পর তার স্ত্রী মর্জিনা খাতুন ওরফে মনিজাকে যৌতুকের দাবিতে ২০১৪ সালে ১০ অক্টোবর রাতে নির্যাতন করে হত্যা করেন। ওই ঘটনায় নিহতের বাবা মহিউদ্দিন মহর বাদী হয়ে সাইফুল ইসলাম তার বাবা আব্দুল মোতালেব ও মা মালেকা খাতুনকে আসামি করে ফুলবাড়িয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। আরকে/ডব্লিউএন

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি