ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ অক্টোবর, ২০১৭ ২:৩২:২৪

এভাবে গুণী মানুষদের ছোট করতে নেই : আগুন

এভাবে গুণী মানুষদের ছোট করতে নেই : আগুন

‘এভাবে গুণী মানুষদের ছোট করতে নেই। আমার বাবাকে দেশের সবাই চেনেন ও জানেন। আজকে হঠাৎ তাকে রাজাকার বলে দিলেই তাকে খাটো করা যাবে না। আমি যদি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের মানুষ হয়ে থাকি তবে অবশ্যই এই যুদ্ধে আমি জয়ী হবোই।’ – কথাগুলো বলেন প্রয়াত নির্মাতা, সুরকার, সংগীত পরিচালক, প্রযোজক ও অভিনেতা খান আতাউর রহমানের ছেলে কণ্ঠশিল্পী আগুন। খান আতাকে নিয়ে সাম্প্রতিক বির্তকের জের ধরে সংবাদ সম্মেলেন ডেকেছিল চলচ্চিত্রের বৃহত্তর সংগঠন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিবার। এটি আহ্বান করেন সংগঠনের আহ্বায়ক চিত্রনায়ক ফারুক। আজ (বৃহস্পতিবার) সকাল ১১টায় এফডিসির জহির রায়হান কালার ল্যাবে সংবাদ সম্মেলন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এই সংবাদ সম্মেলনে আগুন এ কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, ‘প্রমাণ হবেই আমার বাবা (খান আতাউর রহমান) রাজাকার ছিলেন না। আমার সঙ্গে সারা দেশবাসী রয়েছেন। সবার প্রতি আমার কৃতজ্ঞতা। আমার বিশ্বাস বাচ্চু চাচা (নাসিরউদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু) তার ভুল বুঝতে পারবেন এবং তার ব্ক্তব্য ফিরিয়ে নেবেন।’ সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন চলচ্চিত্র অভিনেতা ফারুক, আমজাদ হোসেন, সিভি জামান, শেখ নজরুল ইসলাম, কাজী কামাল ও চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজারসহ চলচ্চিত্রের অনেক গন্যমান্য ব্যক্তিরা। এরপর প্রর্দশিত হয় খান আতাউর রহমান পরিচালিত ছবি ‘আবার তোরা মানুষ হ’ ছবি। মূলত নাট্যজন-মুক্তিযোদ্ধা নাসিরউদ্দিন ইউসুফের করা একটি মন্তব্যের প্রতিবাদে এটি আয়োজন করা হয়েছে।   এসএ/ডব্লিউএন
স্বামীর গোপনীয় তথ্য ফাঁস করলেন মিলা

শেষ পর্যন্ত স্বামীর গোপনীয় তথ্য ফাঁস করে দিলেন পপ তারকা মিলা ইসলাম। মিলা তার ফেসবুক পেজে বেশ কয়েকটি স্ক্রিনশট শেয়ার করেছেন। যেখানে বিভন্ন মেয়েদের সঙ্গে তার স্বামী পারভেজের চ্যাটিং রয়েছে। শুধু তাই নয়, ফোন কল রেকর্ড পর্যন্ত শেয়ার করেছেন তিনি। মিলা বলেন, ‘আমি আসলে বিষয়গুলো নিয়ে কি বলবো জানি না। যে মানুষটিকে ১০ বছরে চিনলাম না। তাকে এই কয়েকমাসে চিনতে হলো। পারভেজের সঙ্গে আমি ফেসবুকে পর্যন্ত অ্যাড ছিলাম না। তখন বুঝতে পারিনি পারভেজ কেন এমন গোপন রাখছে বিষয়গুলো।’ উল্লেখ্য, ১০ বছরের প্রেম শেষে বিয়ের সিদ্ধান্ত নেন মিলা। বিয়ের কয়েকমাস যেতে না যেতেই আলোচনায় আসে বিচ্ছেদ। মিলা তার স্বামীর বিরুদ্ধে নির্যাতনের অভিযোগসহ অন্যান্য মেয়েদের সঙ্গে সম্পর্কের বিষয়টিও উল্লেখ করেছেন অনেকবার। তবে এ বিষয়ে এর আগে কোনো প্রমাণ দিতে পারেননি মিলা।   এসএ/এআর

স্বামীসহ পাঁচ জনের বিরুদ্ধে কণ্ঠশিল্পী মিলার মামলা

কণ্ঠশিল্পী মিলা ইসলামের দায়ের করা মানহানি মামলায় তার স্বামী পারভেজ সানজারিসহ পাঁচ জনকে আদালতে হাজির হওয়ার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার ঢাকা মহানগর হাকিম সারাফুজ্জামান আনছারীর আদালতে মিলা বাদি হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। বিচারক বাদির জবানবন্দি গ্রহণ করে মিলার স্বামীসহ পাঁচ জনকে আদালতে হাজির হওয়ার জন্য সমন জারি করেছেন। মিলার আইনজীবী জাহেদুল ইসলাম কয়েল গণমাধ্যমকে  বলেন, মামলা চলাকালীন সময়ে ফেসবুক ও বিডি২৪লাইভ অনলাইন পত্রিকায় মিলার স্বামীর পরিবার মানহানিকর তথ্য প্রকাশ করেছেন। এই অভিযোগে মিলা বাদি হয়ে আজ আদালতে মামলাটি দায়ের করেন। বিচারক বাদিনির জবানবন্দি গ্রহণ করে তাদের আদালতে হাজির হওয়ার জন্য সমন জারি করেছেন। মামলায় মিলা অভিযোগ করেন, আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে গেল ৭, ৯ ও ১০ অক্টোবর বিডি২৪লাইভ অনলাইনে মামলার বাদিকে নিয়ে স্বামীর পরিবারের সদস্যরা ফেসবুকে তার বিরুদ্ধে মানহানিকর তথ্য প্রকাশ করেন।এতে বাদিনির সুনাম ক্ষুণ্ন হয়েছে।’ মামলায় মিলা আরও অভিযোগ করেন, বিয়ের পর মিলাকে পর্যায়ক্রমে মারধর করা হয়। সর্বশেষ ৩ অক্টোবর তাকে মারধর করা হয়। এর আগে তার কাছ থেকে পাঁচ লাখ টাকা যৌতুক নেয় তার স্বামী। পরবর্তীতে আরও ১০ লাখ টাকা দাবি করা হয়। ওই টাকা না পেয়ে স্বামী তাকে মারধর করে। মামলায় অপর আসামিরা হলেন- মিলার দেবর এস এম আর রহমান বাপ্পি, দেবরের স্ত্রী আফরোজা রহমান লাবনী, বিডি২৪লাইভ অনলাইনের সম্পাদক মো. আমিরুল ইসলাম, শাশুরি আফরোজা নাসির। গত ৬ অক্টোবর পারভেজ সানজারিকে গ্রেফতার করে পুলিশ। বর্তমানে তিনি কারাগারে আটক রয়েছেন। একটি বেসরকারি এয়ারলাইন্সের পাইলট পারভেজ সানজারি। চলতি বছরের ১২মে মিলার বাড়িতে তাদের বিয়ের অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। / কে আই/এআর

আসছে ইমরান-নিশির ‘প্রেম এলেই এমন হয়’ (ভিডিও)

সংগীতশিল্পী ইমরান ও নিশির ‘প্রেম এলেই এমন হয়’শিরোনামে মিউজিক ভিডিও প্রকাশ পাচ্ছে ১৭ অক্টোবর, সন্ধ্যা ৬ টায়। যাতে মডেল হিসেবে দেখা যাবে অভিনয়শিল্পী জোভানকে। এতে জোভানের বিপরীতে জুটি বাঁধছেন আরেক মডেল অনামিকা। স্নেহাশীষ ঘোষের কথা ও সুরে গানটির সংগীত পরিচালনা করেছেন এম এম পি রনি। মিউজিক ভিডিওটি পরিচালনা করেছেন সৈকত রেজা। ইমরান বলেন, ‘অডিওতে গানটির জন্য ভালো সাড়া পেয়েছি। এবার আসছে মিউজিক ভিডিও। আশা করছি ভিডিওটি শ্রোতা-দর্শকদের ভালোলাগায় নতুন মাত্রা যোগ করবে।’ জোভান বলেন, ‘আমি খুব বেছে বেছে মিউজিক ভিডিওতে কাজ করি। গান এবং মিউজিক ভিডিওর গল্প পছন্দ হওয়াতেই আবারো এতে কাজ করছি। আশা করছি আগের কাজগুলোর মতো এটিও সবাই পছন্দ করবে।’ এর আগে ন্যান্সির সঙ্গে একটি দ্বৈত গানে কণ্ঠ দিয়েছিলেন ইমরান। গানের শিরোনাম `ঠিক বেঠিক`। সুর ও সঙ্গীত পরিচালনার পাশাপাশি গানের মডেল হয়েছিলেন ইমরান নিজেই। ভিডিওটি নির্মাণ করে সৈকত রেজা। গানটিতে ইমরানের বিপরীতে মডেল হয়েছিলেন কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেত্রী জেসমিন রায়। গানটি ইতিমধ্যে বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে।   ‘ঠিক বেঠিক’ গানের ভিডিও :     এসএ/

আবারও দ্বৈত গানে আসিফ-আঁখি (ভিডিও)

‘টিপ টিপ বৃষ্টিতে’ শিরোনামের একটি রোমান্টিক গানে কণ্ঠ দিলেন সংগীতশিল্পী আসিফ আকবর ও আঁখি আলমগীর। গানটির রেকর্ডিং হয়েছে রোববার (১৪ অক্টোবর)। গানের কথা ও সুর করেছেন তরুণ মুন্সী। ধ্রুব মিউজিক স্টেশনের ব্যানারে শিগগিরই ইউটিউবে গানটির লিরিক ভিডিও মুক্তি দেওয়া হবে। গানটি নিয়ে আঁখি আলমগীর বলেন, ‘অনেকদিন ধরেই ইচ্ছা ছিল এই ধরনের রোমান্টিক একটি গান করব। রোমান্টিক ব্যাপারটা মাথায় রেখেই গানটি তৈরি করা হয়েছে। বৃষ্টির রাতে গানটা একবার শুনলে হবে না, বারবার শুনতে ইচ্ছা করবে।’ পাশাপাশি প্লেব্যাকেও ব্যস্ততায় দিন কাটছে আঁখির। তার বাবা চিত্রনায়ক আলমগীরের পরিচালনায় ‘একটি সিনেমা গল্প’ ছবির গানে কণ্ঠ দিয়েছেন আঁখি। কবির বকুলের কথায় গানটির শিরোনাম ‘আমারই পৃথিবী তুমি একটাই’। উল্লেখ্য, যত ভালোলাগা পেলাম যে ফিরে/যত ভালোবাসা তোকেই যে ঘিরে- এমন কথার এই গানে কণ্ঠ দিয়েছিলেন আসিফ ও আঁখি আলমগীর। গানের কথা ও সুর করেছিলেন শ্রী প্রিতম। যা ইউটিউবে ব্যাপক সাড়া ফেলে।   গানটির ভিডিও দেখতে :     এসএ/এআর

জন্মদিনে মাকে নিয়ে নিউইয়র্কে হাবিব

সংগীতের বরপুত্র হাবিব ওয়াহিদের জন্মদিন আজ ১৫ অক্টোবর, রোববার। জন্মদিনে নিউইয়র্কে আছেন তিনি। সেখানে মায়ের সঙ্গেই দিনটি উদযাপন করছেন হাবিব। হাবিব ওয়াহিদের বাবা ফেরদৌস ওয়াহিদ জানান, ‘হাবিব ওর মাকে নিয়ে নিউইয়র্ক বেড়াতে গেছে। সেখানেই এবারের জন্মদিনটা কাটছে। সঙ্গে ওর ছেলেও আছে।’ তিনি আরও বলেন, `হাবিব গানের ক্ষেত্রে অনেক ভালো করেছে। সামনে আরও ভালো করবে আশা রাখি। তবে নানা কারণে ওর মনটা বিক্ষিপ্ত। সবাই হাবিবের জন্য দোয়া করবেন।’ ইতিমধ্যে পরিবার, প্রিয় মানুষ আর ভক্ত-অনুরাগীদের শুভেচ্ছায় সিক্ত হয়েছেন হাবিব। উল্লেখ্য, বাংলা লোকগীতির ফিউশনের সাথে টেকনো এবং শহুরে বিটের সমন্বয়ের জন্যে সমধিক পরিচিত। স্বল্প পরিচিত লোকগীতিকে আরো ভাল সুর দিয়ে, রিমিক্স করে সাধারণ শ্রোতাদের কাছে জনপ্রিয় গ্রহণযোগ্য করে তুলছেন তিনি। তিনি মূলত হাসন রাজা, শাহ আবদুল করিম, আমির উদ্দীন প্রমূখ মরমী সঙ্গীত শিল্পীদের গানকে কিছুটা পরিবর্তনের মাধ্যমে জনপ্রিয় করে তুলেছেন। এ কারণে অনেকের কাছেই তিনি যেমন সমালোচিত হয়েছেন, ঠিক তেমনি তরুণ প্রজন্মের কাছে অত্যন্ত জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পী হিসেবে খ্যাত হয়েছেন। হাবিব ওয়াহিদ বিভিন্ন শিল্পীর সঙ্গে অনেক জনপ্রিয় গান গেয়েছেন।   এসএ/এআর

আইটেম গানে কণ্ঠ দিলেন সালমা

‘ডিজিটাল মেয়ে আমি ধার ধারি না কারও/ফেসবুক, ভাইবার, ইমো আছে আরও/রঙ বেরঙের সেলফি তুলি সকাল সন্ধ্যা বেলা/আমি সেলফি কুইন কমলা।– এমনই কথায় চলচ্চিত্রের আইটেম গানে কণ্ঠ দিলেন জনপ্রিয় শিল্পী মৌসুমী আক্তার সালমা। মাজহার বাবু পরিচালিত ‘ঠোকর’  চলচ্চিত্রের জন্য তৈরি এই গানটি লিখেছেন লিমন আহমেদ, সুর করেছেন জিয়াউদ্দিন আলম ও সংগীতায়োজন করেছেন ওয়াহিদ শাহিন। গানটির রেকর্ডিং হয়েছে ১১ অক্টোবর সন্ধ্যায় রাজধানীর মগবাজারের একটি স্টুডিওতে। গানটি নিয়ে সালমা জানান, এটি তার ক্যারিয়ারের প্রথম কোনও চলচ্চিত্রের আইটেম গান। তার ভাষায়, ‘আমি নিজেকে সব ধরনের গানের শিল্পী হিসেবেই ভাবতে পছন্দ করি। তাই ফোক গানের বাইরেও নিজেকে তুলে ধরার চেষ্টা করি। এবারের গানটি তেমন কিছুর বার্তা বহন করবে।’ এসএ/ডব্লিউএন

প্রকাশ পেয়েছে ‘ডুব’ ছবির গান (ভিডিও)

ইউটিউবে প্রকাশ পেয়েছে ‘ডুব’ ছবির একমাত্র গান ‘আহারে জীবন’। গানটি বৃহস্পতিবার রাতে সোশ্যাল মিডিয়া ইউটিউবে মুক্তি দেওয়া হয়েছে। চিরকুট ব্যান্ডের তৈরি এই গানটি লিখেছেন শারমীন সুলতানা সুমি। কণ্ঠও দিয়েছেন তিনি। গানটির বিভিন্ন অংশে দেখা গেছে ছবির ভিন্ন ভিন্ন স্থিরচিত্র। চিরকুট ব্যান্ডের সব সদস্যরা গানের দৃশ্যায়নে অংশ নিয়েছেন। গানের শুটিং করা হয়েছে মধুমিতা সিনেমা হলের ভেতরে। ছবির কাহিনির আবহে গানটি করা হয়েছে। ‘বুকের ভেতর বয়ে চলে পাহাড় নামের নদী, আহারে জীবন, আহা জীবন’- গানটির কথা, সুর, সংগীতায়োজন এবং কণ্ঠ- এক কথায় অনবদ্য। উল্লেখ্য, ‘ডুব’ ছবিটি মুক্তি পাচ্ছে আগামী ২৭ অক্টোবর। শুধু বাংলাদেশেই নয়, একইসঙ্গে ইন্ডিয়া, অস্ট্রেলিয়া ও সিঙ্গাপুরে ছবিটির মুক্তির বিষয়টি চূড়ান্ত হয়েছে। ছবি মুক্তির আগে বাংলাদেশে একটি প্রিমিয়ার শো অনুষ্ঠিত হবে। আর এই প্রিমিয়ার অনুষ্ঠানে ইরফান খানও উপস্থিত থাকবেন। ‘ডুব’ ছবির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন বলিউড অভিনেতা ইরফান খান, কলকাতার পার্ণো মিত্র, নুসরাত ইমরোজ তিশা, রোকেয়া প্রাচী প্রমুখ। ছবিটি প্রযোজনা করেছে জাজ মাল্টিমিডিয়া, ইরফান খান ফিল্মস ও কলকাতার এসকে মুভিজ।   গানটির ভিডিও দেখুন :   এসএ/  

শিরোনামহীনের কাছে তুহিনের দুঃখ প্রকাশ

শিরোনামহীনের কাছে দুঃখ প্রকাশ করেছেন তানযীর তুহিন। গত শুক্রবার রাতে তানযীর তুহিন এক ফেসবুক স্ট্যাটাস দেন। তাতে লিখেন, ‘আমি তানযীর তুহীন, ব্যক্তিগত কারণে শিরোনামহীন ছাড়ছি, কিন্তু গান নয়।’ এরপর গণমাধ্যমে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি শিরোনামহীন ছাড়ার কারণ ব্যাখ্যা করেন। এরপর শিরোনামহীনের সদস্য, ভক্ত আর শ্রোতাদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়। যার প্রেক্ষাপটে বৃহস্পতিবার বিকেলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে আবারো একটি স্ট্যাটাস দিয়ে তিনি দুঃখ প্রকাশ করনে।  দেশের অন্যতম জনপ্রিয় এই ব্যান্ডের সাবেক কণ্ঠশিল্পী তানযীর তুহিন এখন আছেন মালয়েশিয়ায়। ব্যবসায়িক কাজ আর বিশ্রাম নেওয়ার জন্য তিনি সেখানে গেছেন। সেখান থেকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে তিনি একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন। সেখানে তিনি লিখেছেন, ‘আমি শিরোনামহীন ব্যান্ডের মেম্বার ও পরিবারবর্গের কাছে দুঃখ এবং অনুশোচনা প্রকাশ করছি, যাঁরা আমার বক্তব্যের জন্য গত কয়েক দিন অমানুষিক দুঃখ ও কষ্ট ভোগ করছেন।’ তুহিন আরও লিখেছেন, ‘আমি শিরোনামহীনের শ্রোতা, ভক্ত, বন্ধু এবং মিডিয়াকে অনুরোধ করছি, আপনারা যেভাবে শিরোনামহীন ব্যান্ডের পাশে থেকে সুখ, দুঃখ, আনন্দে সাহস ও অনুপ্রেরণা দিয়েছেন, সেভাবে আগামী সময়গুলোতেও পাশে থাকবেন।’ তিনি শিরোনামহীনের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে লিখেছেন, ‘বিগত বছরের পথচলায় তারা আমাকে যে ভালোবাসা ও সুযোগ দিয়েছে গান গাওয়ার, তা আমার বাকি জীবনটাকে এগিয়ে নিতে উৎসাহ ও প্রেরণা জোগাবে। শিরোনামহীনের সুন্দর ও সফল ভবিষ্যৎ কামনা করছি।’ আরকে/ডব্লিউএন  

কনসার্টে অংশ নিতে অস্ট্রেলিয়া যাচ্ছেন জেমস

অস্ট্রেলিয়া যাচ্ছেন দেশের জনপ্রিয় ব্যান্ড তারকা জেমস। সেখানকার প্রবাসীদের সাংস্কৃতিক সংগঠন ‘লিসেন ফর’এর আমন্ত্রণে তিনটি কনসার্টে অংশ নিতে যাচ্ছেন তিনি। এ সফরে তার সঙ্গী হচ্ছেন ব্যান্ড নগরবাউলের সদস্যরা। জানা গেছে, তিন শহরে তিনটি কনসার্টে অংশ নেবেন তিনি। নগরবাউলের মুখপাত্র রবিন ঠাকুর বলেন, পাঁচ বছর পর আবারও অস্ট্রেলিয়ায় যাচ্ছেন নগরবাউল জেমস। প্রবাসীদের আমন্ত্রণে তিন দিন তিনটি কনসার্টে অংশ নেবেন এই রকতারকা। তিনি আরও বলেন, আগামী ১ নভেম্বর অস্ট্রেলিয়ার উদ্দেশে রওনা দেবেন জেমস। এ সফরে ৪ নভেম্বর সিডনি, ৫ নভেম্বর ব্রিসবেন ও ১১ নভেম্বর মেলবোর্নে গাইবেন জেমস। নগরবাউলের সঙ্গে বাজাবেন, খায়েম আহমেদ (কি-বোর্ড), জিমি (ড্রামস), সাব্বির (বেজ), গিটার (রানা)। অস্ট্রেলিয়ার অনুষ্ঠান শেষে ১৩ নভেম্বর ঢাকায় ফিরবেন জেমস।   এসএ/এআর

টুইটারে আদনান সামি-ওমরের তুমুল ঝগড়া

কাশ্মীর পর্যটনকে চাঙ্গা করতে গায়ক আদনান সামির অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল জম্মু-কাশ্মীর সরকার। সেই অনুষ্ঠান নিয়েই রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লার সঙ্গে টুইট-বিতণ্ডায় জড়ালেন আদনান। শনিবার শ্রীনগরের ডাল লেকের পাশে আদনান সামির মিউজিক কনসার্ট ছিল। সেই অনুষ্ঠানের একটি ফাঁকা ছবি দিয়ে প্রথম টুইটটি করেন জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। একপ্রকার ব্যঙ্গ করে তিনি লেখেন, ‘অনুষ্ঠান শুরুর নির্ধারিত সময় পেরিয়ে গিয়েছে, সিট কিন্তু এখনও বেশির ভাগই ফাঁকা। এটা হয়তো মেহবুবা মুফতি সরকারের জনসংযোগের বিপর্যয়।’ ঠিক এর পর আরও একটি টুইট করেন তিনি। সেখানে লেখেন, ‘এটা সত্যিই দুঃখজনক ঘটনা। আমি মনেপ্রাণে চাই সিটগুলো এখনই ভর্তি হয়ে যাক। এই সন্ধ্যায় সুরের মধ্য দিয়েই কাশ্মীরবাসী একটি শান্তিপূর্ণ স্থানে চলে যান।’ পরপর দু’বার ওমরের খোঁচা খেয়ে টুইট-যুদ্ধে অবতীর্ণ হন আদনানও। আবদুল্লাকে ভাই সম্বোধন করে লেখেন, ‘আপনি একজন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। একটা মিউজিক অনুষ্ঠানকে ঘিরে এত অস্থির হওয়া আপনাকে মানায় না। ফাঁকা অনুষ্ঠানের ছবি দিয়ে আপনার সোর্স আপনাকে বিভ্রান্ত করেছে, মিথ্যা বলেছে।’ টুইটের সঙ্গে তাঁর ভিড়ে ঠাসা অনুষ্ঠানের কয়েকটি ছবিও পোস্ট করেন আদনান। এর পরই আদনান এবং আবদুল্লা দু’জনেই টুইট এবং পাল্টা টুইট শুরু করে দেন। আদনানের জবাবে ওমর টুইট করেন, ‘কেন মনে হল আমি অস্থির আচরণ করছি? আমিও এক সময় তোমার অনুষ্ঠান পছন্দ করতাম। এখনও চাই সবাই তোমার অনুষ্ঠান ভীষণ ভাবে উপভোগ করুক।’ তাঁর অনুষ্ঠান এক সময় পছন্দ করতেন, এটা বলায় আরও চটে যান আদনান। মিউজিক কোনও রাজনৈতিক খেলার বিষয়বস্তু নয়, ওমরকে চিন্তাভাবনার আরও উন্নতি করতে বলেন আদনান। শনিবার রাত সাড়ে ১১টা পর্যন্ত এভাবেই চলতে থাকে তাঁদের টুইট-যুদ্ধ। শেষ অবশ্য টুইটে দুজনই একে অপরকে শুভরাত্রী বলে বিদায় নেন।   সূত্র : আনন্দবাজার   এসএ/এআর  

ডিভোর্সের কথা স্বীকার করলেন মিলা

কিছুদিন ধরেই গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিলো ডিভোর্স হয়েছে পপ গায়িকা মিলার। কিন্তু গণমাধ্যমকে সেই কথা প্রকাশ করেননি তিনি। সে সময় এ খবরকে ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দেন এই পপ স্টার। কিন্তু সত্যিই ডিভোর্স হয়েছে মিলার। শুক্রবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে মিলা তার ফেসবুকে ডিভোর্সের বিষয়টি জানিয়ে একটি পোস্ট দিয়েছেন। অবশ্য বৃহস্পতিবার থেকেই এই সংবাদ সবার মধ্যে ঘুরপাক খাচ্ছিল। ওইদিন মিলা বাদী হয়ে উত্তরা পশ্চিম থানায় স্বামী পারভেজ সানজারি বিরুদ্ধে একটি মামলা করেন। পরিপ্রেক্ষিতে পারভেজ সানজিরকে গ্রেফতার করে পুলিশ। মিলা ফেসবুক স্ট্যাটাসে লিখেছেন, ‘হ্যাঁ, আমি ডিভোর্স দিয়েছি। পারভেজ সানজার সঙ্গে ১০ বছর প্রেম করার পর বিয়ে করেছিলাম কিন্তু বিয়ের মাত্র ১৩ দিনের মাথায় জানতে পারি আমার স্বামী একাধিক নারীর সঙ্গে সম্পর্কে জড়িত। আমার স্বামী ক্রমাগত আমার সঙ্গে প্রতারণা করতে থাকে। বিয়ের আগে যখন আমরা ডেটিং করতাম তখনও একাধিক নারীর সঙ্গে প্রেম করে আমার সঙ্গে প্রতারণা চালিয়ে যাচ্ছিল সে। এমন প্রতারকের সঙ্গে বসবাস করা অসম্ভব।’ ইংরেজিতে দেওয়া মিলার পোস্টটি পাঠকদের উদ্দেশ্যে যা তুলে ধরা হলো :   ‘Yes, I am getting a divorce. We got married after 10 years of relationship but only 13 days after our marriage, I got to know about his affairs with more than one women. He was continuously cheating on me while we were dating and he continued to cheat even after our marriage with multiple women. I cannot live with someone who does this even after such a long relationship. Life is nothing without honesty. No one deserves someone who can do this to his newlywed wife. This is not about being an artist or celebrity. This is about having a minimum decent and respect towards his or her spouse. I cannot accept this as a human being. No one should. No man will tolerate his wife having an affair with another guy, no woman should accept it either. So for the love of my work and music, I want to move on with my life. My biggest achievement of my love is my fans and audience. They have not forgotten me after so many years. But in choosing life partner after 10 years of relationship, I found proof of his betrayal. Still i tried to save the marriage,, But he started denying the marriage and extreme misbehave with me.. After trying everything i hv spoke to the MD of US BANGLA AIRLNE MR,Mamun and let him know that what is going on with me so that he can make my husband understand that we have a social status and not to ruin it doing such shameful acts, MD said he will talk to him and wanted to know the names of the air hostages my husband was having illegal affaires.. He told me to keep patience..which i did..but nothing changed !! Not only was I taking mental abuse from him, I was also a victim of physical abuse from time to time and finally I had enough and realised I could no longer be a victim especially where so many young girls look up to me as a role model. I needed to take my fate into my own hands and get out of this miserable situation. I asked my family for help and they took me Uttara Thana where I filed a case under Nari O Shishu Nirjaton Domon Ain 2000 (amended 2003) after which the Police arrested him. No women or man should have to live like this no matter what her or his position in society is. Thanks to all my family, fans and well wishers for all your love and support. Love, Mila’   উল্লেখ্য, গত ১২ মে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়েছিল মিলা ও পারভেজের। পারভেজ সানজারি বর্তমানে ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সে বৈমানিক হিসেবে কর্মরত। এর আগে বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর ফাইটার পাইলট হিসেবে কাজ করেছেন পারভেজ।   /এসএ/এআর

কণ্ঠশিল্পী মিলাকে মারধরের অভিযোগে স্বামী গ্রেফতার

মারধর ও যৌতুক দাবির অভিযোগে দায়ের করা মামলায় কণ্ঠশিল্পী মিলার স্বামী পারভেজ সানজারিকে গ্রেফতার করেছে উত্তরার পশ্চিম থানা পুলিশ। বৃহস্পতিবার মিলা বাদী হয়ে নারী নির্যাতন দমন আইনে উত্তরা পশ্চিম থানায় মামলাটি দায়ের করেন। মামলার নম্বর ৪(১০)২০১৭। বৃহস্পতিবার রাতেই তার স্বামীকে গ্রেফতার করা হয়। উত্তরা পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী হোসেন খান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। শুক্রবার পাঁচ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে সানজারিকে। তবে রিমান্ড মঞ্জুর করেননি আদালত। আলী হোসেন খান বলেন, মিলার অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তার স্বামীর বিরুদ্ধে আমরা অভিযোগ গ্রহণ করেছি। মামলার অভিযোগে বলা হয়, বিয়ের পর পর্যায়ক্রমে কয়েকবার এ ধরণের মারধরের ঘটনা ঘটেছে। সর্বশেষ ৩ অক্টোবর তাকে মারধর করা হয়। মিলা মামলায় অভিযোগ করেছেন, এর আগে তার স্বামী পাঁচ লাখ টাকা যৌতুক নিয়েছেন। আরও ১০ লাখ টাকা দাবি করেছেন। টাকা না পেয়ে স্বামী তাকে মারধর করেছেন। একটি বেসরকারি এয়ারলাইন্সের পাইলট পারভেজ সানজারি। চলতি বছরের ১২ মে মিলার বাড়িতে তাদের বিয়ের অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। আরকে/ডব্লিউএন

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি