ঢাকা, রবিবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ৩:২২:২১

মানবতার অনন্য দৃষ্টান্ত সত্তরোর্ধ্ব ডালিয়া (ভিডিও)

সত্তরোর্ধ্ব মানবহিতৈষী রাজিয়া সামাদ ডালিয়া। বয়সের সাথে পাল্লা দিয়ে অসহায় মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। চেহারায় নেই কোনো ক্লান্তির ছাপ। গড়ে তুলেছেন ডায়াবেটিস হাসপাতাল। এরই মধ্যে হাত দিয়েছেন হার্ট ফাউন্ডেশন-এর কাজে। শুধু তাই নয়, খেলাঘর থেকে শুরু করে-গড়েছেন বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানও। মানবতার সেবার অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করে শেরপুরের মহিয়সী এই নারী, হয়ে উঠেছেন সবার প্রিয় ডালিয়া আপা। মানবদরদী এই মানুষটির অবসর সময় কাটে বাগান পরিচর্যা আর বই পড়ে। সুযোগ পেলেই নিজের হাতে গড়ে তোলা ডায়াবেটিস হাসপাতালের রোগীদের সেবা করে সময় কাটান। এবার শেরপুরে তার বাবার কবরের পাশে গড়ে তুলছেন হার্ট ফাউন্ডেশন। আমৃত্যু মানব সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রাখতে চান ডালিয়া। অসহায় মানুষকে তিনি করে তুলেছেন স্বাবলম্বী এবং গৃহহীনের জন্য করেছেন গৃহের ব্যবস্থা। অনুপ্রেরণার অপর নাম হয়ে উঠেছেন মানবতার সেবায়, এমনটা মনে করেন শেরপুরের মানুষ। ডালিয়া আপা এভাবেই আজ সবার কাছে হয়ে উঠেছেন অনুকরণীয় এক প্রিয়জন। এসএ/  

নির্মাণাধীন ভবনের ছাদ ধসে শ্রমিক নিহত

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে একটি নির্মাণাধীন ভবনের ছাদ ধসে জাহান (২৪) নামে এক শ্রমিক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ৬ জন। শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে জেলা পরিষদের নির্মাণাধীন অডিটোরিয়ামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত জাহান নেত্রকোনার দুর্গাপুরের বাসিন্দা বলে জানা গেছে। আহতদের গফরগাঁও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। গফরগাঁও থানার ওসি আব্দুল আহাদ জানান, ময়মনসিংহ জেলা পরিষদের অর্থায়নে গফরগাঁওয়ে ডাকবাংলোর সামনে ৫০০ আসনের একটি অডিটোরিয়াম নির্মাণ কাজ চলছিল। আজ শুক্রবার সকালে ছাদ ঢালাইয়ের সময় ধসে পড়লে ঘটনাস্থলেই এক শ্রমিকের মৃত্যু হয় এবং আহত হন আরও ছয় শ্রমিক। এ দুর্ঘটনায় আরও দুই শ্রমিক নিখোঁজ রয়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে বলে জানান ওসি। একে//

জামালপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২

জামালপুরের সদর উপজেলার রশিদপুর ব্রিজ এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। শুক্রবার সকালে ওই দুজনের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহতরা হলেন- মেলান্দহ উপজেলার ফুলকোচা ইউনিয়নের রেখীরপাড়া গ্রামের আফসার উদ্দিনের ছেলে মুক্তা (২৬) এবং একই গ্রামের রেহান আলীর ছেলে রাজন (২৭)। নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, জামালপুর পৌরসভার দেড়শ বছরপূর্তি উপলক্ষ্যে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে জেমসের গান শোনার জন্য বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে রাজন এবং মুক্তা বাড়ি থেকে বের হয়ে জামালপুর শহরে আসেন। পরে রাত ১২টায় অনুষ্ঠান শেষ হওয়ার পর মোটরসাইকেলে ওই দুজন বাড়ি ফিরছিলেন। ফেরার পথে শহরের রশিদপুর ব্রিজ এলাকায় মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে বিদ্যুতের খুঁটিতে ধাক্কা লাগে। এতে ঘটনাস্থলেই দুজনের মৃত্যু হয়। আজ শুক্রবার ভোরে স্থানীয়রা রাজন এবং মুক্তার লাশ রাস্তার পাশে পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ লাশ দুটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জামালপুর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। একে/

ভাষা সৈনিকদের চেনে না নতুন প্রজন্ম [ভিডিও]

বাহান্নর ভাষা আন্দোলনে নেত্রকোণায় যারা রাজপথ কাঁপিয়েছিলেন, নতুন প্রজন্মের অনেকেই তাদের চেনে না। ভাষা সৈনিকদের মধ্যে অনেকেই আজ বেঁচে নেই। যারা বেঁচে আছেন, তারাও এ অবস্থায় ভাষা সংগ্রামের ইতিহাস ধরে রাখার পাশাপাশি ভাষা সৈনিকদের নতুন প্রজন্মের কাছে পরিচয় করিয়ে দিতে উদ্যোগ নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা। নেত্রকোণার ভাষা সংগ্রামের ইতিহাস সংরক্ষণে তেমন কোন উদ্যোগ নেই। বাহান্নর সাহসী সৈনিকদের অনেকেই আজ বেঁচে নেই। অবহেলিত অবস্থায় পড়ে থাকা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ছাড়া নেই কোন স্মৃতিফলকও। তবে এখনো আছেন বর্ষিয়ান দুই ভাষা সৈনিক। কবি ও সাংবাদিক আল-আজাদ ছাত্রাবস্থায় ভাষা সংগ্রামে যুক্ত হন। মিছিল-মিটিং-পিকেটিং এর সাথে যুক্ত ছিলেন তিনি। ১৯৫২ সালে ঢাকা মেডিকেল কলেজের ছাত্র ডা. এম. এ. হামিদ ধর্মঘট মিছিল-মিটিংয়ে ছিলেন সামনে সারিতে। তার নামে হুলিয়া জারি হলে ঢাকা ছেড়ে নেত্রকোণার পুর্বধলায় ছাত্রদের সংগঠিত করেন তিনি। নেত্রকোণায় ভাষা সৈনিকদের নামে স্মৃতিফলক দেখে যেতে চান বর্ষিয়ান ভাষা সংগ্রামীরা। বাহান্ন’র ইতিহাস ও ভাষা সৈনিকদের অবদানের কথা নতুন প্রজন্মের সামনে তুলে ধরতে স্মৃতিফলক নির্মাণের দাবি স্থানীয়দের। দ্রুতই ইতিহাস সংরক্ষণে উদ্যোগ নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন উপজেলা চেয়ারম্যান। এ ব্যাপারে সরকার কার্যকর পদক্ষেপ নেবে বলে আশা করছেন নেত্রকোণাবাসী। এসএইচ/

ভাষাসৈনিকের রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি পাননি ময়মনসিংহের মালেক

৫২’র ভাষা আন্দোলনে রক্তঝরা ফেব্রুয়ারিতে যেসব কিশোর আন্দোলন-সংগ্রামে সামনের কাতারে ছিলেন তাদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন ময়মনসিংহের মুক্তাগাছার খোন্দকার আব্দুল মালেক শহীদুল্লাহ। তবে, ভাষা আন্দোলনের ৬৬ বছর পরেও পাননি রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি ও মর্যাদা। বয়সের ভারে ন্যুব্জ এই ভাষা সৈনিকের এখন দিন কাটে গল্প, আড্ডায় আর পরিবার পরিজন নিয়ে। রাষ্ট্রভাষা বাংলার দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস তখন উত্তাল, অগ্নিগর্ভ। সবখানে একই আলোচনা রাষ্ট্রভাষা বাংলা চাই। এর ঢেউ লাগে ময়মনসিংহের তৎকালীন মহকুমা জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জেও। দেওয়ানগঞ্জ কো-অপারেটিভ স্কুলের ছাত্রদের সঙ্গে ভাষা আন্দোলনের মিছিলে যোগ দেন নবম শ্রেণির কিশোর খোন্দকার আব্দুল মালেক শহীদুল্লাহ। বাড়ি ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় হলেও বাবার সরকারি চাকরির কারণে ওই স্কুলে পড়তেন তিনি। হরতাল, ট্রেন অবরোধ ও মিছিলে নেতৃত্ব দেওয়ায় হারাতে হয় ছাত্রত্ব। তারপরও ভাষা আন্দোলনের লড়াই থেকে দমাতে পারেনি মালেককে। আত্মগোপন আর কারাবরণ কিশোর মালেকের স্বাভাবিক জীবন বিপর্যস্ত করে তোলে। ভাষা সৈনিক আব্দুল মালেকের এখন দিন কাটে বই পড়ে, পরিবার ও স্বজনদের সঙ্গে গল্প করে। ৬৬ বছরেও এই ভাষা সংগ্রামী রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি না পাওয়ায় হতাশ পরিবার ও স্থানীয়রা।আর ভাষা সংগ্রামীদের রাষ্ট্রীয় মর্যাদা দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন শিক্ষাবিদরা। সর্বস্তরে চালু হোক বাংলা ভাষা-পড়ন্ত বেলায় এটাই চাওয়া ভাষা সংগ্রামী খোন্দকার আব্দুল মালেক শহীদুল্লাহ’র। এসএইচ/

ময়মনসিংহের মাদ্রাসাগুলোতে শহীদ মিনার নেই

ময়মনসিংহের অধিকাংশ স্কুল কলেজে ভাষা শহীদদের স্মরণে শহীদ মিনার নির্মাণ করা হলেও নেই মাদ্রাসাগুলোতে। এসব প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের রয়েছে পরস্পর বিরোধী বক্তব্য। শিক্ষা বিভাগীয় কর্মকর্তারা বলেছেন, শহীদ মিনার নির্মাণে সরকারি উদ্যোগ বাস্তবায়নে কাজ করছেন তারা। ময়মনসিংহের ৭৮টি কলেজ ও ৫২৮টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মধ্যে অধিকাংশ প্রতিষ্ঠানেই রয়েছে ভাষা শহীদদের স্মরণে শহীদ মিনার। তবে ব্যতিক্রম ৩৮৮টি মাদ্রাসা। শহীদ মিনার তো নির্মাণ করা হয়নি। ভাষা আন্দোলনের গৌরব সালাম, বরকত, জব্বারসহ কোন ভাষা শহীদদের সম্পর্কেও কিছুই জানে না এসব মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা। অভিযোগ এসব প্রতিষ্ঠানে যথাযথভাবে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসও পালন করা হয় না। প্রতিটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার নির্মাণে সরকারি নির্দেশনা থাকলেও মাদ্রাসা শিক্ষকদের এ নিয়ে রয়েছে পরস্পর বিরোধী বক্তব্য। শিক্ষাবিদরা বলছেন, নতুন প্রজন্মকে দেশ প্রেমে উদ্বুদ্ধ করতে প্রতিটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার নির্মাণ করা জরুরি। এদিকে মাদ্রাসাগুলোতে শহীদ মিনার নির্মাণে উদ্যোগের কথা জানালেন বিভাগীয় শিক্ষা কর্মকর্তা। তবে বিষয়টি শুধু কথার মধ্যে সীমাবদ্ধ না রেখে কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা। এসএইচ/

শেরপুরে রেললাইন দাবিতে শতপদী পদযাত্রা

শেরপুরে রেললাইনের দাবিতে ব্যতিক্রমী ‘শতপদী পদযাত্রা’ অনুষ্ঠিত হয়েছে। নাগরিক সংগঠন জন উদ্যোগের আয়োজনে পদযাত্রাটি বুধবার শেরপুর শহর প্রদক্ষিণ করে। পদযাত্রায় দলমত নির্বিশেষে বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার সর্বস্তরের মানুষ অংশ নেয়। বুধবার সকাল বেলা ১১টার দিকে শহরের চকবাজার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে পদযাত্রাটি শুরু হয়ে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে গিয়ে শেষ হয়। পরে জেলা প্রশাসকের কাছে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে লিখিত স্মারকলিপি হস্তান্তর করা হয়। পদযাত্রা শুরুর আগে চকবাজার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের পাদদেশে গণজমায়েত হয়। এতে শেরপুর জেলা সদরকে অন্তর্ভুক্ত করে শেরপুরে দ্রুত রেললাইন স্থাপনের দাবি জানানো হয়। বক্তারা বলেন, সম্ভাবনাময় শেরপুর জেলার পর্যটন শিল্পের বিকাশ, নাকুগাঁও স্থলবন্দর কেন্দ্রিক ব্যবসা বাণিজ্যের উন্নয়ন, রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশের সঙ্গে যোগাযোগ ব্যবস্থা সহজ করা জরুরি। এজন্য শেরপুরে রেল সার্ভিস চালু এখন সময়ের দাবি। জেলা প্রশাসকের কাছে দেওয়া স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়, শেরপুরে রেলপথ স্থাপন করার ব্যাপারে ব্রিটিশ সরকার ১৯৩০-৪০ এর দশকে প্রথম পরিকল্পনা গ্রহণ করলেও ১৯৪৭ খ্রিস্টাব্দে ভারত-পাকিস্তান বিভক্তির পর বিষয়টি চাপা পড়ে যায়। বাংলাদেশ স্বাধীন হবার পর ১৯৭০-এর দশকের শেষের দিকে পুনরায় জামালপুর-রাংটিয়া ভায়া শেরপুর রেলপথ স্থাপনের সম্ভাব্যতা যাচাই শুরু হয়। কিন্তু সেটিও আর আলোর মুখ দেখেনি। ২০১৪ সালের ৮জুন তৎকালীন রেলমন্ত্রী পিয়ারপুর থেকে শেরপুরে রেলপথ স্থাপনের ঘোষণা দেন। এজন্য প্রাথমিক সম্ভাব্যতা যাচাই কাজও শুরু হলেও অদ্যাবধি অগ্রগতি খুব একটা দৃশ্যমান হয়নি। / আর / এআর  

ময়মনসিংহে ভুয়া ডিবি পুলিশ আটক

ময়মনসিংহ কারাগারের সামনে থেকে দুই ভুয়া গোয়েন্দা পুলিশকে আটক করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জামিনে মুক্ত এক আসামিকে তুলে নেওয়ার সময় তাদেরকে আটক করা হয়। আটককৃতরা হলেন- ময়মনসিংহ শহরের সানকিপাড়ার রনি মিয়া (৩৮) ও মীর হোসেন হৃদয় (৪২)। সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ শাহরিয়ার মো. মিয়াজি জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মোজাম্মেল হক নামে এক আসামি জামিনে মুক্ত পেয়ে বের হয়। এ সময় ফটকের সামনে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে তাকে দুই ব্যক্তি আটক করে। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে ধস্তাধস্তি হয়। এবং টাকা না দিলে অন্য মামলায় আবারও কারাগারে ঢুকিয়ে দেওয়া হবে বলে হুমকী দেয়। এসময় কারারক্ষীদের সন্দেহ হয়। এবং তারা ওই দুই ব্যক্তির পরিচয় নিশ্চিত করতে বলেন। পরে জিজ্ঞাসাবাদে তারা ভুয়া ডিবি পুলিশ বলে প্রমাণিত হয়।   একে//এসএইচ

ময়মনসিংহে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবক নিহত

ময়মনসিংহের শহরতলীতে পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নাম মোহাম্মদ নাঈম নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। তিনি একজন পেশাদার ছিনতাইকারী ছিলো বলে দাবি পুলিশের। গতকাল বুধবার দিবাগত রাতে বলাশপুর বালুচরে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে কয়েকটি বিস্ফোরিত ককটেলের অংশ, চাপাতিসহ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে কোতোয়ালী মডেল থানার পুলিশ। জেলা গোয়েন্দা পুলিশের উপপরিদর্শক পরিমল দাস জানান, গত ১৯ জানুয়ারি রাতে বলাশপুর বাজার এলাকায় ছিনতাইকারী ছুরিকাঘাতে খুন হওয়া কলেজছাত্র ইব্রাহীম খলিল হত্যায় জড়িত সন্দেহে বুধবার রাতে নাঈমকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে তাঁর দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, অন্য ছিনতাইকারীদের ধরতে বালুচরে যৌথ অভিযান চালায় পুলিশ। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ছিনতাইকারীরা পুলিশের দিকে ককটেল নিক্ষেপ ও গুলি ছুড়ে। এ সময় পুলিশও পাল্টাগুলি ছুড়লে গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান নাঈম। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন কোতোয়ালী মডেল থানার এসআই মাহবুব ও গোয়েন্দা পুলিশের কনস্টেবল রাশেদ। তাদের ময়মনসিংহ পুলিশ লাইনস হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। ঘটনাস্থল থেকে কয়েকটি বিস্ফোরিত ককটেলের অংশ, চাপাতিসহ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। এ ব্যাপারে আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় জেলা পুলিশের সভাকক্ষে সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত জানানো হবে। একে// এআর

প্রযোজক নূরুল ইসলাম রাজ আর নেই

কল্লোল কথাচিত্র ও কল্লোল সিনেমা হলের মালিক পুরস্কারপ্রাপ্ত চলচ্চিত্র প্রযোজক মো. নূরুল ইসলাম রাজ আর নেই। গত ২৩ জানুয়ারি মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ইন্তেকাল করেন তিনি (ইন্না লিল্লাহি ... রাজিউন)। তার মৃত্যুতে মধুপুরে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। আজ বুধবার পৌর শহরের টেংরী ঈদগাহ মাঠে মরহুমের নামাজের জানাযা শেষে সামাজিক করস্থানে দাফন করা হয়েছে। মো. নূরুল ইসলাম রাজ মধুপুরের কৃতি সন্তান মরহুম ময়েজ উদ্দিন সরকারের মেঝপুত্র এবং মধুপুর পৌরসভার তিনবারের মেয়র শহিদুল ইসলাম সরকারের (সরকার শহিদ) বড় ভাই। মো. নূরুল ইসলাম রাজ ১৯৬৩ সালের ১ জানুয়ারি শহরের সরকার পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি একাধারে মধুপুর ডিগ্রি কলেজের দাতা সদস্য, মধুপুর ক্লাবের সহ সভাপতি, ট্রাক মালিক সমিতির প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক, নির্মাণ প্রকৌশল শ্রমিক ইউনিয়নের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক, মধুপুর শ্রমিক ঐক্য পরিষদেও (বর্তমানে শ্রমিক ফেডারেশন) প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এবং বাংলাদেশ সিনেমা হল মালিক সমিতির সহ সভাপতি। উল্লেখ্য, তিনি শ্রেষ্ঠ বাংলা ছায়াছবি ‘আনন্দ অশ্রু’র জন্য টেলিভিশন দর্শক অ্যাওয়ার্ড, সুস্থ্য সিনেমা ‘আনন্দ অশ্রু’র জন্য মীর মশাররফ হোসেন স্বর্ণ পদক, জিসাস স্বর্ণ পদক এবং বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া মাল্টিকালচারাল অ্যাসোসিয়েশন বিশেষ সম্মাননা পদক পেয়েছেন। এসএ/  

শেরপুরে খুনের মামলার সালিসে আরেক খুন

শেরপুরে আট বছর আগের একটি হত্যা মামলার সালিসি বৈঠকে দুই পক্ষের সংঘর্ষে এক যুবক নিহত হয়েছেন। নিহত যুবকের নাম মিস্টার আলী (৩২)। শুক্রবার (১৯ জানুয়ারি) সন্ধ্যার দিকে সদর উপজেলার চরপক্ষীমারী ইউনিয়নের টাকিমারী গ্রামে খুনের এ ঘটনা ঘটে। নিহত মিস্টার আলী টাকিমারী গ্রামের মৃত শিকু মিয়ার ছেলে। শনিবার নিহতের লাশে ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়। স্থানীয়দের বরাত দিয়ে শেরপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম জানান, আট বছর আগের কুদ্দুস হত্যা মামলার আপস-রফার জন্য শুক্রবার সন্ধ্যায় বাদী ও আসামিপক্ষদের নিয়ে স্থানীয় মাতবররা সালিসি বৈঠকে বসেন। বৈঠকের এক পর্যায়ে উভয় পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এসময় বাদীপক্ষের লোকজন মিস্টারের মাথায় লাঠি দিয়ে আঘাত করলে তিনি গুরুতর আহত হন। পরে তাকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। ওতি জানান, এ ঘটনায় নিহত মিস্টারের মা হরবালা বেগম বাদী হয়ে ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। আসামিদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান চলছে বলেও জানান তিনি।   আর/টিকে

ময়মনসিংহে ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত

ময়মনসিংহে ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে ইব্রাহিম (২৫) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার রাত ২টার দিকে পাটগুদাম ব্রিজ মোড়ে এ ঘটনা ঘটে। নিহতের বাড়ি গফরগাঁও উপজেলায় বলে জানিয়েছেন কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি খন্দকার শাকের আহমেদ। পুলিশ জনায়, বাড়ি যাওয়ার জন্য রাতে পাটগুদাম ব্রিজ মোড়ে গাড়ির অপেক্ষা করছিলেন ইব্রাহিম। এ সময় কয়েকজন ছিনতাইকারী মোবাইল ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করলে বাধা দেওয়ায় তাকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায় ছিনতাইকারীরা। পরে ইব্রাহিমকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য শুক্রবার এক রিকশা চালককে আটক করেছে পুলিশ। একে/এসএইচ

সুদের টাকা দিতে না পারায় বিষ খাইয়ে হত্যা

সুদের টাকা শোধ করতে না পারায় ময়মনসিংহে রায়হান ওরফে রানা নামে এক মোবাইল মিস্ত্রিকে নির্যাতনের পর বিষ খাইয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। সোমবার রাতে এ ঘটনা ঘটে।পরিবার ও স্থানীয়দের অভিযোগ,  সদর উপজেলার শস্যমালা বাজারে মোবাইল মেরামতের কাজ করতেন রানা। এক বছর আগে বোনের বিয়ের জন্য আজমতপুর গ্রামের শরিফুলের কাছ থেকে ১০ হাজার টাকা ঋণ নেন। গত দু’তিন মাস ধরে সুদের টাকা দিতে না পারায় রানার সঙ্গে শরিফের বিরোধ চলছিল।প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, এ নিয়ে গত সোমবার দু’জনের মাঝে ঝগড়ার পর সন্ধ্যায় রানাকে দোকান থেকে তুলে নিয়ে যায় শরিফুল ও তার সহযোগীরা। পরে রানাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই তার মৃত্যু হয়। তার পরিবারের অভিযোগ, রানাকে খুন করা হয়েছে। অপরাধীদের বিচার দাবি করেছে তার স্বজন ও এলাকাবাসী।রানার মৃত্যুর পর থেকে গা ঢাকা দিয়েছে শরিফুল ও তার সহযোগীরা। তবে শরিফুলকে নির্দোষ দাবি করেছে তার পরিবারের সদস্যরা।এদিকে, রানার মৃত্যর ঘটনায় কোতোয়ালী মডেল থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।সঠিক তদন্তে রানার মৃত্যুর রহস্য উন্মোচন ও দোষীদের বিচার দাবি করেছেন এলাকাবাসী।/ এআর

ময়মনসিংহে চাষ হচ্ছে সৌদির খেজুর

খেজুর বা খুরমা মানেই সৌদি আরব বা মরু অঞ্চলের ফল। মরুভূমিতেই এর চাষ হয়। বাংলাদেশে এ ফলের চাষ অনেকের কাছে অবাস্তব। কিন্তু এই অবাস্তবকেই বাস্তবে পরিণত করেছে ময়মনসিংহের মোতালেব মিয়া। নিজ উদ্যোগে নাতিশীতোষ্ণ বাংলাদেশে ফলিয়েছেন উত্তপ্ত আবহাওয়ার দেশ সৌদি আরবের খেজুর। আর এর মাধ্যমে বেকারত্বেরর গ্লানি মুছে তিনি পরিচিতি পেয়েছেন সফল উদ্যোক্তা হিসেবে। এখন তার নেই অর্থের টানাপোড়েন। খেজুর চাষে ঘুরেছে ভাগ্যের চাকা, বেড়েছে সামাজিক মর্যাদা। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ঢাকা-ময়মনসিংহ সড়কের ভালুকা সিডস্টোর বাজার থেকে সখিপুর সড়কে তিন কিলোমিটার পশ্চিমে তার সৌদি খেজুর বাগান। সেখানে চাষ হচ্ছে আজুয়া, শুক্কারী ও বকরী জাতের খেজুর। সবাইকে অবাক করে দিয়ে মাটির সঙ্গে মিশে থাকা গাছেও ধরছে ফলন। বাগানে শত শত গাছ সারিবদ্ধভাবে লাগানো রয়েছে। গাছে সেচ দেওয়ার জন্য রয়েছে কয়েক হাজার বড় ফুট প্লাস্টিকের পাইপ। তার বাগানে ঢুকলেই মনে হবে ব্যক্তি উদ্যোগে খেজুর চাষে সত্যিই এক অসম্ভব কর্মযজ্ঞের প্রমাণ দিয়েছেন তিনি। আর তাই এক সময়ের সৌদি প্রবাসী দেশে ফিরে এখন রীতিমতো কোটিপতি। মাটির ছোট একটি ঘর থেকে তিনি বাস করছেন ইটের দ্বিতল দালানে। সৌদি খেজুরের বাগান করে যে সফলতা পেয়েছেন সারা জীবন সৌদি আরব থাকলেও সফলতা আসত কী না তা নিয়ে সংশয় রয়েছে তার। জানা যায়, নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তান মোতালেব আর্থিক টানাপড়েনে মধ্যেই ১৯৯৭ সালে পাড়ি জমান সৌদি আরব। সেখানে তিনি মাসিক ৫০০ রিয়াল বেতনে খেজুরবাগানে চাকরি নেন। তিনি আবুধাবি ও দোবাইসহ বিভিন্ন এলাকার খেজুর বাগান পরিদর্শন করে অতি অল্প সময়ে খেজুর চাষের ব্যাপারে অভিজ্ঞতা অর্জন করেন। তার ইচ্ছে জাগে তিনি দেশে ফিরে খেজুর বাগান করবেন। নিজস্ব চিন্তার আলোকে ২০০১ সালে ৩৫ কেজি কাঁচা খেজুর নিয়ে তিনি দেশে ফিরেন। খেজুরের বীজ থেকে চারা উৎপাদন করেন। তিনি বাড়িসংলগ্ন ১০ কাঠা জমিতে সেই চারা রোপণ করে পরিচর্যা শুরু করেন। বাংলাদেশে সৌদি খেজুর চাষ করা নিয়ে এলাকার মানুষ তখন বলাবলি করেন, মোতালেবের মাথা খারাপ হয়ে গেছে। খেজুর বাগান করে এলাকায় এক সময়ের মাথা খারাপ মোতালেব এখন খেজুর মোতালেব হিসেবে পরিচিত। মোতালেবের স্ত্রী মজিদা বেগম শুরুতে স্বামীর এমন কর্মকাণ্ডে হতবিহ্বল হয়ে পড়লেও সব সময় সহযোগিতা করতে থাকেন। আগাছা পরিষ্কার, পানি সেচ, সার গোবর দেওয়াসহ গাছের পরিচর্যা শুরু করেন। তিন বছরের মাথায় চারাগাছে প্রথম খেজুর ফললে আসে কাঙ্ক্ষিত সফলতা। অবশেষে ২০০৬ সালে দু’টি চারাগাছে খেজুর টিকলে তার স্বপ্ন পূরণ হয়। এসব খেজুর থেকেও তিনি এলাকার লোকজনদের খাইয়ে বীজ রেখে দিয়ে চারা উৎপাদন করতে থাকেন। আস্তে আস্তে ফল ধারক গাছের সংখ্যা বাড়তে থাকে। মোতালেবের খেজুরবাগান সারা দেশে পরিচিতি লাভ করে। মোতালেব অসাধ্য সাধন করে বুঝিয়ে দিলেন বাংলাদেশের মাটি সৌদির মতো মিষ্টি খেজুর উৎপাদনে যথেষ্ট উপযোগী। ১৪ বছরে তিনি অধিক মূল্যে অনেক গাছ খেজুরসহ বিক্রি করে কোটি টাকা উপার্জন করেছেন। বর্তমানে তার রয়েছে তিনটি খেজুরের বাগান। বাড়িসংলগ্ন বাগানে এ বছর ১৫-২০টি গাছে প্রচুর খেজুর ধরেছে। তিনি তার বাগানের খেজুর, চারা ও গাছ বিক্রি করে জীবনে আর্থিক সাফল্য পেয়েছেন। এক সময় বাবার দেওয়া একটি মাটির ঘরে স্ত্রী সন্তান নিয়ে বসবাস করতেন। খেজুর বাগান করার পর তিনি চার দিকে বেষ্টনী প্রাচীর, দর্শনার্থীদের বিশ্রামাগারসহ নিজের একটি বহুতল ভবনের দোতলা পর্যন্ত নির্মাণকাজ শেষ করে সেখানে বসবাস করছেন। বড় ছেলে মোফজ্জল (১৭) এইচএসসিতে লেখাপড়া করে, ছোট ছেলে মিজান (১১) পঞ্চম শ্রেণীতে পড়ে। বড় মেয়ে মর্জিনার (২০) বিয়ে হয়েছে। বর্তমানে স্ত্রী সন্তান নিয়ে সুখের সংসার। বাগান মালিক মোতালেব মিয়া জানান, বিভিন্ন সময়ে তার বাগান পরিদর্শনে অনেকে আসলেও কৃষি বিভাগের পক্ষ থেকে কোনো সহযোগিতা এখনো পাননি তিনি। তার বাগানের খেজুর চারা উৎপাদনের উপযোগী হওয়ায় এক কেজি চারা উৎপাদন যোগ্য খেজুর চার হাজার টাকা পর্যন্ত বিক্রি হয়ে থাকে। তিনি মনে করেন যাদের উঁচু পতিত চালা জমি রয়েছে; তারা সৌদি খেজুরের চাষ করে সহজেই অর্থনৈতিকভাবে প্রতিষ্ঠা পেতে পারেন। আর যারা লেখাপড়া করে বেকার জীবন কাটাচ্ছেন তারাও খেজুরবাগান করে বেকারত্ব ঘোঁচাতে পারেন। মোতালেব আরও বলেন, আমি আরো জায়গা বাড়াবো। মোট তিন একর জমির ওপর আমার খেজুর বাগান হবে। আগামী ২০১৯ সালে আরো এক একর জায়গাতে আমার খেজুরের চাষ বাড়ানো হবে। তিনি জানান, সৌদি আরবে খেজুর চাষ করে কিন্তু সার প্রয়োগ করে না। আমরা সার দেওয়ার কারণে তাদের চেয়ে আমাদের খেজুর আকারে আরো বড় হয়। আরকে//

ময়মনসিংহে হুমগুটি খেলায় তেলিগ্রাম বিজয়ী

ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়ায় ঐতিহ্যবাহী হুমগুটি খেলায় তেলিগ্রাম বিজয়ী হয়েছে। শনিবার পৌষের শেষ বিকেলে লক্ষিপুরের বড়ই আটা নামক স্থানে হুমগুটি খেলাটি অনুষ্ঠিত হয়। এসময় হুমগুটি স্মৃতি সংসদের উপদেষ্টা জেলা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কুদ্দুছ, সভাপতি আবু বক্কর সিদ্দিক, জেলা পরিষদ সদস্য তাজুল ইসলাম বাবলু, বালিয়ান ইউপি‘র সাবেক চেয়ারম্যান মফিজ উদ্দিন মণ্ডল উপস্থিত ছিলেন। স্থানীয়রা জানান, ময়মনসিংহ সদর, মুক্তাগাছা, ত্রিশাল ও ফুলবাড়িয়া উপজেলার হাজার হাজার খেলোয়ার এতে অংশ নেন। রাত ৯টা পর্যন্ত চলে গুটি নিয়ে টানাটানি। পরে তেলিগ্রামের বাসিন্দারা ২শ ৫৯তম খেলায় হুমগুটি নিজেদের আয়ত্বে রাখতে সক্ষম হয় এবং তারা বিজয়ী হয়। পৌষ মাসের শেষ দিনকে ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলায় আঞ্চলিক ভাষায় বলা হয় পুহুরা। এই দিনেই একই সময়ে একই স্থানে যুগ যুগ ধরে অনুষ্ঠিত হচ্ছে হুমগুটি নামক এ খেলা। হুমগুটি হচ্ছে ৩০ কেজি ওজনের একটি পিতলের তৈরি গোলাকার বস্তু। এ গোলাকার বস্তুটি নিয়ে হাজারো মানুষের কাড়াকাড়িতে মাঠে সকলের মুখে উচ্চারিত হয় ‘জিতই আবা দিয়া গুটি ধররে হেইও........।’ উত্তর, দক্ষিণ, পূর্ব ও পশ্চিম ভাগবাটোয়ারা করে খেলা শুরু হলেও পরে আর কোন দিক থাকে না খেলোয়ারদের। ৩০ কেজি ওজনের পিতলের গুটি মাঠে আসার পরই গুটির উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে হাজার জনতা। টানাহেচড়া ধাক্কাধাক্কি সবই হয় এ খেলায়, তবে হয় না কোন সংঘর্ষ।   জনশ্রুতি আছে , প্রজাদের শক্তি পরীক্ষার জন্য নাকি জমিদাররা এ খেলাটির প্রচলন করেছিলেন প্রায় আড়াইশ বছর আগে। স্থানীয় মোড়ল পরিবার ধারাবাহিকভাবে প্রতিবছর পৌষের শেষ বিকালে খেলাটি চালিয়ে আসছে বলে জানিয়েছেন মোড়ল পরিবারের কাদু মোড়ল (৫৫)।

জামালপুরে ট্রাকচাপায় নিহত ২

জামালপুরের মেলান্দহে উপজেলায় ট্রাকের চাপায় পিষ্ট হয়ে দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন আরো তিন জন। শনিবার সন্ধ্যায় উপজেলার নয়ানগর ইউনিয়নের কাঙ্গালকুর্শা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- নয়ানগর ইউনিয়নের মেঘারবাড়ি গ্রামের ফুল মিয়ার ছেলে মামুন (২৮) এবং চরগোয়ালীনি ইউনিয়নের ডিগ্রিরচর গ্রামের চাঁন মিয়ার ছেলে মো. জাহাঙ্গীর আলম(৩২)। মেলান্দহ থানার এসআই মো. রফিকুল ইসলাম জানান, আজ সন্ধ্যা ৬টার দিকে জামালপুর-দেওয়ানগঞ্জ সড়কের নয়ানগর ইউনিয়নের ডেফলা ব্রিজ সংলগ্ন কাঙ্গালকুর্শা এলাকায় একটি ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বিপরীত দিক থেকে আসা দুই মোটরসাইকেলকে চাপা দেয়। তিনি বলেন, এ সময় মোটরসাইকেলের আরোহী মামুন এবং জাহাঙ্গীর আলম ঘটনাস্থলেই মারা যায়। স্থানীয়রা ঘটনাস্থল থেকে অপর তিন আরোহীকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। নিহত দুইজনের মরদেহ মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে জানান তিনি।   আর

ময়মনসিংহের ফুলপুরে ইসলামী ব্যাংকের শাখা উদ্বোধন

ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড-এর ৩৩১তম শাখা ময়মনসিংহের ফুলপুরে উদ্বোধন করা হয়েছে। মঙ্গলবার ময়মনসিংহের ফুলপুরে শাখাটির উদ্বোধন করেন ব্যাংকের চেয়ারম্যান আরাস্তু খান। ব্যাংকের এডিশনাল ম্যানেজিং ডাইরেক্টর মো. মাহবুব উল আলম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ফুলপুর পৌর মেয়র মো. আমিনুল হক, ফুলপুর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো. হাবিবুর রহমান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মনোয়ারা বেগম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাশেদ হোসেন চৌধুরী। “ইসলামী ব্যাংকিংয়ের শ্রেষ্ঠত্ব” শীর্ষক আলোচনা করেন ব্যাংকের এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং শরীয়াহ্ সেক্রেটারিয়েট প্রধান মো. শামসুল হুদা। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ময়মনসিংহ জোনপ্রধান আবু সাঈদ মো. ইদ্রিস ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন শাখা ব্যবস্থাপক মো. আ. হান্নান। অনুষ্ঠানে আরাস্তু খান বলেন, ইসলামী ব্যাংক ন্যায়, নীতি ও শরীয়াহ্ আলোকে পরিচালিত হয়। নিয়ন্ত্রণকারী সকল সংস্থা ও দেশের সকল নিয়ম-নীতি যথাযথ পরিপালনের মাধ্যমে ইসলামী ব্যাংক দেশের সর্ববৃহৎ ব্যাংক। দেশের আপামর জনগণের আস্থার ফলে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশের একমাত্র ব্যাংক হিসেবে বিশ্বের শ্রেষ্ঠ এক হাজার ব্যাংকের তালিকায় অন্তর্ভূক্ত হওয়ার মর্যাদা অর্জন করতে পেরেছে। ইসলামী ব্যাংক ধর্ম, বর্ণ, গোত্র নির্বিশেষে সকল মানুষের ব্যাংক।   আর

ময়মনসিংহে অস্ত্র তৈরির সরঞ্জামসহ যুবক আটক

ময়মনসিংহ শহরের আকুয়া মিলনবাগ এলাকার একটি বাসায় অভিযান চালিয়ে চারটি পিস্তল, সাত রাউন্ড গুলি ও অস্ত্র তৈরির সরঞ্জামসহ সোহেল নামে একজনকে আটক করেছে র‌্যাব। বুধবার দুপুরে সাংবাদিক সম্মেলনে এ তথ্য জানান র‌্যাবের অধিনায়ক শরিফুল ইসলাম। সাংবাদিক সম্মেলনে বলা হয়, মিলনবাগের মাইনুদ্দিনের বাসায় ছোট আকারের কারখানা গড়ে তোলে পিস্তলসহ দেশীয় অস্ত্র তৈরি করা হতো। এ অস্ত্র ময়মনসিংহসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় বিক্রি করার কথা জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছে আটককৃত সোহেল। তিনি আরও জানান, সোহেল অস্ত্র ব্যবসায়ী নূর উদ্দিনের সহযোগী হিসেবে ও কারিগর হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছে। অভিযানের সময় বাসার মালিক মাইনুদ্দিনের পুত্র আরমানকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করার কথা জানান র‌্যাব অধিনায়ক। এসএইচ/

আলোর পথে ১৮৯ মাদকসেবী

জামালপুর জেলার ১৮৯ জন মাদকসেবী ও মাদক ব্যবসায়ী তাদের অন্ধকার জীবন ছেড়ে আলোর পথে ফিরে এসেছেন। আজ বৃহস্পতিবার জামালপুর পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক অনুষ্ঠানে তারা মাদক ছেড়ে সুস্থ জীবনে ফিরে আসার অঙ্গীকার করেন। পুলিশ সুপার দেলোয়ার হোসেনের সভপতিত্বে মাদকসেবী ও ব্যবসাীয়দের স্বেচ্ছায় আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পুলিশের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক মো. মোখলেছুর রহমান। বক্তব্য রাখেন, জেলা প্রশাসক আহমেদ কবীর, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফারুক আহমেদ চৌধুরী, পৌর মেয়র মির্জা সাখাওয়াতুল আলম মনি, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট বাকী বিল্লাহ, সরকারি আশেক মাহমুদ কলেজের অধ্যক্ষ মুজাহিদ বিল্লাহ ফারুকী, সিভিল সার্জন ডা. মোশায়ের উল ইসলাম, মুক্তিযোদ্ধা সুজায়াত আলী। অনুষ্ঠানে মোখলেছুর রহমান বলেন, স্বেচ্ছায় মাদক ছেড়ে দেয়ায় সবার চিকিৎসা ও পুনর্বাসনে সব ধরনের সহযোগিতা করা হবে। তিনি বলেন, মাদকের ব্যাপারে আমাদের সব সময় জিরো টলারেন্সে থাকতে হবে। যে কোনো দলের কোনো নেতা এমনকি পুলিশের কোনো সদস্য এর সঙ্গে যুক্ত থাকলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিতে হবে। অনুষ্ঠানে মাদকসেবীরাও বক্তব্য রাখেন। আর/ডব্লিউএন

নবম ওয়েজবোর্ডের দাবিতে ময়মনসিংহে বিএফইউজের মানববন্ধন

নবম ওয়েজবোর্ড গঠন দাবি ও এটি ঘোষণায় ব্যর্থতার দায়ে তথ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবিতে ময়মনসিংহে মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে)। শনিবার ময়মনসিংহ প্রেস ক্লাব চত্বরে আয়োজিত এই মানববন্ধনে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি এবং একুশে টেলিভিশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও প্রধান সম্পাদক মনজুরুল আহসান বুলবুল, সংগঠনটির মহাসচিব ওমর ফারুক, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি শাবান মাহমুদসহ সাংবাদিক নেতারা অংশ নেন। মানববন্ধনে বিএফইউজের সভাপতি বলেন, নবম ওয়েজবোর্ড গঠনের দাবিতে দুই বছর ধরে আন্দোলন করছেন সাংবাদিকরা। তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুর ব্যর্থতার কারণেই ওয়েজবোর্ড হচ্ছে না। সাংবাদিক নেতারা দ্রুত নবম ওয়েজ বোর্ড ঘোষণা ও তথ্যমন্ত্রীর পদত্যাগের দাবি জানান। / এআর /

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

শেরপুরের নকলা উপজেলা চেয়ারম্যান মাহাবুব আলী চৌধুরী ওরফে মুনির চৌধুরীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার পৌরশহরের ইশিদপুর এলাকায় নিজ বাড়ি থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত মাহবুব এবারই প্রথম উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হন। তিনি জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক এবং উপজেলার চরঅষ্টধর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ছিলেন। নকলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খান আবদুল হালিম সিদ্দিকী বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, তিনি গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে আত্মহত্যা করেছেন। লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করার পর ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে। মুনির চৌধুরী সাবেক হুইপ প্রয়াত জাহেদ আলী চৌধুরীর ছোট ভাই। তিনি ২০১৪ সালে নকলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। মাহবুব আলী চৌধুরী নকলা উপজেলা বিএনপির সভাপতি ছিলেন। এর আগে তিনি একাধিকবার চরঅষ্টধর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ছিলেন। আর/ডব্লিউএন

ময়মনসিংহে ডাকাতের গুলিতে পুলিশ সদস্য আহত

ময়মনসিংহে ‘ডাকাতের’ গুলিতে এক পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় এক ডাকাতকে আটক করা হয়েছে। জেলার ভালুকা উপজেলায় মেহেরাবাড়ি এলাকায় মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। ভালুকা থানার ওসি মামুন অর রশিদ জানান, মেহেরবাড়ি এলাকায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের পাশে আব্দুল আহাদের মুদি দোকানে হানা দেয় তিন ডাকাত। আহাদের চিৎকারে টলহ পুলিশ এগিয়ে গেলে ডাকাতরা গুলি ছোড়ে। এতে কনস্টেবল রাসেলের হাতে ও পায়ে গুলি লাগে। তিনি বলেন, আহত কনস্টেবল রাসেলকে (৩৮) প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে, পরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় স্থানীয়রা আব্দুস ছাত্তার (২৫) নামে এক ডাকাতকে আটক করে পুলিশ দেয়। আর/ডব্লিউএন  

© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি