ঢাকা, বুধবার, ২০ জুন, ২০১৮ ৯:৩৩:২১

অজিদের বিপক্ষে রানের বিশ্ব রেকর্ড ইংলিশদের

অজিদের বিপক্ষে রানের বিশ্ব রেকর্ড ইংলিশদের

সফরকারি অজিদের বিপক্ষে সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে সর্বোচ্চ রানের নতুন বিশ্ব রেকর্ড গড়েছে ইংল্যান্ড। ইংল্যান্ডের নটিংহামের টেন্টব্রিজে টসে জিতে প্রথমে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেয় অস্টেলিয়া।
ঢোল বাজিয়ে অনুষ্ঠান মাতালেন মাশরাফি

এসএসসি `৯৯ ব্যাচের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে বন্ধুদের সঙ্গে শোভাযাত্রায় অংশ নিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় ওয়ানডে ক্রিকেট দলের সফল অধিনায়ক নড়াইল এক্সপ্রেস মাশরাফি বিন মুর্তজা। সেখানে ঢোল বাজিয়ে অনুষ্ঠান মাতিয়ে তুললেন ডানহাতি এই পেসার। রোববার সকালে নড়াইল সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় চত্বর থেকে এসএসসি ৯৯ ব্যাচের পূর্নমিলনী উপলক্ষে মাশরাফির নের্তৃত্বে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের হয়। ওই শোভাযাত্রায় ঢোল বাজিয়ে চমকে দিয়েছেন তিনি। এসময় পথচারীরা মাশরাফির ঢোল বাঁজানোর দৃশ্য উপভোগ করেন। নড়াইলে এক সময়ের ভালো ফুটবলার হিসেবেও তার নামডাক রয়েছে। সেই মাশরাফি এবার ঢোল বাজিয়েও তাক লাগিয়ে দিয়েছেন সাধারণ মানুষকে। অনেকেই বলতে থাকেন, মাশরাফি শুধু ভাল ক্রিকেট খেলতে পারেন না। তিনি ভাল ঢোলও বাঁজাতে পারেন। প্রসঙ্গত, মাশরাফির শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নড়াইল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়সহ ছয়টি বিদ্যালয়ের এসএসসি `৯৯ ব্যাচের শিক্ষার্থীদের নিয়ে এই ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। দিনব্যাপী অন্যান্য অনুষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে, এসএসসি ’৯৯ ব্যাচের শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের সঙ্গে কুশল বিনিময়, আলোচনা সভা এবং সন্ধ্যায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। একে//

কেমন কাটছে ক্রিকেটারদের ঈদ

জাতীয় দলের ক্রিকেটার মানেই সেলিব্রেটি। সাধারণত বছরের বেশিরভাগ সময় তাদের ব্যস্ত সময় কাটে মাঠেই। এমনকি ঈদের দিনেও বিদেশের মাটিতে ক্রিকেটারটাররা খেলেছেন এমন দৃষ্টান্তও নেহায়েত কম নয়।   ক্রিকেটারদেরও আছে বাবা-মা, ঘর সংসার, সমাজ। ঈদে আপনজনের সান্নিধ্যে আসার জন্য তাদেরও মন কাঁদে। এই মুহুর্তে ক্রিকেটের বাড়তি কোনো চাপ না থাকায় জাতীয় দলের অধিকাংশ ক্রিকেটার আছেন খোশ মেজাজে। আর এই সুযোগে ঈদের খুশি পরিবারের সঙ্গে ভাগাভাগি করতে তাঁরাও ছুটে গেছেন নিজ নিজ এলাকায়, নিজ নিজ পরিবারের কাছে। ক্রিকেটারদের কে কোথায় কীভাবে ঈদ উদযাপন করেছেন এটি নিয়ে আগ্রহের শেষ নেই ক্রীড়ামোদীদের। বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা অন্যবারের মতো এবারও ঈদ উদযাপন করেছেন নিজ এলাকা নড়াইলে। সকালে নড়াইল পৌর কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে প্রধান জামাতে ঈদের নামাজ পড়েন ‘নড়াইল এক্সপ্রেস’। পরে তিনি সাংবাদিকদের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। এসময় তিনি দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানান। সামাজিক মাধ্যমে বরাবরই সক্রিয় ‘মিস্টার ডিপেন্ডেবল’ মুশফিকুর রহিম। উল্লেখযোগ্য যেকোনো কিছুই ভক্তদের সঙ্গে স্বাচ্ছন্দ্যে শেয়ার করেন তিনি। শনিবার দেশব্যাপী উদযাপিত হয়েছে ঈদুল ফিতর। সকালে নতুন পাঞ্জাবি পরে হাজির হন ঈদগাহে। তার পরনে ছিল সাদা পাঞ্জাবী। সঙ্গে ছিলেন ছোট ভাই সিজার, মামা নাহিদুল ইসলামসহ পরিবারের সদস্যরা। জাতীয় দলের আরেক তারকা ক্রিকেটার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ঈদ পালন করছেন ময়মনসিংহে। পুরো পরিবার নিয়ে বেশ আনন্দেই কাটছে মাহমুদউল্লাহর দিন। ফেসবুকে এরই মধ্যে বেশ কিছু ছবি দিয়েছেন জাতীয় দলের এ অলরাউন্ডার। এবার রাজশাহীতে ঈদ করছেন সাব্বির রহমান। সকালে বাবা ও ভাতিজার সঙ্গে ঈদের নামাজ আদায় করেন তিনি। দুই ভাতিজা নীল রঙের পাঞ্জাবি পরলেও তিনি পরেছেন কালো রঙের। নিজ পরিবারের সঙ্গে ঈদ উদযাপন করছেন জাতীয় দলের তরুণ অলরাউন্ডার মেহেদী হাসান মিরাজ। নামাজ শেষে বন্ধু-বান্ধবের সংগে ঈদ আনন্দে মুখর হোন তিনি। তাঁর বেশকিছু ছবি পাওয়া গেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকে। ঢাকাতেই ঈদ করেছেন পেসার তাসকিন আহমেদ। সকালে বাবার সঙ্গে ঈদগাহে নামাজ আদায় করতে যান ডানহাতি এই পেসার। বাবা-ছেলে দুজনই কালো রঙের কাবলি পরা ছিলেন। তবে সব ক্রিকেটার নিজ নিজ এলাকায় ঈদ করলেও ব্যতিক্রম কেবল বাংলাদেশ টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। ঈদ করতে পাঁচ দিন আগেই দেশ ছেড়ে সপরিবারে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান সাকিব আল হাসান। সেখানেই স্ত্রী উম্মে আহমেদ শিশির ও কন্যা আলাইনা হাসানকে নিয়ে ঈদ-উল-ফিতর উদযাপন করেন বিশ্বের সেরা এই অলরাউন্ডার। ঈদ উদযাপনের এক ফাঁকে দেশটির ডিজনি পার্কেও বেড়াতে যান সাকিব-শিশির-অউব্রিরা। সেখানে গিয়ে সময় কাটানোর পাশাপাশি ছবিও তোলেন তাঁরা। পরবর্তী সময়ে সেই ছবিগুলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে আপলোড করেন সাকিব-শিশির। / আআ / এআর

ঈদগাহে স্বজনদের সঙ্গে মুশফিক

জীবনের বিশেষ দিনগুলো ভক্তদের সঙ্গে শেয়ার করেন বাংলাদেশ টেস্ট ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। আজ ঈদেও এর ব্যতিক্রম কিছু ঘটেনি। আজ শনিবার দেশব্যাপী উদযাপিত হচ্ছে ঈদুল ফিতর। সকালে নতুন পাঞ্জাবি পড়ে ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা ঈদের নামাজ আদায়ে হাজির হয়েছেন ঈদগাহে। ব্যতিক্রম ঘটেনি বগুড়ার ছেলে মুশফিকের বেলায়ও। ঈদগাহে বসা অবস্থায় একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে শেয়ার করেছেন মুশফিক। যাতে বেশ হ্যাস্যোজ্জ্বল দেখা গেছে তাকে। সঙ্গে আরো অনেককে দেখা গেলেও ছবি ক্যাপশনে কিছুই লেখেননি মুশফিক। তবে ইতোমধ্যে ভক্তদের লাইক এবং কমেন্টে ভরে গেছে তার ফেসবুক ওয়াল। মুসফিক ভারতের দেরাদুনে আফগানিস্তানের সঙ্গে খেলে এসে ছুটি পেয়েছেন ঈদের। ঈদের দুদিন পর আবার ব্যস্ত হয়ে পড়তে হবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের প্রস্তুতি নিয়ে। চলতি মাসের শেষের দিকেই ক্যারিবীয় দ্বীপের উদ্দেশে রওয়ানা হবে টাইগাররা। তার আগে কটা দিন পরিবারের সঙ্গে ঈদ আনন্দে মেতে থাকবেন মুশফিকরা। একে//

নড়াইলে মাশরাফির ঈদ উদযাপন

ঈদ এলেই নড়াইলে বাড়িতে ছুটে যান মাশরাফি বিন মর্তুজা। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। বরাবরের মতোই নড়াইলে নিজের এলাকায় ঈদ উদযাপন করেন জাতীয় ক্রিকেট দলের (ওয়ানডে) অধিনায়ক।শনিবার সকালে নড়াইলের কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে ঈদের নামাজ পড়েন ‘নড়াইল এক্সপ্রেস’ খ্যাত মাশরাফি। সাদা পাঞ্জারি পরে ঈদগাহে আসেন তিনি। সঙ্গে ছিলেন ছোট ভাই সিজার, মামা নাহিদুল ইসলামসহ পরিবারের সদস্যরা। নড়াইল কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের ইমাম ম ম শফিউল্লাহর ইমামতিতে এই নামাজ শেষে দেশ-জাতির কল্যাণ কামনায় মোনাজাতে হাত তোলেন মাশরাফি।উল্লেখ্য, নড়াইল থেকে মাশরাফির নির্বাচনে অংশ নেওয়ার গুঞ্জন সম্প্রতি জোরাল হয় পরিকল্পনামন্ত্রীর কথায়। তবে এই ক্রিকেটার মুখ খুলতে চান না রাজনীতির বিষয়ে।এসএ/

লজ্জা থেকে বাঁচলেন রশিদ 

উইকেট পেতে কি পরিমাণ না ঘাম ঝরাতে হয়েছে রশিদ খানকে তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। টি-টোয়েন্টিতে রশিদের ৪ ওভার খেলতে প্রতিপক্ষের ব্যাটসম্যানদের কত হিসাব-নিকাশ করতে হয়। অথচ আজ তাঁকে কিনা কী স্বচ্ছন্দে খেলছেন ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা। রশিদকে একটা উইকেট পেতে অপেক্ষা করতে হয়েছে ১৩২ বল।    অবশেষে উইকেটের দেখা পেলেন। উইকেটটা পেতে তাঁকে অপেক্ষা করতে হয়েছে ১২৩ বল, আর ১০৯ রান। রশিদের মুখে হাসি ফুটেছে রিভিউ নিয়ে। পেছনের পায়ে ফ্লিকটা ঠিকঠাক করতে পারেননি অজিঙ্কা রাহানে। ভারতের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ককে এলবিডব্লু করে অবশেষে হাসতে পারলেন রশিদ। সেটির চেয়ে রশিদের স্বস্তি, লজ্জার একটা রেকর্ড অন্তত এড়ানো গেছে। বেঙ্গালুরু টেস্টের প্রথম দিনে ২৫ ওভারে দিয়েছেন ১১৮ রান, ওই একটাই উইকেট। টি-টোয়েন্টিতে যে বোলার অধিনায়কের প্রধান অস্ত্র, তাঁকেই কিনা আজ বোলিং আক্রমণে আনতে কখনো কখনো বেশ ভাবতে হয়েছে আসগর স্টানিকজাইকে। সকালের দুই সেশনে নির্বিষ বোলিং করে গেছেন ওভারের পর ওভার। আফগানরা অপেক্ষায় ছিলেন নিজেদের অভিষেক টেস্টে জাদু দেখাবেন রশিদ। সেটি এখনো পুরোপুরি দেখা যায়নি। একটা সময় তো টেস্ট অভিষেকে সবচেয়ে বাজে বোলিংয়ের রেকর্ডও চোখ রাঙিয়েছে তাঁকে। আদিল রশিদের টেস্ট অভিষেকে সবচেয়ে বাজে বোলিংয়ের রেকর্ড রয়েছে। ২০১৫ সালের অক্টোবরে আবুধাবি টেস্টে নিজের অভিষেকে ১৬৩ রান দিয়ে ছিলেন উইকেটশূন্য। এই তালিকায় দুইয়ে আছেন ব্রাইস ম্যাকগেইন। ২০০৯ সালের ১৯ মার্চ কেপটাউন টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ১৪৯ রান দিয়ে উইকেটশূন্য ছিলেন ম্যাকগেইন। ম্যাকগেইন-আদিলের বড় মিল কোথায় জানেন? দুজনই লেগ স্পিনার! মজাটা হচ্ছে, বাজে বোলিংয়ের এই রেকর্ড যাঁকে ‘ধাওয়া’ করেছে, রশিদও একজন লেগ স্পিনার। যেনতেন লেগ স্পিনার নন, বর্তমানে সবচেয়ে আলোচিত! টি-টোয়েন্টিতে রশিদের ৪ ওভার খেলতে প্রতিপক্ষের ব্যাটসম্যানদের কত হিসাব-নিকাশ করতে হয়। অথচ আজ তাঁকে কী স্বচ্ছন্দে খেলছেন ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা। ১৮তম ওভারে এসে প্রথম মেডেন পেয়েছেন রশিদ। রশিদকে একটা পর্যায়ে পাড়ার বোলারে নামিয়ে এনেছিলেন শিখর ধাওয়ান। রশিদ-মুজিবকে মনের সুখ মিটিয়ে পিটিয়ে লাঞ্চের আগে সেঞ্চুরি করে রেকর্ড বইয়ে নাম লিখিয়ে ফেলেছেন ভারতীয় ওপেনার। এখনো পর্যন্ত ১১৫ রান দিয়ে রশিদ পেয়েছেন ১ উইকেট। ইকোনমি একটা সময় সাতের ওপর ছিল। সেটি নেমে এসেছে ছয়ের নিচে, এতটুকুই তাঁর প্রাপ্তি! ভারতের দুই ওপেনারের সেঞ্চুরির পর তিনে নামা কে এল রাহুলের ফিফটি। এরপর মিডল অর্ডার দাঁড়াতে পারেনি। জোড়ায় জোড়ায় দুবার উইকেট হারিয়েছে। ২৮০ রানে দ্বিতীয় উইকেট পতনের ৪ রান পর পড়েছে তৃতীয় উইকেট। ৩১৮ রানে চতুর্থ উইকেট পড়ার ১০ রান পর পড়েছে পঞ্চম উইকেট। ৬ রান পর রান আউটের খাঁড়ায় বিদায় নিয়েছেন দিনেশ কার্তিক। ৬ উইকেটে ৩৩৪ রান করেছে ভারত। এসি    

আফগানিস্তানের ঐতিহাসিক টেস্ট যাত্রা শুরু

ভারতের বিপক্ষে ঐতিহাসিক টেস্ট যাত্রা শুরু হচ্ছে আফগানিস্তানের। আইসিসির টেস্ট র‌্যাংকিংয়ের নাম্বার ওয়ান দলের বিপক্ষেই বৃহস্পতিবার সাদা পোশাকের ক্রিকেটে অভিষেক হচ্ছে যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তানের। গত বছর টেস্ট মর্যাদা পাওয়া আফগানদের ঐতিহাসিক ম্যাচ খেলতে আমন্ত্রণ জানায় ভারত।ক্রিকেটে পা রাখার পর থেকেই ধীরে ধীরে উন্নতি করেছে আফগানিস্তান। বিশেষ করে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে রশিদ খানদের উন্নতি নজর কাড়ার মতো। সম্প্রতি টেস্ট খেলুড়ে দল বাংলাদেশকে টি-টোয়েন্টি সিরিজে ৩-০ ব্যবধানে পরাজিত করেছে আফগানিস্তান।ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে আফগানদের উন্নতি চোখে পড়ার মতো হলেও টেস্টের আভিজাত্যের ফরম্যাটে তাদের পথচলা কতটা সহজ হবে তা সময়ই বলে দেবে। যদিও আফগানিস্তানের ঐতিহাসিক টেস্টে দ্বিতীয় সারির দল নিয়ে খেলতে নামছে ভারত। তার পরও নবাগত আফগানিস্তানের সামনে ফেভারিট ভারতই।এসএ/

বেতনের ভাবনা মাথায় নেই নারী ক্রিকেটারদের

বাংলাদেশের নারী ক্রিকেট দল এশিয়া কাপে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর জোরালোভাবে আলোচনায় এসেছে নারী ও পুরুষ ক্রিকেটারদের বেতন-ভাতার বৈষম্য। পূর্বেও এবিষয়ে আলোচনা হলেও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড থেকে তেমন কোনও সাড়া পাওয়া যায়নি। এশিয়া কাপ জয়ের পর নারী ক্রিকেট দলকে ২ কোটি টাকা পুরষ্কার ও প্রত্যেক ক্রিকেটারকে ১০ লাখ টাকা করে আর্থিক পুরষ্কার দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। বর্তমানে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ আছেন ১৭ জন নারী ক্রিকেটার। তাদের বেতন সর্বনিম্ন ১০ হাজার থেকে সর্বোচ্চ ৩০ হাজার টাকা। ছেলেদের ক্রিকেটে সর্বনিম্ন বেতন লাখের কাছাকাছি। ছেলেদের জাতীয় লিগে প্রথম স্তরে ম্যাচ ফি ২৫ হাজার টাকা, দ্বিতীয় স্তরে ২০ হাজার। বিসিএলে ম্যাচ ফি ৫০ হাজার টাকা। মেয়েদের জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপ ম্যাচ ফি ৬০০ টাকা মাত্র। যদিও পরবর্তীতে ম্যাচ ফি ৪`শ টাকা বাড়িয়ে ১ হাজার টাকা করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। এশিয়া কাপে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হারের পর সবগুলো ম্যাচে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। ফাইনালে ভারতকে হারানোর আগে গ্রুপ পর্বেও ভারতকে হারিয়েছে বাংলাদেশ। ফাইনাল ম্যাচে শেষভাগে জয়ের ক্ষেত্রে স্নায়ুচাপ সামলে বড় ভূমিকা রেখেছেন জাহানারা আলম। তার কাছে এই জয় বিশেষ কিছু। বাংলাদেশের নারী ক্রিকেট দলের সাবেক এই অধিনায়ক মনে করেন, নারী ক্রিকেট দল তাদের সামর্থ্যের সবটুকু দিয়ে জয় পেয়েছে। এখানে কোনও ছাড় দেওয়া হয়নি। তিনি বলেন, ২০১০ এশিয়াডে গুয়াংজুতে যখন আমরা সিলভার মেডেল পেলাম তখন থেকেই এই প্রত্যয় তৈরি হয় যে আমরা চ্যাম্পিয়ন হতে পারবো। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পুরষ্কার ঘোষণায় কতটা সন্তুষ্ট হতে পেরেছেন জাহানারা আলম? ‘দেখুন, এখানে খুশি বা অখুশি হওয়ার কিছু নেই, আমরা আমাদের কাজটা পূরণ করেছি। এটা আমাদের দায়িত্ব ছিল। যেটা আমরা বহুদিন করে আসতে পারিনি। আমাদের ভালো ফলাফল দিয়ে বাংলাদেশের মানুষদের খুশি করতে পেরেছি এটাই বড় ব্যাপার। এখন বোর্ড যাই করবে সেটা বোনাস।’ বেতনের ব্যাপারটাও বোর্ডের ওপরই ছেড়ে দিয়েছেন তিনি। তার মতে, এটা ভাবার জন্য বোর্ডের কর্মকর্তারা আছেন। এটা নিয়ে মাথা ঘামালে ক্রিকেট খেলায় ব্যাঘাত ঘটতে পারে। সালমা খাতুন ২ বছর পর অধিনায়কত্ব পেয়েই বাংলাদেশের ক্রিকেটে প্রথম আন্তর্জাতিক শিরোপা পেয়েছেন। বাংলাদেশের নারী ক্রিকেটের পরিচিত এই মুখ বলেন, ‘আগে কিংবা পরে বাংলাদেশের নারী ক্রিকেটে যে সাহায্য ছিল না তেমন নয়, হয়তো একটু কম ছিল। কিন্তু আমার মনে হয় সংবর্ধনায় ক্রিকেট বোর্ডের প্রেসিডেন্ট বলেছেন সবসময় তাদের সঙ্গে থাকবেন।’ এই জয়টাকে একটা মঞ্চ মনে করেন সালমা খাতুন। তার মতে, আকরাম খান বা খালেদ মাহমুদ সুজনরা যখন খেলেছেন তখন বর্তমান পুরুষ দলের মতো সুবিধা পাননি। এখন যে নারী দল খেলছে তারা সেই মঞ্চ তৈরি করে দিবেন, যাতে ভবিষ্যৎ নারী ক্রিকেটাররা আরো ভাল সুযোগ সুবিধা পান। ফাইনালে ভারত ও গ্রুপ পর্বে পাকিস্তানের বিপক্ষে ভালো ব্যাট করেন নিগার সুলতানা জ্যোতি। বাংলাদেশের শেরপুর জেলা থেকে উঠে আসা এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান বলেন, মেয়েদের ক্রিকেট ছেলেদের থেকে একটু অবহেলিত। মিডিয়ার ফোকাসটা নেই। অনেক খেলা সরাসরি দেখানো হয় না। তবে তার মধ্যেও এই জয়টা অনেক বড় বার্তা দেবে। খুব রাতারাতি পরিবর্তনের আশা করছেন না জ্যোতি। তার বিশ্বাস, এই জয়ের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারলেই গুরুত্ব অর্জন করা সম্ভব হবে। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের মতে, নারী ক্রিকেটারদের এশিয়া কাপ জয় শুধু ক্রিকেট নয়, বাংলাদেশের ক্রীড়া ইতিহাসেই এটা সবচেয়ে বড় অর্জন। তার মতে, এই সাফল্য বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের লম্বা পরিবর্তনের ফসল। পাপন বলেন, ‘নারীদের ক্রিকেট নিয়ে একটু হতাশ ছিলাম, কিন্তু তাই বলে এমন না যে বোর্ড কিছু করেনি। ৩ বছর ধরে প্রস্তুতি চলছে, আমরা মেয়েদের বেলাতেও বিদেশি কোচ এনে দিয়েছি। ভারতের মেয়েদের দলের হেড কোচকে আমাদের হেড কোচ করেছি। ফিজিও এনে দিয়েছি। তাই বোর্ড কিছু করেনি, এমনটা মনে হলে সেটা ভুল।’ তিনি ভারতের উদাহরণ দিয়ে বলেন, ভারত প্রচুর বিনিয়োগ করেছে যার ফলাফল তারা বিশ্বকাপের রানার্স আপ ও এশিয়া কাপে ছয় বারের চ্যাম্পিয়ন। তাদের হারানোটা অনেক বড় ব্যাপার। মেয়েদের আর্থিক অবস্থার সঙ্গে ছেলেদের আর্থিক অবস্থা তুলনা করা কঠিন হবে বলে মনে করেন বিসিবি প্রধান। তিনি বলেন, ‘অনেক মেয়েই নতুন খেলা শুরু করেছে, তাদের সঙ্গে ছেলেদের মূল দলের তুলনা দেওয়া অনেক কঠিন। যেমন তুষার ইমরান এত বছর ধরে খেলছে তার বেতন গত সপ্তাহ পর্যন্ত ছিল ২২ হাজার টাকা। তবে তামিম, সাকিব, মুশফিক, রিয়াদ ওদের সঙ্গে তুলনা করাটা চলে না।’ তবে মেয়েদের সাফল্যের ফলে আরো বেশি মেয়ে ক্রিকেট খেলায় আগ্রহী হবে বলে মনে করেন পাপন। এক বা দুদিনের মধ্যে মেয়েদের সুযোগ সুবিধা বাড়ানোর ব্যাপারে ঘোষণা আসবে বলে জানান তিনি। সূত্র: বিবিসি একে//

‘শুধু অভিনন্দন অনেক কম আপনাদের জন্য’

এশিয়া কাপ টি-টোয়েন্টি ফাইনালে পরাশক্তি ভারতকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো দেশকে বড় ধরনের জয় এনে দিয়েছে বাংলাদেশের নারী ক্রিকেটাররা। মালয়েশিয়ার কিনরারা ওভাল স্টেডিয়ামে ভারতকে ৩ উইকেটে হারিয়ে এই গৌরব অর্জন করেন সালমা-রুমানারা। এশিয়া কাপ এবং ত্রিদেশীয় সিরিজ মিলিয়ে বেশ ক’বার  ফাইনালে উঠেছে টাইগাররা। কিন্তু শেষটা হয়েছে হতাশার। তবে ছেলেরা না পারলেও প্রথমবারের মতো কোনো টুর্নামেন্টের শিরোপা জিতে ইতিহাস গড়ল বাংলাদেশের  বাঘিনীরা। আর এই অসাধারণ জয়ে তাদের কৃতিত্ব দিতে ভোলেননি কেউ। সাধারণ মানুষের পাশাপাশি টাইগাররাও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে মেয়েদের অভিনন্দন। মেয়েদের এমন জয়ে অভিভূত বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা।  মাশরাফি তার ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে দেওয়া এক পোস্টে  লিখেছেন, ‘৯৭ সালের শান্ত ভাই আর পাইলট ভাইয়ের দৌড়ের পর আমার মতো অনেকেই আজ দৌড়ায়, আর এই ২০১৮ এর সালমা আর জাহানারার দৌড় দেখে বাংলাদেশে ঘরে ঘরে অনেকেই দৌড়ানোর অপেক্ষায় আছে, যে দৌড় চলবে তো চলবে আর থামবে না ইনশাল্লাহ... আজ শুধু অভিনন্দন অনেক কম আপনাদের জন্য বাংলাদেশ’ প্রসঙ্গত, ১৯৯৭ সালে এই মালয়েশিয়াতেই আইসিসি ট্রফিতে কেনিয়াকে হারিয়ে বিশ্ব ক্রিকেটকে জানান দিয়েছিল বাংলাদেশ ‘আমরাও আসছি’। হাসিবুল হাসান শান্ত-খালেদ মাসুদ পাইলটের শেষ বলের দৌড় আজীবন মনে রাখবে দেশের মানুষ। গত রোববার সালমা-জাহানারাও সেই শেষ বলে দুই রানের দৌড় নতুন ইতিহাস রচনা করেছে দেশের ক্রিকেটে। এশিয়া কাপে গত ৬ আসরের চ্যাম্পিয়ন ভারতকে হারিয়ে নতুন চ্যাম্পিয়ন দল হিসেবে নাম লেখানো চাট্টিখানি কথা নয়। একে/

যুক্তরাষ্ট্রে ঈদ করতে দেশ ছাড়লেন সাকিব

যুক্তরাষ্ট্রে ঈদ-উল-ফিতর উদযাপন করতে সোমবার দিবাগত রাত পৌনে দুইটায় ঢাকা ছেড়েছেন সাকিব। সঙ্গে ছিলেন স্ত্রী উম্মে আহমেদ শিশির ও মেয়ে আলায়না হাসান অউব্রে।  সাকিবের স্ত্রী শিশিরের পরিবার আমেরিকা নিবাসী। বাংলাদেশের টেস্ট এবং টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক যুক্তরাষ্ট্র থেকে সরাসরি ওয়েস্ট ইন্ডিজে দলের সঙ্গে যোগ দেবেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং বাংলাদেশের মধ্যকার দুই ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজটি হবে যুক্তরাষ্ট্রে এবং সেখান থেকেই দেশে ফিরবে টাইগাররা। সেটাই হবে শেষ গন্তব্য। তাই রুট পাল্টে আগে যুক্তরাষ্ট্র হয়ে পরে ওয়েস্ট ইন্ডিজ যাবে জাতীয় দলের বহর। আর তখনই সাকিব দলের সঙ্গে মিশে যাবেন। এদিকে সাকিবের দেশত্যাগের পর ঈদের ছুটি শেষে অন্তত দুদিন (২০-২১ জুন) জাতীয় দল নতুন কোচ স্টিভ রোডসের অধীনে অনুশীলন করবে। সেই অনুশীলন শেষে একদিন বিশ্রাম। তারপরই ২৩ জুন ওয়েস্ট ইন্ডিজের উদ্দেশে পাড়ি জমাবে বাংলাদেশ দল। তার মানে, দেশের মাটিতে নতুন কোচের অধীনে অনুশীলন করা হবে না সাকিবের। একনজরে বাংলাদেশের ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরসূচি- টেস্ট সিরিজ ম্যাচ-তারিখ-ভেন্যু প্রস্তুতি ম্যাচ ২৮-২৯ জুন অ্যান্টিগা প্রথম টেস্ট ০৪-০৮ জুলাই অ্যান্টিগা দ্বিতীয় টেস্ট ১২-১৬ জুলাই জ্যামাইকা ওয়ানডে সিরিজ ম্যাচ-তারিখ-ভেন্যু প্রস্তুতি ১৯ জুলাই জ্যামাইকা প্রথম ওয়ানডে ২২ জুলাই গায়ানা দ্বিতীয় ওয়ানডে ২৫ জুলাই গায়ানা তৃতীয় ওয়ানডে ২৮ জুলাই সেন্ট কিটস টি-টোয়েন্টি সিরিজ ম্যাচ-তারিখ-ভেন্যু প্রথম টি-টোয়েন্টি ৩১ জুলাই সেন্ট কিটস দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ৪ আগস্ট ফ্লোরিডা একে//

© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি