ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৭ মে ২০২২, || জ্যৈষ্ঠ ২ ১৪২৯

গর্ভবতী হতে চেয়ে বিজ্ঞাপন!

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০০:১৮, ১৭ জানুয়ারি ২০১৮ | আপডেট: ১৯:০১, ১৮ জানুয়ারি ২০১৮

প্রায় দশমাস আগে গর্ভবতী হতে চেয়ে বিজ্ঞাপন দেন লন্ডনের বাসিন্দা জেসিকা (ছদ্মনাম)। বেশ ক’টি ব্যর্থ সম্পর্কের পর ‘মা’ হতে উদগ্রীব জেসিকা বিজ্ঞাপন দেন ওয়েবসাইটে। তবে তিনি পেয়ে যান এর থেকেও অনেক বেশিকিছু। স্বর্গীয় প্রেমের সন্ধান পান জেসিকা।

৩০ বছর বয়সী জেসিকা অনেকদিন থেকেই মা হতে ব্যাকুল ছিলেন। এর জন্য বেশ কয়েকটি সম্পর্কেও জড়ান তিনি। কিন্তু কোনটিই শেষ পর্যন্ত স্থায়ী হচ্ছিল না।

শেষমেশ লন্ডনের একটি ওয়েবসাইট ক্রেইগলিস্টে বিজ্ঞাপন দেন তিনি। ব্যবহৃত জিনিস বিক্রির জন্য লন্ডনে বেশ প্রসিদ্ধ এই ওয়েব সাইট।

“সেফ, বেয়ারব্যাক বেবিমেকিং” শিরোনামের সে বিজ্ঞাপনে জেসিকা তার সন্তানের বাবা হওয়ার জন্য একটি ব্যক্তির খোঁজ চেয়ে পোস্ট করেন। পাশাপাশি শর্ত জুড়ে দেন যে, আগ্রহী ব্যক্তিকে কমপক্ষে ৫ ফিট ৯ ইঞ্চি উচ্চতার হতে হবে, বয়স হতে হবে ৪০ এর নিচে। আর তাকে এসটিডি পরীক্ষা করানোর মানসিকতা থাকতে হবে।

তিনি আরও লেখেন, আগ্রহী ব্যক্তিকে “ঘন ঘন কয়েকদিন যৌন সঙ্গমে লিপ্ত” হওয়ার মানসিকতাও থাকতে হবে।

তবে এমন বিজ্ঞাপন দেবার আগে জেসিকা ডেট করেন বেশ কয়েকজন পুরুষের সঙ্গে। এর মধ্যে তার এক সহকর্মীও ছিলেন। কিন্তু নিজের সন্তানের জন্য যেমন বাবা তিনি খুঁজছিলেন তার সাথে কাউকেই মেলাতে পারছিলেন না। আবার কয়েক জনের সাথে তার সম্পর্কচ্ছেদও হয়। আর তাই একরকম ‘শেষ চেষ্টা’ হিসেবে গত বছরের মার্চে ওয়েবসাইটে বিজ্ঞাপন দেন জেসিকা।

এরপর বেশ কয়েক জন ব্যক্তির থেকে আমন্ত্রণ পান জেসিকা। এক সন্ধ্যায় তিনি দেখা করেন রসের সাথে। প্রথম দেখাতেই নিজের সন্তানের পিতা হিসেবে রসকে পছন্দ করে ফেলেন জেসিকা।

এভাবে চারদিন সাক্ষাতের পর তারা সিদ্ধান্ত নেন যে তারা সন্তান নিতে অগ্রসর হবেন। এর কয়েকদিন পরেই তিনি বুঝতে পারেন যে তিনি গর্ভবতী।

এ ঘটনায় বেশ উচ্ছ্বসিত হয়েও নিশ্চিত ছিলেন না যে রসের সাথে তার সম্পর্ক কী শধুই সন্তান জন্মদান পর্যন্ত নাকি তার থেকেও বেশি।

কিন্তু একদিন জেসিকা বুঝতে পারেন যে, রসের প্রতি তার ভালবাসার অনুভূতি কাজ করছে।

বিবিসি’কে তিনি বলেন, “একদিন রসের সাথে ঝগড়া করে আমি অনুভব করলাম যে আমি নিজেও কষ্ট পাচ্ছি। আর তখনই বুঝলাম যে আমি রসকে ভালবাসি। পরে জানতে পারলাম সেও আমাকে ভালবাসে”।

এখন প্রতিদিন একে অপরের সম্পর্কে নিত্যনতুন বিষয় আবিষ্কার করছেন রস এবং জেসিকা। গত এক বছর যাবত একই ছাদের নিচে আছেন এই জুটি। পাশাপাশি দুই মাস একই সাথে অভিভাবকত্ব করছেন তাদের সন্তানের।

ওয়েবসাইটে দেয়া বিজ্ঞাপনের বিষয়টিকে ‘পাগলামি’ উল্লেখ করে জেসিজা ও রস জানান, একে অপরের সঙ্গ ভালই উপভোগ করছেন তারা।

সূত্র: বিবিসি

এস এইচ এস/টিকে

 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি