ঢাকা, শনিবার, ২০ জানুয়ারি, ২০১৮ ১৩:২৬:১৩

সালমান-জেসিয়ার গোপন সম্পর্ক ভাইরাল!

সালমান-জেসিয়ার গোপন সম্পর্ক ভাইরাল!

ইউটিউবার সালমান মুক্তাদিরকে নিয়ে চলছে জোর গুঞ্জন। চারদিকে বইছে আলোচনা-সমালোচনার ঝড়। প্রেম, বিয়ে, মেয়ে পটানো সহ বেশ কিছু অভিযোগ নিয়ে মিডিয়াপাড়ায় কয়েকদিন ধরে চলছিল কানাঘুষা। তবে এবার আর কানাঘুষা নয়। প্রকাশ পেয়েছে ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ বিজয়ী জেসিয়া ইসলামের সঙ্গে প্রতারণার অভিযোগ। আর সরাসরি সালমানের নামে প্রতারণার অভিযোগ আনলেন জেসিয়া। বৃহস্পতিবার জেসিয়া তার ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে এসব খবর জানান। স্ট্যাটাসে তিনি লিখেছেন - ‘তুমি আমার সঙ্গে যা কিছু করেছো, আমি কখনও তোমাকে ক্ষমা করবো না। তুমি আমার হৃদয় নিয়ে খেলেছো, যেমনটা তুমি অনেক মেয়ের সঙ্গে খেলো। এসব বন্ধ কর সালমান! এভাবে কত মেয়ের জীবন তুমি নষ্ট করবে? কত?’ একই সঙ্গে সালমান মুক্তাদিরের সঙ্গে জেসিয়ার চ্যাটিংয়ের বেশকিছু স্ক্রিন শর্টও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করা হয়। চ্যাটিং দেখে বোঝা যায়, সালমান ও জেসিয়ার মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক বিদ্যমান। পরে জেসিয়ার দেয়া এই স্ট্যাটাসটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। তবে সালমান মুক্তাদির তার ফেসবুকে স্ট্যাটাসের মাধ্যমে এর প্রতিবাদ জানান। তিনি জানান যে, জেসিয়ার সঙ্গে আমার সবকিছু ঠিক হয়ে গেছে। আমার প্রতি ওর কোনো অভিযোগ নেই। আর মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ অনুষ্ঠানের পর জেসিয়ার ফেসবুক আইডি হ্যাক হয়। বিষয়টি নিয়ে জেসিয়া বলেন, ‘আদতে এসব সত্য নয়। সত্যটা হচ্ছে সালমান আমার ভালো বন্ধু। আর যে ফেসবুক আইডি থেকে স্ট্যাটাস দেয়া হয়েছে সেটা আসলে আমার হ্যাক করা একাউন্ট। যখন আমি মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করি তখন। অপরদিকে সালমান মুক্তাদির বলেন, ‘একটা শ্রেণি আমার পেছনে লেগেছে। আর এতে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করছে জেসিয়া ইসলামকে। এটা মোটেও ভালো একটি বিষয় নয়। জেসিয়ার সঙ্গে আমার সম্পর্ক ভালো। সে ভালো বন্ধুও বটে। এসএ/
ভালোবাসার চাদরে রিয়াজ

বিরতি ভেঙে আবারও নাটকে অভিনয় করলেন অভিনেতা রিয়াজ। ‘ভালোবাসার চাদর’ নামের একটি খণ্ড নাটকে অভিনয় করেছেন তিনি। জাকির হোসেন উজ্জ্বলের রচনায় নাটকটি পরিচালনা করেছেন আদিত্য জনি। গত ১৬ ও ১৭ই জানুয়ারি নাটকটির শুটিং হয়। রিয়াজ বলেন, ‘আমার কাছে যেসব নাটকে অভিনয়ের প্রস্তাব আসতো সেগুলোর গল্প একঘেয়েমি মনে হতো। চরিত্রে বৈচিত্র্যতা পেতাম না। এতে করে কাজের মান হারিয়ে যাচ্ছিল। সেজন্য মানহীন নাটকগুলো থেকে দূরে ছিলাম। এরমধ্যে আবার দু-একটা ভালো কাজ আসলেও অন্য কাজের ব্যস্ততায় করা হয়ে ওঠেনি।’ তিনি আরও বলেন, ‘একজোড়া দম্পতির মিষ্টি প্রেমের গল্প ‘ভালোবাসার চাদর’ নাটকটি। কাজটি করে আমি ভীষণ তৃপ্তি পেয়েছি। গল্প ও চিত্রনাট্য আমার মন ছুঁয়ে গেছে। দর্শকরা যেসব গল্পের কাজ দেখতে পছন্দ করেন এটি তেমন একটি কাজ। এ ধরনের নাটক পেলেই আমি কাজ করবো।’ ‘ভালোবাসার চাদর’ নাটকে রিয়াজের বিপরীতে অভিনয় করেছেন ভাবনা। এই জুটি এর আগে শুকনো ফুল ও সতেজ প্রেমের গল্প নামের নাটকে কাজ করেছিলেন। অন্যান্য চরিত্রে অভিনয় করেছেন হাসান ইমাম, অনুভব মাহাবুব প্রমুখ। নির্মাতা সূত্রে জানা গেছে, শিগগির নাটকটি একটি বেসরকারি চ্যানেলে প্রচার হবে। এসএ/  

অবৈধ স্বর্ণসহ আটক মোশাররফ করিম!

দালালের সহায়তায় মধ্যপ্রাচ্যে পাড়ি দিয়েও সুবিধা করতে পারেনি মোশাররফ করিম। অবশেষে দেশে ফিরে আসেন তিনি। ধার-দেনা করে নিঃস্ব হয়ে পড়েন। শঙ্কায় পড়ে যায় ভালোবাসার মানুষকে বিয়ে করা নিয়েও। জীবনের প্রয়োজনে চোরাচালানকারী চক্রের সদস্য আখম হাসানের সঙ্গে যোগ দেন তিনি। নেমে পড়েন অনৈতিক কাজে। এরপর এয়ারপোর্ট টু এয়ারপোর্ট যাতায়াত। অবশেষে কাস্টমস গোয়েন্দার নজরদারিতে ধরা পড়েন তিনি। আসলে বাস্তবে নয়, ‘স্বর্ণমানব’ শিরোনামের একটি টেলিছবিতে এভাবে দেখা যাবে জনপ্রিয় এই অভিনেতাকে। আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবস উপলক্ষে নির্মিত হয়েছে এটি। সেখানে দেখা যাবে অবৈধ স্বর্ণসহ তিনি আটক হন হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে। টেলিছবিটি সম্পর্কে মোশাররফ করিম বলেন, ‘আমাদের দেশে অবৈধ স্বর্ণ পাচারে অনেকে জড়িত। আমাদের রাষ্ট্রের জন্য এটি ভয়ংকর ক্ষতিকর একটি দিক। এমন একটি সত্য ঘটনা অবলম্বনে নির্মিত টেলিছবিতে কাজ করে ভালো লেগেছে। দর্শকরা নাটকটি দেখে সচেতন হবে এটি আশা করছি। অবৈধ এমন একটি কাজ থেকে দূরে থাকবে।’ ‘স্বর্ণমানব’ টেলিছবির রচনা ও সার্বিক নির্দেশনা দিয়েছেন ড. মইনুল খান। তিনি শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের মহাপরিচালক। শাহরিয়ার মাহমুদের চিত্রনাট্যে এটি পরিচালনা করেছেন আবু হায়াত মাহমুদ। মোশাররফ করিম ছাড়া আরও অভিনয় করেছেন অপর্ণা ঘোষ, আখম হাসান, মেহজাবিন, রওনক হাসান, আহসান হাবিব, সুজাত শিমুল, খালিদ মাহমুদ প্রমুখ। নির্মাতা জানান, আগামী ২৬ জানুয়ারি আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবস উপলক্ষে রাত ৮টায় বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল আইতে প্রচারিত হবে ‘স্বর্ণমানব’ টেলিছবিটি। এসএ/

ভারতে ‘গুণজান বিবির পালা’

ভারতে প্রদর্শীত হচ্ছে ঢাকার প্রথম সারির নাটকের দল পদাতিক নাট্য সংসদের নতুন প্রযোজনা ‘গুণজান বিবির পালা’। ভারতের নদিয়া জেলার চাকদাহতে স্থানীয় নাট্যজনদের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে নাট্যমেলা। ১৭ জানুয়ারি এ নাট্যমেলায় নাটকটি প্রদর্শিত হবে। এ উপলক্ষে পদাতিকের একটি দল ভারতের উদ্দেশে যাত্রা করেছে। এটি জানিয়েছেন নাটকটির রচয়িতা ও নির্দেশক সায়িক সিদ্দিকী। নাটকটির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করছেন মমিনুল হক দীপু, মশিউর রহমান, সাঈদা শামছি আরা, মো. ইমরান খাঁন, সালমান শুভ চৌধুরী, জিনিয়া আজাদ, তাসমী চৌধুরী, আবু নাসেম লিমন, জিতু, শরীফুল ইসলাম, আবু সাইদ, জয়, পৃথা, আকাশ, জীবন, রাশেদ, শারমিন। নাটকটির মঞ্চ পরিকল্পনায় সঞ্জীব কুমার দে, আলোক পরিকল্পনায় অতিকুল ইসলাম জয়, পোশাক দ্রব্য ও কোরিওগ্রাফি সাঈদা শামছি আরা। সংগীতায়োজনে হুমায়ন আজম রেওয়াজ, হামিদুর রহমান পাপ্পু, মনির দেওয়ান। প্রযোজনা অধিকর্তা সৈয়দ ইশতিয়াক হোসাইন টিটো। এসএ/

জন্মদিনেও ব্যস্ত শমী কায়সার

অভিনেত্রী শমী কায়সার। আজ তার জন্মদিন। কিন্তু এ দিনেও অবসর নেই এই গুনি তারকার। কর্মব্যস্ততায় কাটছে অভিনেত্রীর জন্মদিন। সকালে এফবিসিসি আই’র একটি মিটিং এ অংশ নেন তিনি। এরপর নিজের প্রতিষ্ঠান ধানসিঁড়ির একটি মিটিং এ অংশ নিবেন তিনি। সব মিলিয়ে দুটি মিটিংয়ের মধ্যদিয়ে ব্যস্ততার মাঝেই কাটবে আজকের দিনটি। একুশে টিভি ও অনলাইনের পক্ষ থেকে এই গুনি অভিনেত্রীর জন্য রইলো শুভেচ্ছা। শুভ জন্মদিন। তিনি বলেন, ‘রাতে পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাতে পারব কিনা তাও জানি না। কারণ রাতের ফ্লাইটে কলকাতা যাওয়ার সম্ভাবনা আছে। তবে সবার কাছে দোয়া চাই আল্লাহ যেন আমাকে সুস্থ রাখেন, ভালো রাখেন।’ উল্লেখ্য, আতিকুল হক চৌধুরীর নির্দেশনায় ‘কে বা আপন কে বা পর’ নাটকে অভিনয়ের মধ্যদিয়ে টিভি নাটকে শমী কায়সারে অভিষেক ঘটে। সর্বশেষ গত বছরের ঈদুল আযহায় চয়নিকা চৌধুরীর নির্দেশনায় ‘কালো চিঠি’ নাটকে অভিনয় করেন তিনি। একই পরিচালকের ‘শেষের পরে’ এবং ‘অনুমতি প্রার্থনা’ নাটকে তিনি অভিনয় করেছিলেন। গত তিন বছরে শমী কায়সারকে এই তিনটি নাটকেই অভিনয় করতে দেখা যায়। তিনটি নাটকেই তার বিপরীতে অভিনয় করেছেন মাহফুজ আহমেদ। এদিকে শহীদুল হক খানের ‘যুদ্ধ শিশু’ চলচ্চিত্রে শমী কায়সার অভিনয় করছেন এমন সংবাদ প্রকাশ পায়। তবে এমন সংবাদে দুঃখ প্রকাশ করেছেন অভিনেত্রী। জানা গেছে- ‘যুদ্ধ শিশু’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করছেন না শমী কায়সার। এ বিষয়ে শমী কায়সার বলেন, ‘চলচ্চিত্রটির পরিচালক চেয়েছিলেন আমি এতে অভিনয় করি। কিন্তু আমি এখন ভীষণ ব্যস্ত। চলচ্চিত্রে অভিনয় করার মতো সময় এখন আমার নেই। পরিচালক বলেছিলেন সময় সমন্বয় করে নেবেন। কিন্তু তারপরও হচ্ছে না। তাই যুদ্ধ শিশু চলচ্চিত্রে আমার অভিনয় করা হয়ে উঠছে না।’ এসএ/  

সমালোচনায় ক্ষত-বিক্ষত ভাবনা

বাংলাদেশে উৎপাদিত কোনো ব্র্যান্ডের পণ্য ব্যবহার করেন না এমনই এক মন্তব্যের জেরে তোপের মুখে পড়েছেন অভিনেত্রী আশনা হাবিব ভাবনা। তিনি দেশের একটি অনলাইন নিউজ পোর্টালকে সাক্ষাৎকার দিয়েছিলেন। সেখানে তারা তার উদ্ধৃতি দিয়ে লিখেছে, ‘বাংলাদেশের কোনো ব্র্যান্ড আমি কিনিও না, পরিও না’। তার এমন বক্তব্য প্রকাশিত হওয়ার পর তা সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। তাতে অনেকে তাকে নিয়ে বিরুপ মন্তব্য করা শুরু করে। শিকার হন ব্যক্তিগত আক্রমণের। ‘দুই দিনের বৈরাগী ভাতকে বলে ফ্রাইড রাইস’, ‘ভাল করে আয়নায় নিজেকে দেখেন’ ‘মানসিকতা এতো নিচু হয় ক্যামনে’- ফেসবুকে এ রকম নানা তির্যক মন্তব্যে ক্ষত-বিক্ষত হচ্ছেন অভিনেত্রী ভাবনা।       এমন তীব্র আক্রমণাত্মক মন্তব্যের জবাবে ভাবনা বলেছেন, তার বক্তব্যকে ‘অসম্পূর্ণ’ করে ‘বিকৃত’ করে প্রকাশ করা হয়েছে। তিনি এ ধরণের কথা বলেননি। তিনি বলেন, আমাকে প্রশ্ন করা হয়েছিল ‘আপনি সানগ্লাস কোন ব্র্যান্ডের পরেন?’ এটার উত্তর কী হবে? সানগ্লাস কী বাংলাদেশের কোনো ব্র্যান্ডের আছে? আসলে আমি অমন কিছুই বলি নি, তারা তাঁদের নিজের মতো করে লিখে দিয়েছে। আর তাছাড়া আমি কোনো কোম্পানির নাম বলে তাদের প্রচারের দায়িত্ব কেন নেব। আমিতো কাউকে রিপ্রেজেন্ট করবো না। এছাড়া তারা আরো কোম্পানির স্পেসিফিক নাম জানতে চায়। আমি এসব ক্ষেত্রে নাম বলতে আগ্রহী ছিলাম না। তারা পোষাক, স্যান্ডেলের নাম জানতে চেয়েছে। এক্ষেত্রেও আমি বলেছি কোনো নাম আমি বলতে পারবো না। তাই তারা যা লিখেছে নিজেদের মনগড়া লিখেছে। ইতিমধ্যে তারা তাদের নিউজও পরিবর্তন করেছে। সুতারাং বিষয়টি নিয়ে ভুলবোঝাবুঝির অবকাশ নেই। এসি/টিকে

বাম হাতে গাড়ি চালানো শিখছেন সুজানা

জনপ্রিয় মডেল ও অভিনেত্রী সুজানা জাফর। বর্তমানে তিনি আছেন মধ্যপ্রাচ্যের দেশ দুবাইতে। সেখানে গিয়ে ড্রাইভিং শিখছেন তিনি। দেশটির আল কুয়োজ এলাকায় বিশ্ববিখ্যাত বেলহাসা ড্রাইভিং সেন্টারে গাড়ি চালানোর জন্য এরই মধ্যে কোর্সও শুরু করেছেন তিনি।সুজানা বলেন, ‘আমার কাছে দুবাইয়ের স্থায়ী ভিসা রয়েছে। সেজন্য আমি এখান থেকে ড্রাইভিং শিখতে পারছি। তাছাড়া আমার অনেকদিনের ইচ্ছে ছিল ইন্টারন্যাশনাল ড্রাইভিং লাইসেন্স পাওয়ার। আর বাংলাদেশের চেয়ে এখানে অনেক ভালোভাবে শেখানো হয়।’তিনি আরও বলেন, ‘প্রথমবার গাড়ি চালানো শিখছি। বাংলাদেশে আমার ড্রাইভিং লাইসেন্স নেই। তাছাড়া বাংলাদেশে ডান হাতে ড্রাইভিং শেখানো হয়, মজার ব্যাপার হচ্ছে এখানে বাম হাতে গাড়ি চালানো শেখানো হচ্ছে। শুধু এখানেই নয়, বিশ্বের বিভিন্ন দেশেও বাম হাতে গাড়ি চালানো হয়।’সুজানা বলেন, ‘দুবাইয়ে ড্রাইভিং শেখার আগে বেলহাসা ড্রাইভিং সেন্টারে থিওরি পরীক্ষা দিতে হয়। তারপর হাতেকলমে শেখানো হয় কীভাবে ড্রাইভিং করতে হয়।’তিনি বলেন, ‘দুবাইয়ের বেলহাসা ড্রাইভিং সেন্টার থেকে ড্রাইভিং লাইসেন্স পেতে হলে মোট ৪০টি ক্লাস করতে হবে। টানা ক্লাসগুলো শেষ করতে পারছি না। আপাতত ১০টি ক্লাস করব। কারণ আগামী সপ্তাহে দেশে ফিরবো। পরের মাসে আবার দুবাই এসে বাকি ক্লাস শেষ করব।’এসএ/

স্বপ্ন দলের আয়োজনে সেলিম আল দীন স্মরণোৎসব

নাট্যাচার্য সেলিম আল দীনের দশম মৃত্যুবার্ষিকী স্মরণে নাট্যসংগঠন স্বপ্ন দল বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে আয়োজন করছে দুই দিনব্যাপী ‘নাট্যাচার্য সেলিম আল দীন স্মরণোৎসব-২০১৮’। ১৭তম এ আসরের স্লোগান ‘রবীন্দ্রনাথ সেলিম আল দীন দু’হাত ধরে রয়, বাংলা নাট্যের সম্মুখযাত্রা নিশ্চিত-নির্ভয়’। উৎসবে স্বপ্ন দলের নাট্য প্রযোজনা ‘হেলেন কেলার’ ও ‘হরগজ’ মঞ্চায়ন ছাড়াও থাকছে বিশেষ বক্তৃতানুষ্ঠান, আলোচনা, স্মরণ-শোভাযাত্রা, সমাধিতে পুষ্পাঞ্জলি অর্পণ, নাট্যাচার্যের প্রতিকৃতিসহকারে শিল্পকলা চত্বর সজ্জা প্রভৃতি। আজ শনিবার বিকাল সাড়ে ৩টায় শিল্পকলা একাডেমির সেমিনার কক্ষে নাট্যজন এস এম মহসীনের সভাপতিত্বে সেলিম আল দীনের জীবন-কর্ম-দর্শন নিয়ে আলোচনাসহ উৎসবের উদ্বোধন করবেন মঞ্চসারথি আতাউর রহমান। এরপর একক বক্তৃতানুষ্ঠানে ‘সেলিম আল দীনের নাট্যদর্শন তথা বাংলা নাট্যরীতি প্রসারে প্রতিবন্ধকতা এবং উত্তরণের উপায়’ শীর্ষক বক্তব্য প্রদান করবেন নাট্যাচার্যের আজন্ম শিল্পসঙ্গী নাট্যজন ড. আফসার আহমদ। অতিথি হিসেবে অভিমত উপস্থাপন করবেন নাট্যজন ড. রশীদ হারুন, লাকী ইনাম, ঝুনা চৌধুরী, যাত্রাজন মিলন কান্তি দে, নাট্যজন চন্দন রেজা, মূকাভিনয় জন রিজোয়ান রাজন, নাট্যজন অপূর্ব কুমার কুণ্ড প্রমুখ। স্বাগত বক্তব্য রাখবেন উৎসবের আহ্বায়ক ও স্বপ্ন দলের প্রধান সম্পাদক জাহিদ রিপন। এসএ/  

বড় পর্দায় আসছেন শমী

জনপ্রিয় অভিনেত্রী শমী কায়সার। অভিনয়ে আজকাল খুব একটা দেখা যায় না তাকে। নিজের ব্যবসা ও সংসার নিয়েই ব্যস্ত থাকছেন তিনি। তবে এবার জানা গেল নতুন খবর। নতুন করে সিনেমাতে অভিনয় করতে যাচ্ছেন তিনি। সিনেমার নাম ‘যুদ্ধশিশু’। এই সিনেমাটি দিয়ে ১৭ বছর পর বড় পর্দায় আসছেন শমী। এর আগে ২০০১ সালে চাষী নজরুল ইসলামের ‘হাছন রাজা’ সিনেমায় কাজ করেছিলেন তিনি। বৃহস্পতিবার সিনেমাটির শুভ মহরত অনুষ্ঠিত হয়েছে। সিনেমাটি পরিচালনা করবেন শহিদুল হক খান। তিনি বলেন, ‘শমী কায়সারের সঙ্গে আমার আলাপ হয়েছে। তিনি সিনেমাটিতে কাজ করবেন বলে আমাকে নিশ্চিত করেছেন।’ কথাসাহিত্যিক মাসুদ হোসেনের উপন্যাস ‘রৌদ্রবেলা ও ঝরাফুল’ অবলম্বনে নির্মিত সিনেমাটিতে আরও অভিনয় করবেন পপি, চম্পা, সোহেল রানা, নাদিম খানসহ আরও অনেকেই। শিগগিরই সিনেমাটির শুটিং শুরু হবে এবং চলতি বছরেই এটি মুক্তি দেয়ার পরিকল্পনা রয়েছে। এসএ/  

অভিনেতা সিরাজ হায়দার মারা গেছেন

বিশিষ্ট অভিনেতা সিরাজ হায়দার মারা গেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া … রাজিউন)। আজ বৃহস্পতিবার ভোর ৬টায় রাজধানীর কল্যাণপুরে নিজ বাসায় হার্ট অ্যাটাক করে তিনি মারা যান। তার আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া চেয়েছেন তার সন্তান পরিচালক লেলিন হায়দার। সিরাজ হায়দার অভিনয়ের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন দীর্ঘ ৫৫ বছরেরও বেশী সময় ধরে। ১৯৬২ সালে নবম শ্রেণীর ছাত্রকালীন সময়ে ১৪ আগস্ট পূর্ব পাকিস্তান জাতীয় দিবসে টিপু সুলতান নাটকে করিম শাহ চরিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে অভিনয়ে পথচলা শুরু করেছিলেন। এই দীর্ঘ সময়ে তিনি অভিনয় করেছেন যাত্রা, মঞ্চ, রেডিও, টেলিভিশন এবং চলচ্চিত্রে। মুক্তিযুদ্ধের পর চলচ্চিত্র পরিচালক আবদুল্লাহ আল মামুনের সহকারী হিসেবে জল্লাদের দরবার নামক চলচ্চিত্রে কাজ শুরু করেন। প্রথম অভিনীত চলচ্চিত্রের নাম সুখের সংসার। নারায়ন ঘোষ মিতা পরিচালিত এ চলচ্চিত্রে সিরাজ হায়দার খলনায়ক চরিত্রে অভিনয় করেন। মঞ্চ নাটক নির্দেশনা দিয়েছেন মাত্র উনিশ বছর বয়সে। ১৯৭৬ সালে তিনি রঙ্গনা নাট্যগোষ্ঠী প্রতিষ্ঠা করেন এবং অনেকগুলো নাটকের নির্দেশনা দেন। সিরাজ হায়দার অভিনয়ের পাশাপাশি দুটি চলচ্চিত্র পরিচালনাও করেছেন। এর একটি ‘আদম ব্যাপারী’ যা এখনও মুক্তি পায়নি, অন্যটির নাম ‘সুখ’। এসএ/

চয়নিকার নাটকে জোভান-ভাবনা

জোভান ও ভাবনা দু’জন দু’জনকে ভালোবাসে। কিন্তু তারা দু’জনেই প্রযুক্তির ওপর অধিক নির্ভরশীল। সারাদিন ফেসবুক, ভাইবারসহ নানা রকম অ্যাপসে তাদের দিন কেটে যায়। এভাবেই দীর্ঘ হতে থাকে তাদের ভালোবাসার দিনগুলো। কিন্তু একটা সময় তার বিপরীত ঘটে। আর সেই ঘটনা জানতে হলে দেখতে হবে জোভান-ভাবনার ‘সাইন ইন’ শীর্ষক নাটকটি।নাটকটিতে জোভান অভিনয় করছেন অমিতাভ চরিত্রে। ভাবনাকে দেখা যাবে আরজিতা চরিত্রে। উত্তরার একটি শুটিং হাউজে নাটকটির দৃশ্য ধারণ করা হয়েছে। এটি পরিচালনা করেছেন চয়নিকা চৌধুরী। নাটকটি সম্পর্কে জোভান বলেন, ‘সমসাময়িক একটি গুরুত্বপূর্র্ণ বিষয়ের ওপর নাটকটি নির্মাণ হয়েছে। আমরা প্রযুক্তির ওপর এই সময়ে অনেক বেশি নির্ভরশীল। গল্পে প্রযুক্তিনির্ভর ভালোবাসাকে নির্মাতা তুলে ধরছেন।’নির্মাতা জানান, নাটকটি এই সময়ের দুটি ছেলে-মেয়ের ভালোবাসার গল্প। অপরদিকে এই সময়ের প্রযুক্তি। দুটির সমন্বয়ে ‘সাইন ইন’ নাটকের গল্প। দর্শক এই নাটক থেকে একটি সামাজিক ম্যাসেজ পাবে। এদিকে চয়নিকা চৌধুরী সম্প্রতি ‘সন্ধ্যার আগে’ও ‘যে দৃশ্যের শেষ নেই’ শিরোনামের আরও দুটি একক নাটকের কাজ শেষ করেছেন। এসএ/

একাকী বৃদ্ধ দীপক বাবু

আবুল হায়াত। নামটি যেনো একটি প্রতিষ্ঠান। একুশে পদকপ্রাপ্ত জনপ্রিয় অভিনেতা, নাট্যকার ও নির্দেশক। প্রবীণ এই অভিনেতা তার অভিনয় দক্ষতা দিয়ে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন দেশিয় নাট্যজগতের প্রাণ পুরুষ হিসেবে। শুধু নাটকে নয়, এর পাশাপাশি তিনি সিনেমাতেও অভিনয় করেছেন সমান দক্ষতায়। নতুন খবর হচ্ছে- এবারই প্রথম কলকাতার চলচ্চিত্রে অভিনয় করলেন এই নাট্য সম্রাট। সম্রাট দাসের গল্প, চিত্রনাট্য ও নির্দেশনায় ‘গিন্নী’ নামের একটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। এ জন্য কলকাতার ইচ্ছাপুরে শুটিংয়ে অংশ নিয়েছেন তিনি। চলচ্চিত্রটিতে আবুল হায়াত গল্পের প্রোটাগোনিস্ট একাকী বৃদ্ধ দীপক বাবুর চরিত্রে অভিনয় করেছেন। আবুল হায়াতের জন্ম মুর্শিদাবাদে। কিন্তু বাবার চাকরির সুবাদে চট্টগ্রামে এলে পরে আর জন্মস্থানে ফেরা হয়নি তার পরিবারের। অবশ্য সেখান থেকে কাজ করার প্রস্তাব পেলে আবুল হায়াত চেষ্টা করেন সেই কাজটি করতে। তাই সম্রাট দাসের ডাকে সাড়া দিয়ে তিনি পাঁচদিনের দেয়া শিডিউলের আড়াই দিনের কাজ শেষ করে এসেছেন। গল্পের সার সংক্ষেপে জানা যায়, মানুষ দিন দিন যন্ত্রনির্ভর হয়ে পড়ছে। লক্ষ্য করলে দেখা যাবে, এখন মানুষের বেশিরভাগ সময় কাটে যন্ত্রের সঙ্গে। কিন্তু এক্ষেত্রে দীপক বাবুর বন্ধুত্ব গড়ে উঠে একটি ইনভার্টারের সঙ্গে। চলচ্চিত্রটিতে অভিনয় প্রসঙ্গে আবুল হায়াত বলেন, ‘এতে খুব মজার অথচ বাস্তব একটি চরিত্র আমার। একা বুড়ো মানুষকে একটা না একটা কিছু নিয়েতো থাকতে হবে। সম্রাট প্রতিভাবান পরিচালক। বেশ ভালোলাগা নিয়ে আনন্দের মধ্যে দারুণ একটি কাজ শেষ করলাম। আমাকে নিয়েই তার কাজটি করার প্রবল ইচ্ছে ছিল। সেই ইচ্ছে আর আবেগের কাছে আমি হেরে গিয়ে মন দিয়ে কাজটি করেছি। আমি ভীষণ আশাবাদী চলচ্চিত্রটি নিয়ে।’ এসএ/

‘ব্যাচেলর ডটকম’ নাটকে জেসিয়ার অভিষেক

জেসিয়া ইসলাম। বহুল আলোচিত ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ২০১৭’ প্রতিযোগিতার মুকুট বিজয়ী। সম্প্রতি চীনে ‘মিস ওয়ার্ল্ড’র বিশ্বমঞ্চে বাংলাদেশের পতাকা হাতে নেতৃত্ব দেন তিনি। বর্তমানে নিজেকে তৈরি করছেন মিডিয়ায় নিয়মিত কাজ করার জন্য। অভিনয় নিয়ে ক্যারিয়ার তৈরি করতে চান আলোচিত এই তারকা। এবার সেই স্বপ্নের একধাপ এগিয়ে গেলো। অভিনয়ে নাম লেখালেন জেসিয়া। একুশে টেলিভিশনে প্রচারিত জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘ব্যাচেলর ডটকম’ নাটকে অভিনয় করবেন তিনি। এ নাটকের মাধ্যমেই অভিনয়ে অভিষেক হতে যাচ্ছে মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশের। এ প্রসঙ্গে জেসিয়া ইসলাম বলেন, ‘‘ব্যাচেলর ডটকম’ ধারাবাহিকের মাধ্যমে প্রথমবারের মতো অভিনয় করতে যাচ্ছি। চলতি মাসের শেষের দিকে এ ধারাবাহিকের কাজ শুরু করব। আশা করছি, দর্শকদের ভালো কিছু উপহার দিতে পারব। এ ছাড়া চলচ্চিত্রে কাজ করারও ইচ্ছে আছে। ভালো গল্প ও চরিত্র পেলেই কাজ করব।’ উল্লেখ্য, ‘ব্যাচেলর ডটকম’ নাটকটি পরিচালনা করছেন- তরুণ নির্মাতা ইফতেখার শুভ। জেসিয়া ছাড়াও এ ধারাবাহিক নাটকের বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করছেন- তৌসিফ মাহবুব, নিলয়, জোভান, সিদ্দিক, নাদিয়া আফরিন মীম, নাদিয়া নদী, বাঁধন, আইরিন আফরোজ, তুলনা আল হারুন, তানিয়া বৃষ্টি, ফারজানা রিক্তা, ফারুখ আহমেদ, আহমেদ রুবেল, বরদা মিঠু ও কাজী উজ্জ্বল। এর আগে এ নাটকে যুক্ত হয়েছেন ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ২০১৭’ এর প্রথম রানার আপ জাহারা মিতু। এসএ/

© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি